সুপার ওভারে পাকিস্তানকে হারাল জিম্বাবুয়ে

স্পোর্টস ডেস্ক : শেন উইলিয়ামসের সেঞ্চুরিতে জুতসই পূঁজি পেয়েছিল জিম্বাবুয়ে। রান তাড়ায় অধিনায়ক বাবর আজমের সেঞ্চুরিতে এগুচ্ছিল পাকিস্তান। কিন্তু শেষ দিকের নাটকীয়তায় ম্যাচ হয়ে যায় টাই। পরে সুপার ওভারে সহজেই পাকিস্তানকে হারিয়ে দিয়েছে জিম্বাবুয়ে।

মঙ্গলবার রাওয়ালপিন্ডিতে তিন ম্যাচ সিরিজের শেষ ম্যাচে ছড়িয়েছে রোমাঞ্চ। ২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপের ফাইনালের পর ওয়ানডেতে দেখা মিলেছে দ্বিতীয় সুপার ওভারের। তাতে চওড়া হাসি ব্র্যান্ডন টেইলরদের।

উইলিয়ামসের ১১৮ রানের ভর করে আগে ব্যাট করে ২৭৮ রান করেছিল জিম্বাবুয়ে। বাবর আজমের ১২৫ রানে পাকিস্তানও থামে ওই ২৭৮ রানেই। সুপার ওভারে ৪ বলের মধ্যেই ইফতেখার আহমেদ ও খুশদিল শাহ আউট হয়ে যান। পাকিস্তান জড়ো করে মাত্র ২ রান। ৩ রানের লক্ষ্য পূরণ করতে কেবল ৩ বল লেগেছে জিম্বাবুয়ের।

২৭৮ রান তাড়ায় ৬ রানের মধ্যেই দুই ওপেনার ইমাম-উল হক ও ফখর জামানকে হারায় পাকিস্তান। বাবরকে এক পাশে রেখে একে একে ফিরে যান হায়দার আলি, মোহাম্মদ রিজওয়ান, ইফতেখার আহমেদেরাও। দারুণ বল করতে থাকেন ব্লেসিং মুজারাব্বানি আর আর রিচার্ড এনগেরেবা। ৮৮ রানেই ৫ উইকেট হারিয়ে ফেলে স্বাগতিকরা। কিন্তু বাবর ছিলেন অবিচল। ৬ষ্ঠ উইকেটে খুশদিল শাহ ও সপ্তম উইকেটে ওয়াহাব রিয়াজকে সঙ্গী পান তিনি।

৬৩ ও ১০০ রানের দুই জুটিতে ম্যাচে ফেরে তার দল। ওয়াহাব করেন ৫৬ বলে ৫২ রান। তবে মুজারব্বানি এসে টানা উইকেট নিয়ে জিম্বাবুয়ের জেতার আশা বাড়িয়ে দেন। ২৬৬ রানে নবম ব্যাটসম্যান হিসেবে বাবর আউট হলে হারের শঙ্কা বাড়ে পাকিস্তানের। শেষ ব্যাটসম্যান মিলে হার এড়িয়ে করে ফেলেন টাই।

এর আগে টস জিতে ব্যাটিংয়ে যাওয়া জিম্বাবুয়ের শুরুটাও ভাল হয়নি। মাত্র ২২ রানে ৩ উইকেট হারিয়েছিল তারাও। কিন্তু অভিজ্ঞ বাঁহাতি ব্যাটসম্যান উইলিয়ামস আর ব্র্যান্ডন টেইলর হয়ে উঠেন ভরসা। দুজনে মিলে দলকে নিয়ে যান শক্ত ভিতের দিকে। ৫৬ করে টেইলর ফিরলেও চতুর্থ ওয়ানডে সেঞ্চুরি তুলে নেন উইলিয়ামস। শেষ দিকে সিকান্দার রাজা ৩৬ বলে ৪৫ করলে চ্যালেঞ্জিং পূঁজি পায় সফরকারীরা। যা নিয়ে পরে উত্তাপ ছড়ানো লড়াইয়ের পর হোয়াইটওয়াশ এড়াতে পেরেছে তারা।

মুক্তিযুদ্ধের সব অর্জন সরকার ধ্বংস করে দিচ্ছে: বললেন মির্জা ফখরুল

নিজস্ব প্রতিবেদক : সরকার মুক্তিযুদ্ধের সব অর্জন ধ্বংস করে দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

মঙ্গলবার বীর মুক্তিযোদ্ধা সাদেক হোসেন খোকার স্মরণে এক ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় তিনি এমন অভিযোগ করেন।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, আমরা একটা ফ্যাসিবাদী রাষ্ট্রে বাস করছি। সরকার একটা দানবের মতো আমাদের মুক্তিযুদ্ধের সব অর্জনকে ধ্বংস করে দিচ্ছে, গণতন্ত্রের যে সংগ্রাম তা ধ্বংস করে দিচ্ছে। গণতন্ত্রকে মুক্ত করার জন্য এই সময় খোকার মতো সাহসী নেতৃত্বের বড় প্রয়োজন ছিল।

খোকার বর্ণাঢ্য জীবনকর্ম তুলে ধরে মির্জা ফখরুল বলেন, তিনি (খোকা) আজীবন এক সংগ্রামী মানুষ। তার এই হঠাৎ করে চলে যাওয়া আমাদের গণতান্ত্রিক আন্দোলনকে অনেকখানি ব্যাহত করবে- এই কথা আমার বলতে কোনো সন্দেহ নেই। আজকে তার সাহস, তার ধৈর্য, তার দেশপ্রেম আমাদের প্রয়োজন ছিল। তাই আসুন, আমরা সবাই আজ শুধু তাকে স্মরণ নয়, তার যে কাজ, তার যে পথ চলা, তার যে সংগ্রাম- তা সামনে নিয়ে আমরা তার মত সাহসিকতার সঙ্গে এই গণতন্ত্রকে মুক্ত করার চেষ্টা করি। সত্যিকার অর্থে দেশে একটি গণতান্ত্রিক সরকার প্রতিষ্ঠা করি।

একাত্তরের বীর গেরিলা মুক্তিযোদ্ধা, সাবেক মন্ত্রী ও অবিভক্ত ঢাকার নির্বাচিত মেয়র সাদেক হোসেন খোকার প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ‘সাদেক হোসেন খোকা ফাউন্ডেশন’ এর উদ্যোগে এই ভার্চুয়াল আলোচনা সভা হয়।

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালামের সভাপতিত্বে ও সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্সের পরিচালনায় আলোচনা দলটির বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাম খান, জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না প্রমুখ বক্তব্য দেন।

খোকার সঙ্গে ব্যক্তিগত সম্পর্কের স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে ফখরুল বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার সঙ্গে আমার দেখা হয়েছিল। অনেক কথা হয়। তিনি কয়েকটা পরামর্শ দিয়েছিলেন। বলেছিলেন, আপনি কখনও ধৈর্য হারাবেন না, বিএনপির যে সংগ্রাম, গণতন্ত্রের যে সংগ্রাম- এই সংগ্রাম একদিনে শেষ হবে না, বেশ একটা দীর্ঘস্থায়ী সংগ্রাম। এতে সব মানুষ ও শক্তিকে সম্পৃক্ত করতে হবে। তিনি বলেছিলেন, দেশনেত্রীকে মুক্ত না করলে আন্দোলন বেগবান হবে না। করোনাকালে সবাইকে সতর্ক থাকার অনুরোধ জানিয়ে এ মহামারীতে আক্রান্ত নেতাকর্মীদের আশু সুস্থতা কামনা করেন বিএনপি মহাসচিব।

দেশ গণতন্ত্রহীন রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে- অভিযোগ করে ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, সাদেক হোসেন খোকা সবসময় মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে বেশি গুরুত্ব দিয়েছেন। আমাদের অত্যন্ত কষ্ট লাগে যে, মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে আজকে যারা মুক্তিযুদ্ধে ফেরিওয়ালা বলে দাবি করে, তারাই মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে বার বার হত্যা করছেন।

সাদেক হোসেন খোকার সঙ্গে ঘনিষ্ট সম্পর্কের কথা স্মরণ করে মির্জা আব্বাস বলেন, আগে-পরে, সামনে-পেছনে যে যাই বলুক, খোকাকে সত্যিকার অর্থে আমি ভালোবাসতাম। তার অনুপস্থিতি এখনও আমাকে পীড়া দেয়। বন্ধু হিসেবে আমাদের মধ্যে ছিল গভীর সম্পর্ক। আমাদের মধ্যে যে ধরনের সম্পর্ক ছিল, এই সম্পর্কটা আমি এখন কারোর মধ্যে দেখি না।

আ স ম আবদুর রব গেরিলা মুক্তিযোদ্ধা খোকার স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে বলেন, আজকে অনেকে মুক্তিযুদ্ধের কথা বলেন, তারা মুক্তিযুদ্ধ করেও নাই, দেখেনও নাই। আমাদের মুক্তিযুদ্ধে গেরিলা যুদ্ধ না হলে কনভেনশন ওয়ারে পাশের দেশের সীমানার মধ্য থেকে যুদ্ধ করলেও বাংলাদেশ স্বাধীন হতো না। এই রাষ্ট্র আজ দুর্বৃত্ত রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে। এই রাষ্ট্রকে উদ্ধারের জন্য খোকার মতো মানুষের আজকে প্রয়োজন ছিল।

বাংলাদেশে ভ্যাকসিন আসার আগে বাধ্যতামূলক মাস্ক ব্যবহারে জোর দেয়া হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলাদেশে ভ্যাকসিন আসার পূর্বে বাধ্যতামূলক মাস্ক ব্যবহারে জোর দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন।

তিনি বলেন, ‘ইউরোপের অনেক দেশেই করোনার দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হয়েছে। অনেক দেশ ইতোমধ্যে ২য় বা ৩য় বার লকডাউন ঘোষণা করেছে। বাংলাদেশেও আগামী শীতের সময় করোনার দ্বিতীয় ঢেউ নিয়ে আশংকা দেখা যাচ্ছে। দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলা করার মত সক্ষমতা স্বাস্থ্যখাতের হাতে রয়েছে। তবে মানুষ যদি সচেতন না হয়, স্বাস্থ্যবিধি না মানে তাহলে আগামীতে আবারো ভয়ের কারণ হতে পারে। কাজেই দেশে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ রুখতে হলে এই মুহূর্তে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার বিকল্প নেই। বিশেষত সবার মুখে মাস্ক পড়া এই সময়ে অত্যন্ত জরুরি। এ কারণে দেশে ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা পর্যন্ত সবার মুখে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করতে শীঘ্রই পদক্ষেপ নেয়া হবে।’

মঙ্গলবার দুপুরে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় করণীয় সংক্রান্ত বিষয়াদি নিয়ে আন্তঃমন্ত্রণালয়ের সভায় সভাপতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

সভায় অনলাইন জুমে ও অফলাইনে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের মুখ্যসচিব, সিনিয়র সচিব, সচিব, অতিরিক্ত সচিবসহ ঊর্দ্ধতন দায়িত্বশীল কর্মকর্তাগণ অংশ নেন।

সভায় বক্তারা করোনায় দেশের স্বাস্থ্যখাতের সক্ষমতার বিষয়ে প্রশংসা করেন এবং পূর্বের সক্ষমতা ধরে রেখে নতুনভাবে সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধির উপর জোর দেন। শীতকালের সামাজিক অনুষ্ঠানগুলি যাতে দলবেধে হতে না পারে সে ব্যাপারে উদ্যোগ নিতে সংশ্লিষ্ট বিভাগের প্রতি অনুরোধ জানান।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব ও স্বাস্থ্য শিক্ষা বিভাগের সচিব, স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব, রেলপথ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এবং স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালকসহ অন্যান্য কর্মকর্তাগণ আলোচনায় অংশ নেন।

অনলাইন জুমের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস, স্বাচিপ সভাপতি অধ্যাপক ডা. ইকবাল আর্সেনাল, জাতীয় টেকনিক্যাল কমিটির সভাপতি অধ্যাপক শহীদুল্লাহ্, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিবসহ আরো অনেকেই অংশ নিয়ে তাদের মতামত তুলে ধরেন।

ট্রাকের ধাক্কায় অ‌্যাম্বুলেন্সের রোগীসহ ৫ যাত্রী নিহত

ডেস্ক রিপাের্ট : কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ মহাসড়কে ট্রাকের ধাক্কায় অ‌্যাম্বুলেন্সে থাকা রোগীসহ ৫ জন নিহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (৩ নভেম্বর) বিকেল সাড়ে ৩টায় কুষ্টিয়ার বিত্তিপাড়ার লক্ষ্মীপুর-নিয়তমোড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

ইসলামী বিশ্ববিদ‌্যালয় (ইবি) থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুর রহমান এ তথ‌্য নিশ্চিত করেছেন।

এসআই জানান, কুষ্টিয়া থেকে ঝিনাইদহগামী একটি অ‌্যাম্বুলেন্স লক্ষ্মীপুর-নিয়তমোড়ে পৌঁছালে বিএডিসির পণ‌্যবাহী ট্রাকের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এতে ঘটনাস্থলেই অ‌্যাম্বুলেন্সের ৫ যাত্রী নিহত হন। তাদের মধ্যে চারজন পুরুষ এবং একজন নারী। গুরুতর আহত একজনকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। উদ্ধার কাজ চালাচ্ছে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ।

আমিরকন্যা ১৪ বছর বয়সেই যৌন হয়রানির শিকার

বিনােদন ডেস্ক : বলিউডের প্রথম সারির অভিনেতার মেয়ে হয়েও কেন অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়েন! সম্প্রতি এমনই প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হয় মিস্টার পারফেক্টশনিস্ট আমির খান এবং রিনা দত্তের মেয়ে ইরা খানকে। এ নিয়ে নানা প্রশ্নের মুখোমুখি হচ্ছেন তিনি।

অনেকটা বাধ্য হয়েই এর জবাব দিলেন আমিরকন্যা। নিজের ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন ইরা খান। সেখানে অবসাদ নিয়ে কথা বলার পাশাপাশি কেন তিনি মনমরা থাকতেন এক সময়, সে বিষয়টিও খোলসা করেন।

ইরা জানান, মাত্র ১৪ বছর বয়সেই যৌন হয়রানির মুখোমুখি হন তিনি। ওই দুঃসহ অভিজ্ঞতার বিষয়টি বাবা-মাকে ই-মেইলের মাধ্যমে জানিয়েছিলেন। তারাই তাকে সেই যন্ত্রণাময় পরিস্থিতি থেকে উদ্ধার করেন।

তিনি আরও জানান, যৌন হয়রানি কী এবং কেন তার সঙ্গে ওই ধরনের ঘৃণ্য কাজ করা হচ্ছে, তা প্রথমে বুঝে উঠতে পারেননি। পরে বাবা-মায়ের সাহায্যে অবসাদের জাল কেটে তিনি বেরিয়ে আসতে শুরু করেন।

অভিনেত্রী শ্রাবন্তীর তৃতীয় সংসারও ভাঙছে

বিনােদন ডেস্ক : টলিউডে জোর গুঞ্জন৷ দীর্ঘদিন ধরে যে খবর জমছিল, তা এখন স্পষ্ট৷ ফের শ্রাবন্তীর সংসারে চিড় লাগার ইঙ্গিত৷ আর এই ইঙ্গিতে সায় দিলেন খোদ শ্রাবন্তীর স্বামী রোশন৷ তবে তিনিও পুরো ব্যাপারটা স্পষ্ট করে না বলে, হালকা করে ছুঁয়ে গেলেন৷রোশনের কথা থেকেই সংসার ভাঙার গুঞ্জন দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়ল৷ রটে গেল ফের সংসার ভাঙছে শ্রাবন্তীর ৷
টাইমস অব ইন্ডিয়া প্রতিবেদনে জানিয়েছে, একসঙ্গে থাকছেন না শ্রাবন্তী ও রোশন সিং। সেই কথা স্বীকারও করেছেন দুজন। শ্রাবন্তীর স্বামী রোশন সিং তাদের সংসার ভাঙনের বিষয়ে জানিয়েছেন, হ্যাঁ, আমরা এখন একই ছাদের নিচে থাকছি না। তবে আমাদের অতীতের সম্পর্কের প্রতি শ্রদ্ধা জানাই, আমি এ বিষয়ে কথা বলতে রাজি নই।

এ প্রসঙ্গে শ্রাবন্তীর বক্তব্য, প্রতিটি বিবাহ বা সম্পর্ক উত্থান-পতনের মধ্য দিয়ে যায়। হতে পারে আমাদের সুখের সময় আপাতত শেষ। তবে এর অর্থ এই নয় যে আমাদের মধ্যে সবকিছু শেষ হয়ে গেছে। আমরা দুজনই আশা করি, শিগগিরই আমাদের সমস্যাগুলোর সমাধান হবে এবং বিষয়গুলো খুঁজে আমরা আবার শুরু করব। এর আগে পরিচালক রাজীব বিশ্বাসের সঙ্গে বিয়ে করেন শ্রাবন্তী৷ রাজীব ও শ্রাবন্তীর এক ছেলেও রয়েছে৷ সেই সম্পর্কও বেশিদিন টেকেনি৷ তারপর মডেল কৃষ্ণবিরাজের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান শ্রাবন্তী৷ বিয়েও করেন৷

সে সম্পর্কও এক বছর ঘুরতে না ঘুরতে ভেঙে যায়৷ কৃষ্ণবিরাজকে ডিভোর্স দেন৷ আর তারপর রোশন সিংয়ের সঙ্গে আলাপ, প্রেম ও জমজমাট বিয়ের অনুষ্ঠান৷ ভালোই চলছিল সব৷ তবে হঠাৎ এমন কী ঘটল, যাতে সংসারের দেওয়ালে ভাঙন? জল্পনা জমছে টলিপাড়ায় ৷

জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষ্যে বিএনপির কর্মসূচি ঘোষণা

নিজস্ব প্রতিবেদক : আগামী ৭ নভেম্বর ঐতিহাসিক জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষ্যে পাঁচ দফা কমসূচি গ্রহণ করেছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে নয়া পল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় দফতরের চলতি দায়িত্বে থাকা সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স এ কর্মসূচি গ্রহণ করেন।

কর্মসূচিগুলো হলো :
১। ৭ নভেম্বর মহান জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষে সকাল ৬ টায় নয়াপল্টনস্থ বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়সহ সারাদেশে দলীয় কার্যালয়গুলোতে দলীয় প্রতাকা উত্তোলন করা হবে।

২। ৭ নভেম্বর সকাল ১১টায় বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সাবেক রাষ্ট্রপতি শহীদ জিয়াউর রহমান বীর উত্তম এর মাজারে বিএনপি’র পক্ষ থেকে দলের জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্যবৃন্দের পুস্পস্তবক অর্পণ ও দোয়া।

৩। করোনা পরিস্থিতির কারণে সীমিত আকারে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দুপুর ১২টায় বিএনপি-ঢাকা মহানগর দক্ষিণ, ১২টা ১৫ মিনিটে বিএনপি-ঢাকা মহানগর উত্তর এবং ১২টা ৩০ মিনিটে অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন সমূহ শহীদ জিয়ার মাজারে পুস্পার্ঘ অর্পণ ও ফাতেহা পাঠ করবে।

৪। বেলা ৩টায় জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষ্যে ভার্চুয়াল আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে।

৫। অনুরুপভাবে দেশব্যাপী জেলা, মহানগর ও উপজেলা বিএনপি’র উদ্যোগে নিজ নিজ সুবিধানুযায়ী যথাযোগ্য মর্যাদায় ৭ নভেম্বর জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভাসহ অন্যান্য কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হবে।

এসময় এমরান সালেহ প্রিন্স বলেন, ৭ নভেম্বর জাতীয় জীবনের এক ঐতিহাসিক দিন। ১৯৭৫ সালের এই দিনে সৈনিক-জনতা রাজপথে নেমে এসেছিলো জাতীয় স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব ও গণতন্ত্র রক্ষার দৃঢ় অঙ্গিকার নিয়ে। আর এ কারণেই ৭ নভেম্বরের ঐতিহাসিক তৎপর্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

দেশে একদিনে করোনায় আরও ১৭ মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ১ হাজার ৬৫৯ জন

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশে করোনায় (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে আরও ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মারা গেছেন ৫ হাজার ৯৮৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ৬৫৯ জন। এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪ লাখ ১২ হাজার ৬৪৭ জন।

মঙ্গলবার (৩ নভেম্বর) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এদিকে সারা বিশ্বে এখন পর্যন্ত ৪ কোটি ৭৩ লাখ ৩৯ হাজার ৪২৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ১২ লাখ ১১ হাজার ৬২৮ জন। বিপরীতে সেরে উঠেছেন ৩ কোটি ৪০ লাখ ৩৯ হাজার ২৯৩ জন। বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৫ হাজার ৯৮৩ জনের। মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৪ লাখ ১২ হাজার ৬৪৭ জন।

অনলাইনে ই-কর্মাসের ব্যবসার নামে ২৬৮ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে এসপিসি

নিজস্ব প্রতিবেদক : অনলাইনে ই-কর্মাসের ব্যবসার আড়ালে এমএলএম (মাল্টি লেভেল মার্কেটিং) ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছিল ‘এসপিসি ওয়ার্ল্ড এক্সপ্রেস লিমিটেড’। পিরামিড পদ্ধতিতে সদস্য ও টাকা সংগ্রহ করতো প্রতিষ্ঠানটি। তাদের এই ব্যবসার পুরোটাই অনলাইনভিত্তিক প্রতারণা।

প্রতিষ্ঠানটি ১০ মাসে মানুষের সরলতার সুযোগ নিয়ে ২২ লাখ ২৪ হাজার ৬৬৮টি সদস্যদের আইডি থেকে ২৬৮ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। ডিএমপির সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম বিভাগের একটি টিম বিশেষ অভিযান চালিয়ে এ প্রতারণা ব্যবসায় জড়িত ৬ জনকে গ্রেপ্তার করেছে।

মঙ্গলবার (০৩ নভেম্বর) দুপুরে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- প্রতিষ্ঠানটির এমডি ও সিইও আল আমিন প্রধান, নির্বাহী অফিসার মো. জসীম, ম্যানেজার (হিসাব) মো. মানিক মিয়া, ম্যানেজার (প্রডাক্টস) মো. তানভীর আহম্মেদ, সহকারী ম্যানেজার (প্রোডাক্টস) মো. পাভেল সরকার ও অফিস সহকারী নাদিম মো. ইয়াসির উল্লাহ।

রাজধানীর কলাবাগান এলাকায় এফ হক টাওয়ারে কোম্পানির অফিসে অভিযান চালিয়ে চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তাদের দেয়া তথ্যে মোহাম্মদপুর এলাকা থেকে মূলহোতা আল আমিন প্রধান ও মো. জসীমকে গ্রেপ্তার করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে ডিবির অতিরিক্ত কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার বলেন, এসপিসি ওয়ার্ল্ড এক্সপ্রেস লিমিটেড’ নামের এই কোম্পানি চলতি বছরের ১ জানুয়ারি ই-কমার্সের লাইসেন্স নিয়ে যাত্রা শুরু করে। কোম্পানির এমডি ও সিইও আল আমিন প্রধান একসময় ডেসটিনি-২০০০ লি. এ সক্রিয় ছিল।

ডেসটিনি বন্ধ হয়ে গেলে দীর্ঘদিন গবেষণা করে ডেসটিনির ব্যবসা পদ্ধতি অনুসরণ করে এই অনলাইনভিত্তিক প্রতারণা শুরু করেন তিনি। ১০ মাসে তারা সাধারণ মানুষের সরলতার সুযোগে উচ্চ কমিশনের প্রলোভন দেখিয়ে ২২ লাখ ২৪ হাজার ৬৬৮টি সদস্যদের আইডি থেকে ২৬৮ কোটি টাকা হাতিয়ে নেন।

ডিবির অতিরিক্ত কমিশনার বলেন, তাদের ব্যবসা কার্যক্রম অনলাইন আ্যপভিত্তিক হওয়ায় বাংলাদেশের বাইরেও ১৭টি দেশের বাংলাদেশি প্রবাসী ও বিদেশি প্রায় পাঁচ লাখ সদস্য রয়েছে।

যেভাবে প্রতারণা করতো তারা

তারা কোম্পানির ওয়েবসাইট http://main.spcworldexpress.com, ফেসবুক পেজ ও ইউটিউবে শত শত পোস্টের মাধ্যমে ই-কমার্সের কথা বলে সাধারণ মানুষকে লোভনীয় কমিশনের লোভ দেখিয়ে প্রতারণার ফাঁদে ফেলে। আগ্রহীরা গুগল প্লেস্টোর থেকে একটি মোবাইল আ্যপ ডাউনলোড করে রেজিস্ট্রেশন করে। রেজিস্ট্রেশন করার সময় বাধ্যতামূলক আগের রেজিস্ট্রেশনের আপলিঙ্ক আইডির রেফারেন্সে বিকাশ, নগদ, রকেট নম্বরে একাউন্টের প্রতিটি আইডির জন্য ১২০০ টাকা দিতে হয়। কোম্পানিটি বিভিন্ন ধরনের কমিশন যেমন (রেফার কমিশন, জেনারেশন কমিশন, রয়্যাল কমিশন) এর প্রলোভন দেখিয়ে প্রতারণা করে।

পিরামিড আকৃতির রেফার কমিশন

যে রেফার করবে সে তার নিচের তিনটি আইডি থেকে ৪০০ টাকা করে কমিশন পাবে। এরপর ওই তিনটি আইডি থেকে যখন ৩x৩=৯ আইডি হবে তখন আপলিঙ্কের আইডি ২০ শতাংশ কমিশন পাবে। এরপর ডাউনলিংকের যত আইডি হবে তার আইডি ১০ শতাংশ হারে কমিশন পাবে। যা মূলত পিরামিড আকৃতির হয়ে থাকে। এ ধরনের ব্যবসা বাংলাদেশের আইনের সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ।

এলএমএল ব্যবসা আড়াল করার কৌশল

কোম্পানিটি নামেমাত্র কয়েকটি পণ্য যেমন- অ্যালোভেরা শ্যাম্পু, ফেসওয়াশ, চাল, ডাল, মরিচের গুঁড়া ইত্যাদি শুধুমাত্র তাদের রেজিস্টার্ড সদস্যদের কাছে বিক্রি করে থাকে। তার লভ্যাংশ থেকে প্রতি আইডি হোল্ডারকে কোম্পানির বিভিন্ন বিজ্ঞাপন দেখার বিনিময়ে ১০ টাকা করে দেয়ার কথা বলে। গ্রেপ্তারকৃতরা ই-কমার্সের লাইসেন্স দেখিয়ে সাধারণ মানুষকে বোঝায় যে তারা ই-কমার্স করছে।

গ্রেপ্তারের সময় তাদের কাছ থেকে একটি হ্যারিয়ার গাড়ি, দুটি পিকাপ ভ্যান, সার্ভারে ব্যবহৃত ৬টি ল্যাপটপ, দুটি রাউটার, দুটি পাসপোর্ট ও বিভিন্ন কাগজপত্র জব্দ করা হয়।

মার্কিন নির্বাচন – নিউ হ্যাম্পশায়ারে এক কেন্দ্রে বাইডেন জয়ী, অন্যটিতে ট্রাম্প

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রে প্রথম প্রহরে ভোট হওয়া দুই কেন্দ্রের ফলাফল পাওয়া গেছে। এর একটিতে সব ভোট পেয়েছেন ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন। আর অন্যটিতে বেশি ভোট পেয়েছেন ট্রাম্প।

যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার সীমান্তের কাছাকাছি নিউ হ্যাম্পশায়ার রাজ্যের ডিক্সভিল নচ শহরের একটি কেন্দ্রের ভোট গ্রহণ ও গণনা শেষ হয় রাতের প্রথম প্রহরেই। কেন্দ্রে পাঁচটি ভোট পড়েছে। এর সব কটি ভোট পেয়েছেন ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন।

ঐতিহ্য অনুযায়ী ডিক্সভিল নচ নামের এলাকার ভোটাররা গতকাল সোমবার মধ্যে রাতে ভোট দিতে ব্যালসামস রিসোর্টে যান। আজ মঙ্গলবার রাতের প্রথম প্রহরে একটি কক্ষে গিয়ে প্রত্যেকে ভোট দেন করেন।

২০১০ সালের পরিসংখ্যান থেকে জানা যায়, ডিক্সভিল নচ ১২ জন বাসিন্দার একটি ছোট্ট শহর। মঙ্গলবার রাত ১২টা ১৫ মিনিটের মধ্যেই কেন্দ্রের ফলাফল জানিয়ে দেওয়া হয়। এই কেন্দ্রে পাঁচটি ভোট পড়েছিল। পাঁচটি ভোটই ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন পেয়েছেন।

কাছেই মিসফিল্ড নামের একটি এলাকায় একটি কেন্দ্রে একইভাবে ২১টি ভোট পড়ে। এ কেন্দ্রে বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প পেয়েছেন ১৬ ভোট এবং বাইডেন পেয়েছেন ৫ ভোট।

২০১৬ সালেও প্রথম প্রহরের ভোটকেন্দ্র ডিক্সভিল নচ কেন্দ্রে হিলারি ক্লিনটন জয়ী হয়েছিলেন। রাজ্যের চূড়ান্ত ভোটে নিউ হ্যাম্পশায়ার রাজ্যে ইলেকটোরাল ভোট জিতেছিলেন রিপাবলিকানপ্রার্থী বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে দিনের প্রথম প্রহরে ভোট দেওয়ার ঐতিহ্য রাজ্যের ডিক্সভিল নচ, মিলসফিল্ড এবং হার্টস কমিউনিটির বাসিন্দাদের। অনেকটা রাত ১২টা ১ মিনিটে শহীদ মিনারে ভাষা শহীদদের প্রতি পুষ্পস্তবক অর্পণের মতো। এবার করোনা মহামারির কারণে এই ঐতিহ্যের কিছুটা ব্যত্যয় ঘটতে পারে বলে জানানো হয়েছিল। তবে শেষ পর্যন্ত নিউ হ্যাম্পশায়ার রাজ্যের সেই এলাকায় সোমবার মধ্যরাতের পর ভোট নিয়ে ঐতিহ্য রক্ষা করা হয়েছে।