নির্বাচনে হেরে এবার স্ত্রী মেলানিয়াকেও হারাচ্ছেন ট্রাম্প!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : নির্বাচনে হেরে যাবার পর এবার কি তবে স্ত্রী মেলানিয়াকেও হারাচ্ছেন বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প? প্রেসিডেন্ট পদের মেয়াদ শেষ হলেই স্ত্রী ফারস্ত মেলানিয়া তাকে ডিভোর্স দেবেন বলে জোর জল্পনা-কল্পনা চলছে।

রোববার (০৮ নভেম্বর) ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইলে এ সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে।

প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, মেয়াদ শেষ হলেই ট্রাম্পকে হোয়াইট হাউস ছাড়তে হবে। হোয়াইট হাউস ছাড়ার পরেই মেলানিয়া ট্রাম্প ৭৪ বছর বয়সী স্বামীকে ডিভোর্স দেবেন।

ট্রাম্পের সাবেক সহকারী ওমারোসা মানিগল্ট নিউম্যানের বক্তব্যকে উদ্ধৃত করে প্রতিবেদনে বলা হয়, এখন ট্রাম্পের প্রেসিডেন্টের মেয়াদ শেষ হওয়ার অপেক্ষায় রয়েছেন মেলানিয়া। হোয়াইট হাউস থেকে ট্রাম্প বিদায় নিলেই মেলানিয়া ১৫ বছরের সম্পর্কে ইতি টানবেন।

একই রকম দাবি করেছেন মেলানিয়ার সাবেক পরামর্শদাতা স্টেফানি ওয়ালকফেরও। তিনি বলেন, দু’জনের বিচ্ছেদ এখন সময়ের অপেক্ষা মাত্র। কাউন্টডাউন শুরু করে দিয়েছেন মেলানিয়া। হোয়াইট হাউসে ইতিমধ্যেই তাদের শয়নকক্ষও আলাদা হয়েছে। কথাও হয় না বললেই চলে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রেসিডেন্ট থাকা অবস্থায় ডিভোর্স দিলে ক্ষমতার অপব্যবহার করে ক্ষতি করতে পারবেন এমন আশঙ্কায় মেয়াদ শেষেই ট্রাম্পকে ডিভোর্স দেবেন মেলানিয়া।

পাশাপাশি ছেলে ব্যারন এবং তিনি যেন স্বামীর সম্পত্তির ভাগ পান, সেজন্য একটি চুক্তি করার কথাও চিন্তা করছেন মেলানিয়া, এমনটাও প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।

তিন কোম্পানির আইপিওতে নিষিদ্ধ এমটিবি সিকিউরিটিজ, বাতিল হতে পারে লাইসেন্স

ডেস্ক রিপাের্ট : প্রতারণার দায়ে আপাতত এমটিবি সিকিউরিটিজ লিমিটেডকে তিন কোম্পানির প্রাথমিক গণপ্রস্তাবে (আইপিও) আবেদন নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এর ফলে দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মোবাইল অপারেটর রবি অজিয়াটা লিমিটেড ও ক্রিস্টাল ইন্স্যুরেন্স লিমিটেডের আইপিওতে আবেদন গ্রহণ করতে পারবে না এমটিবি।

দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) তদন্ত প্রতিবেদনের আলোকে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। একই সঙ্গে দ্রুত প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে কমিশনের এনফোর্সমেন্ট বিভাগকে নির্দেশনা দিয়েছে কমিশন।
এ বিষয়ে বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক (চলতি দায়িত্ব) ও মুখপাত্র মোহাম্মদ রেজাউল করিম বলেন, নিয়ম না মেনে আইপিওতে আবেদন করায় এমটিবি সিকিউরিটিজকে তিন কোম্পানিতে আবেদন নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এই চিঠির কপি ডিএসই পেয়েছে বলে জানিয়েছে ডিএসইর সংশ্লিষ্ট বিভাগ।

ডিএসইর তথ্য মতে, পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেডের সহযোগী প্রতিষ্ঠান এমটিবি সিকিউরিটিজ ওয়ালটন হাইটেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের আইপিওতে আবেদনের সময় কোম্পানির অ্যাকাউন্টে কোনো টাকা ছিলো না।

নিময় অনুসারে আইপিওতে আবেদনের শেষ তিনদিনের মধ্যে ব্রোকারেজ হাউজগুলো ডিএসইকে রিপোর্ট দেয়। এই রিপোর্ট দেখে ডিএসই সন্দেহ হয়। এরপর ডিএসই একটি তদন্ত টিম গঠন করে। তদন্ত টিম সমস্ত তথ্য যাচাই-বাছাই করে দেখে এমটিবি সিকিউরিটিজ বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে টাকা নিয়ে সেই টাকা আইপিওর অ্যাকাউন্টে জমা দেয়নি। বরং টাকা জমা ছাড়া আইপিওতে আবেদন গ্রহণ করেছে। যা বিনিয়োগকারীদের সঙ্গে প্রতারণা। এছাড়াও ওয়ালটনের শেয়ারে বিডিং করে ফান্ড দিতে ব্যর্থ হওয়ায় প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএসইসি।

এ বিষয়ে এমটিবি সিকিউরিটিজের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) নজরুল ইসলাম বলেন, নিয়ন্ত্রক প্রতিষ্ঠান আমাদের বিষয়ে যে সিদ্ধান্ত দিয়েছে তা টেকনিক্যাল ব্যাপার। মূলত ব্যাংক ফান্ড ব্লক করার আগেই আমাদের চিঠি দেয়। সেটা নিয়েই আমরা আবেদন করি। ফলে সেখানে টেকনিক্যাল সমস্যা তৈরি হয়।

ঢাকার ইর্স্টান প্লাজায় ইসলামী ব্যাংকের প্রথম কমপ্যাক্ট সিআরএম উদ্বোধন

ডেস্ক রিপাের্ট : ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড-এর বাংলা মটর শাখার অধীনে প্রথম কমপ্যাক্ট ক্যাশ রিসাইক্লিং মেশিন (সিআরএম) সম্প্রতি ঢাকার ইর্স্টান প্লাজায় উদ্বোধন করা হয়।

ব্যাংকের অ্যাডিশনাল ম্যানেজিং ডাইরেক্টর মুহাম্মদ মুনিরুল মওলা প্রধান অতিথি হিসেবে এ ক্যাশ রিসাইক্লিং মেশিন উদ্বোধন করেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ব্যাংকের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট মিজানুর রহমান।

বাংলা মটর শাখাপ্রধান মোঃ নুর ইলাহী আল কামাল ভূঁইয়া অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন। এ সময় স্থানীয় ব্যবসায়ী, গ্রাহক, শুভান্যুধায়ী ও ব্যাংকের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

কঠোর অবস্থানে খুলনা জেলা প্রশাসন – করোনাভাইরাসের মধ্যে মাস্ক না পরায় আটক অর্ধশতাধিক

ডেস্ক রিপাের্ট : করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় পর্যায়ের সংক্রমণ ঠেকাতে কঠোর অবস্থান নিয়েছে খুলনা জেলা প্রশাসন। মাস্ক না পরে বাইরে বের হওয়া ব্যক্তিদের আটক ও জরিমানা করা হচ্ছে।

সোমবার (৯ নভেম্বর) সকাল ১০টা থেকে খুলনা মহানগরের দুটি স্থানে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হচ্ছে।

প্রথম এক ঘণ্টাতেই অর্ধশতাধিক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। এছাড়াও আটজনকে সাড়ে ৬ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

খুলনার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. ইউসুপ আলী বলেন, করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় পর্যায়ের সংক্রমণ ঠেকাতে কঠোর অবস্থান নেয়া হয়েছে। জেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির বৈঠক অনুযায়ী মাস্ক না পরে ঘর থেকে বের হওয়া ব্যক্তিদের কারাদণ্ড দেয়া হবে।

এর আগে প্রথম পর্যায়ে সংক্রমণ ঠেকাতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার মাধ্যমে অনেক ব্যক্তিকে জরিমানা করা হয়েছিল কিন্তু তাতে মানুষের মধ্যে সচেতনতা আসেনি। এ কারণেই এমন কঠিন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। মাস্ক না পরে বাইরে আসা ব্যক্তিদের প্রাথমিকভাবে আটক করা হচ্ছে। পরবর্তীতে তাদের বিরুদ্ধে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তি – দেশে করােনায় একদিনে আরও ২৫ জনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ১ হাজার ৬৮৩

নিজস্ব প্রতিবেদক : করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন আরও ২৫ জন। একই সঙ্গে ১ হাজার ৬৮৩ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে।

সোমবার (০৯ নভেম্বর) বিকালে সংবাদ মাধ্যমে বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর কোভিড-১৯ সংক্রমণের সর্বশেষ এই তথ্য জানিয়েছে।

এতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন ১ হাজার ৬৮৩ জনকে নিয়ে দেশে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪ লাখ ২১ হাজার ৯২১ জন। আরও ২৫ জন মারা যাওয়ায় মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৯২ জনে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসাবে বাসা ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আরও ১ হাজার ৬২৩ জন রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন গত এক দিনে। তাতে সুস্থ রোগীর মোট সংখ্যা বেড়ে ৩ লাখ ৩৯ হাজার ৭৬৮ জন হয়েছে।

দেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়েছিল গত ৮ মার্চ, তা ২৬ অক্টোবর ৪ লাখ পেরিয়ে যায়। এর মধ্যে গত ২ জুলাই ৪ হাজার ১৯ জন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়, যা এক দিনের সর্বোচ্চ শনাক্ত।

প্রথম রোগী শনাক্তের ১০ দিন পর ১৮ মার্চ দেশে প্রথম মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। ৪ নভেম্বর তা ছয় হাজার ছাড়িয়ে যায়। এর মধ্যে ৩০ জুন এক দিনেই ৬৪ জনের মৃত্যুর খবর জানানো হয়, যা এক দিনের সর্বোচ্চ মৃত্যু।

ইরাকের সেনাচৌকিতে জঙ্গি হামলায় নিহত ১১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : মধ্যপ্রাচ্যের যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ ইরাকের রাজধানী বাগদাদের সামরিক চৌকিতে অজ্ঞাতনামা বন্দুকধারীদের হামলায় সেনাসদস্যসহ অন্তত ১১ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। এতে গুরুতর আহত হয়েছেন আরও কয়েকজন।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা জানিয়েছে, রবিবার (৮ নভেম্বর) গভীর রাতে রাজধানীর পশ্চিমাঞ্চলীয় আল-রাধওয়ানিয়া জেলার একটি সেনাচৌকিতে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এদিন চারটি গাড়িতে করে এসে বন্দুকধারীরা সেনা ছাউনিতে গ্রেনেড ও স্বয়ংক্রিয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়।

ভয়াবহ সেই আক্রমণে আহতদের মধ্যে আটজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। যদিও এখন পর্যন্ত কেউ বা কোনো সংগঠন হামলার দায় স্বীকার না করলেও ইরাক সরকার এটিকে আইএস জঙ্গিদের হামলা বলে দাবি করছে।

এর আগে রবিবার সকালে ইরাকের সেনাবাহিনী দেশটির পাহাড়ঘেরা উত্তরাঞ্চলীয় সালাহউদ্দিন প্রদেশে আইএস জঙ্গি নির্মূলে চিরুনি অভিযান চালিয়েছিল। মূলত সেই দমন অভিযানের জবাবে হামলাটি হয়ে থাকতে পারে বলে নিরাপত্তা বিশ্লেষকদের ধারণা।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালে ইরাকে ইসলামি স্টেট আইএসের উত্থান ঘটে। রাজধানী বাগদাদের উপকণ্ঠে কয়েকটি এলাকা, উত্তর এবং পশ্চিমাঞ্চলীয় বেশকিছু বড় শহর সেই সময় তাদের দখলে চলে যায়। ২০১৭ সালে মার্কিন মিত্রবাহিনীর সহায়তায় আইএসকে পরাজিত করে ইরাকি সেনাবাহিনী।

জনগণের মন জয় করেই ক্ষমতায় এসেছে আ.লীগ, বিএনপির সংস্কৃতি জনমানুষের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র : ওবায়দুল কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক : আওয়ামী লীগ জনগণের মন জয় করেই ক্ষমতায় এসেছে বলে মন্তব্য করেছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

সোমবার (৯ নভেম্বর) নিজ সরকারি বাসভবনে ব্রিফিংকালে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আওয়ামী লীগ বন্দুকের নল উঁচিয়ে ক্ষমতায় আসেনি। রাজনৈতিক প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়েই জেল-জুলুম নির্যাতন সহ্য করে এবং জনগণের মন জয় করেই ক্ষমতায় এসেছে। আওয়ামী লীগ পরমতসহিষ্ণুতায় বিশ্বাসী তাই কাউকে বা কোনো দলকে নির্মূল করতে চায় না।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ মাইনাস কিংবা প্লাস ফর্মুলায় বিশ্বাসী নয় বলেই বেগম জিয়ার সাজা স্থগিত করে মানবিক ও রাজনৈতিক ঔদার্যের পরিচয় দিয়েছে।

বিএনপির সংস্কৃতি জনমানুষের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র, মিথ্যাচার আর নির্বাচনবিমুখতা উল্লেখ করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, সরকার বিরাজনীতিকরণে বিশ্বাসী নয় বরং শক্তিশালী বিরোধীদল চায়।

যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি মানবিক ও সহানুভূতিশীল বিশ্ব প্রতিষ্ঠায় অবদান রাখবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের জনগণের সঙ্গে আমেরিকার জনগণ এবং দুদেশের সরকারের সম্পর্ক আরও নতুন উচ্চতা পাবে। রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন, জলবায়ু পরিবর্তন, জঙ্গিবাদ নির্মূলসহ অভিন্ন ইস্যুতে ভবিষ্যতে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার নতুন দিগন্ত উন্মোচন হবে।

আঞ্চলিক ইস্যু, বাণিজ্যিক সম্পর্ক এবং অভিবাসনের ক্ষেত্রে উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে বাংলাদেশ বরাবরের মতো জো বাইডেন সরকারের কাছে প্রাধান্য পাবে বলে প্রত্যাশা করেন ওবায়দুল কাদের।

আওয়ামী লীগের পক্ষে থেকে নবনির্মিত প্রেসিডেন্ট ও ভাইস প্রেসিডেন্টকে অভিনন্দন জানিয়েছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক।

রায়হান হত্যার প্রধান অভিযুক্ত এসআই আকবর গ্রেফতার ( ভিডিও)

ডেস্ক রিপাের্ট : সিলেটের আলোচিত রায়হান হত্যার প্রধান অভিযুক্ত সাময়িক বরখাস্ত এসআই আকবর হোসেনকে গ্রেফতার করেছে জেলা ডিবি পুলিশ। সোমবার দুপুরে সিলেটের কানাইঘাট সীমান্ত এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গা ঢাকা দেয়ার ২৬ দিন পর আজ তাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছে ডিবি।

এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন জেলা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক সাইফুল আলম।

উল্লেখ্য, গত ১০ অক্টোবর মধ্যরাতে সিলেট কোতোয়ালি থানার বন্দরবাজার ফাঁড়ির সাময়িক বরখাস্ত ইনচার্জ উপপরিদর্শক (এসআই) আকবর হোসেন ভূঁইয়া রায়হান নামে ওই যুবককে তুলে নিয়ে যায়। পরিবারের অভিযোগ- রায়হানকে বন্দরবাজার ফাঁড়িতে আটকে রেখে চাঁদার দাবী এবং নির্যাতন করা হয়। পরের দিন সকালে তিনি মারা যান। নির্যাতনের সময় এক পুলিশের মুঠোফোন থেকে রায়হানের পরিবারের কাছে কল করে টাকা চাওয়া হয়।

পরিবারের সদস্যরা সকালে ফাঁড়ি থেকে পরে হাসপাতালে গিয়ে রায়হানের লাশ শনাক্ত করেন। এ ঘটনার শুরুতে ওই ফাঁড়ির পুলিশ সদস্যরা ছিনতাইকারী সন্দেহে নগরের কাস্টঘর এলাকায় গণপিটুনিতে রায়হান নিহত হয়েছেন বলে প্রচার চালায়। কিন্তু গণপিটুনির স্থান হিসেবে যেখানকার কথা বলেছিল পুলিশ, সেখানে স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলরের স্থাপন করা ক্লোজড সার্কিট (সিসি) ক্যামেরায় এমন কোনো দৃশ্য দেখা যায়নি। এতে সন্দেহ হয় পুলিশের নির্যাতনের প্রতি। এ ঘটনার পর থেকে এসআই আকবর হোসেন ভূঁইয়া পালিয়ে যায়। তাকে ধরার জন্য বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালানো হয়।

এ ঘটনায় রায়হানের স্ত্রী বাদী হয়ে মামলা করলে এসএমপির একটি অনুসন্ধান কমিটি তদন্ত করে নির্যাতনের সত্যতা পায়। নিহত রায়হানের মরদেহে ১১১টি আঘাতের চিহ্ন উঠে এসেছে ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনে। এসব আঘাতের ৯৭টি ফোলা আঘাত ও ১৪টি ছিল গুরুতর জখমের চিহ্ন। এসব আঘাতগুলো লাঠি দ্বারাই করা হয়েছে। অসংখ্য আঘাতের কারণে হাইপোভলিউমিক শক ও নিউরোজেনিক শকে মস্তিষ্ক, হৃৎপিণ্ড, ফুসফুস, কিডনিসহ গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গগুলো কর্মক্ষমতা হারানোর কারণে রায়হানের মৃত্যু হয়েছে।

এরপর ১২ অক্টোবর ফাঁড়ির ইনচার্জের দায়িত্বে থাকা এসআই আকবর হোসেনসহ চারজনকে সাময়িক বরখাস্ত ও তিনজনকে প্রত্যাহার করা হয়। ১৩ অক্টোবর আকবর পুলিশি হেফাজত থেকে পালিয়ে যায়।

অনলাইনে দারাজের অবৈধ ক্যাসিনো বাণিজ্য

ডেস্ক রিপাের্ট : চমকের ছড়াছড়ি। মাত্র ১ টাকায় ১৬ লাখ টাকার গাড়ি! এমন লোভনীয় অফারে, কার না ভাগ্যটা পরীক্ষা করে নিতে ইচ্ছা করে। আর এভাবেই প্রতারণার ফাঁদে ফেলে সবাইকে বোকা বানিয়ে কুইজ আর ক্যাম্পেইনের নামে জুয়ার আসর চালাচ্ছে অনলাইন শপ দারাজ। কোনো অনুমতি ছাড়াই চলছে এসব অনৈতিক কার্যক্রম। মানুষকে আকৃষ্ট করতে টিভি পর্দায় ঘুরছে জুয়ার স্পিন। এসব বন্ধে টাস্কফোর্স গঠনের পরামর্শ দিয়েছেন অপরাধ বিজ্ঞানীরা।

ক্যাসিনো কিং হিসেবে পরিচিত এনু, রুপন বা সম্রাটরা র্যা বের অভিযানে ধরা পড়েছে। তবে বসে নেই জুয়াড়িরা। এবার লোভের ফাঁদে ফেলে ক্যাসিনোর ভোল পাল্টিয়ে প্রকাশ্যে চলছে ভিন্ন ধরনের এক টাকার গেম। এমন অভিযোগ উঠেছে অনলাইন শপ দারাজের বিরুদ্ধে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও টিভি পর্দায় বহুমুখী প্রচারের মাধ্যমে প্রতারণার ফাঁদ পেতেছে তারা। মাত্র এক টাকায় দামি গাড়ি, মোটরসাইকেল ও মোবাইলসহ বহু অফারের ছড়াছড়ি। আর এতেই হুমড়ি খেয়ে পড়ছেন অনেকেই।

দেশে দারাজের প্রধান বাণিজ্যিক কর্মকর্তা ফুয়াদ আরেফিন নিশ্চিত করেছেন ক্যাম্পেইনের অনুমতি নেই তাদের।
অনলাইন শপগুলো ব্যবসার নামে মানুষকে ঠকাচ্ছে। তবে এটি নিয়ন্ত্রণের দায়িত্ব ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের নয় বলে জানান মন্ত্রী।

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, অনলাইনের পুরো বিষয়টা যদিও আমরা শুরু করেছিলাম আইসিটি ডিভিশন থেকে। তবে এটার পুরো কর্মকাণ্ড বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের।
এ বিষয়ে বাণিজ্যমন্ত্রীর সঙ্গে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করেও তাকে পাওয়া যায়নি।
মানুষকে লোভের ফাঁদে ফেলে টাকা হাতিয়ে নেয়া, সরাসরি প্রতারণা বলে মনে করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রিমিনোলজি বিভাগের শিক্ষক খন্দকার ফারজানা।

তিনি বলেন, এই ব্যবসায়িক প্রতারণাকে আমি মনে করি জুয়া বা ক্যাসিনোর শামিল। স্পেশাল টাস্কফোর্স এর কথা আমরা অনেকদিন ধরে বলছি। যদি এটার বাস্তবায়ন করা না হয় তবে প্রলোভন দেখিয়ে সাধারণ মানুষকে ফাঁদে ফেলার যে একটি ব্যবসায়িক কার্যকলাপ শুরু হয়েছে, সেটা বন্ধ করা সম্ভব হবে না।
লোভে পড়ে প্রতারণার ফাঁদে পা না দিতে সবাইকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন এই বিশেষজ্ঞ। – আরটিভি

স্টেডিয়ামে গেলেন অথচ ফিটনেস টেস্ট হলো না সাকিবের

নিজস্ব প্রতিবেদক : ফিটনেস টেস্ট দেয়ার জন্য সোমবার (৯ নভেম্বর) সকাল ৮টায় শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে পা রেখেছিলেন সাকিব আল হাসান। যদিও এদিন সকাল ৯টায় ছিল রিপোর্টিং টাইম। অন্য ক্রিকেটারদের সঙ্গে তার ফিটনেস টেস্ট দেয়ার কথা ছিল সকাল ১০ টায়।

যদিও এদিন ফিটনেস টেস্ট দিতে পারেননি তিনি। কারণ অন্য যাদের ফিটনেস টেস্ট দেয়ার কথা ছিল তাদের করোনা পরীক্ষাই এখনও সম্পন্ন হয়নি। এর ফলে অপেক্ষা করতে হচ্ছে সাকিবকেও। বিসিবির ফিটনেস ট্রেনার তুষার কান্তি হাওলাদার জানিয়েছেন, বুধবার হতে পারে সাকিবের ফিটনেস টেস্ট। এ ছাড়া ফিজিও-ট্রেনাররা এই অলরাউন্ডারের শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করবেন।

এ প্রসঙ্গে তুষার বলেন, যাদের সঙ্গে সাকিবের বিপ টেস্ট হওয়ার কথা, তাদের কারও কোভিড পরীক্ষা করানো হয়নি। এটা একটা ভাবনার কারণ। এছাড়াও সে দীর্ঘদিন পর ফিরেছে। ফিজিও-ট্রেনাররা তার শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করবেন। এজন্যও একটু সময় লাগবে। বুধবার হতে পারে তার ফিটনেস টেস্ট।

বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপকে সামনে রেখে ১১৩ জন ক্রিকেটারের ফিটনেস টেস্ট নেবে বিসিবি। তবে প্রেসিডেন্টস কাপে অংশ নেয়া ২৭ ক্রিকেটারের এই পরীক্ষায় অংশ নিতে হচ্ছে না। – ক্রিকফ্রেঞ্জি/ বিডিনিউজ