গৃহহীনদের জন্য গৃহনির্মাণে বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

স্পাের্টস ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নেতা শেখ হাসিনা মুজিববর্ষে তাঁর সরকারের কর্মসূচি সবার জন্য গৃহনির্মাণ প্রকল্পে সমাজের বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহ্বান পুনর্ব্যক্ত করেছেন। তিনি আজ বুধবার একাদশ জাতীয় সংসদের দশম অধিবেশনে তাঁর জন্য নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্বে সরকার দলীয় সংসদ সদস্য মো.শহীদুজ্জামান সরকারের তারকা চিহ্নিত প্রশ্নের উত্তরে একথা বলেন।

এ সময় ড.শিরীন শারমিন চৌধুরী স্পিকারের দায়িত্ব পালন করছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী এবং সংসদ নেতা বলেন, ‘আমি সমাজের অবস্থা সম্পন্ন ব্যক্তিদের অনুরোধ করবো তাঁরা যদি অন্তত একটি করে বাড়ি অসহায় পরিবারের জন্য নির্মাণ করে দেন তবে, মুজিব শতবর্ষে দেশে যেমন একটি পরিবারও গৃহহীন থাকবেনা, তেমনি সবাই মিলে আমরা নির্মাণ করবো এক মানবিক সোনার বাংলা।’

তিনি বলেন, বাংলাদেশ বিশ্বের অন্যতম জনবহুল দেশ হওয়া সত্বেও এদেশের সকল ভূমিহীন ও গৃহহীনদের বাসস্থান নিশ্চিত করার কার্যক্রম চলমান রয়েছে। তিনি বলেন,‘দরিদ্র মানুষের ক্ষমতায়ন ও দারিদ্র বিমোচনে এ ধরনের কর্মসূচি বিশ্বের আর কোন সরকার প্রধান এ পর্যন্ত গ্রহণ করেননি।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাঁর সরকারের আশ্রয়ন প্রকল্পের আওতায় এ পর্যন্ত ৩ লাখ ১৯ হাজার ১৪২টি পরিবারকে পুনর্বাসন করা হয়েছে। এরমধ্যে ব্যারাক নির্মাণের মাধ্যমে এক লাখ ৬৪ হাজার ৭৬৩টি পরিবারকে, জমি আছে ঘর নেই এরূপ এক লাখ ৫৩ হাজার ৭৭৯টি পরিবারকে এবং পার্বত্য চট্টগ্রামের উপজাতীয়দের ৬শ’ পরিবারকে বিশেষ ডিজাইনের গৃহনির্মাণ করে পুনর্বাসন করা হয়েছে।

তিনি বলেন, এছাড়া আশ্রয়ন -২ প্রকল্পের আওতায় উঁচু খাস জমির প্রাপ্যতা সাপেক্ষে পরিবার প্রতি ২ শতাংশ খাস জমি বন্দোবস্তো প্রদান পূর্বক প্রথম পর্যায়ে ৫৯ হাজার ৮০৩টি ভূমিহীন ও গৃহহীণ পরিবারের জন্য এক হাজার ২২ কোটি ৬৩ লাখ ১৩ হাজার টাকা ব্যয়ে একক গৃহ নির্মাণের কাজ চলমান রয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী তাঁর বক্তব্যের শুরুতে গৃহহীনদের পুনর্বাসনে জাতির পিতার গৃহীত প্রথম পদক্ষেপ স্মরণ করে বলেন, জাতির পিতা ১৯৭২ সালের ২০ ফ্রেব্রুয়ারি তৎকালিন নোয়াখালির বর্তমান লক্ষীপুরের রামগঞ্জে চরপোড়াগাছা গ্রাম পরিদর্শনে গিয়ে অসহায় আশ্রয়হীন পরিবারগুলোর পুনর্বাসন শুরু করেন।

তিনি বলেন, ‘মুজিববর্ষে বাংলাদেশে একজন মানুষও গৃহহীন থাকবেনা এবং তা বাস্তবায়নে সরকার নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছে।’

সরকার দলীয় সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুলের অপর এক প্রশ্নের উত্তরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন এবং কোভিড-১৯ মহামারী অভিঘাত সত্ত্বেও তাঁর সরকার প্রতি ইঞ্চি জমি আবাদের আওতায় আনার নীতি গ্রহণ করে ফসল উৎপাদন বৃদ্ধির ধারা অব্যাহত রেখেছে।

তিনি বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশ বিশ্বে ধান উৎপাদনে চতুর্থ স্থান থেকে তৃতীয় স্থানে উন্নীত হয়েছে। ফলে দেশে খাদ্য নিরাপত্তার ভিত্তি সুদৃঢ় হয়েছে। এ ছাড়া সবজি উৎপাদনে বিশ্বের তৃতীয়, আম উৎপাদনে সপ্তম, আলু উৎপাদনে অষ্টম এবং পেয়ারা উৎপাদনে অষ্টম স্থানে অবস্থান করে বাংলাদেশে আজ বিশ্বে কৃষি উন্নয়নের রোল মডেল।- বাসস

বিশ্বকাপ ও এশিয়া কাপের বাছাই খেলতে বৃহস্পতিবার কাতার যাচ্ছে বাংলাদেশ ফুটবল দল

নিজস্ব প্রতিবেদক : বৃহস্পতিবার (১৯ নভেম্বর) সকালে সাড়ে দশটায় দোহার উদ্দেশে ঢাকা ছাড়বে ৩৭ সদস্যের দল। ৪ ডিসেম্বর কাতারের বিরুদ্ধে বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাই ম্যাচ খেলতে ২৭ জনের দল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন।
এই বিশাল বহরে থাকছেন না কোচ জেমি ডে। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আইসোলেশনে তিনি। সুস্থ হলে দোহায় দলের সঙ্গে যোগ দেবেন ইংলিশ কোচ। গত ২৪ অক্টোবর থেকে ট্রেনিং ক্যাম্প করছে জাতীয় দলের খেলোয়াড়রা। ৩৬ জনের ওই ক্যাম্প থেকে গোলকিপার শহীদুল আলম সোহেল, টুটুল বাদশা, তারিক কাজী, মাশুক মিয়া জনি, আরিফুর রহমান ও মো. আব্দুল্লাহ বাদ পড়েছেন।
ম্যানেজার হিসেবে আমের খান, গোলকিপিং কোচ লেস ক্লিভলি, ফিটনেস কোচ ইভান রাজলগ ও ফিজিও আন্দ্রে হুয়ান কার্ল প্রথমবার দলের সঙ্গে দেশের বাইরে যাচ্ছেন।

বাংলাদেশ দল: আশরাফুল রানা, আনিসুর জিকো, পাপ্পু হোসেন, তপু বর্মণ, ইয়াসিন খান, বিশ্বনাথ ঘোষ, সুশান্ত ত্রিপুরা, রায়হান হাসান, রহমত মিয়া, ইয়াসির আরাফাত, মঞ্জুরুল মানিক, আতিকুর ফাহাদ, রবিউল হাসান, বিপলু আহমেদ, মোহাম্মদ ইব্রাহিম, মামুনুল ইসলাম, সোহেল রানা, রিয়াদুল রাফি, জামাল ভূঁইয়া, মানিক মোল্লা, রাকিব হোসেন, নাবীব নেওয়াজ জীবন, মাহবুবুর রহমান সুফিল, তৌহিদুল আলম সবুজ, সাদ উদ্দিন, এমএস বাবলু, সুমন রেজা। – সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

যুবলীগ নেতাকে কাফনের কাপড় পাঠিয়ে হত‌্যার হুমকি

ডেস্ক রিপাের্ট : রংপুর জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক লাক্ষিন চন্দ্র দাসকে পোস্ট অফিসের মাধ্যমে একটি পার্সেলে পাঠানো কাফনের সাদা কাপড়সহ খোলা চিঠিতে মৃত্যুর হুমকি প্রদানের অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে থানায় জিডি করা হয়েছে।

বুধবার (১৮ নভেম্বর) অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত ১৭ নভেম্বর দুপুরে নগরীর গোমস্তপাড়ায় বাসভবনে পোস্ট অফিসের পিয়ন লাক্ষিন চন্দ্র দাসকে ডেকে একটি রেজেস্ট্রি করা পার্সেল প্রদান করেন। লাক্ষিন চন্দ্র দাস বাসায় ঢুকে পার্সেল প্যাকেট খুলে দেখেন একটি সাদা কাপড় ও একটি সাদা কগজে লেখা চিঠি।

চিঠিতে লেখা ‘তোর শেষ যাত্রার কাপড় পাঠালাম, পৃথিবী থেকে বিদায় নেওয়ার জন্য প্রস্ততি নে।’ চিঠির ঠিকানায় লেখা- লাল সবুজ এগ্রো লি. প্রেসক্লাব স্টেশন রোড, রংপুর।

ওই দিন রাতেই নিরাপত্তা চেয়ে রংপুর মেট্রোপলিন কোতয়ালী থানায় লক্ষিন চন্দ্র দাস একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

আরপিএমপি কোতয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রশিদ জানান, যুবলীগ নেতা লক্ষিন চন্দ্র একটি জিডি করেছে। বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে তদন্ত করা হচ্ছে।

 

৩১ ঘণ্টা পর সিলেট নগরের কয়েকটি এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ শুরু

ডেস্ক রিপাের্ট : সিলেটের কুমারগাঁওয়ে বিদ্যুতের ১৩৩/৩২ গ্রিড উপকেন্দ্রে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় প্রায় ৩১ ঘণ্টা বিদ্যুতহীন থাকার পর সিলেট নগরের কয়েকটি এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ শুরু হয়েছে।

বুধবার (১৮ নভেম্বর) সন্ধ্যা ৬টার দিকে বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ-১ ও ২ এর আওতাধীন কয়েকটি এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ করা সম্ভব হয়েছে। তবে পুরো নগরে বিদ্যুৎ সংযোগ স্বাভাবিক হতে আরও সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড সিলেটের প্রধান প্রকৌশলী (বিক্রয় ও বিতরণ) খন্দকার মোকাম্মেল হোসেন জানান, দুটি পাওয়ার ট্রান্সফরমারের জায়গায় একটি দিয়ে আপাতত বিদ্যুৎ চালু করার চেষ্টা করছে পিডিবি। ফলে আপাতত কম লোড ভাগ করে বিভিন্ন ফিডারে দেওয়া হবে।

বিদ্যুৎ সংযোগ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সবাই একত্রে ফ্রিজ, মটরসহ ভারী ইলেকট্রনিক সামগ্রী চালু না করার আহ্বান জানান তিনি। অন্যথায় ওভার হিটেড হয়ে ফের দুর্ঘটনার আশংকা থাকবে বলেও উল্লেখ করেন এ প্রকৌশলী।

আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রের পাওয়ার ট্রান্সফরমার মেরামতে গতকাল থেকেই কাজ করছেন চার শতাধিক কর্মী। আজ বুধবার বিকেলে গ্রিড সাব স্টেশনের বাস বার মেরামত সম্পন্ন হয়।

 

পরে টেস্ট রান সফলভাবে সম্পন্ন হওয়ার পরে কুমারগাঁও প্লান্টে বিদ্যুৎ আসে। এরপরই লাইনে বিদ্যুৎ সরবরাহ শুরু হয়।

উল্লেখ‌্য, মঙ্গলবার (১৭ নভেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বাংলাদেশ পাওয়ার গ্রিড ১৩২/৩৩ কেভি এর কুমারগাঁও বিদ্যুৎকেন্দ্রে আগুন লাগে। ফায়ার সার্ভিসের পাঁচটি ইউনিট চেষ্টা চালিয়ে দুপুর সোয়া ১২টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। আগুনে দুটি ট্রান্সফরমার পুড়ে যায়।

এরপর থেকে সিলেট শহর ও আশাপাশের এলাকা এবং সুনামগঞ্জে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়। তবে গতকাল সন্ধ্যা ৭টার দিকে সুনামগঞ্জ জেলায় বিদ্যুৎ সরবরাহ সচল হয়।

এদিকে টানা বিদ্যুৎহীন থাকায় পুরো সিলেট শহরের বাসিন্দারা সীমাহীন দুর্ভোগের কবলে পড়েন। এর মধ‌্যে পানির সমস‌্যা সবচেয়ে বেশি।
বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের পরিচালক (জনসংযোগ) সাইফুল হাসান চৌধুরী জানান, বুধবার সন্ধ্যায় বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ-১ ও ২ এর আওতাধীন কয়েকটি এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করা হয়েছে। এতে নগরীর এক চতুর্থাংশ এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ স্বাভাবিক হয়েছে। পর্যায়ক্রমে বাকি এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করা হবে।

নগরীর টিলাগড় এলাকার বাসিন্দা তাপস সূত্রধর জানান, সন্ধ্যা সোয়া ৬টার দিকে বিদ্যুৎ সংযোগ স্বাভাবিক হয়েছে। এর মাধ্যমে প্রায় সাড়ে ৩১ ঘণ্টার দুর্ভোগের অবসান হলো।

সাকিবের নিরাপত্তায় গানম্যান দিলো ক্রিকেট বোর্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক : কলকাতার কালীপূজা মন্দির উদ্বোধন করার অভিযোগ এনে সম্প্রতি ফেসবুক লাইভে সিলেট থেকে মহসিন তালুকদার নামের এক যুবক সাকিবকে রাম দাঁ দেখিয়ে হত্যার হুমকি দেয়। যুবককে র‌্যাব আটক করলেও সাকিবের নিরাপত্তায় একজন গানম্যান দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

এই সশস্ত্র নিরাপত্তারক্ষী সাকিব আল হাসানের বাসা থেকে মিরপুর স্টেডিয়ামে আসা যাওয়ার সময় বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের সঙ্গে থাকবেন। এ খবর জানিয়েছেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামুদ্দিন চৌধুরী সুজন। সাকিবকে হত্যার হুমকিটি বিসিবি গুরুত্বের সঙ্গে দেখছে বলেও জানান তিনি।

বুধবার (১৮ নভেম্বর) নিজামুদ্দিন চৌধুরী বলেন, সাকিব আল হাসানের নিরাপত্তার বিষয়ে সজাগ বিসিবিও। সাম্প্রতিক ঘটনার প্রেক্ষিতে আমরা সাকিবের নিরাপত্তার বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছি আইন শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর সঙ্গেও।
প্রসঙ্গত নিষেধাজ্ঞা থাকায় গত এক বছর গণমাধ্যমের সামনে আসতে পারেননি সাকিব। তাই নিষেধাজ্ঞা শেষে বেশ কিছু সামাজিক ও ব্যবসায়িক কর্মকা-ে অংশ নিয়েছেন। সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবর বের হয়, কলকাতায় একটি কালীপূজা মন্দিরে উদ্বোধন করতে যান সাকিব।

এরপর থেকে ক্ষোভে ফুঁসে উঠেছে অনেকে। গত কদিন ধরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সাকিবকে নিয়ে আলোচনা হয়েছে পক্ষে-বিপক্ষে। কলকাতায় পূজা উদ্বোধনে যাওয়া নিয়ে তাকে ফেসবুক লাইভে এসে সাকিবকে কুপিয়ে টুকরো করে ফেলার হুমকিও দেন মহসিন নামের ওই যুবক। পরে অবশ্য আরেকটি লাইভ ভিডিয়োতে এ ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন তিনি।

দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এলাকায় রাত ৮টার মধ্যে দোকান-পাট বন্ধের আহ্বান

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাত ৮টার মধ্যে দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এলাকায় দোকান-পাটসহ সবধরনের ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান বন্ধ করার আহ্বান জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

বুধবার (১৮ নভেম্বর) দুপুরে রাজধানীর টিকাটুলির শেরে বাংলা মহিলা মহাবিদ্যালয়ের ‘শেখ হাসিনা একাডেমিক ভবন’ উদ্বোধনে গিয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ আহ্বান জানান।

ডিএসসিসি মেয়র বলেন, আমরা শহরটাকে একটি সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনার আওতায় নিয়ে আসতে চাই। আমরা রাত ৮টার মধ্যে সব ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান, দোকান-পাট বন্ধ করতে চাই। বহির্বিশ্বে দেখি একটি সুনির্দিষ্ট সময়ের পরে সবকিছু বন্ধ হয়ে যায়। ৫টা, ৬টা, ৭টা, ৮টা, ৮টা বিভিন্নক্ষেত্রে এলাকাভিত্তিক সেই সময়সীমা নির্ধারণ করা হয়।

আমরা মনে করি, ঢাকাবাসীর জন্য শহরের দোকান-পাট, ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান রাত ৮টার মধ্যে বন্ধ করলে আমাদের সামগ্রিক কার্যক্রম একটি সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনার আওতায় আনতে পারব।

মেয়র মনে করেন, রাত ৮টার মধ্যে দোকানপাট বন্ধ হলে রাজধনী যানজট থেকে অনেকটা মুক্তি পাবে, মানুষ পরিবার ও সন্তানকে সময় দিতে পারবে।

তিনি বলেন, আমাদের সন্তানদেরকে সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হলে সব বাবা-মাকে সন্তানের সঙ্গে সময় দেয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আমরা অনেক সময় সেটা ভুলে যাই। আমরা ক্লান্ত হয়ে বাসায় যাই, নিজেদের মতো করে হয়ত ঘুমিয়ে পড়ি বা অন্য কাজে ব্যস্ত হয়ে যাই। কিন্তু সন্তানকে সময় দেয়া জাতি গঠনে একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

সুতরাং সবকিছু বিবেচনা করে আমরা রাত ৮টা পর্যন্ত দোকান-পাট, ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান খোলা রাখার জন্য সময় নির্ধারণ করেছি। এটি কার্যকর করার জন্য সবার সহযোগিতা কামনা করছি।

 

 

 

 

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তি – একদিনে নতুন করোনা আক্রান্ত ২ হাজার ১১১, মৃত্যু আরাে ২১ জনের

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশে করোনায় (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে আরও ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মারা গেছেন ৬ হাজার ২৭৫ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ২ হাজার ১১১ জন। এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪ লাখ ৩৮ হাজার ৭৯৫ জন।

বুধবার (১৮ নভেম্বর) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ১৬ হাজার ৪৬৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে ২ হাজার ১১১ জনের দেহে কোভিড-১৯ সংক্রমণ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪ লাখ ৩৮ হাজার ৭৯৫ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে। করোনায় এ পর্যন্ত ৬ হাজার ২৭৫ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এতে আরও বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় কোভিড-১৯ সংক্রমণ থেকে মুক্ত হয়েছেন ১ হাজার ৮৯৩ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ৩ লাখ ৫৪ হাজার ৭৮৮ জন।

এদিকে সারা বিশ্বে এখন পর্যন্ত ৫ কোটি ৫৯ লাখ ৮৮ হাজার ৩২৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ১৩ লাখ ৪৪ হাজার ৩৬৭ জন। বিপরীতে সেরে উঠেছেন ৩ কোটি ৯০ লাখ ২ হাজার ৩৯১ জন। বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৬ হাজার ২৭৫ জনের। মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৪ লাখ ৩৮ হাজার ৭৯৫ জন।

ক্রিকবাজকে আকরাম খান, বাংলাদেশ সফরে একটি টেস্ট কম খেলবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ

স্পোর্টস ডেস্ক : জানুয়ারিতে বাংলাদেশ সফরে তিনটি করে টেস্ট ও ওয়ানডে এবং দুটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলার কথা ওয়েস্ট ইন্ডিজের। তবে একটি টেস্ট কম খেলা হতে পারে। অতিথিরা এমনই অনুরোধ জানিয়েছে।

বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান আকরাম খান বুধবার (১৮ নভেম্বর) এই তথ্য দিয়ে জানিয়ে বলেন, ওয়েস্ট ইন্ডিজ আগেভাগে সফর শেষ করতে চায় বলে তাদেও এ অনুরোধ। ক্রিকেটবিষয়ক ওয়েবসাইট ক্রিকবাজ এই খবর দিয়েছে।
ক্রিকবাজকে আকরাম খান বলেছেন, সিরিজ সংক্ষিপ্ত করার সম্ভাবনা রয়েছে।

সেক্ষেত্রে একটি টেস্ট কম খেলা হতে পারে। তবে সফর হচ্ছে, এটা নিশ্চিত। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৭ জানুয়ারি আসতে পারে। জৈবনিরাপত্তা নিয়ে আমরা কথা বলছি। সবকিছু ইতিবাচকভাবে এগিয়ে যাচ্ছে। অতিথিরা কতদিন কোয়ারেন্টিনে থাকবে, এ নিয়েও আলোচনা হচ্ছে।

‘ব্লু ইকোনমি’ দেশের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উন্নয়ন খাত

ডেস্ক রিপাের্ট : : প্রতিবেশী দেশ মিয়ানমার ও ভারতের সঙ্গে সমুদ্রসীমার শান্তিপূর্ণ মীমাংসার পর সুনীল অর্থনীতি (ব্লু ইকোনমি) বাংলাদেশের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উন্নয়ন খাত হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা।

তিনি বলেন, সুনীল অর্থনীতি থেকে উদ্ভূত সম্ভাবনার পূর্ণ সুফল ঘরে তুলতে আমাদের প্রয়োজন সমুদ্র সম্পদে বিশেষ করে জাতীয় সমুদ্র সীমানার বাইরে এবং আন্তর্জাতিক সমুদ্র-তলদেশ কর্তৃপক্ষ নিয়ন্ত্রিত এলাকায় ন্যায়সঙ্গত অংশীদারিত্ব।

আন্তর্জাতিক সমুদ্র-তলদেশ কর্তৃপক্ষ প্রণীত সমুদ্রে বৈজ্ঞানিক গবেষণার খসড়া কর্ম-পরিকল্পনার উপর আয়োজিত উচ্চ-পর্যায়ের এক ভার্চ্যুয়াল সভায় তিনি এ কথা বলেন।

বুধবার (১৮ নভেম্বর) জাতিসংঘের বাংলাদেশ স্থায়ী মিশন থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা বলেন, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য বাস্তবায়ন এবং জাতিসংঘের সমুদ্র বিজ্ঞান দশককে এগিয়ে নিতে এই কর্ম-পরিকল্পনা প্রণয়ন করা হয়েছে।

বাংলাদেশকে উন্নত-সমৃদ্ধ দেশে পরিণত করার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গৃহীত রূপকল্প-২০৪১ এর উদাহরণ টেনে রাষ্ট্রদূত ফাতিমা বলেন, দেশের সমুদ্র সম্পদের কার্যকর ব্যবহার ও বৈজ্ঞানিক ব্যবস্থাপনার সক্ষমতা বিনির্মাণে বাংলাদেশ ব্যাপকভাবে বিনিয়োগ করছে যাতে রূপকল্প-২০৪১ এর অভীষ্ট লক্ষ্য অর্জন করা সম্ভব হয়। প্রতিবেশী দেশ মিয়ানমার ও ভারতের সঙ্গে সমুদ্রসীমার শান্তিপূর্ণ মীমাংসার পর সুনীল অর্থনীতি বাংলাদেশের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উন্নয়ন খাত হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছে ।

বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি আন্তর্জাতিক সমুদ্র তলদেশ কর্তৃপক্ষসহ অন্যান্য অংশীজনদের সঙ্গে গভীর সমুদ্র এলাকায় যৌথভাবে গবেষণা পরিচালনা করার বিষয়ে বাংলাদেশের গভীর আগ্রহের কথাও পুনর্ব্যক্ত করেন।

গভীর সমুদ্র তলদেশে গবেষণা এগিয়ে নেওয়ার লক্ষ্যে ইতোমধ্যে আন্তর্জাতিক সমুদ্র তলদেশ কর্তৃপক্ষ গৃহীত বিভিন্ন উদ্যোগসমূহকে স্বাগত জানান বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি।

গভীর সমুদ্রে বৈজ্ঞানিক গবেষণা পরিচালনার ক্ষেত্রে সুনির্দিষ্ট কিছু বিষয়ের উপর জোর দেন তিনি। এগুলো হলো- উন্নয়নশীল দেশসমূহে সক্ষমতা বিনির্মাণ ও কারিগরি ক্ষেত্রে সহায়তা প্রদান করা, সকলের অন্তর্ভুক্তি এবং বৈজ্ঞানিক গবেষণার প্রতিটি স্তরে বহু-অংশীজন ভিত্তিক কৌশলগত অংশীদারিত্ব নিশ্চিত করা, পর্যাপ্ত, সম্ভাব্য ও উদ্ভাবনী অর্থায়ন নিশ্চিত করা এবং সর্বোপরি সমুদ্র-পরিবেশ ও এর জীববৈচিত্র্য অক্ষুন্ন রাখা। এছাড়া গভীর সমুদ্রে বৈজ্ঞানিক গবেষণার ক্ষেত্রে নারীর অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার বিষয়েও গুরুত্ব দেন তিনি।

অনুষ্ঠানটির সভাপতিত্ব করেন আন্তর্জাতিক সমুদ্র তলদেশ কর্তৃপক্ষের মহাসচিব মাইকেল ডব্লিউ লজ।

এছাড়া কোরিয়ার সমুদ্র ও মৎস্য সম্পদ মন্ত্রী, নরওয়ের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের স্টেট সেক্রেটারি এবং জাতিসংঘ সদস্য দেশসমূহের রাষ্ট্রদূত ও স্থায়ী প্রতিনিধিরা সভায় অংশ নেন। সম্প্রতি বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক সমুদ্র তলদেশ কর্তৃপক্ষ পরিষদের সভাপতি নির্বাচিত হয়েছে।

ওবায়দুল কাদের বললেন- বিএনপির রাজনীতি হতাশা আর ব্যর্থতায় ভরপুর

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিএনপির রাজনীতিতে হতাশা আর ব্যর্থতা ভর করেছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, বিএনপি এখন আর মিথ্যাচার ছাড়া স্বাভাবিক কিছু বলতে পারে না। দেশের রাজনীতিতে নৈরাজ্য, হত্যা আর সন্ত্রাসের আমদানি ও চর্চা বিএনপি জন্মলগ্ন থেকেই করে আসছে।

বুধবার (১৮ নভেম্বর) সকালে সরকারি বাসভবনে ব্রিফিংকালে তিনি একথা বলেন।

বিএনপি মহাসচিব অভিযোগ করেছেন, দেশে নাকি আগ্রাসী শক্তি আঘাত হানছে। তার এই অভিযোগের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, আগ্রাসী শক্তি বলতে তিনি কি বুঝিয়েছে? বিএনপির রাজনীতিতে হতাশা আর ব্যর্থতা এতটাই ভর করেছে যে, এখন তারা আর মিথ্যাচার ছাড়া স্বাভাবিক কিছু বলতে পারে না।

তিনি বলেন, বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালীন ভারতসহ প্রতিবেশী দেশগুলোর সাথে সুসম্পর্ক রচনা না করে তৈরি করেছে বিভেদ আর অবিশ্বাসের দেয়াল। শেখ হাসিনার কাছে এ দেশের প্রতি ইঞ্চি মাটি নিজের অস্তিত্ব। যে দলের নেতৃত্বে এ দেশের স্বাধীনতা এসেছে তাদের হাতেই স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব নিরাপদ।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, প্রকৃতপক্ষে দেশের স্বাধীনতা নয়, অপরাজনীতির জন্য বিএনপির রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ বিপন্ন। বিএনপি সরকারের বিরোধিতা করতে গিয়ে দেশের ইমেজ নষ্ট করছে। দেশে অস্থিতিশীলতা তৈরির অপচেষ্টার পাশাপাশি বিদেশে অবস্থানকারী লাখ লাখ প্রবাসীকর্মীর কর্মসংস্থানকেও অস্থিতিশীল করে তুলছে।

বিএনপি নেতাদের সামনে প্রশ্ন রেখে ওবায়দুল কাদের বলেন, সাম্প্রদায়িক অপশক্তি ও স্বাধীনতাবিরোধীদের সাথে নিয়ে যারা রাজনীতি করেন তারা স্বাধীনতা রক্ষা করবে কিভাবে? জন্মলগ্ন থেকে বিএনপি মানুষের অধিকার হরণের রাজনীতি করে আসছে। তাই তাদের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষা করার কথা জনগণ বিশ্বাস করে না।

ওবায়দুল কাদের হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, আগুন সন্ত্রাসসহ নৈরাজ্যের সাথে যারাই জড়িত তাদের কোনোভাবেই ছাড় দেওয়া হবে না। যারা স্পটে গিয়ে বাসে আগুন দিয়েছে তাদের অনেককেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে। যারা ঘটনাস্থলে ছিল না তাদের গ্রেপ্তারকৃতদের তথ্যের ভিত্তিতে ইতোমধ্যেই আইনের আওতায় আনা হয়েছে।

একই সময় সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী করোনার দ্বিতীয় ঢেউ শুরুর আশঙ্কা এবং পূর্বাভাস নিয়ে সবাইকে বাধ্যতামূলক মাস্ক পরিধান করার আহ্বান জানান। তিনি সামাজিক, রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনকে জনগণের মাঝে সচেতনতামূলক প্রচারাভিযান করারও নির্দেশ দেন।