আজীবন সম্মাননা পাচ্ছেন সোহেল রানা-সুচন্দা

বিনােদন রিপাের্ট : চলচ্চিত্রে অবদানের জন্য ২০১৯-এর জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার-এ যৌথভাবে আজীবন সন্মাননা পাচ্ছেন সোহেল রানা ও কোহিনুর আক্তার সুচন্দা।

সোহেল রানার পারিবারিক নাম মাসুদ পারভেজ। চলচ্চিত্রে নায়ক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে ‘সোহেল রানা’ নাম ধারণ করেন। ১৯৭২ সালে মাসুদ পারভেজ নামে চলচ্চিত্র প্রযোজনা করেন। বাংলাদেশের প্রথম পূর্ণাঙ্গ মুক্তিযুদ্ধের চলচ্চিত্র ‘ওরা ১১ জন’ ছবির প্রযোজক হিসেবে চলচ্চিত্র জগতে প্রবেশ করেন তিনি।
তিনি ‘মাসুদ রানা’র ছবির মাধ্যমে ১৯৭৩ সালে নায়ক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন। সোহেল রানা তিনবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন।

কোহিনুর আক্তার সুচন্দার জন্ম যশোরে। ষাটের দশকে চলচ্চিত্রে অভিনয় শুরু করেন। সত্তরের দশকে মুক্তি পাওয়া ছবি ‘জীবন থেকে নেয়া’ এবং নব্বইয়ের দশকের ‘ঝিনুক মালা’ ছবির জন্য সবচেয়ে বেশি খ্যাতি কুড়িয়েছেন তিনি। এছাড়া ১৯৯৬ সালে ‘সবুজ কোট কালো চশমা’ এবং ২০০৫ সালে স্বামী জহির রায়হানের ‘হাজার বছর ধরে’ ছবিটি পরিচালনা ও প্রযোজনা করেন সুচন্দা। মুক্তির বছরই সেরা ছবি হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পায় ‘হাজার বছর ধরে’। এই ছবির জন্য সেরা পরিচালক মনোনীত হন সুচন্দা।

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৯ ঘোষণা – সেরা চলচ্চিত্র নির্বাচিত হয়েছে ‘ন ডরাই’ ও ‘ফাগুন হাওয়ায়’

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশীয় চলচ্চিত্রের সবচেয়ে সম্মানজনক জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৯ ঘোষণা করা হয়েছে। তথ্য মন্ত্রণালয় ২০১৯ সালের পুরস্কার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করে গেজেট প্রকাশ করেছে ৩ ডিসেম্বর।

যৌথভাবে আজীবন সমাননা পাচ্ছেন দেশের খ্যাতিমান দুই অভিনেতা-অভিনেত্রী সোহেল রানা ও কোহিনুর আক্তার সুচন্দা।
সেরা চলচ্চিত্র নির্বাচিত হয়েছে ‘ন ডরাই’ ও ‘ফাগুন হাওয়ায়’।

‘আবার বসন্ত’ সিনেমার জন্য সেরা অভিনেতার পুরস্কার জিতেছেন খ্যাতিমান অভিনেতা তারিক আনাম খান।
‘ন ডরাই’ এ অভিনয়ের জন্য সেরা অভিনেত্রী হয়েছেন সুনেরাহ বিনতে কামাল। লাপলুডু ছবিতে অভিনয় করে শ্রেষ্ঠ খল অভিনেতার পুরস্কার পাচ্ছেন জাহিদ হাসান। এছাড়া যদি একদিন-এর জন্য আফরীন আক্তার এবং কালো মেঘের ভেলা ছবির জন্য নাইমুর রহমান আপন শ্রেষ্ঠ শিশু শিল্পী হিসেবে পুরস্কার জিতেছে।

২০১৯ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার দিতে জুরি বোর্ড গঠন করে সরকার। গঠিত বোর্ড সংশ্লিষ্ট নীতিমালা অনুযায়ী মুক্তিপ্রাপ্ত চলচ্চিত্রগুলো মূল্যায়ন করে পুরস্কারপ্রাপ্তদের নাম সুপারিশ করে। আর এর ভিত্তিতে নাম ঘোষণা করা হয়েছে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার জয়ীদের নাম।

অভিনেতা তৌসিফের স্ত্রীর করোনা, দুজনেই আইসোলেশনে

বিনোদন প্রতিবেদক : এ প্রজন্মের জনপ্রিয় নাট্য অভিনেতা তৌসিফ মাহবুবের স্ত্রী জারা মাহবুব করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তার শরীরে জ্বর এবং সঙ্গে শ্বাসকষ্টও রয়েছে। শুটিং থেকে বিরতি নিয়ে তৌসিফই স্ত্রীকে দেখাশোনা করছেন।

অভিনেতা ধারণা করছেন, তিনি নিজেও করোনায় আক্রান্ত। তবে তার শরীরে কোনো ধরনের উপসর্গ নেই। তার পরও ঝুঁকি এড়াতে তাকে করোনা টেস্ট করানোর তাগিদ দিয়েছেন চিকিৎসক। কিন্তু তিনি এখনো করোনা পরীক্ষা করাননি। বর্তমানে স্ত্রীর সঙ্গে তিনি আইসোলেশনে আছেন।

তৌসিফ জানান, ‘গত ২৩ নভেম্বর আমার শ্বশুর-শাশুড়ি করোনায় আক্রান্ত হন। তখন স্ত্রীর সঙ্গে শ্বশুরবাড়িতেই ছিলাম। পরদিন জারার শারীরিক অবস্থা খারাপ হলে করোনা টেস্ট করাই। ফলাফল পজিটিভ আসে। সেদিন থেকেই আমরা দুজন একসঙ্গে আইসোলেশনে আছি।’

গত ২৪ নভেম্বর তৌসিফ সর্বশেষ ‘বিফলে মূল্য ফেরত’ নাটকের শুটিং করেন। সেখানে তার সহশিল্পী ছিলেন সাফা কবির। বর্তমানে তৌসিফের হাতে আরও কয়েকটি নাটকের কাজ রয়েছে। তবে শ্বশুরবাড়ি থেকে করোনায় সংক্রমিত হতে পারেন ধারণা করে তিনি আপাতত শুটিং করছেন না।

৬০ বছরের পুরনো গান অভিনেতা চঞ্চলের কণ্ঠে

বিনোদন প্রতিবেদক : ছোট ও বড় পর্দার তুমুল জনপ্রিয় অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী। যেমন তার অভিনয়, তেমন গানেও তিনি পারদর্শী। অডিও গানের পাশাপাশি নিজের অভিনীত সিনেমায়ও গান গেয়েছেন চঞ্চল। এবার বহু পুরনো সিনেমার খুবই জনপ্রিয় একটি গানে নতুন করে কণ্ঠ দিয়েছেন এই অভিনেতা কাম গায়ক।

গানটি হচ্ছে ষাটের দর্শকে মুক্তিপ্রাপ্ত রাজ্জাক-কবরী অভিনীত ‘দর্পচূর্ণ’ ছবির ‘তুমি যে আমার কবিতা’। বিখ্যাত এই গানটির মূল শিল্পী মাহামুদুন্নবী ও সাবিনা ইয়াসমিন। নতুন করে গাওয়া গানটিতে চঞ্চল চৌধুরীর সঙ্গে কণ্ঠ দিয়েছেন সিঁথি সাহা।

নতুন করে এ গানটির সংগীত পরিচালনা করেছেন জেকে মজলিশ। গত ৩০ নভেম্বর রাজধানীর একটি স্টুডিওতে গানটির রেকর্ড হয়েছে। আগামী ১০ ডিসেম্বর রাজধানীর একটি পাঁচতারকা হোটেলে আয়োজিত ‘চ্যানেল আই মিউজিক অ্যাওয়ার্ড’-এর জমকালো মঞ্চে গানটি পরিবেশন করা হবে।

এর আগে অক্টোবরে ‘যুবতী রাধে’ শিরোনামের একটি গানে কণ্ঠ দেন চঞ্চল চৌধুরী। সেই গানে যৌথভাবে আরও কণ্ঠ দেন অভিনেত্রী ও গায়িকা মেহের আফরোজ শাওন। গানটি ইউটিউবে ব্যাপক আলোড়ন তোলে। এবার ‘তুমি যে আমার কবিতা’ কতটা সাড়া ফেলে সেটা দেখার অপেক্ষা।

নতুন লুকে শাহরুখ খান

বিনােদন ডেস্ক : দীর্ঘ বিরতির পর আবারো শুটিংয়ে ফিরেছেন বলিউড সুপারস্টার শাহরুখ খান। তার পরবর্তী সিনেমা ‘পাঠান’। সিনেমাটি প্রযোজনা করছে যশরাজ ফিল্মস। এদিকে সোমবার (৩০ নভেম্বর) প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানটির সামনে শাহরুখকে নতুন লুকে দেখা গেছে। তার মাথায় লম্বা চুল, মুখে দাড়ি ও চোখে চশমা ছিল। এই সময় তার পরনে ছিল সাদা টি-শার্ট ও ডেনিমের প্যান্ট।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছবিটি ভাইরাল হয়েছে। নতুন লুকে শাহরুখকে দেখে বেশ উচ্ছ্বসিত এই অভিনেতার ভক্তরা। আবারো পর্দায় প্রিয় তারকাকে দেখার অপেক্ষায় তারা।

‘পাঠান’ সিনেমাটি পরিচালনা করছেন সিদ্ধার্থ আনন্দ। এতে আরো অভিনয় করছেন জন আব্রাহাম ও দীপিকা পাড়ুকোন। সিনেমাটিতে অতিথি চরিত্রে সালমান খানকে দেখা যাবে বলে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে।

শাহরুখ অভিনীত সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমা ‘জিরো’। ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে মুক্তি পায় এটি। আনন্দ এল রাই পরিচালিত সিনেমাটিতে আরো অভিনয় করেন আনুশকা শর্মা ও ক্যাটরিনা কাইফ। সিনেমাটি বক্স অফিসে খুব বেশি সুবিধা করতে পারেনি।

বিশ্রামে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত সানি দেওল

বিনােদন ডেস্ক : খামার বাড়িতে বন্ধুদের সঙ্গে ভালোই কাটছিল সানি দেওলের সময়। কিন্তু মুম্বাই ফেরার আগে ঘটল বিপত্তি। টেস্ট করাতেই জানা গেল, তার করোনা পজিটিভ।

বলিউড অভিনেতা ও বিজেপির সংসদ সদস্য সানি দেওলের আক্রান্ত হওয়ার খবর মঙ্গলবার নিশ্চিত করেছেন হিমাচল প্রদেশের স্বাস্থ্য সচিব।

এরপর বুধবার নিজের টুইটার হ্যান্ডল থেকে কভিড-১৯ পজিটিভ হওয়ার কথা জানিয়েছেন ‘ঘায়েল’ অভিনেতা নিজেই। সাম্প্রতিককালে তার কাছাকাছি আসা ব্যক্তিদের আইসোলেশনে থাকার জন্য অনুরোধও করেন।

টুইটে সানি লেখেন, “করোনাভাইরাস পরীক্ষা করেছিলাম। রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। সম্প্রতি আমার সংস্পর্শে যারা এসেছিলেন তাদের অনুরোধ করছি আইসোলেশনে থাকার ও পরীক্ষা করানোর।”

সানি পাঞ্জাবের গুরুদাসপুরের আসন থেকে বিজেপির নির্বাচিত সংসদ সদস্য। তিনি কয়েক দিন ধরে হিমাচল প্রদেশের মানালির কাছে বন্ধুদের সঙ্গে একটি খামার বাড়িতে ছিলেন। সেখান থেকে তারা মুম্বাই ফেরার পরিকল্পনা ছিল। ফেরার আগে করা করোনা টেস্টেই রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

কিছুদিন আগে মুম্বাইয়ে ৬৪ বছরের এই অভিনেতার কাঁধে অস্ত্রোপচার হয়। এর পর থেকে তিনি মানালিতে বিশ্রাম নিচ্ছিলেন।

সানি দেওলকে সর্বশেষ অভিনয়ে দেখা গেছে গত বছরের ‘ব্ল্যাঙ্ক’ ছবিতে। এ ছাড়া পরিচালনা করেন ‘পাল পাল দিল কে পাস’। এ ছবিতে নায়ক হিসেবে তার ছেলে করণ দেওলের অভিষেক।

চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি খান আতার মৃত্যুবার্ষিকী আজ

বিনােদন ডেস্ক : দেশীয় চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি খান আতাউর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী আজ। ১৯৯৭ সালের ১ ডিসেম্বর তিনি সবাইকে কাঁদিয়ে চলে যান না ফেরার দেশে। একাধারে তিনি চলচ্চিত্র অভিনেতা, সুরকার, গীতিকার, গায়ক, চলচ্চিত্র নির্মাতা, সংলাপ রচয়িতা, প্রযোজক, সংগীত পরিচালক ও কাহিনীকার হিসেবেও রেখে গেছেন সাফল্যের স্বাক্ষর। তিনি খান আতা নামে বহুল পরিচিত।

খান আতা ১৯২৮ সালের ১১ ডিসেম্বর মানিকগঞ্জ জেলার সিংগাইর গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন। ১৯৫৮ সালে এ জে কারদারের ‘জাগো হুয়া সাভেরা’ সিনেমাতে আনিস নামে নায়ক হিসেবে প্রথম অভিনয় করেন তিনি। একই নামে ১৯৫৯ সালে এহতেশামের ‘এদেশ তোমার আমার’ সিনেমাতেও অভিনয় করেন। একই সিনেমাতে খান আতাউর রহমান সংগীত পরিচালক, গীতিকার ও সুরকারও ছিলেন।

১৯৬১ সালে ‘কখনো আসেনি’ সিনেমাতে খান আতা নায়ক হয়ে আসেন। এরপর বন্ধু জহির রায়হানের ‘জীবন থেকে নেয়া’, ‘কাঁচের দেয়াল’সহ ‘সোনার ফুল’, ‘সূর্যস্নান’, ‘নবাব সিরাজউদ্দৌলা’, ‘জোয়ার ভাটা’, ‘আপন পর’, ‘ত্রিরত্ন’, ‘সুজন সখী’, ‘মাটির মায়া’সহ অসংখ্য সিনেমাতে গীত রচনা, সংগীত, অভিনয়, কাহিনী, চিত্রনাট্য করেন।

১৯৯৭ সালে সর্বশেষ তিনি ‘এখনো অনেক রাত’ সিনেমাটি নির্মাণ করেন। একই বছর ১২ই ডিসেম্বর সিনেমাটি মুক্তির দিনও ধার্য করা হয়। কিন্তু রাত শেষ না হতেই পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে চলে যান সবার প্রিয় খান আতা।

ডায়ানা প্রসঙ্গে নেটফ্লিক্স সিরিজ নিয়ে ব্রিটিশ সরকারের ‘আপত্তি’

বিনােদন ডেস্ক : নেটফ্লিক্স সিরিজ ‘দ্য ক্রাউন’ নিয়ে এত দিন ব্রিটিশ সরকারের পক্ষ থেকে কোনো আপত্তি আসেনি। তবে চতুর্থ সিজনে এসে বলা হচ্ছে, সিরিজটির আগে ‘ফিকশন’ শব্দটি বসাতে হবে।

যতই বাস্তব চরিত্র নিয়ে তৈরি হোক, এটি একটি কাল্পনিক সিরিজ বলে দর্শকদের জানাতে হবে নির্মাতাদের।

সম্প্রতি ই-মেইল মাধ্যমে ব্রিটেনের সেক্রেটারি ফর স্টেট অ্যান্ড কালচার অলিভার ডাউডেন এই কথা জানান।

সেখানে বলা হয়েছে, ‘‘এটি খুব সুন্দর কাল্পনিক সিরিজ। যেভাবে অন্যান্য শো ‘ফিকশন’ বলে দেওয়া হয়, ‘দ্য ক্রাউন’-এর আগেও তা দিতে হবে।”

চতুর্থ সিজনে যুবরাজ চার্লস ও ডায়ানার বিয়ে এবং তাদের সম্পর্কের জটিলতা দেখানো হয়েছে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমের একাংশের বক্তব্য, চার্লস-ডায়ানার বিয়েতে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের ভূমিকা এবং চার্লসকে নেতিবাচক দৃষ্টিতে দেখানো নিয়েই মূল আপত্তি।

‘দ্য ক্রাউন’-এর স্রষ্টা পিটার মরগ্যান সিরিজের শুরু থেকেই অনেক কিছু নিজের মতো করে সাজিয়ে নিয়েছিলেন। চতুর্থ পর্বেও তিনি সিনেমাটিক লাইসেন্স নিয়েছেন। কোথায় তিনি সত্যনিষ্ঠ থেকেছেন আর কোথায় কল্পনার আশ্রয় নিয়েছেন, তা নিয়ে ব্রিটিশ মিডিয়া এই ক’দিন চুলচেরা বিশ্লেষণ করেছে।

তবে গোটা বিষয়টি নিয়ে রাজপরিবারের পক্ষ থেকে সরাসরি কোনো মন্তব্য করা হয়নি।

একুশে পদকপ্রাপ্ত ওস্তাদ শাহাদাত হোসেন খান আর নেই

বিনােদন রিপাের্ট : করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রখ্যাত সরোদবাদক ওস্তাদ শাহাদাত হোসেন খান মারা গেছেন। শনিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর ক্রিসেন্ট হাসপাতালে তিনি মারা যান।

ওস্তাদ শাহাদাত হোসেন খানের ভাগনে সেতার বাদক ফিরোজ খান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, করোনায় আক্রান্ত হলে ১২ দিন আগে তিনি ক্রিসেন্ট হাসপাতালে ভর্তি হন শাহাদাত হোসেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার সন্ধ্যায় তার মৃত্যু হয়।

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬২ বছর। তিনি স্ত্রী, দুই কন্যাসহ অসংখ্যক শিক্ষার্থী, ভক্ত-অনুরাগী রেখে গেছেন।

সঙ্গীতে অবদানের জন্য ১৯৯৪ সালে একুশে পদক লাভ করেন ওস্তাদ শাহাদাত হোসেন। এছাড়া তিনি কলকাতার রাজ্য সংগীত একাডেমি কর্তৃক সংবর্ধিত হন।

উল্লেখ্য, শাহাদাত হোসেন খান ১৯৫৮ সালের ৬ জুলাই কুমিল্লা জেলার এক সঙ্গীত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা ওস্তাদ আবেদ হোসেন খান একজন প্রখ্যাত উচ্চাঙ্গ সঙ্গীতশিল্পী ও সেতার বাদক ছিলেন।

তার দাদা ওস্তাদ আয়েত আলী খাঁ উপমহাদেশের প্রখ্যাত সঙ্গীতজ্ঞ এবং ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁর ছোট ভাই। তার দুই চাচা প্রখ্যাত সঙ্গীতজ্ঞ বাহাদুর হোসেন খান এবং সঙ্গীত গবেষক ও লেখক মোবারক হোসেন খান।

শবনম ফারিয়ার ঘর ভেঙেছে

বিনােদন ডেস্ক : আবারও শোবিজ অঙ্গনে ভাঙনের খবর! বিয়ের ১ বছর ৯ মাসের মাথায় এবার সংসার জীবনের ইতি টেনেছে ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া। স্বামী হারুন অর রশীদ অপুকে ডিভোর্স দিয়েছেন তিনি। শনিবার (২৮ নভেম্বর) সন্ধ্যা ৬টার দিকে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক আইডিতে এক স্ট্যাটাসে এ তথ্য নিশ্চিত করেন ফারিয়া।

যেখানে তিনি বলেন, ‘গত শুক্রবার (২৮ নভেম্বর) উভয়ের সম্মতিতে আমাদের বিচ্ছেদ হয়েছে। তবে ডিভোর্সের উল্লেখযোগ্য কোন কারণ নেই। ’

নিজেদের সুখের জন্য নাকি আলাদা হয়েছেন তারা। তাই অহেতুক বিভ্রান্তি না ছড়ানোরও অনুরোধ জানান এই অভিনেত্রী।

তবে গণমাধ্যমের কাছে বিচ্ছেদের কারণ না জানালেও তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে অনেক কথাই তুলে ধরেছেন ফারিয়া। যেখানে তিনি বলেন, ‘মানুষের জীবন নদীর মতো। কখনও জোয়ার, কখনও ভাটা। কখনও বৃষ্টিতে পানি বেড়ে যায়, শীতকালে পানি শুকিয়ে যায়। আমাদের জীবনেও এমনটা হয়! আমাদের জীবনে কিছু মানুষ আসে; কেউ কেউ স্থায়ী হয়, কেউ কেউ কিছু কারণে স্থায়িত্ব ধরে রাখতে পারে না! ’

ফারিয়া বলেন, ‘আমার মা সব সময় একটা কথা বলে, “আল্লাহর হুকুম ছাড়া একটা গাছের পাতাও নড়ে না, আমরা শুধু চেষ্টা করতে পারি!“ ঠিক সেভাবেই আমি আর অপু অনেকদিন ধরেই চেষ্টা করেছি একসাথে থাকতে! কিন্তু বিষয়টা একটা পর্যায়ে খুব কঠিন হয়ে যায়! “মানুষ কি বলবে” ভেবে নিজেদের উপর একটু বেশিই টর্চার করে ফেলছিলাম আমরা! জীবনটা অনেক ছোট, এতো কষ্ট নিয়ে বেঁচে থাকার কি দরকার? এইটা ভেবে আমরা এ বছরের শুরু থেকেই সিদ্ধান্তে আসি আমরা আর একসাথে থেকে কষ্টে থাকতে চাই না!’

তাও বছর খানেক সময় নিয়েছি পরষ্পরকে বুঝতে! ফাইনালি “আল্লাহ্ যা করেন ভালোর জন্যেই করেন” ভেবে আমরা আমাদের প্রায় আড়াই বছরের বৈবাহিক জীবনের অবসান ঘটিয়ে আবারও ৫ বছরের পুরানো বন্ধুত্বে ফিরে গিয়েছি।
বিবাহে বিচ্ছেদ হয়, কিন্তু ভালবাসার বিচ্ছেদ নেই! বন্ধুত্বের বিচ্ছেদ নেই! যতদিন বেঁচে আছি আমাদের ভালবাসা ও বন্ধুত্ব থাকবে! শুধুমাত্র বৈবাহিক বন্ধন থেকে আমাদের সম্পর্কের ইতি টেনে নিলাম! এ ঘটনা আমাদের জীবনের গতি হয়তো রোধ করবে, ছন্দপতন করবে কিন্তু জীবন তো থেমে থাকবে না!

সাবেক স্বামী অপুকে নিয়ে বলেন, ‘অপুর জন্যে আমার অনেক অনেক দোয়া, ভালবাসা আর শুভ কামনা। আমরা যে সুখের জন্যে আলাদা হলাম আমরা যেন সে সুখ খুঁজে পাই। সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন। দয়া করে “মিডিয়ার বিয়ে টেকে না” ধরণের কথা বলে আমাদের জন্যে আমাদের সহকর্মীদের ছোট করবেন না! আমরা সম্পূর্ণ “পারিবারিক কারণে” , পারিবারিক ভাবে, পারিবারিক সম্মতিতেই বিয়ের মতো ইনষ্টিটিউশন থেকে বের হয়ে এসেছি! আমাদের কখনও ভালবাসা কিংবা বিশ্বাসের অভাব ছিল না, হবেও না!

বিভ্রান্তি না ছড়াতে গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে অনুরোধ জানিয়ে শবনম বলেন, ‘আমার প্রিয় সাংবাদিক ভাই/বোনদের উদ্দেশ্যে একটাই অনুরোধ, দয়া করে একটু মানবিকতার সাথে বিষয়টা দেখবেন! প্লিজ! দুজন মানুষের বিবাহ্ বিচ্ছেদ মানে, দুইটা পরিবারের বিচ্ছেদ, অনেক স্মৃতির বিচ্ছেদ! অনেক ভালো সময়ের সাথে বিচ্ছেদ এইটা কারও জন্য সুখকর অনুভূতি না! দয়া করে মুখরোচক অদ্ভুত সংবাদ প্রকাশ করে আমাদের আর বিব্রত করবেন না! আমরা একে অন্যের উপর সম্পূর্ণ সন্মান বজায় রাখতে চাই!’

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালে ফেসবুকে হারুন অর রশীদ অপুর সঙ্গে পরিচয় ঘটে, তারপর প্রেম। তিন বছর পর ২০১৮ সালের আংকটি বদল করেন। পরের বছর ২০১৯ সালের ১ ফেব্রুয়ারি বেশ জমকালো আয়োজনে সংসার জীবনে পা রাখের ফারিয়া-অপু। কিন্তু প্রেমের সম্পর্ক তিন বছর টিকলেও ২ বছরও টিকল না ভাঙল সাংসারিক জীবন।

৬৭৭