কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ৩ কিশাের নিহত

ডেস্ক রিপাের্ট : যশোর কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে তিন কিশোর নিহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকালে শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের অভ্যন্তরে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

সন্ধ্যায় নিহতদের লাশ যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তৌহিদুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

নিহতরা হল- বগুড়ার শিবগঞ্জের তালিবপুর পূর্বপাড়ার নান্নু প্রামাণিকের ছেলে নাঈম হোসেন (১৭), খুলনার দৌলতপুরের রোজা মিয়ার ছেলে পারভেজ হাসান রাব্বি (১৮) ও বগুড়ার শেরপুর উপজেলার মহিপুর গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে রাসেল ওরফে সুজন (১৮)। এর মধ্যে নাইম হোসেন ধর্ষণ এবং পারভেজ হত্যা মামলায় শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে অন্তরীণ ছিল।

যশোর পুলিশের ডিএসবি ডিআই-১ পুলিশ পরিদর্শক এম মশিউর রহমান জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের অভ্যন্তরে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে তিনজন নিহত হয়েছে। শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের কর্মকর্তারা সন্ধ্যায় লাশ হাসপাতাল মর্গে নিয়ে এসেছেন। কী কারণে এবং কখন হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

অপর একটি সূত্র জানায়, পুলেরহাট শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে (বালক) পাভেল গ্রুপ ও রবিউল গ্রুপ রয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুর ২টার দিকে উভয় গ্রুপের আধিপত্যকে কেন্দ্র করে মারামারির ঘটনা ঘটে। ফলে পাভেল গ্রুপের পারভেজ হাসান রাব্বি, রাসেল ওরফে সুজন এবং রবিউল গ্রুপের নাঈম হোসেন গুরুতর জখম হয়।

শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের কর্তৃপক্ষ তাদের সন্ধ্যা ৭টার দিকে যশোর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

ইউনিসেফের শুভেচ্ছাদূত হতে যাচ্ছেন মুশফিক

নিজস্ব প্রতিবেদক : জাতীয় দলের উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম এবারে হতে যাচ্ছেন জাতিসংঘ শিশু তহবিল-ইউনিসেফ’র শুভেচ্ছদূত। প্রাথমিকভাবে মুশফিকের সঙ্গে আলোচনা আলোচনা চললেও চলতি সপ্তাহ বা এক মাসের ভেতর এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেবে ইউনিসেফ।

বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট) উইনিসেফের একজন কর্মকর্তা সংবাদমাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ইউনিসেফের কর্মকর্তা জানান, ‘মুশফিকের সঙ্গে আমাদের মাস দুয়েক যাবৎ কথা হচ্ছে। উনি আমাদের সঙ্গে শুভেচ্ছদূত হিসেবে যোগ দিবেন। দাপ্তরিক কার্যাদি শেষ করে আনুষ্ঠানিকভাবে আমরা ঘোষণাটি দিব।’

‘কাউকে শুভেচ্ছাদূত মনোনিত করতে গেলে আমাদের বেশকিছু আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে যেতে হয়। তার বায়োডাটা, ব্যাকগ্রাউন্ড তৈরী করে আমাদেরকে সদরদপ্তর পাঠাতে হয়। সদর দপ্তর ওটা দেখে ‘গো অ্যাহেড’ দিলে পরে তারপরে আমরা ঘোষণা দেই। এখন আমাদের প্রাথমিক পর্যায়ের আলাপ আলোচনা চলছে।’

তিনি আর বলেন, ‘তিনি কবে আনুষ্ঠানিকভাবে শুভেচ্ছাদূত হিসেবে যোগ দিচ্ছেন সেটা এখনই বলা যাচ্ছে না। এমন হতে পারে এক সপ্তাহ লাগতে পারে আবার এক মাসও লাগতে পারে।’

এর আগে সাবেক ক্রিকেটার হাবিবুল বাশার সুমন, মোহাম্মদ আশরাফুল ও সাকিব আল হাসান যোগ দিয়েছেন ইউনিসেফ’র শুভেচ্ছাদূত হিসেবে। আর ৪র্থ বাংলাদেশি ক্রিকেটার হিসেবে ইউনিসেফের সঙ্গে যুক্ত হতে যাচ্ছেন মুশফিক।

বাফুফে সহসভাপতি বাদল রায় করোনায় আক্রান্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক : করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন- বাফুফে’র সহসভাপতি ও সাবেক তারকা ফুটবলার বাদল রায়।

বাদল রায় নিজেই করোনায় আক্রান্তের খবর সংবাদমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন। জানান, বুধবার করোনার উপসর্গ নিয়ে রাজধানীর আজগর আলি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। পরীক্ষা করানোর পর কভিড-১৯ রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

জাতীয় ফুটবল দলের সাবেক অধিনায়ক বাদল রায় জানিয়েছেন, চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী বাড়িতে থেকেই চিকিৎসা নিচ্ছেন তিনি।

“আমি এখন ভালো আছি। শুধু সামান্য গলা ব্যথা আছে। এ ছাড়া আর কোনো উপসর্গ নেই। ডাক্তার আমাকে বাড়িতে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। এ জন্য বাড়ি চলে এসেছি। সব রকম নিয়ম মেনে চলছি। আমার সুস্থতার জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া প্রার্থনা করছি।”

এর আগে ২০১৭ সালে মস্তিষ্কে রক্ষণজনিত কারণে দেশের বাইরে দীর্ঘদিন চিকিৎসা নিতে হয়েছিল বাদল রায়কে।

সাবেক এই ফুটবলার বাফুফের সহসভাপতি হিসেবে টানা তিন মেয়াদে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন।

বর্ণাঢ্য খেলোয়াড়ি জীবনে জাতীয় দলের হয়ে ১৯৮১ থেকে ১৯৮৬ সাল পর্যন্ত খেলেছেন। মোহামেডানের জার্সিতে লম্বা সময় মাঠ মাতিয়েছেন সাবেক অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার। ঐতিহ্যবাহী ক্লাবটিতে খেলেছেন ১৯৭৭-১৯৮৯ সাল পর্যন্ত।

সঞ্জয় দত্তের ক্যান্সার নিয়ে গুজবে কান না দেয়ার আহ্বান স্ত্রীর

বিনােদন ডেস্ক : বলিউডের খ্যাতনামা তারকা সঞ্জয় দত্তের ক্যানসার ধরা পড়ার খবর প্রকাশের পর এ নিয়ে গুজবে কান দেয়ার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন তার স্ত্রী মান্যতা দত্ত।

বিবিসি জানায়, মুন্নাভাই এমবিবিএস-খ্যাত তারকার ফুসফুসের ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছেন বলে সংবাদমাধ্যমে খবর হলেও তিনি নিজে বা তার পরিবার এ নিয়ে কোন কথা বলেননি।

৬১ বছর বয়সী এই অভিনেতা সম্প্রতি শ্বাসকষ্ট নিয়ে মুম্বাইয়ের লীলাবতী হাসপাতালে ভর্তি হন।

তারপর থেকেই তার শারীরিক অবস্থা নিয়ে ভক্তদের মধ্যে জোর আলোচনা শুরু হয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেকেই তার প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন এবং তার আশু রোগমুক্তি কামনা করেছেন।

এক বিবৃতিতে মান্যতা দত্ত তার স্বামীর জন্য প্রার্থনা করতে ভক্তদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, সাঞ্জুর ফ্যানদের প্রতি আবেদন জানাবো তারা যেন কোনো ধরনের গুজব বা কানাঘুষায় যোগ না দেন। আমি শুধু চাই আপনারা আমাদের জন্য প্রীতি আর হৃদয়ের উষ্ণতা জানাবেন এবং আমাদের প্রতি সমর্থন দেবেন।

তিনি বলেন, আমাদের এই পরিবারটি অতীতে বহু সমস্যার মোকাবেলা করেছে। আমি নিশ্চিত যে এবারও আমরা সেটা পারবো।

ফুসফুসের ক্যান্সার সম্পর্কে কোনো কথা না বললেও সঞ্জয় দত্ত মঙ্গলবার সামাজিক মাধ্যমে জানান যে, স্বাস্থ্যগত কারণে তিনি কাজ থেকে বিরতি নিচ্ছেন।

ভারতের টাইমস নাও ওয়েবসাইট খবর দিয়েছে যে, সঞ্জয়ের ক্যান্সার এখন স্টেজ-থ্রি পর্যায়ে রয়েছে।

এর মানে ক্যান্সারের টিউমারটি ফুসফুসের আশেপাশে ছড়িয়ে পড়লেও সেটা অন্যান্য অঙ্গপ্রত্যঙ্গকে আক্রান্ত করতে পারেনি।

বিশিষ্ট চলচ্চিত্র সাংবাদিক এবং ফিল্ম ইনসাইডার-এর প্রধান সম্পাদক কোমল নাহতা এক টুইটার পোস্টে সঞ্জয়ের ক্যান্সার হওয়ার খবর দিয়েছেন।

তিনি বলেন, সঞ্জয় দত্তের ফুসফুসের ক্যান্সার ধরা পড়েছে। আসুন সবাই তার জন্য প্রার্থনা করি।

চিকিৎসার জন্য তিনি শিগগিরই যুক্তরাষ্ট্রে যাবেন বলে ফিল্ম ইনসাইডারের সাইটে বলা হয়।

আবারও মা হচ্ছেন কারিনা, সুখবর দিলেন সাইফ আলী খান

বিনােদন ডেস্ক : আবারও মা হতে চলেছেন কারিনা কাপুর, এমন জল্পনা শোনা যাচ্ছিল বেশ কিছুদিন ধরে। বুধবার বিষয়টি নিশ্চিত করলেন স্বামী সাইফ আলি খান।

টাইমস অব ইন্ডিয়া জানায়, বম্বে টাইমসকে সাক্ষাৎকারে সাইফ জানান যে তাদের ঘরে নতুন অতিথি আসতে যাচ্ছে।

এজেন্ট বিনোদ অভিনেতা বলেন, আমরা খুবই খুশি যে আমাদের পরিবার আরও একটু বড় হতে চলেছে। আপনাদের ভালোবাসা ও সহযোগিতার জন্য ধন্যবাদ।

বেশ কিছুদিন ধরেই কারিনা ও সাইফের দ্বিতীয় সন্তান আসতে যাচ্ছে এমন খবর শোনা যাচ্ছিল বলিপাড়ায়।

সম্প্রতি ছেলে তৈমুরকে নিয়ে এ তারকা দম্পতিকে মেরিন ড্রাইভে দেখা গিয়েছিল। সে সময় তৈমুরের মুখে মাস্ক না থাকা নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়।

তবে কারিনার ঢিলেঢালা পোশাকও নজর এড়ায়নি নেটিজেনদের। বেবি-বাম্পের জন্যই হয়তো ঢিলে পোশাক পরতে শুরু করেছেন কারিনা।

২০১৬ সালের ডিসেম্বরে প্রথম মা হন কারিনা। পুত্র তৈমুর আলি খান জন্মের পর থেকেই সেলিব্রিটি। তৈমুরের নাম রাখা নিয়েও বিতর্ক হয়েছিল সেই সময়। কিছুদিন বিরতির পর কাজে যোগ দিয়েছিলেন করিনা। পরবর্তীতে তৈমুরকে বড় করে তোলার জন্য দীর্ঘ বিরতি নিয়েছিলেন অভিনেত্রী।

মুসলিম হয়েও গীতা-বাইবেল পড়েছি: নুসরাত

বিনােদন ডেস্ক : মুসলিম পরিবারের মেয়ে হয়েও সব ধর্মের প্রতি ভালোবাসার কথা বলে আসছেন টলিউডের নায়িকা নুসরাত জাহান। ঈদ যেমন পালন করেন, একইভাবে তাকে দেখা যায় ক্রিসমাস, দুর্গাপূজা, জন্মাষ্টমীতেও।

সংবাদ প্রতিদিন জানায়, এবারের জন্মাষ্টমী শ্বশুরবাড়িতেই পালন করেছেন তৃণমূল কংগ্রেসের এ সাংসদ। স্বামী নিখিল জৈনের সঙ্গে একটি ছবি শেয়ার করে অনুরাগীদের জন্মাষ্টমীর শুভেচ্ছা বার্তাও দিয়েছেন তিনি।

একইভাবে লোকনাথ বাবার জন্মতিথি উপলক্ষে জাতি, ধর্ম নির্বিশেষে ঐক্যবদ্ধ ভারতের বার্তা দিলেন নুসরাত।

নিজের সংসদীয় এলাকা বসিরহাটের কচুয়ার বাবা লোকনাথ শান্তিধামের একটি ছবি পোস্ট করেন ফেসবুকে। সেখানে লোকনাথের মূর্তির প্রতি সম্মান প্রদর্শন করেন। এতে বিরূপ মন্তব্যও শুনতে হয় তাকে।

তবে নুসরাতের ভাষ্য, ‘ঈশ্বর এক ও অদ্বিতীয়। আমি নুসরাত জাহান। মুসলিম পরিবারের মেয়ে। আমি ধর্মের ভেদাভেদ মানি না। আমি যেমন কোরান পড়েছি। তেমন গীতা ও বাইবেলও পড়েছি। সেখানে কোথাও ধর্মের ভেদাভেদ ও হানাহানির কথা বলা হয়নি।’

এই ক্যাপশনের সঙ্গে #SecularIndia, #HumaneIndia-এমন হ্যাশট্যাগ জুড়ে দেন তিনি।

কয়েকদিন আগে অযোধ্যায় রাম মন্দিরের ভিত্তিপ্রস্তরের সময় ভূমিপূজা উপলক্ষে নুসরাত স্পষ্ট জানিয়ে দেন যে, তিনি মন্দির এবং মসজিদ দুটোকেই বেছে নিয়েছেন। তার কাছে আল্লাহ এবং ঈশ্বর অভিন্ন।

`একদিন পাখি উড়ে যাবে যে আকাশে’ গানের শিল্পি আকবর অসুস্থ, কথা রাখেননি অভিনেতা জায়েদ খান

বিনােদন ডেস্ক : ডায়াবেটিস, কিডনিসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত গায়ক আকবরের শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে। বৃহস্পতিবার এ তথ্য জানিয়েছেন শিল্পীর স্ত্রী কানিজ ফাতেমা সীমা।

তিনি বলেন, ‘বেশ কয়েক বছর ধরেই বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত আকবর। মাঝে হাসপাতালে ভর্তিও হয়েছেন। এখন করোনা পরিস্থিতির কারণে বাসায় থেকে চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে চলছেন। কিছুদিন ধরে ফের অবস্থার অবনতি হয়েছে।’

এদিকে গত এপ্রিলের শেষের দিকে গণমাধ্যমে আকবরের অসুস্থতার খবর শোনার পর নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রীর প্যাকেট নিয়ে আকবরের মিরপুরের বাসা যান চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান।

সেইসঙ্গে অসুস্থ আকবরের চিকিৎসার দায়িত্ব নেয়ার ঘোষণা দেন সাংবাদিকদের কাছে। তখন আকবরকে নগদ ১০ হাজার টাকা তুলে দেন এবং একবার ডাক্তার দেখানোর ব্যবস্থাও করে দেন, পরে আর খোঁজ নেননি।

আকবরের স্ত্রী কানিজ ফাতেমা বলেন, ‘জায়েদ ভাইকে প্রায় এক মাস ধরে নিয়মিত ফোন দিচ্ছি। আজকেও (বৃহস্পতিবার) কয়েকবার ফোন দিয়েছি, তিনি ফোন ধরেন না। গত এপ্রিল মাসে আমাদের সঙ্গে দেখা করার পর একবার ডাক্তার দেখানোর ব্যবস্থা করে দিয়েছিলেন, পরে ডাক্তারের রিপোর্ট আসার পর তাকে ফোন দিয়েছি, তিনি ফোন ধরেন না।’

আকবরের চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রীর অফিস থেকে ২০ লাখ টাকার একটি অনুদানের সঞ্চয়পত্র দেওয়া হয়েছে, যেখান থেকে প্রতি তিন মাস পর পর ৪৯ হাজার টাকা তুলতে পারেন। এই টাকাতে চিকিৎসার খরচ মেটানো যাচ্ছে না বলে জানান কানিজ ফাতেমা।

তিনি বলেন, ‘এর আগে একবার লোনের টাকা নিয়ে ভারতে গিয়ে চিকিৎসা করিয়েছি। আবার ভারতে নিয়ে যেতে চাই। সঞ্চয়পত্রের টাকা ভাঙানো যাচ্ছে না। তিন মাস পর পর যে টাকা আসে, সেটা দিয়ে চিকিৎসার খরচ মেটানো যাচ্ছে না। প্রধানমন্ত্রীর অফিসে যোগাযোগ করে চেষ্টা করছি সঞ্চয়পত্রটা ভাঙানো যায় কিনা। এই টাকাটা তুলতে পারলে ভারতে নিয়ে যাব।’

কিশোর কুমারের ‘একদিন পাখি উড়ে যাবে’ নতুন করে গেয়েছিলেন আকবর আলী গাজী। সবার কাছে তিনি আকবর নামে পরিচিত।

ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘ইত্যাদি’তে প্রচারিত এই গান তাকে আলোচনায় নিয়ে আসে। এরপর ‘তোমার হাত পাখার বাতাসে’ গানটি দেশে ও দেশের বাইরের দর্শক-শ্রোতাদের কাছে তাকে পরিচিত করে তোলে।

সাত বছর ধরে ডায়াবেটিসে ভুগছেন আকবর। দুই বছর ধরে শরীরে বাসা বেঁধেছে জন্ডিস, রক্তের প্রদাহসহ নানা রোগ। তাই আগের মতো এখন আর স্টেজ শো করতে পারেন না। সর্বশেষ গান গেয়েছেন ১১ জানুয়ারি, সাভারে। এরপর থেকে বিছানায়। আজ বৃহস্পতিবার আকবর ফেইসবুকে লিখেছেন, ‘আমি খুবই অসুস্থ। সবাই আমার জন‍্য দোয়া করবেন।’

আকবরের স্ত্রী বলেন, ‘আগে থেকেই আকবর ডায়াবেটিসে আক্রান্ত, এখন বেড়েছে। কিডনিতে সমস্যা দেখা দিয়েছে। দুই বছর ধরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসা করাচ্ছি। কিন্তু এখন অবস্থা এমন পর্যায়ে, হাতে কোনো টাকা নেই। সাত মাস ধরে তো করোনার কারণে আমাদের আয়-উপার্জন একেবারেই বন্ধ, যার জন্য আর্থিক সংকটে পড়তে হয়েছে। এখন ঔষুধ কিনতে গিয়ে হিমশিম খেতে হচ্ছে।’

যশোর শহরে রিকশা চালাতেন আকবর। খুলনার পাইকগাছায় জন্ম হলেও আকবরের বেড়ে ওঠা যশোরে। সেখানে টুকটাক গান করতেন। তবে গান নিয়ে ছোটবেলা থেকে হাতেখড়ি ছিল না। আকবরের ভরাট কণ্ঠের গানের কদর ছিল যশোর শহরে। সে কারণে স্টেজ শো হলে ডাক পেতেন। ২০০৩ সালে যশোর এম এম কলেজের একটি অনুষ্ঠানে গান গেয়েছিলেন আকবর।

বাগেরহাটের একজন আকবরের গান শুনে মুগ্ধ হন। তিনি জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘ইত্যাদি’তে চিঠি লেখেন আকবরকে নিয়ে। এরপর ‘ইত্যাদি’ কর্তৃপক্ষ আকবরের সঙ্গে যোগাযোগ করে। ওই বছর ‘ইত্যাদিতে ‘একদিন পাখি উড়ে যাবে যে আকাশে’-কিশোর কুমারের এই গানটি গেয়ে রাতারাতি পরিচিতি পেয়ে যান আকবর।

হাত জীবাণুমুক্ত করে ঘুষ নেওয়া ওসি স্ট্যান্ড রিলিজ!

ডেস্ক রিপাের্ট : লালমনিরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহফুজ আলমের ঘুষ গ্রহণের সাত মিনিটের একটি ভিডিও ফাঁস হয়েছে। ভিডিওটি এখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঘুরছে। তিনি এই ঘুষ গ্রহণ করেছেন একটি মারামারি মামলার আসামিপক্ষের লোকজনের কাছ থেকে।

মামলার আসামিকে তিনি গ্রেপ্তার না করে আসামিপক্ষের কাছ থেকে টাকা নিয়ে ওই মামলার বাদীকেই হয়রানি করতে ঘুষ গ্রহণ করতে দেখা যায় ওই ভিডিওতে। এ ঘটনায় ওসিকে স্ট্যান্ড রিলিজ করে ঢাকার টু¨রিষ্ট পুলিশে বদলি করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

ফাঁস হওয়া ভিডিওতে দেখা যায়, লালমনিরহাট সদর থানায় তার নিজের কক্ষে বসে আছেন ওসি। আর দর্শনার্থীদের চেয়ারে বসে থাকা দু’জনের কণ্ঠ শোনা যাচ্ছে অডিওতে। টেবিলের ওপর থাকা কাগজপত্র দেখছেন আর মাঝে মাঝে ভিডিও’র অপরপ্রান্তে থাকা দুজনের সঙ্গে কথা বলছেন। ওসি মাহফুজ আলম তাঁর অফিসকক্ষে মারামারির মামলায় প্রধান অভিযুক্তকে বাদীপক্ষের বিরুদ্ধে কখন কী মামলা করতে হবে, কীভাবে শায়েস্তা করতে হবে, সে বিষয়ে পরামর্শ দিচ্ছেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তাকে টাকা দিতে বলছেন। টাকা পয়সা লেনদেন সংক্রান্ত প্রেক্ষাপটে ওসি হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে নিজের এবং ঘুষদাতার হাত স্যানিটাইজ করে নিতে দেখা যায়।

ভিডিওতে ওসিকে বলতে শোনা যায়, ‘মামলায় তোমরা যাকে বাদি করতে চাচ্ছ সেতো এখনো কারাগারে আছে। তার জামিন হওয়ার আগেই তাকে বাদি বানিয়ে মামলা নেওয়া হলে বেআইনি হবে। জামিনের কাগজপত্রসহ তোমরা আসলে তখন মামলাটি নথিভূক্ত করা হবে। এর আগে কোনো ঝামেলা হলো তোমরাই প্যাঁচে পরতে পারো।

ওসির ওই কথার পর ঘুষ দাতাদের একজন বলেন, ‘আমরা কোনো ঝামেলা করি নাই, করবও না। প্রয়োজন হলে ওই দিকে যাবে না কেউ’।

মাহফুজ আলম ওই দুজনের উদ্দেশ্যে আরও পরামর্শ দেন, ‘মামলা এখানে (থানায়) একটা করে দেব। কোর্টেও একটা মামলা এবং চেক ডিজঅনার করবে। তখন সে চড়কির মতো ঘুরবে। যারা বুদ্ধিদাতা তারা হেরে যাবে’।

এদিকে ভিডিওটি সাসাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়ার পর বৃহস্পতিবার ওসি মাহফুজ আলমকে ষ্ট্যান্ড রিলিজ করে ঢাকায় টু¨রিষ্ট পুলিশে বদলী করা হয়েছে বলে পুলিশের একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র থেকে জানা গেছে। তবে এ ব্যাপারে লালমনিরহাট জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে কেউ মুখ খোলেননি।

ওসি মাহফুজ আলম বলেন, মামলার বিষয় নিয়ে অনেকেই পরামর্শ করতে আসেন। ঈদের আগেও এসেছেন।

ভিডিওতে ১০ হাজার টাকা ঘুষ নেওয়ার বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি বলেন, এগুলো সব ষড়যন্ত্র। এর বাইরে তিনি কিছু বলতে রাজি হননি।

লালমনিরহাটের পুলিশ সুপার আবিদা সুলতানা বলেন, এ ঘটনায় লালমনিরহাটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।- দেশরূপান্তর

বার্সেলোনায় বিক্রি হচ্ছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো

স্পাের্টস ডেস্ক : বছরে ৩১ মিলিয়ন ইউরো। এতো পরিমাণ বেতন দিয়েও প্রত্যাশা পূরণ হয়নি দলটির। তার উপর সাম্প্রতিক সময়ের মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে ক্লাবটি বেশ আর্থিক সংকটে পড়েছে। সবমিলিয়ে তাই এবার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে বেচে দিতে চাইছে জুভেন্টাস। বেশ কয়েকটি ক্লাবকেই রোনালদোকে কিনে নেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছে তারা। এর মধ্যে রয়েছে বার্সেলোনাও! বিবিসি ৫ রেডিওর লাইভ অনুষ্ঠানে এমনটাই জানিয়েছেন স্প্যানিশ সাংবাদিক গুইলেম বালাগি।

মূলত কোভিড-১৯ মহামারিই বদলে দেয় সব। এ সময়ে আর্থিক সংকটে পড়েছে বিশ্বের প্রায় সব ক্লাবই। তাই রোনালদোর উচ্চ বেতন থেকে মুক্তি পেতে চাইছে ইতালিয়ান ক্লাবটি। তাই একসময়ের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দল বার্সেলোনাতেও তাকে রোনালদোকে বিক্রির চিন্তা করছে জুভেন্টাস। লাইভে বালাগি বলেন, তাকে (রোনালদো) সব জায়গায় প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে, এরমধ্যে রয়েছে বার্সেলোনাও।
আর কেন তাকে বিক্রি করতে চাইছে তার ব্যাখ্যাও দিয়ে আরও বলেন, সে যে পরিমাণ আয় করে তাতে আমি নিশ্চিত না তারা এতো সহজে এ থেকে মুক্তি পাবে কি-না। আসলে সে এখনও ২৩ মিলিয়ন ইউরো আয় করে। যেটা সে রিয়ালে থাকতে আয় করতো তার সমান। তার এতো টাকা কারা পরিশোধ করতে পারবে?

সাম্প্রতিক সময়ে অবশ্য রোনালদোর পিএসজিতে যাওয়ার গুঞ্জন ছিল চড়া। এর আগে রিয়ালে ফেরার গুঞ্জনও উঠেছিল। তবে রিয়াল মাদ্রিদ রোনালদোকে ফেরানোর প্রস্তাব সরাসরি নাকচ করে দিয়েছে বলে জানান এ সাংবাদিক। কী কারণে ক্রিশ্চিয়ানোর পিএসজিতে যাওয়ার গুঞ্জন রয়েছে? এটা এমন না যে পিএসজি তাকে নেওয়ার চিন্তা করছে। এর কারণ জর্জ মেন্ডিসকে রোনালদোর জন্য দল খোঁজার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। গত ছয় মাস ধরেই এটা দেখছি। তারা রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল। রিয়াল মাদ্রিদ বলেছে, কোনো সুযোগ নেই, তাকে ফিরিয়ে আনা হবে না। এমএলএসেও কথা বলা হয়েছে। কারণ জুভেন্টাস তার উচ্চ বেতন থেকে মুক্তি পেতে চায়।

আর শেষ পর্যন্ত যদি রোনালদো বার্সেলোনায় আসেন তাহলে ফুটবল ভক্তদের বহু দিনের প্রত্যাশা পূরণ হবে। সময়ের সেরা দুই তারকাকে একসঙ্গে দেখা যাবে। গত দশকের বেশি সময় ধরে এ দুই তারকা বিশ্ব ফুটবলে রাজত্ব করে যাচ্ছেন। রেকর্ড ছয়টি ব্যালন ডি’অর মেসির। পাঁচটি জিতেছেন রোনালদো। দুই জনে মিলে গোল করেছেন ১,২৭২টি। বয়সটা ৩৫ পার হলেও চলতি মৌসুমে ৩৫টি গোল দিয়েছেন রোনালদো। ছন্দে যে কোনো কমতি নেই তা বোঝা যায়।
তবে বার্সা এ ব্যাপারে কি সিদ্ধান্ত নিয়েছে তা এখনও জানা যায়নি। তবে করোনাভাইরাসের এ সময়ে কাতালান ক্লাবটিও বেশ আর্থিক সংকটে রয়েছে। তাই এতো চড়া বেতনে তাকে কিনে নেওয়ার সামর্থ্য কতোটুকু আছে তা সময়েই জানা যাবে। – বিবিসি/ ডেইলি স্টার

শ্বাসরুদ্ধকর জয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিতে পিএসজি

স্পোর্টস ডেস্ক : বলা যায় পরাজয়ের দ্বারপ্রান্তেই ছিলো। কিন্তু খেলার অন্তিম লগ্নে জোড়া গোলে সেই সম্ভাবনা উড়িয়ে দিল পিএসজি। আতালান্তার বিপক্ষে শ্বাসরুদ্ধকর এক জয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনাল নিশ্চিত করলো লিগ ওয়ান চ্যাম্পিয়নরা।

পর্তুগালের লিসবনের স্তাদিও দা লুসে বুধবার রাতে প্রতিযোগিতাটির কোয়ার্টার ফাইনালে ইতালিয়ান ক্লাবটিকে ২-১ গোলে হারায় পিএসজি। শেষ মুহূর্তে বিজয়ীদের হয়ে দুটি গোল করেন মার্কিনিয়োস ও এরিক মাক্সিম চুপোমটিং।

এর আগে ম্যাচের প্রথমার্ধে গোল খেয়ে পিছিয়ে পড়ে পিএসজি। ২৬তম মিনিটে আতালান্তার হয়ে গোলটি করেন মারিও পাসালিচ। অসাধারণ দক্ষতায় গোলটি করেন ক্রোয়েশিয়ান এই মিডফিল্ডার। কিছুই করার ছিল না পিএসজির গোলরক্ষক কেইলর নাভাসের।

অবশ্য ম্যাচের পঞ্চম মিনিটের মধ্যেই এগিয়ে যেতে পারত পিএসজি। কিন্তু শট লক্ষ্যে রাখতে পারেননি দলটির তারকা ফরোয়ার্ড নেইমার। গোল হজম করার পর আরও বেশ কয়েকটি সুযোগ পেয়েছিলেন বিশ্বের সবচেয়ে দামি এই ফুটবলার। কিন্তু কিন্তু একবারও বল লক্ষ্যে রাখতে পারেননি তিনি।

পরাজয়ই যেন হাতছানি দিচ্ছিল পিএসজির সামনে। ম্যাচ গড়াল শেষ দিকে। কিন্তু তখনো অনেক নাটকীয়তার বাকি। ঠিক ৯০তম মিনিটে ঘুরে যায় ম্যাচের মোড়। নেইমারের পাসে বল পেয়ে যান স্বদেশি ডিফেন্ডার মার্কিনিয়োস। খুব কাছ থেকে ডান পায়ের টোকায় জালে বল জড়ান তিনি।

ইনজুরি টাইমের তৃতীয় মিনিটে জয়সূচক গোল পায় পিএসজি। এমবাপের পাসে বল পেয়ে ছোট ডি-বক্সে বল পেয়ে ডান পায়ের শটে জালে বল পাঠান ক্যামেরুনের এই ফরোয়ার্ড।