১০০ টাকার জন্য লাশ হলো কলেজ ছাত্র

nowaডেস্ক রিপোর্টঃ ১০০ টাকার জন্য লাশ হলো কলেজ ছাত্র রুবেল। রুবেল ও তার পিতা আব্দুল্যাহ মিন্টুর ছোট ফেনী নদী পার হওয়ার জন্য খেয়াঘাটে যান। নদী পার হতে ভাড়া ১০ টাকা হলেও মাঝি আব্দুল হাদি ৫০০ টাকা দাবী করেন। ৫০০ টাকা ছাড়া তাকে নদী পার করিয়ে দিতে অস্বিকার করেন মাঝি। দরকষাকষির এক পর্যায়ে রুবেল ৪০০ টাকা দিতে রাজি হলেও মাঝি তাকে নদী পার করে দিতে রাজি হয়নি।

একপর্যায়ে রুবেল সাতার কেটে নদী পার হওয়ার প্রস্তুতি নিলে তার পিতাও তার সাথে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। পিতা ও পুত্র সাতার কেটে নদী পার হওয়ার সময় পিতা তীরে উঠতে সক্ষম হলেও পুত্র স্রোতের টানে নিখোঁজ হন। নিখোঁজ পর থেকে মাঝি আব্দুল হাদি পালিয়ে গিয়েছে।

গত শুক্রবার সন্ধ্যায় ফেনী সোনাগাজী উপজেলার চরছান্দিয়া ইউনিয়নের সওদাগরহাট খেয়া ঘাট সংলগ্ন ছোট ফেনী নদীতে এঘটনা ঘটে। নিখোঁজ কলেজ ছাত্র তারেক হাসান রুবেল (২০) বসুরহাট মুজিব কলেজের দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্র।

এদিকে কলেজ ছাত্র নিখোঁজ হবার ২৮ ঘন্টা পর শনিবার রাত সাড়ে ১১ টার দিকে লাশ উদ্ধার করেছে।

নিখোঁজ ঘটনাটি জানাজানি হলে স্থানীয় এলাকাবাসী ও কোম্পানিগঞ্জ থানার পুলিশ রাতভর তাকে উদ্ধারের চেষ্টা চালিয় ব্যর্থ হয়। শনিবার সকাল থেকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে ছোট ফেনী নদীতে ডুবুরি নামিয়ে ও তাকে উদ্ধারকরা যায়নি। পরে এলাকাবাসীরা নিজ উদ্যোগে রাত সাড়ে ১১টার দিকে ফেনী ছোট নদী থেকে কোম্পানীগঞ্জ মুছাপুর রেগুলেটর এলাকা থেকে কলেজ ছাত্র রুবেলের লাশ উদ্ধার করা হয়। রাতে দাফন সম্পর্ন্ন করা হয়ছে। রুবেল ফেনী সোনাগাজী উপজেলার চরছান্দিয়া ইউনিয়নের পুরাতন সওদাগরহাট এলাকার দরিদ্র কৃষক আব্দুল্যাহ মিন্টুর ছেলে। নিহতের ঘটনায় তার পরিবার, সহপাঠী ও এলাকাবাসীর মাঝে শোকের ছায় নেমে এসেছে।

পেট্রোলবোমায় নির্মাণ শ্রমিক দগ্ধ

news_imgডেস্ক রিপোর্টঃ ফেনীতে অবরোধকারীদের পেট্রোলবোমা হামলায় এক নির্মাণ শ্রমিক দগ্ধ হয়েছেন। নওশাদ (৪০) নামে ওই নির্মাণ শ্রমিককে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তির জন্য পাঠানো হয়েছে। দগ্ধ নওশাদের বাড়ি ফেনী সদরের শান্তি কোম্পানি রোড এলাকায়।

বুধবার রাত ১০টার দিকে ফেনী সদরের কালিপাল এলাকায় অবরোধকারীরা একটি সিএনজি চালিত অটোরিকশায় পেট্রোলবোমা ছুড়লে নওশাদ অগ্নিদগ্ধ হন।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বুধবার রাত ১০টার দিকে সোনাগাজী উপজেলার ডাকবাংলা এলাকা থেকে কাজ শেষে অটোরিকশাযোগে বাসায় ফিরছিলেন। অটোরিকশাটি কালিপাল এলাকায় আসার পর অবরোধকারীরা তাতে পেট্রোলবোমা হামলা চালায়।

এতে অটোরিকশায় থাকা নওশের দগ্ধ হন। তার মুখমন্ডল ও হাতসহ দেহের বিভিন্ন অংশ পুড়ে যায়। তাকে প্রথমে ফেনী সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তির উদ্দেশ্যে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

ফেনী থানার ওসি (ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা) মো. মাহবুব মোরশেদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ঘটনার পর পুলিশ নওশাদকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করে। এ ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেপ্তারে পুলিশ চেষ্টা চালাচ্ছে বলেও তিনি জানান

ছাগলনাইয়ায় ককটেল ফাটিয়ে ১৮০০ ব্যালট পেপারে সিল

ডেস্ক রিপোর্ট : ফেনীর ছাগলনাইয়া উপজেলায় ককটেল ফাটিয়ে ১৮০০ ব্যালট  পেপারে সিল  মেরেছে দুর্বৃত্তরা। রোববার রাত সাড়ে ৩টার দিকে ছাগলনাইয়া প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে দুর্বৃত্তরা এ ঘটনা ঘটায়। পরে  কেন্দ্র  থেকে আনারস, কলস এবং টিউবয়েল প্রতীকে ৬০০ করে ১৮০০ সিল মারা ওই ব্যালট পেপার উদ্ধার করা হয়েছে।ছাগলনাইয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রিজাইডিং অফিসার আহম্মদ হোসেন এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।তিনি জানান, রাতে ১৫/২০ জনের সশস্ত্র সন্ত্রাসী জোরপূর্বক ভোট কেন্দ্রে প্রবেশ করে। পরে অস্ত্রের মুখে নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের জিম্মি করে ব্যালট  পেপার ছিনিয়ে নেয় এবং জাল  ভোট মারে। আনারস, কলস এবং টিউবয়েল প্রতীকে ৬০০ করে মোট ১৮০০ ব্যলট পেপারে সিল মারা হয়। কেন্দ্রে দায়িত্বরত পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) শহিদুল ইসলাম জানান, দুর্বৃত্তরা অস্ত্রের মুখে সবাইকে জিম্মি করে এ ঘটনা ঘটিয়েছে। তাৎক্ষণিকভাবে আমাদের কিছুই করার ছিল না।এদিকে, নির্বাচন শুরুর আগেই সকাল পৌনে ৮টায় ফেনীর ৬টি নির্বাচনী  কেন্দ্র আওয়ামী লীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী মেসবাহ উল হায়দার চৌধুরী সোহেলের (আনারস) সমর্থকরা  ভোট কেন্দ্র দখলে নিয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি  নেতৃত্বাধীন ১৯ দলীয় জোট সমর্থিত প্রার্থী নুর আহম্মদ মজুমদার (কাপ-পিরিচ)।সকালে সাটানগর গোসালহাট প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে নুর আহম্মদ মজুমদার এ অভিযোগ করেন।তিনি বলেন, উপজেলার দক্ষিণ লাংগলমোরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, নিজকুঞ্জুরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, জয়পুর সবজান উচ্চ বিদ্যালয়, চাঁদগাজী উচ্চ বিদ্যালয়, বল্লবপুর স্কুল অ্যান্ড কলেজ এবং গোসাল হাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভোট কেন্দ্র  থেকে আমার এজেন্টদের বের করে দেওয়া হয়েছে। আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীর সমর্থকরা ব্যালট পেপার ছিনতাই থেকে শুরু করে এ ধরনের কর্মকাণ্ড চালাচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।তবে আওয়ামী লীগ সমর্থিত  চেয়ারম্যান প্রার্থী মেসবাহ উল হায়দার  চৌধুরী সোহেল এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, নির্বাচনের আগে তার ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার জন্য এ ধরনের অপপ্রচার চালানো হচ্ছে।

 

আদালতে খালেদা জিয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক : জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট ও জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় আদালতে হাজির হয়েছেন বিএনপির চেয়ারপারসন  বেগম খালেদা জিয়া।বুধবার দুপুর ১২টা ৫০ মিনিটে খালেদা জিয়া পুরান ঢাকার বিশেষ জজ আদালতে হাজির হন। এর আগে বেলা ১১টা ৫০ মিনিটের দিকে খালেদা জিয়া গুলশানের বাড়ি থেকে আদালতের উদ্দেশে রওয়ানা করেন। খালেদা জিযার হাজিরা উপলক্ষে আদালতে বিএনপিপন্থী আইনজীবী, দলের নেতাকর্মী ও বিপুলসংখ্যক সাংবাদিক উপস্থিত রয়েছেন।খালেদা জিয়ার আইনজীবী অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া জানান, মামলা দুটিতে এর আগেও আদালত বেশ কয়েকবার সময় বাড়িয়েছিলেন। বুধবার মামলা দুটির অভিযোগ গঠনের শুনানি। তাই এ দিন খালেদা জিয়াকে অবশ্যই হাজির থাকতে আদালত নির্দেশ দিয়েছেন।এদিকে বুধবার খালেদা জিয়া আদালতে এলেও এ মামলা দুটির বিষয়ে হাইকোর্টে দায়ের করা আবেদন অনিষ্পন্ন থাকায় সময়ের দরখাস্ত দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন তার পক্ষের আইনজীবী।এ মামলার অন্য আসামিরা হলেন- বিআইডব্লিউটিএর নৌ-নিরাপত্তা ও ট্রাফিক বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক জিয়াউল ইসলাম মুন্না, ঢাকা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার একান্ত সচিব মনিরুল ইসলাম খান, মাগুরার সাবেক এমপি কাজী সালিমুল হক কামাল ওরফে ইকোনো কামাল ও ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ।এ মামলার অন্যতম আসামি খালেদা জিয়ার সাবেক রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী মামলার শুরু  থেকেই পলাতক আছেন।জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়াসহ চারজনকে অভিযুক্ত করে গত ২০১২ সালের ১৬ জানুয়ারি আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দুর্নীতি দমন কমিশনের সহকারী পরিচালক হারুনুর রশিদ খান।২০১১ সালের ৮ আগস্ট জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে অর্থ লেনদেনের অভিযোগ এনে খালেদা জিয়াসহ চারজনের নামে তেজগাঁও থানায় দুর্নীতির অভিযোগে এ মামলা করেছিলেন দুর্নীতি দমন কমিশনের সহকারী পরিচালক হারুনুর রশিদ।অপরদিকে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট এ অনিয়মের অভিযোগে ২০০৮ সালের ৩ জুলাই দুর্নীতি দমন কমিশন রমনা থানায় এ মামলা করে।২০১০ সালের ৫ আগস্ট দুর্নীতি দমন কমিশনের সহকারী পরিচালক হারুনুর রশিদ মামলার তদন্ত শেষে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, বিএনপি ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ ছয়জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

 

৫ জেলার ১৯ উপজেলায় হরতাল

ডেস্ক রিপোর্ট : দেশের পাঁচটি জেলার ১৯ উপজেলায় রোববার কোথাও সকাল-সন্ধ্যা আবার কোথাও আধাবেলা হরতাল পালন করছে বিএনপি ও জামায়াতসহ ১৯ দল।শনিবার (১৫ মার্চ) অনুষ্ঠিত চতুর্থ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তৃতীয় দফা ভোটগ্রহণে ব্যাপক কারচুপি, ভোটকেন্দ্রে এজেন্টদের ঢুকতে না দেওয়া, হামলা, বাড়িঘর ভাঙচুর, জালভোট প্রদান,  নেতাকর্মীদের বিভিন্ন স্থানে অবরুদ্ধ করে রাখাসহ বিভিন্ন অভিযোগে এ হরতাল ডাকে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের বিএনপি, জামায়াত, শিবির বা এ তিন দলসহ ১৯ দল। 
বাগেরহাট: শিবির নেতা মানজারুল ইসলাম হত্যার প্রতিবাদে রোববার বাগেরহাট জেলায় (নয় উপজেলা) সকাল-সন্ধ্যা হরতাল ডেকেছে শিবির। শনিবার সন্ধ্যায় শিবিরের বাগেরহাট জেলা সভাপতি হাফেজ আজমল  হোসাইন স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এই সংবাদ জানানো হয়েছে।এর আগে শনিবার বিকেলে বাগেরহাটের চার উপজেলায় অনুষ্ঠিত উপজেলা পরিষদ নির্বাচন স্থগিত করে পূণরায় নির্বাচনের দাবিতে চার উপজেলায় সকাল-সন্ধ্যা হরতালের ডাক দেয় জেলা বিএনপি।  রোববারের হরতালে তেমন কোনো প্রভাব পড়েনি বাগেরহাটে।

কুমিল্লা: উপজেলা ১৯ দলীয় জোটের ডাকে রোববার জেলার চৌদ্দগ্রাম ও নাঙ্গলকোট উপজেলায় আধাবেলা হরতাল চলছে।সকাল ৮টার দিকে  চৌদ্দগ্রাম উপজেলার চান্দিশকরা এলাকায় হরতালের সমর্থনে বিক্ষোভ মিছিল করে উপজেলা বিএনপি ও জামায়াতের নেতাকর্মীরা। তবে  কোথাও কোনো পিকেটিংয়ের ঘটনা ঘটেনি।ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম অংশে যানবাহন চলাচল করছে।এদিকে, নাঙ্গলকোট উপজেলায় সকাল পৌনে ১০টা পর্যন্ত হরতালের সমর্থনে কোনো মিছিল করেনি উপজেলা ১৯ দলীয় জোট। এমনকি নেতাকর্মীদের মাঠেও দেখা যায়নি। তবে হরতালের আবহাওয়া বিরাজ করছে। 

ফেনী: ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোটকেন্দ্র দখল,  ভোট কারচুপি ও সমর্থকদের মারধরের প্রতিবাদে ফেনীতে (ছয় উপজেলা) রোববার অর্ধদিবস হরতাল ডাকে জেলা ১৯ দল।হরতালের ভারী যানবাহন চলাচল না করলেও রিকশা, ভ্যানসহ হালকা যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। 

সাতক্ষীরা:একই অভিযোগে সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন বর্জন করে রোববার এ উপজেলায় সকাল-সন্ধ্যা হরতাল ডাকে জামায়াত। 

বরিশাল: বরিশালের মুলাদী উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে ব্যাপক ভোট কারচুপির অভিযোগে উপজেলা বিএনপির ডাকে রোববার সকাল-সন্ধ্যা হরতাল চলছে।সকাল ১০টা পর্যন্ত এ উপজেলার কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।