বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন অস্ট্রেলিয়ার উদ্যোগে জেল হত্যা দিবস পালন

বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন অস্ট্রেলিয়ার উদ্যোগে জেল হত্যা দিবস পালন

জয়পরাজয় মেলবোর্ন অফিস থেকে

বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন অস্ট্রেলিয়া শাখার উদ্যোগে শনিবার এক ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানের মাধ্যমে জেল হত্যা দিবস পালন করা হয়।

বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি মোল্লা মোঃ রাশিদুল হকের সভাপতিত্বে এবং সাংগঠনিক সম্পাদক হাসিনা চৌধুরী মিতার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানের শুরুতে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন অস্ট্রেলিয়ার নতুন কমিটির সবাইকে পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়। অতঃপর ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্ট এবং ৩রা নভেম্বরে শহীদ সকলের স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। এরপর জেল হত্যা দিবসের প্রেক্ষাপট নিয়ে এক প্যানেল আলোচনার আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে অংশগ্রহনকারী সবাই এই ব্যাপারে তাদের অভিমত ব্যক্ত করেন।
এরপর এক তথ্য ও গবেষণামূলক অনলাইন আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন সাংগঠনিক সম্পাদক হাসিনা চৌধুরী মিতা। তিনি বঙ্গবন্ধুর জীবনী নিয়ে আলোচনা করা ছাড়াও বঙ্গবন্ধু এবং জাতীয় চার নেতার হত্যাকারীদের বিচারের উপর আলোকপাত করেন।

মোল্লা মোঃ রাশিদুল হকের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন সাংবাদিকতায় একুশে পদক প্রাপ্ত রনেশ মৈত্র, ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক ড. সানিয়াত ইসলাম, মেলবোর্ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. মাহবুবুল আলম, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন অস্ট্রেলিয়ার উপদেষ্টা মুক্তিযোদ্ধা খন্দকার সালেক সুফী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি এডভোকেট সিরাজুল হক, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন কেন্দ্রীয় কমিটির প্রচার সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার শাকিল খান, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রশীদা হক কনিকা, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন কেন্দ্রীয় কমিটির কার্যনির্বাহী সভাপতি এডভোকেট মশিউর মালেক, সংগঠনের সহ-সভাপতি ব্যারিস্টার নির্মাল্য তালুকদার, সহ-সভাপতি রাশিদুর রহমান তানভীর, বঙ্গবন্ধু ইন্টারন্যাশনাল রিসার্চ সেন্টার ব্রাসেলস এর কো-অর্ডিনেটর জনাব বজলুর রশীদ বুলু, মেলবোর্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের রিসার্চ ফেলো ড. সজল চৌধুরী, মোঃ রাশেদুজ্জামান, ফাহাদ চৌধুরী, ওয়াসিফ বিন আব্দুল আজিজ, জিনাতুর রেজা খান, ফ্রেন্ডস অফ বাংলাদেশ, রিয়াদ শাখার সভাপতি ড. রেজাউল। সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন সহ-সভাপতি ইশরার উসমান, নিউ সাউথ ওয়েলস আওয়ামী লীগ নেতা হাসান ফারুক রবিন শিমুন, মাসুদুর রহমান, ইঞ্জিনিয়ার মেহেদী হাসান, নুসরাতসহ আরও অনেকে।

অনুষ্ঠানে দোয়া পরিচালনা করেন কুয়েত আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক দ্বীন ইসলাম মিন্টু। অংশগ্রহণ করার জন্য সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে অনুষ্ঠানের ইতি টানেন সভাপতি মোল্লা মোঃ রাশিদুল হক।

মরিশাসে সড়ক দুর্ঘটনায় ৪ বাংলাদেশি নিহত

ডেস্ক রিপাের্ট : ভারত মহাসাগরে দ্বীপ রাষ্ট্র মরিশাসে সড়ক দুর্ঘটনায় ৪ বাংলাদেশি কর্মী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় বেশ কয়েকজন গুরুতর আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে কাজে যোগ দিতে যাওয়ার সময় রাজধানী পোর্ট লুইসের কাছে পেইল এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনায় হতাহতদের বিস্তারিত পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে পাওয়া যায়নি। নিহতের সবাই হাইবেক কনস্ট্রাকশন নামের একটি কোম্পানিতে নির্মাণ শ্রমিক ছিলেন।

নিহত শ্রমিকদের ক্ষতিপূরণ নিশ্চিত করা হবে বলে মরিশাসে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার রেজিনা আহমেদ জানিয়েছেন।

বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের অস্ট্রেলিয়া শাখা কমিটির অনুমোদন

বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের অস্ট্রেলিয়া শাখা কমিটির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। রবিবার বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের কেন্দ্রীয় কমিটি মোল্লা মো. রাশিদুল হককে সভাপতি এবং সানিয়াত ইসলামকে সাধারণ সম্পাদক করে তাদের অস্ট্রেলিয়া শাখার কমিটির অনুমোদন দেয়।

এছাড়া পুর্ণাঙ্গ কমিটি দেওয়াসহ অস্ট্রেলিয়ার সব রাজ্যে কমিটি দেওয়ার জন্যে নির্দেশ প্রদান করা হয়। অস্ট্রেলিয়া কমিটির সভাপতি মোল্লা মো. রাশিদুল হক কমিটি অনুমোদন দেওয়ার জন্যে কেন্দ্রীয় কমিটির প্রতি ধন্যবাদ জানান।
নতুন কমিটির সকল সদস্যদেরও আন্তরিক অভিনন্দন জানান তিনি। একই সঙ্গে যারা বঙ্গবন্ধুকে ভালোবাসেন এবং বঙ্গবন্ধুর জীবন নিয়ে কাজ করতে ইচ্ছুক তাদের বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনে যোগ দিতেও আহ্বান জানান মো. রাশিদুল হক।

অস্ট্রেলিয়া কমিটির সভাপতি সেখানে অবস্থানরত বাংলাদেশি বুদ্ধিজীবীদের নিয়ে বঙ্গবন্ধুর জীবনের ওপর গবেষণাসহ বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে বিচারের সম্মুখীন করানোর ব্যাপারে সব ধরনের সহযোগিতা প্রদানের ব্যাপারে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

যুক্তরাষ্ট্রে স্ত্রীকে গুলি করে হত্যার পর বাংলাদেশি স্বামীর আত্মহত্যা

ডেস্ক রিপাের্ট : যুক্তরাষ্ট্রের অ্যারিজোনার লভেন শহরে বসবাস করা এক বাংলাদেশি নারী পুলিশকে ফোন করেও স্বামীর হাত থেকে বাঁচতে পারলেন না। পুলিশের সঙ্গে কথা বলা অবস্থায়ই তাকে গুলি করেন ৫২ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি।

রবিবার বাংলাদেশ সময় রাত ১১টার দিকে এই ঘটনা ঘটে বলে প্রতিবেশি এক বাংলাদেশি প্রবাসী দেশ রূপান্তরকে জানিয়েছেন।

স্বামী-স্ত্রী দুজনের বাড়িই বাংলাদেশের মাগুরা সদরে।

যেভাবে ঝামেলার শুরু

আবুল আহসান হাবিব নামের ওই ব্যক্তির সঙ্গে তার স্ত্রী সৈয়দ সোহেলি আক্তারের দীর্ঘদিন সম্পর্ক ভালো যাচ্ছিল না। একটি পার্লার চালানো সোহেলি গত কয়েক বছরে আর্থিকভাবে বেশ স্বাবলম্বী হয়ে ওঠেন। আহসান কাজ করতেন দোকানে।

আরও পড়ুন: মডেলের তথ্যে ভারতের হোটেল থেকে ৯ বাংলাদেশি তরুণী উদ্ধার

লভেনের বাংলাদেশি কমিউনিটির একাধিক প্রবাসীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, স্ত্রীকে নিয়ে আহসান সারাক্ষণ অভিযোগ করতেন। দুই ছেলের দিকে খেয়াল রাখতেন না। কিন্তু স্ত্রী এই অভিযোগকে কখনোই পাত্তা দেননি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক বাংলাদেশি নারী এই প্রতিবেদককে জানিয়েছেন, আহসান এক সপ্তাহ আগে তার ক্যানসারের কথা জানতে পারেন। কিন্তু পরিবারের কাছে গোপন রাখেন।

রবিবার রাতে স্ত্রীর সঙ্গে তার কথা কাটাকাটি হয়। দুজনে মারামারিও করেন। পরে স্ত্রী পুলিশকে ফোন করে বিষয়টি জানান।

পুলিশ আসর আগ মুহূর্তে আহসান বাড়ি থেকে বের হয়ে যান। পুলিশ সদস্যরা ৪২ বছর বয়সী সোহেলি এবং তার বড় ছেলেকে কিছু পরামর্শ দিয়ে বিদায় নেন।

আহসান ওই সময় পাশে লুকিয়ে ছিলেন। পুলিশকে চলে যেতে দেখে ঘরে ঢোকেন। সোহেলি আবার জরুরি নম্বরে ফোন করে স্বামীর আসার খবর জানান।

অ্যারিজোনার সবচেয়ে বড় ডমেস্টিক ভায়োলেন্স সেন্টারের সিইও মরিয়াহ মাহুন জানিয়েছেন, পুলিশ সদস্যরা ফোনে কথা বলার সময় গুলির শব্দ পেয়ে দ্রুত রওনা দেন। ঘটনাস্থলে এসে দুজনকেই মৃত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন তারা।

পুলিশের ধারণা, আহসান স্ত্রীকে গুলি করে নিজে আত্মহত্যা করেছেন।

বন্দুক কেনা হয় এক সপ্তাহ আগে

বাংলাদেশি কমিউনিটির সদস্যরা বলছেন আহসান সপ্তাহ খানেক আগে বন্দুকটি কিনেছিলেন। কিন্তু এতদিন সেটি লুকিয়ে রাখেন।

স্ত্রীকে খুন করার আগে এক সহকর্মীর কাছে তিনি ক্ষমা চেয়ে যান। সেই সহকর্মী এই প্রতিবেদককে সোমবার সকালে বলেন, ‘‘আহসান ভাই শনিবার আমাকে ফোন করেন। বলেন, ‘আমার ক্যানসার হয়েছে। হয়তো বেশিদিন বাঁচব না। ক্ষমা করে দিয়েন।’ আমি শুরুতে তার কথা আমলে না নিয়ে শান্ত হতে বলি। পরে তিনি ফোন কেটে দেন।’’

অ্যারিজোনার ডমেস্টিক ভায়োলেন্স সেন্টারের কর্মকর্তারা এমন ঘটনার জন্য লকডাউনকে দায়ী করছেন। মরিয়াহ মাহুন বলেন, ‘গত কয়েক মাসে এমন অনেক ঘটনা ঘটেছে। মানুষ এক ঘরে থাকলেও হৃদয়ে হৃদয় থাকছে না! – দেশরূপান্তর

ভূমধ্যসাগরে উদ্ধার হওয়া ২২ জনের ৮ জন বাংলাদেশি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : শরতের ‘কঠিন’ আবহাওয়া উপেক্ষা করে যুদ্ধকবলিত লিবিয়া থেকে ইউরোপে যাওয়ার সময় ভূমধ্যসাগরে যে নৌকা ডুবে গিয়েছিল তার মধ্যে উদ্ধার হওয়া ২২ জনের আটজন বাংলাদেশি নাগরিক।

বৃহস্পতিবারের ওই দুর্ঘটনার সময় ডিঙি আকারের নৌকাটিতে ঠিক কত জন বাংলাদেশি ছিলেন তা এখন জানা গেল। প্রাথমিকভাবে নৌকাটিতে ৩৫ জন যাত্রী থাকার কথা জানিয়েছিল এপি।

লিবিয়ার বাংলাদেশ মিশন জানিয়েছে, ‘নৌকাটিতে ৩৮ জন বিদেশি নাগরিক ছিলেন। এর মধ্যে বাংলাদেশি আটজন। উদ্ধারের পর তারা সবাই নিরাপদে আছেন।’

বাংলাদেশের পাশাপাশি বেশ কয়েকটি দেশের অভিবাসীরা ছিলেন বলে শুক্রবার জানিয়েছিল জাতিসংঘ।

আরও পড়ুন: ভূমধ্যসাগরে বাংলাদেশিসহ ৩৫ জনকে নিয়ে নৌকাডুবি

ওয়াশিংটন পোস্টের তথ্য অনুযায়ী, তিনটি লাশ পানিতে ভাসমান অবস্থায় পাওয়া গেছে। এর মধ্যে এক পুরুষ এবং এক নারীর বাড়ি সিরিয়ায়।

লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপোলির পূর্বাঞ্চলের এলাকা জলিটেন থেকে গত বুধবার সন্ধ্যায় নৌকাটি যাত্রা শুরু করে। দেশটির কোস্ট গার্ড জানিয়েছে, তারা উদ্ধার কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন।

‘এই দিনগুলোতে অনেক নৌকা লিবিয়া ছেড়ে যাচ্ছে,’ জানিয়ে লিবিয়ার নৌ-কর্মকর্তা মাসউদ আবদাল সামাদ বলেন, ‘শরৎ খুব কঠিন মৌসুম। বাতাস শুরু হলে নদীতে প্রাণঘাতী অবস্থার সৃষ্টি হয়।’

লিবিয়ার সাবেক শাসক গাদ্দাফির পতনের পর এই দেশ দিয়ে অনেক অভিবাসী ইউরোপে যাওয়া শুরু করেন। পাচারকারীরা প্রায়ই ঝুঁকিপূর্ণ নৌকায় মানুষদের সাগরে ভাসায়। জাতিসংঘের তথ্য অনুযায়ী, ২০১৪ সালের পর থেকে এখন পর্যন্ত প্রায় ২০ হাজার মানুষ মারা গেছে এই অঞ্চলে!

এই দুর্ঘটনায় যারা বেঁচে গেছেন তাদের ত্রিপোলি বন্দরের আশ্রয়কেন্দ্রে নেয়া হয়েছে।

দক্ষিণ আফ্রিকায় দুই প্রবাসী বাংলাদেশিকে হত্যা

ডেস্ক রিপাের্ট : দক্ষিণ আফ্রিকায় পুমালাংগা এবং প্রিটোরিয়ার লোডিয়াম নামক জায়গায় পৃথক দুই ঘটনায় মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) রিপন আহমেদের (৩৮) ও হাবিবুর রহমান (৪৬) নামে দুই বাংলাদেশিকে হত্যার ঘটনা ঘটেছে।

নিহত রিপন আহমেদের প্রতিবেশীরা জানায়, মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) স্থানীয় সময় সকালে দক্ষিণ আফ্রিকার পুমালাংগাতে রিপন আহমেদকে তার দোকানের তিন মালাওয়ে কর্মচারী হত্যা করে নগদ অর্থ, সিগারেটসহ মূল্যবান জিনিসপত্র লুট করে।

রিপনের আহমেদের বাড়ি ফেনী জেলার ছাগলনাইয়া রাধানগর ইউনিয়নে।

এদিকে, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় প্রিটোরিয়ার লোডিয়ামে হাবিবুর রহমান (আজাদ) নিজ দোকানের সামনে গাড়ি পার্কিং নিয়ে কথা কাটাকাটির সুত্র ধরে ভারতীয় প্রবাসীর গুলীতে মারা যান হাবিবুর রহমান (আজাদ)।

হাবিবুর রহমানের বাড়ি নারায়ণগঞ্জ জেলায়।

বিমান চলাচলের সীমাবদ্ধতায় দুই প্রবাসী বাংলাদেশির লাশ এখানেই দাফন করা হবে বলে জানিয়েছেন তাদের স্বজনরা।

ইতালিতে বাংলাদেশসহ ১৬টি দেশের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরেক দফা বাড়ল

ডেস্ক রিপাের্ট : ইতালিতে বাংলাদেশসহ ১৬টি দেশের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ আরও বাড়ানো হয়েছে। সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) নতুন নোটিশে দেশটির স্বাস্থ্য বিভাগ বিদ্যমান নিষেধাজ্ঞা ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বর্ধিত করেছে। স্থানীয় গণমাধ্যম দ্য লোকাল এ খবর জানায়।

এ তালিকায় বাংলাদেশের সঙ্গে আগের মতোই রয়েছে ১৬টি দেশের নাগরিক। অন্য দেশগুলো হলো ওমান, উত্তর মেসিডোনিয়া, আর্মেনিয়া, বাহরাইন, ব্রাজিল, বসনিয়া, চিলি, কুয়েত, মালডোভা, পানামা, পেরু, রিপাবলিক ডোমেনিকান, কসোভো, মন্টেনেগ্রো ও সার্বিয়া।

এর আগে কয়েক দফা দেশটিতে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়। সর্বশেষ আগস্টে বলা হয়, বাংলাদেশসহ ১৬টি দেশের নাগরিকেরা সে দেশে ৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রবেশাধিকার পাবেন না। এর আগে ইতালির দেওয়া নিষেধাজ্ঞা ১০ আগস্ট শেষ হওয়ার কথা ছিল।

মূলত করোনা পরীক্ষা সংক্রান্ত জটিলতার সূত্র ধরে এ নিষেধাজ্ঞায় পড়ে বাংলাদেশ।

উল্লেখ্য, ঢাকায় করোনার জাল সার্টিফিকেট বিক্রি ও জালিয়াত চক্র ধরা পড়ার পর থেকে ইতালিতে বাংলাদেশিদের সরাসরি বা ট্রানজিট ফ্লাইটে প্রবেশ বারণ রয়েছে।

সৌদি আরবে প্রবেশের অনুমতি পাচ্ছেন বাংলাদেশসহ ২৫ দেশের প্রবাসীরা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : অবশেষে সৌদি আরবে প্রবেশের অনুমতি পাচ্ছেন বাংলাদেশসহ ২৫ দেশের প্রবাসীরা। কিছু শর্তসাপেক্ষে সৌদি সিভিল এভিয়েশন জেনারেল অথরিটি এসব দেশের নাগরিকদের দেশটিতে প্রবেশের অনুমতি দিয়েছে। তবে কবে থেকে সৌদিতে প্রবেশ করা যাবে এ সংক্রান্ত নির্দিষ্ট কোনো তারিখ এখনো জানানো হয়নি।

যে ২৫টি দেশের প্রবাসীরা সৌদি আরব ফিরে আসার সুযোগ পাচ্ছেন তাদের মধ্যে বাংলাদেশের নামও রয়েছে। তবে আপাতত এ সুযোগ পাচ্ছে না পার্শ্ববর্তী ভারত,পাকিস্তান,নেপাল, শ্রীলংকার সহ আরো কয়েকটি দেশ।

যেসব দেশের আটকে থাকা প্রবাসীরা সৌদি আরবে ফিরে যেতে পারবেন দেশগুলো হলো- সংযুক্ত আরব আমিরাত, ওমান, বাহরাইন, লেবানন, কুয়েত, মিশর, তিউনিসিয়া, মরক্কো, চীন, ইংল্যান্ড, ইন্দোনেশিয়া, ফ্রান্স, বাংলাদেশ, জার্মানি, ইতালি, অস্ট্রেলিয়া, তুরস্ক, গ্রিস, ফিলিপাইন, মালয়েশিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, সুদান, ইথিউপিয়া, কেনিয়া ও নাইজেরিয়া।

বেশ কিছু শর্তে এসব দেশের নাগরিকদের সৌদিতে প্রবেশের অনুমতি দেয়া হয়েছে। শর্তগুলো হলো-

১. সৌদি আরব ভ্রমণ করতে হলে সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইট থেকে একটি ফরম পূরণ করে তার মধ্যে বিস্তারিত তথ্য লিখে নিচে স্বাক্ষর করতে হবে এবং আসার সময় এয়ারপোর্টে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্ধারিত ডেস্কে জমা দিতে হবে।

২. ভ্রমণ করার সাত দিন পূর্ব থেকে কোয়ারেন্টাইন থাকতে হবে। মূলত পিসিআর দেওয়ার ৪ দিন আগে থেকে এবং পিসিআর রিপোর্ট পাওয়ার ৩ দিন পর পর্যন্ত।

৩. সৌদি আরবের টাটামন এবং তাওয়াক্বালনা অ্যাপস ডাউনলোড করে নিবন্ধন করতে হবে।

৪. অবশ্যই আসার ৮ ঘণ্টার মধ্যে টাটামন (tatamman) অ্যাপের মাধ্যমে বাসার অবস্থান নির্ধারণ করতে হবে।

৫. কোভিড-১৯ এর লক্ষণ সম্পর্কে অবগত থাকতে হবে। যদি কোনো লক্ষণ দেখা দেয় তাহলে সরাসরি ৯৩৭ নাম্বারে ফোন করতে হবে অথবা সাধারণ স্বাস্থ্য কেন্দ্রে গিয়ে চিকিৎসা নিতে হবে।

৬. আপনাকে টাটামন অ্যাপসের মাধ্যমে প্রতিদিনের স্বাস্থ্যের অবস্থা জানাতে হবে এবং আপনি কোয়ারেন্টাইন থাকাকালীন সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশিত ফরম অনুযায়ী পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।

আরও ৩০ বাংলাদেশি প্রবাসী আবুধাবি বিমানবন্দরে আটকা 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সব কাগজপত্র ঠিক থাকলেও সংযুক্ত আরব আমিরাতে ঢুকতে পারছেন না বাংলাদেশি প্রবাসীরা। সোম-মঙ্গলবার নাগাদ শতাধিক বাংলাদেশি ফেরত আসার পর আরও ৩০ বাংলাদেশি আবুধাবির বিমানবন্দরে আটকা পড়েছেন বলে জানিয়েছে গালফ নিউজ।

প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইটে ৪১ জন আমিরাত যান। এর মধ্যে ৩০ জনকে ঢুকতে দেয়া হয়নি। করোনার সময় কাজ বন্ধ থাকায় আটকা পড়াদের অনেকে ধারদেনা করে টাকা সংগ্রহ করে দেশটিতে গেছেন।

ভুক্তভোগীরা গালফ নিউজকে জানিয়েছেন, তাদের সবার কাছে বৈধ ভিসা এবং কভিড-১৯ নেগেটিভ সার্টিফিকেট আছে।

বাংলাদেশের দূতাবাসও সমস্যা বুঝতে পারছে না। রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ আবু জাফর সংবাদমাধ্যমটিকে বলেন, ‘সপ্তাহজুড়ে বিষয়টি সামনে আসছে। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের ৮১ জন এবং এয়ার অ্যারাবিয়ার ৫১ জনকে প্রথমে ইমিগ্রেশন ক্লিয়ারেন্স দেয়া হয়নি। জটিলতা ঠিক কোথায় তা পরিষ্কার নয়, কিন্তু কর্মকর্তারা ইঙ্গিত দিয়েছেন এয়ারলাইন অপারেটিং সিস্টেমের কারণে এমন হতে পারে।’

‘মাত্র পাঁচজন প্রবেশ করতে পেরেছেন। ইতিমধ্যে ১২৭ জনকে ফেরত পাঠানো হয়েছে। ৩০ জন এখনো আটকা পড়েছেন। এয়ালাইনকে আমরা খাবার সরবরাহের আহ্বান জানিয়েছি।’

ইব্রাহিম খলিল নামের ৪২ বছর বয়সী এক বাংলাদেশি প্রবাসীর অভিযোগ, ‘ঢাকার চেকিংয়ে সব ঠিকঠাক ছিল। অথচ এখানে আমাদের ঢুকতে দেয়া হচ্ছে না। ভাবতেই পারিনি এমন হবে।’

গত ৬ মাস উপার্জনহীন থাকা খলিল বাবার মৃত্যুর খবর শুনে দেশে ফেরেন। এখন ধার করা টাকায় দেশটিতে গেছেন, ‘এখন ছুটি বাড়ালে আমার আরও বেতন কাটা যাবে। কয়েক মাস টাকা ধার করে চলছি। আশা করছি আমরা প্রবেশ করতে পারব।’

৭১ বাংলাদেশি লেবানন থেকে দেশে ফিরলেন

নিজস্ব প্রতিবেদক : সম্প্রতি লেবাননের রাজধানী বৈরুতে জোড়া বিস্ফোরণের পর দেশটিতে আটকা পড়া ৭১ বাংলাদেশিকে দেশে ফিরিয়ে আনা হয়েছে।

দেশটিতে বিস্ফোরণে ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্যে সরকারের ত্রাণ সহায়তা পাঠানো বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর বিমানে আজ বুধবার সকাল সোয়া ৭টার দিকে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান এসব বাংলাদেশি।

আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর) জানায়, ফ্লাইটে ৭৩ জন বাংলাদেশি ফেরার কথা ছিল, ফিরেছেন ৭১ জন।

বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তার জন্য বাংলাদেশ সরকারের ত্রাণ নিয়ে লেবানন যায় বিমানবাহিনীর সি-১৩০ জে একটি বিমান। গত ১০ আগস্ট বিমানটি লেবাননের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করে।

লেবাননে ওই বিস্ফোরণে পাঁচ বাংলাদেশি নিহত হয়। আর আহত হয় বাংলাদেশ নৌবাহিনীর ২১ সদস্যসহ প্রায় ১০০ জন বাংলাদেশি। এছাড়া ওই ঘটনায় সেদেশে অবস্থানরত বাংলাদেশ নৌবাহিনীর জাহাজ ‘বিজয়’ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

৬৫