রংপুরের পর এবার দিনাজপুরে ইতালীর নাগরিককে গুলি

Dinajpur_thereport24ডেস্ক রিপোর্ট : দিনাজপুরে পিওয়ারা (৫০) নামে এক ইতালীর নাগরিককে গুলি করেছে দুর্বৃত্তরা। আহতাবস্থায় তাকে দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
শহরের মির্জাপুর বিআরটিসি বাসস্ট্যান্ডের সামনে বুধবার সকাল ৭টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
এর আগে ২৮ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় রাজধানীর গুলশান-২ এর ৯০ নম্বর সড়কে দুবৃর্ত্তদের গুলিতে নিহত হন ইতালীর নাগরিক ও নেদারল্যান্ডভিত্তিক আন্তর্জাতিক সংস্থা আইসিসিওবিডির কর্মকর্তা তাভেল্লা সিজার। 
এ ছাড়া ৩ অক্টোবর সকাল সাড়ে ১০টায় রংপুরের মাহিগঞ্জে দুর্বৃত্তদের গুলিতে নিহত হন জাপানী নাগরিক হোশি কুনিও।
দিনাজপুর কোতয়ালী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) বিপ্লব সরদার জানান, সরকারি কলেজ সংলগ্ন এনটিএস নামক একটি ভবনে পিওয়ারা থাকতেন। সকালে ঘুম থেকে উঠে তিনি সাইকেল চালাচ্ছিলেন। এ সময় দুর্বৃত্তরা গুলি করে পালিয়ে যায়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

 

দিনাজপুরে দোকান মালিকদের মানববন্ধন

full_1678016433_1422866346ডেস্ক রিপোর্ট : দিনাজপুর জেলা দোকান মালিক ব্যবসায়ী সমিতির আয়োজনে মালিকদের শান্তিপূর্ণভাবে ব্যবসা করার সুযোগ দেওয়ার দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচী পালিত হয়েছে।
লিলিরমোড় হতে ষ্টেশন পর্যন্ত সোমবার বেলা ১১টায় দিনাজপুর জেলা দোকান মালিক ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জহির শাহ এর নেতৃত্বে মানববন্ধন কর্মসূচীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সিনিয়র সহসভাপতি মো. মোফাজ্জল হোসেন, শ্যামল কুমার ঘোষ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল ইসলাম মঞ্জু, জহির খান, সাংগঠনিক সম্পাদক শাহ আলম শাহী, যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক সাকেদুল ইসলাম স্বাধীন, দফতর সম্পাদক মো. লিটন, নির্বাহী সদস্য জাহাঙ্গীর আলম, আসাদুজ্জামান আসাদ, মাজেদুর রহমান দুলাল, একরামুল হক ভোলা, মনিরুজ্জামান ডাবলু, লিয়াকত আলী ও মো. বুলবুল।
বক্তারা বলেন, আজ দেশের সাধারণ জনগণ দারুণভাবে মর্মাহত ও বেদনাগ্রন্থ। ভবিষ্যত নিয়ে চরম আতঙ্ক, ভীতি, হতাশা ও নিরাপত্তা হীনতার মধ্যে বসাবাস করছে। ব্যবসায়ীরা আজ অনিরাপত্তায় দিন কাটাচ্ছে। হরতাল-অবরোধের কারণে ব্যবসায়ীরা নিজেদের পুঁজি ভেঙে খাচ্ছে।
আমরা সঙ্ঘাত ও সহিংসতা চাই না। চাই শান্তি, নিরাপত্তা ও স্বাভাবিকভাবে বেঁচে থাকার অধিকার। তাই আমাদের অনুরোধ অবিলম্বে এই সব অরাজকতা বন্ধ করে দোকান মালিকদের শান্তিপূর্ণভাবে ব্যবসা করার সুযোগ দেওয়া হোক। মানববন্ধন কর্মসূচীতে দোকান মালিক, ব্যবসায়ী ও কর্মচারীরা অংশগ্রহণ করে।

 
 
 

ছুটিরদিনেও হিলি স্থলবন্দর চালু

image_64566_0দিনাজপুর: আমদানিকারক ও সিএন্ডএফ এজেন্টদের অনুরোধে শুক্রবার ছুটির দিনেও চালু রয়েছে হিলি স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম।
দেশব্যাপি ১৮ দলের ডাকা অবরোধের কারণে গত তিনদিন হিলি স্থলবন্দরে আমদানি-রপ্তানি, লোড-আনলোড, পণ্য বাজারজাতকরণসহ সব প্রকার কার্যক্রম বন্ধ ছিল। ফলে ভারত অভ্যন্তরে পিঁয়াজ ও তাজা ফলসহ বেশকিছু আমদানিকৃত কাঁচা পণ্যবোঝাই ট্রাক দেশে প্রবেশের অপেক্ষায় আটকা পড়ে।
ব্যবসায়ীদের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে ও সরকারের রাজস্ব আহরণের স্বর্থে ছুটির দিনেও বন্দর চালু রাখা হয় বলে কাস্টমস সূত্রে জানা গেছে।