adv
২৭শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দক্ষিণ গাজা থেকে সেনা প্রত্যাহার করেছে ইসরায়েল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : খান ইউনিসসহ দক্ষিণ গাজা উপত্যকা থেকে বেশিরভাগ সৈন্য প্রত্যাহার করে নিচ্ছে ইসরায়েলে। যদিও তাদের একটি ‘উল্লেখযোগ্য বাহিনী’ গাজার বাকি অংশে কাজ চালিয়ে যাবে।

যেকোনো মিষ্টি খাবারের রেসিপিতে থাক, প্রাকৃতিক ও নিরাপদ জিরোক্যাল-এর মিষ্টি স্বাদ

যুদ্ধাবস্থার মধ্যে বিচ্ছিন্নতার মাত্রা, সময়কাল সম্পর্কে পরস্পরবিরোধী প্রতিবেদনের মধ্যে দক্ষিণ গাজা উপত্যকা থেকে স্থল সৈন্য প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নেয় ইসরায়েল। খবর আল জাজিরার।

প্রতিবেদনে ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর একটি বিবৃতি উল্লেখ করা হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, আজ রোববার ৭ এপ্রিল, আইডিএফ-৯৮ কমান্ডো ডিভিশন খান ইউনিসে নিজেদের মিশন শেষ করেছে। এ বাহিনীর গাজা ছেড়ে যাওয়ার উদ্দেশ্য, ভবিষ্যতের অভিযানের জন্য প্রস্তুত ও পুনরুদ্ধার করা। তবে, আইডিএফ-১৬২ কমান্ডো ডিভিশন ও নাহাল ব্রিগেডের নেতৃত্বে একটি উল্লেখযোগ্য বাহিনী গাজা উপত্যকায় কাজ করে চলেছে। আইডিএফ তাদের কাজের স্বাধীনতা ও সুনির্দিষ্ট গোয়েন্দা ভিত্তিক অপারেশন পরিচালনার ক্ষমতা রক্ষা করবে।

ইসরায়েলি সেনা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে তাদের এ সিদ্ধান্তের বিষয়ে নিশ্চিত করেছে। বিশদ বিবরণ না দিলেও রয়টার্সকে তারা একটি ব্রিগেড গাজায় রেখে দেওয়া কথা জানায়। একটি ইসরায়েলি ব্রিগেড সাধারণত কয়েক হাজার সৈন্য দ্বারা গঠিত।

খান ইউনিস থেকে সেনা প্রত্যাহার হলেও দক্ষিণ গাজার রাফাহ শহরে দীর্ঘ ও হুমকিপূর্ণ অনুপ্রবেশ বিলম্বিত হবে কিনা, সেটি স্পষ্ট হয়নি। কেননা, ইসরায়েলি নেতারা শুরু থেকেই ফিলিস্তিনের মুুক্তিকামী সংগঠন হামাসকে নির্মুলের কথা বলে আসছেন।

ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী ইয়োভ গ্যালান্ট, রাফাহ শহরে একটি অপারেশন চালানো হবে বলে জোর গলায় দাবি করেছেন। তিনি বলেন, বাহিনীগুলো তাদের পরবর্তী মিশনের জন্য গাজা ছেড়ে যাচ্ছে। তবে তারা প্রস্তুতি নিচ্ছে। আমরা আল-শিফায় অপারেশন ও রাফাহ এলাকায় তাদের আসন্ন মিশনের অপেক্ষা করছি।

তিনি তার সেনাদের অভিযান দক্ষতার প্রশংসা করে বলেন, আমরা আল-শিফা হাসপাতালের অভিযানে তাদের দক্ষতার উদাহরণ দেখেছি যা রাফাহে তাদের আসন্ন মিশনের জন্য উদাহরণ হয়ে থাকবে।

গাজা থেকে সেনা প্রত্যাহার ইসরায়েলিদের ‘কৌশল’ হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এটি মূলত নতুন করে শুরু করা। রাফাহ শহরে স্থল আক্রমণের জন্য প্রস্তুত হতে ইসরায়েলিরা একটি বাহিনীকে পুনরায় মোতায়েন করতে পারে। যুক্তরাষ্ট্রও এই ‘ডেট সেট প্ল্যান’ সম্পর্কে অবগত।

ইসরায়েলি সেনা প্রত্যাহারের বিষয়ে মন্তব্য করেছে হোয়াইট হাউস। সংশ্লিষ্টরা মনে করছে, সৈন্যদের ‘বিশ্রাম ও সংস্কার’ করার লক্ষ্যে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে।

হোয়াইট হাউসের ন্যাশনাল সিকিউরিটির মুখপাত্র জন কিরবি বলেছেন, ইসরায়েলি সেনারা গত চার মাস ধরে ওই ভূমিতে অবস্থান করছে। আমরা জেনেছি, তারা ক্লান্ত। তাদের বিশ্রাম ও সুস্থতা দরকার।

 

জয় পরাজয় আরো খবর

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
April 2024
M T W T F S S
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
2930  


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া