adv
২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বর্ণবাদে আক্রান্ত ইংলিশ ক্রিকেট : আইসিসি

স্পাের্টস ডেস্ক: বর্ণবাদ, যৌনতা ও বৈষম্যে জর্জরিত ইংল্যান্ডের ক্রিকেট। ২০২১ সালে ইসিবি কর্তৃক গঠিত ইনডিপেনডেন্ট কমিটি ফর ইকুইটি ইন ক্রিকেটের (আইসিইসি) একটি দলের দ্বারা পরিচালিত তদন্তের প্রতিবেদনে উঠে এসেছে বর্ণবাদ ও বৈষম্যের চিত্র।

চার হাজারেরও বেশি ব্যাক্তির সাক্ষাৎকার নিয়ে গঠন করা হয় এই তদন্ত রিপোর্ট। সেখানে প্রায় অর্ধেক মানুষ জানিয়েছেন কীভাবে তারা বর্ণবাদ, যৌনতা ও বৈষম্যের শিকার হয়েছেন গত পাঁচ বছরে।

পাকিস্তানি বংশোদ্ভুত বোলার আজিম রফিক অভিযোগ করেছিলেন ২০২০ সালে কাউন্টি ক্রিকেটে খেলার সময় তিনি বর্ণবাদ ও উৎপীড়নের শিকার হয়েছিলেন।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, মেয়েদের প্রায়ই দ্বিতীয় শ্রেণির নাগরিক হিসেবে বিবেচনা করা হয়। পাশাপাশি শ্রেণিবৈষম্য দূর করার জন্য কঠোরভাবে বলা হলেও সে বিষয়ে যথেষ্ট পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি বোর্ডের পক্ষ থেকে। স্কুল ক্রিকেটে প্রাইভেট স্কুলগুলো বেশ আধিপত্য বিস্তার করে।

আইসিইসি’র চেয়ারম্যান সিন্ডি বাটস বলেন, ‘আমাদের ফলাফল স্পষ্ট। বর্ণবাদ, শ্রেণিবৈষম্য, আভিজাত্য এবং যৌনতা আমাদের রন্ধ্রে রন্ধ্রে ছড়িয়ে পড়েছে। খেলা এটি পরিহাস বা বিদ্রূপের বিষয় নয়। ক্রিকেট কাঠামো এবং প্রক্রিয়ার মধ্যে বৈষম্যটা প্রকাশ্যেই হচ্ছে।’

প্রতিবেদনের প্রেক্ষিতে ক্ষমা চেয়েছেন ইসিবি চেয়ারম্যান রিচার্ড থম্পসন। তিনি বলেন, ‘ইসিবি এবং বৃহত্তর নেতৃত্বের পক্ষ থেকে আমি ক্ষমাপ্রার্থী। রিপোর্টের শেষে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট উল্লেখ করা হয়েছে যে এখানে মেয়েদের এবং কালো মানুষদের অবহেলার চোখে দেখা হয়। আমরা এ জন্য সত্যিই দুঃখিত।’

জয় পরাজয় আরো খবর

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া