adv
২৫শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফ্রান্সের লিগ ওয়ানে পিএসজির শিরোপা জয়ের রেকর্ড

স্পোর্টস ডেস্ক: সমীকরণটা এ রকম ছিলো। পিএসজির খেলা বাকি দুটি। এই দুই থেকে একটি পয়েন্ট বের করতে পারলেই শিরোপা জিতে যাবে পিএসজি। শেষ পর্যন্ত তা-ই হলো। স্ত্রাসবুরের মাঠে ড্র করে শেষ রাউন্ডের আগেই লক্ষ্য ছুঁয়ে ফেলল লিওনল মেসির দল। শ্রেষ্ঠত্ব ধরে রাখার পাশাপাশি লিগ ওয়ানে রেকর্ডও গড়লো পিএসজি। – গোল ডটকম
স্ত্রাসবুরের মাঠে শনিবার রাতে ১-১ গোল ড্র করে সবার ধরা ছোঁয়ার বাইরে চলে গেছে পিএসজি। একই সঙ্গে সাঁত এতিয়েনকে (১০) ছাড়িয়ে রেকর্ড একাদশবারের মতো লিগ ওয়ানের শিরোপা জিতেছে প্যারিসের দলটি। লিওনেল মেসি পিএসজিকে এগিয়ে নেওয়ার পর শেষ দিকে সমতা ফেরান কেভিন গামেইরো।

দশম মিনিটে ম্যাচের প্রথম উল্লেখযোগ্য সুযোগ পান কিলিয়ান এমবাপে। তবে জায়গা ছেড়ে বেরিয়ে এসে তার পা থেকে বল কেড়ে নিয়ে কোনো বিপদ হতে দেননি স্ত্রাসবুর গোলরক্ষক মাটস সেলস। – বিডিনিউজ টোয়েন্টি ফোর ডটকম
পাঁচ মিনিট পর এল চাদাইলে বিতিশিয়াবুর দুর্বল ব্যাকপাসে দারুণ এক সুযোগ পেয়ে যায় স্ত্রাসবুর। ছুটে গিয়ে দুরূহ কোণ থেকে গোলের জন্য শট নেন হাবিব দিয়ালো। গোললাইন থেকে বল ফিরিয়ে পিএসজির ত্রাতা সের্হিও রামোস।
৩০তম মিনিটে মেসির কর্নারে অরক্ষিত রেনাতো সানচেসের শট দারুণ রিফ্লেক্সে ফিরিয়ে দেন স্ত্রাসবুর গোলরক্ষক। আট মিনিট পর এগিয়ে যেতে পারতো স্বাগতিকরা। দিয়ালোর বুলেট গতির শট ফিরে আসে পোস্ট কাঁপিয়ে!
দ্বিতীয়ার্ধেও খুব বেশি সুযোগ তৈরি করতে পারছিল না পিএসজি। আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলা স্ত্রাসবুরও পারছিল না তাদের জমাটরক্ষণ ভাঙতে। শেষ পর্যন্ত ৫৯তম মিনিটে ‘ডেডলক’ খোলেন মেসি। এমবাপের কাছ থেকে বল পেয়ে ঠা-া মাথার শটে জাল খুঁজে নেন আর্জেন্টিনা অধিনায়ক। চলতি আসরে এটি তার ষোড়শ গোল।

৭০তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করার সুযোগ হাতছাড়া করেন এমবাপে। প্রতি আক্রমণে পায়ের কারিকুরি আর গতিতে বল নিয়ে ডি বক্সে পৌঁছে যান মেসি। পেনাল্টি স্পটের কাছে থাকা ফরাসি ফরোয়ার্ড তার কাছ থেকে বল পেয়ে শট লক্ষ্েয রাখতে পারেননি।

একের পর এক আক্রমণ করে যাওয়া স্ত্রাসবুর সমতা ফেরায় ৭৯তম মিনিটে। মর্গ্যান সানসনের শট ঝাঁপিয়ে ঠেকিয়ে দেন জানলুইজি দোন্নারুম্মা। আলগা বলে বাকিটা সারেন পিএসজিরই সাবেক খেলোয়াড় কেভিন গামেইরো।
৮৬তম মিনিটে দারুণ দক্ষতায় এমবাপের শট ঠেকিয়ে সমতা ধরে রাখেন স্ত্রাসবুর গোলরক্ষক সেলস। ফরাসি চ্যাম্পিয়নদের রুখে দিয়ে স্বাগতিকরা নিশ্চিত করে লিগ ওয়ানে টিকে থাকা। ৩৭ ম্যাচে ২৭ জয় ও চার ড্রয়ে ৮৫ পয়েন্ট হলো পিএসজির। একই সময়ে শুরু হওয়া অন্য ম্যাচে আজাকসিওকে ৩-০ গোলে হারানো লঁস ৮১ পয়েন্ট নিয়ে আছে দুই নম্বরে।

জয় পরাজয় আরো খবর

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া