adv
৭ই জুন, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | ২৪শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

গুলশানে বিএনপি নেতারা গুজবের কারখানা খুলেছে: ওবায়দুল কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিএনপি নেতারা গুলশানে গুজবের কারখানা খুলেছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, সেখানে নিয়মিত শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে গুজব ছড়ানো হচ্ছে।

শুক্রবার (১৯ মে) বিকেলে বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে আওয়ামী লীগের শান্তি সমাবেশে তিনি একথা বলেন। এ সময়, বিএনপির গুজবের কারখানা বন্ধ করতে হবে জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, শেখ হাসিনা সরকারকে হটাতে বিএনপির দেশি-বিদেশি ষড়যন্ত্র অব্যাহত আছে। শান্তি সমাবেশে বিএনপির পদযাত্রা নাকি অন্তিম যাত্রা তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। বলেছেন, এটি বাইরে থেকে পদযাত্রা মনে হলেও ভেতরে সহিংসতার প্রস্তুতি। তারা ভেতরে ভেতরে আগুন সন্ত্রাসের প্রস্তুতি নিচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন ওবায়দুল কাদের। ২০১৩ সালে মতো আগুন-সন্ত্রাস করতে আসলে সেই আগুনেই বিএনপির হাত পুড়িয়ে দেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, দেশের জনগণ শেখ হাসিনার সঙ্গে আছে। আন্দোলনের দিন শেষ। যত লাফালাফি করেন, পদযাত্রা, মানববন্ধনে কর্মী পাবেন। মানুষ পাবেন না। মানুষ বুঝে গেছে বিএনপি এখন কোমর ভাঙা দল। নির্বাচনে তারা শেখ হাসিনার ধারেকাছেও যেতে পারবে না। এটা মানুষ জানে। তাই বিএনপি এখন ষড়যন্ত্রের পথে হাঁটছে। অস্ত্র উঁচিয়ে, বোমা মেরে নির্বাচন বানচালের আর কোনো ষড়যন্ত্র হলে তা রুখে দেয়া হবে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেছেন, আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের প্রস্তুত থাকতে হবে। ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। নির্বাচনের সময় ঘনিয়ে এসেছে। দুনিয়ার অন্যান্য গণতান্ত্রিক দেশের মতো বাংলাদেশেও সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হবে। বিদেশিদের কাছে বলবো, এদেশে অবাধ, নিরপেক্ষ গ্রহণযোগ্য নির্বাচন হবে।

শান্তি সমাবেশে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, বিএনপির আন্দোলনের সমুচিত জবাব দেয়া হবে। মির্জা ফখরুল আওয়ামী লীগকে অবৈধ সরকার বলে। কিন্তু বিএনপি দলটিই অবৈধ। গত ১৬ বছর মির্জা ফখরুল সম্মেলন ছাড়াই বিএনপির মহাসচিব। তাদের দলের অভ্যন্তরে গণতন্ত্র নেই।

জয় পরাজয় আরো খবর

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া