adv
২রা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | ১৯শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশে আসছে না মেসিসহ আর্জেন্টিনা, বাফুফের পিছুটান

স্পোর্টস ডেস্ক: আগামী জুনে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনাকে জুনে বাংলাদেশে আনার চেষ্টার কথা সংবাদমাধ্যমকে বলেছিলেন বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন। গত ১৮ জানুয়ারি প্রেস ব্রিফিং করে বিস্তারিত জানানোর বিজ্ঞপ্তিও পাঠিয়েছিল ফেডারেশন। পরে অবশ্য ব্রিফিং বাতিলের খাতায় ঠেলে দুঃখপ্রকাশ করে। শেষ পর্যন্ত মেসিদের ঢাকায় আনার প্রক্রিয়া আপাতত বন্ধ।

ব্রিফিং বাতিলের পর আরেক বিজ্ঞপ্তিতে বাফুফে জানায়, এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট সবাইকে জানানো হবে। আর্জেন্টিনাকে ফিফা উইন্ডোতে আনার জন্য সব চেষ্টাই করা হয়েছে। যদিও আর্জেন্টিনা ফুটবল ফেডারেশন আনুষ্ঠানিকভাবে কিছুই জানায়নি। তবে চ্যানেল আই অনলাইনকে বাফুফের একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে, মেসিদের আসার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে।

মেসিদের আসার খবরে এদেশের আর্জেন্টাইন সমর্থকদের মন নড়েচড়ে বসেছিল। গত ৯ জানুয়ারি বাফুফে সভাপতি কাজি সালাউদ্দিন যখন বলেছিলেন, আর্জেন্টিনাকে আনার পরিকল্পনা চলছে। গতবার যখন এসেছিল তখন তিন মিলিয়ন ডলারের মতো খরচ হয়েছিল। এবার ছয় থেকে সাত মিলিয়ন ডলার খরচ হতে পারে।

অবশ্য খরচের পরিমাণ নিয়েও প্রশ্ন উঠেছিল। ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে ১৯২তম স্থানে থাকা বাংলাদেশের ফুটবলের উন্নতিতে মেসিদের সফর আদৌ কোনও প্রভাব ফেলবে কিনা, এমন আলোচনাও ছিল সমালোচনাকারীদের। সাম্প্রতিক ডলার সঙ্কটকে সামনে এনেছেন অনেকে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনেকদিন ধরেই সবধরনের অপ্রয়োজনীয় ব্যয় কমানোর নির্দেশ দিচ্ছেন জোরালভাবে। গত মঙ্গলবারও জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) বৈঠকে একই নির্দেশ দিয়েছেন। ডলার সঙ্কট এড়াতে ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্ট সেল খোলার কথা গত ডিসেম্বরে জানায় সরকার। দেশে ডলারের এমন পরিস্থিতিতে আর্জেন্টিনাকে আনা কতটা যুক্তিসঙ্গত- সেই প্রশ্ন ডালপালা মেলছিলো।

লিওনেল স্কালোনির বিশ্বজয়ী দলের বাংলাদেশে এসে ম্যাচ খেলার পথে রয়েছে আরেকটি বাধা। দুবছর আগে প্রায় ৯৮ কোটি টাকা বাজেট বরাদ্দ রেখে শুরু হয়েছিল বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের সংস্কার কাজ। এ বছরের জুনে কাজ শেষের কথা থাকলেও বাজেট স্বল্পতায় অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।

জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সহকারী পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) সুকুমার সাহা বলেছেন, নির্ধারিত সময়ের ভেতর কোনও ভাবেই স্টেডিয়াম সংস্কার কাজ শেষ করা সম্ভব নয়। বরাদ্দকৃত বাজেটের ভেতর ২০২১-২২ অর্থবছরে ২৪ কোটি টাকা ছাড় দেওয়া হয়েছিল। চলতি অর্থবছরে ১০ কোটি টাকা দেওয়ার কথা রয়েছে। এরমধ্যে সাড়ে ৪ কোটি টাকা পাওয়ার অপেক্ষা। অর্থাৎ, ৩৪ কোটি টাকায় পুরো কাজ শেষ করা যাবে না।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
January 2023
M T W T F S S
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031  


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া