adv
৩রা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৮ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নেট দুনিয়ায় বাতিল হচ্ছে পাসওয়ার্ড ব্যবহার

ডেস্ক রিপাের্ট : পাসওয়ার্ডের ব্যবহার প্রাচীনকাল হতে। প্রহরীরা কারো প্রবেশ ঠেকাতে এটি ব্যবহার করত, প্রবেশকারী বা প্রবেশকারী দলকে সরবরাহ করা হতো একটি পাসওয়ার্ড বা ওয়াচওয়ার্ড যা প্রবেশের সময় বলতে হতো। ইন্টারনেটের প্রথম থেকে অথেনটিকেশনের জন্য পাসওয়ার্ডের ব্যবহার হয়ে আসছে। তাই পাসওয়ার্ড ছাড়া ইন্টারনেট ব্যবহারের কথা ভাবতে পারেন না অনেকেই।

আধুনিক সময়ে, ব্যবহারকারী নাম এবং পাসওয়ার্ড সাধারণভাবে ব্যবহার করা হয় লগইনের কাজে যা প্রবেশ নিয়ন্ত্রণ করে কম্পিউটার অপারেটিং সিস্টেম, মোবাইল ফোন, ক্যাবল টিভি ডিকোডার, এটিএম, ইমেইল ইত্যাদিতে। কিন্তু বর্তমানে মানুষ মোবাইল ফোন, এটিম কার্ড, ইমেইল, সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যবহৃত পাসওয়ার্ড হ্যাক হওয়া নিয়ে চিন্তিত।

টেক দুনিয়ায় পাসওয়ার্ডের যুগ শেষ হতে চলেছে। শীঘ্রই পাসওয়ার্ড ব্যবহার অতীত হতে চলেছে বলে দাবি করছেন টেক গুরুরা। মনে করা হচ্ছে পাসওয়ার্ড অবলুপ্ত হলে আরও সুরক্ষিত হতে পারে ইন্টারনেট। বিশেষ করে মেটাভার্সের কথা মাথায় রেখেই এই প্রযুক্তি তৈর করছে টেক কোম্পানিগুলো।

পাসওয়ার্ড মুক্ত ভবিষ্যতের জন্য ইতিমধ্যেই গবেষণার কাজ শুরু করেছে অ্যাপল, গুগল, স্যামসাং-এর মতো কোম্পানিগুলো। এই সংস্থাগুলো ইতিমধ্যেই নিজেদের বায়োমেট্রিক অথেনটিকেশন ফিচার নিয়ে এসেছে। আঙুলের ছাপ, ফেস আনলকের মাধ্যমে লগ ইন করা যাচ্ছে বিভিন্ন সার্ভিসে। বিশেষজ্ঞদের মতে ধীরে ধীরে পাসওয়ার্ড অবলুপ্ত হয়ে যাবে। টিকে থাকবে শুধুমাত্র বায়োমেট্রিক অথেনটিকেশন।

পাসওয়ার্ড অবলুপ্ত হলে আরও সুরক্ষিত হতে পারে ইন্টারনেট। মেটাভার্স নিয়ে ইতিমধ্যেই টেক দুনিয়ায় হৈ চৈ পরে গিয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়া ও ইন্টারনেটের জন্য অ্যাকাউন্ট যেমন হ্যাকারদের নজরে থাকে ঠিক তেমনই মেটাভার্সেও সাইবার হানা হবে। মেটাভার্সকে আরও সুরক্ষিত করতেই এই প্রযুক্তি তৈরি করছে তাবড় টেক সংস্থাগুলো।

মেটাভার্সে লগ ইনের জন্য পাসওয়ার্ডের প্রয়োজন হবে না বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। পরিচয় নিশ্চিত করতে সেখানে বায়োমেট্রিক অথেনটিকেশন ব্যবহার শুরু হবে। সাইবার সুরক্ষা বিশেষজ্ঞদের মতে মেটাভার্সের ভবিষ্যৎ হমে পাসওয়ার্ড মুক্ত।

মেটাভার্সে বায়োমেট্রিক অথেনটিকেশন শুরু হলে এই ধরনের ভুয়ো অ্যাকাউন্টে লাগাম টানা যাবে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। বায়োমেট্রিক অথেনটিকেশন শুরু হলে কোন রোবট সেই প্ল্যাটফর্মে প্রবেশ করতে পারবে না বলে মত বিশেষজ্ঞদের। পরিচয় নিশ্চিত করলে তবেই প্রবেশ করা যাবে মেটাভার্স-এ।

পাসওয়ার্ডের মাধ্যমে সুরক্ষা বায়োমেট্রিক অথেনটিকেশনের থেকে অনেকটাই নড়বড়ে। খুব সহজেই পাসওয়ার্ড হ্যাক করা সম্ভব। এছাড়াও পাসওয়ার্ডের মাধ্যমে লগ ইনের সুবিধা থাকলে রোবটের মাধ্যমেও অ্যাকাউন্ট নিয়ন্ত্রণ করা যায়। যা আদতে সাইবার ক্রিমিনালদের সাহায্য করে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মেটাভার্সে প্রবেশের জন্য শুরুতেই বায়োমেট্রিক অথেনটিকেশন পাশ করতে হবে। এর পরে মেটাভার্সের দুনিয়ায় প্রবেশ করা যাবে। ফলে কোন রকমের ইউজারনেম ও পাসওয়ার্ড মনে রাখার ঝামেলা থাকছে না। প্রয়োজন হবে ওটিপি-র। ফিঙ্গারপ্রিন্ট, ফেস আনলকের মাধ্যমেই হয়ে যাবে লগ ইন। যেমন ধরুন কেউ মেটাভার্সে প্রবেশ করতে চাইলে শুরুতেই সেলফি তুলে পরিচয়ের প্রমাণ দিতে হবে।

বিশ্বকে পাসওয়ার্ডমুক্ত ব্লক আইডি-এর মাধ্যমে এই প্রক্রিয়া কাজ করবে। কোন অ্যাকাউন্ট হ্যাক করতে চাইলে সবার আগে অ্যাকাউন্টের ইউজারনেম ও পাসওয়ার্ড হাতিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে প্রতারকরা। যদিও ব্লকচেনের উপরে কাজ করবে ব্লক আইডি। ফলে কোন একটি নির্দিষ্ট সার্ভারে এই তথ্য স্টোর থাকবে না। এর ফলে এক জায়গায় সব তথ্য স্টোর করা হবে না। যা অ্যাকাউন্টকে অনেক বেশি সুরক্ষিত করবে। একই সঙ্গে গ্রাহক না চাইলে কেউ সেই পরিচয় জানতে পারবে না। ভার্চুয়াল দুনিয়াকে সুরক্ষিত করার জন্য ধীরে ধীরে পাসওয়ার্ডের যুগ শেষ হতে চলেছে।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
September 2022
M T W T F S S
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
2627282930  


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া