adv
৩রা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৮ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সাকিব আল হাসান টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিতর্কিত সেই সাকিবেই আস্থা রাখলেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। তার কাঁধেই তুলে দেওয়া হলো টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট দলের অধিনায়কত্ব। তবে আগামী অক্টোবরে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য বিশ্বকাপ পর্যন্ত দলের অধিনায়কত্ব করবেন সাকিব।
বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন শনিবার গুলশানে নিজ বাসভবনে সাকিবের সঙ্গে আড়াই ঘণ্টার আলোচনা শেষে এ সিদ্ধান্ত হয়। এসময় বোর্ডের প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী সুজন, অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস, টিম ডাইরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন, প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু প্রমুখ উপস্তিত ছিলেন।
চলতি মাসের ২৭ তারিখ থেকে আরব আমিরাতে শুরু হতে যাওয়া এশিয়া কাপ এবং ১৬ অক্টোবর থেকে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য বিশ্বকাপ ক্রিকেটে সাকিবের নেতৃত্বে অংশ নেবে বাংলাদেশ দল।
সাকিবের আগে সদ্য সমাপ্ত জিম্বাবুয়ে সিরিজে টি-টোয়েন্টি দলের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন নুরুল হাসান সোহান। এর আগে দীর্ঘদিন এই ফরম্যাটের অধিনায়ক ছিলেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ।
তার রান খরার পাশাপাশি অধিনায়কত্বে ছিল না ঝাঁজ। তাই রিয়াদের উপর আর আস্থা রাখতে পারেনি বিসিবি। নেতৃত্ব তো বটেই, দল থেকেও বাদ পড়েছেন এই তারকা।
টি-টোয়েন্টিতে রিয়াদ নেতৃত্বে আসার আগে দায়িত্বটা ছিল সাকিবের কাঁধেই। টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে অধিনায়ক ছিলেন তিনি। তবে ২০১৯ সালে জুয়াড়ির তথ্য গোপন করার অপরাধে সব ধরণের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ হন তিনি।
এ নিয়ে তৃতীয় মেয়াদে টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক হলেন এই সাকিব। ২০০৯ ও ২০১৭ সালে দুই দফায় এই ফরম্যাটে অধিনায়ক হয়েছিলেন তিনি। তার অধীনে ২১ ম্যাচে ৭টিতে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। যেখানে ২১ ম্যাচের ১৪টিতেই হারের মুখ দেখতে হয়েছিল সাকিবকে।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া