adv
২৮শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগ কর্মীর থাপ্পড়ে কানে না শোনার অভিযোগ শিক্ষার্থীর

ডেস্ক রিপাের্ট : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) মাস্টারদা সূর্যসেন হলে সালাম না দেয়ায় এক জুনিয়রকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে হল ছাত্রলীগের এক কর্মীর বিরুদ্ধে।

মঙ্গলবার (২৪ মে) রাত ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর নাম সাজ্জাদুল হক সাঈদী। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃবিজ্ঞান বিভাগের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী। এ প্রসঙ্গে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী হল প্রাধ্যক্ষ বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

ছাত্রলীগ কর্মীর নাম মানিকুর রহমান মানিক। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী। মানিক হল ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সিয়াম রহমানের ঘনিষ্ঠ বলে জানা গেছে। সিয়াম রহমান বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনের অনুসারী।

অভিযোগপত্রে সাজ্জাদ লিখেছেন, ‘আমি হলের ২৪৯ নম্বর রুমে অনলাইন ক্লাস করার সময় ২০১৭-১৮ সেশনের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র মানিকুর রহমান মানিক আমার রুমে এসে বাবা-মা নিয়ে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন। পরে তিনি আমাকে তার কাছে যেতে বললে আমি তার কাছে যাই। ঠিক তখনই আকস্মিকভাবে তিনি আমার মুখে এবং কানে চড় মারেন এবং গায়ের সর্বশক্তি দিয়ে আমাকে এলোপাতাড়ি লাথি মারেন। আমি কিছু বুঝে ওঠার আগেই আমাকে এলোপাতাড়ি কিল-ঘুষি মারার মাধ্যমে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত ও নির্যাতন করেন। ফলশ্রুতিতে আমি এখন কানে শুনতে পারছি না।’

হল ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সিয়াম মানিককে নিজের অনুসারী বলে দাবি করলেও মারধরের বিষয়টি স্বীকার করেননি। তিনি বলেন, ‘তাদের মাঝে একটু ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে, আমি মিটমাট করে দিয়েছি।’

এ বিষয়ে হলের প্রাধ্যক্ষ প্রফেসর মো. মকবুল হোসেন ভূঁইয়াকে একাধিকবার ফোন দেওয়া হলে পাওয়া যায়নি।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া