adv
২রা জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৮ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও ইউরোপে ছড়িয়ে পড়ছে মাঙ্কিপক্স

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও যুক্তরাজ্যসহ ইউরোপের বেশ কয়েকটি দেশে মাঙ্কিপক্স ছড়িয়ে পড়েছে। সন্দেহভাজন এবং নিশ্চিত হওয়া মাঙ্কিপক্সের নমুনাগুলো পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো।

ফ্রান্স, ইতালি এবং সুইডেনে সর্বশেষ নতুন করে মাঙ্কিপক্স শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া বুধবার যুক্তরাষ্ট্র, স্পেন ও পর্তুগালে কয়েকজন মাঙ্কিপক্সে আক্রান্ত হয়েছে বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

এদিকে, কানাডায় ১৩ জনের সন্দেহজনক নমুনা পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে।

মধ্য ও পশ্চিম আফ্রিকার প্রত্যন্ত অঞ্চলে মাঙ্কিপক্স সবচেয়ে বেশি দেখা যায়। এই অঞ্চলের বাইরে রোগটি যাদের ধরা পড়েছে, তাদের অনেকেই ওই অঞ্চলে ভ্রমণ করেছেন।

যুক্তরাজ্যের ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিসের তথ্য অনুযায়ী, মাঙ্কিপক্স হলো একটি বিরল ভাইরাল সংক্রমণ। যেটির সাধারণত মৃদু উপসর্গ দেখা দেয় এবং বেশিরভাগ মানুষ কয়েক সপ্তাহের মধ্যে সেরে ওঠেন। ভাইরাসটি মানুষের মধ্যে সহজে ছড়ায় না এবং ব্যাপক জনসাধারণের মধ্যে ছড়ানোর ঝুঁকি খুব কম।

গত ৭ মে যুক্তরাজ্যে এই রোগে আক্রান্ত প্রথম দুইজনের দেহে শনাক্ত হয়। ইউকে হেলথ সিকিউরিটি এজেন্সি জানিয়েছে, রোগীরা সম্প্রতি নাইজেরিয়ায় ভ্রমণ করেছিলেন। তারা ইংল্যান্ডে প্রবেশের আগেই ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছেন বলে মনে করা হচ্ছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) জানায়, যুক্তরাজ্যে এখন পর্যন্ত ৯ জন মাঙ্কিপক্সে আক্রান্ত হয়েছেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। এই সংক্রমণের উৎস এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে রোগীরা ‘স্থানীয়ভাবে আক্রান্ত’ হয়েছেন বলে মনে করা হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার ইউরোপের সুইডেনে একজনের মাঙ্কিপক্স নিশ্চিত হওয়ার পাশাপাশি ইতালিতে একজন আক্রান্ত এবং ফ্রান্সে সন্দেহভাজন একজনের খবর পাওয়া গেছে।

সুইডিশ কর্তৃপক্ষ বলেছে, কীভাবে মানুষ ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছেন, তারা নিশ্চিত নয়। কিন্তু স্থানীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, ইতালির ব্যক্তি সম্প্রতি ক্যানারি দ্বীপপুঞ্জ ভ্রমণ করে এসেছেন।

বুধবার পর্তুগালে পাঁচজন এবং স্পেনে সাতজন আক্রান্ত হয়েছেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

স্প্যানিশ সংবাদপত্র এল পাইসয়ের তথ্য অনুযায়ী, যদিও ইউরোপে মাঙ্কিপক্সের কোনো টিকার অনুমোদন দেওয়া হয়নি। স্প্যানিশ স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ প্রাদুর্ভাব মোকাবেলায় কয়েক হাজার গুটিবসন্তের টিকা কিনেছে। মাঙ্কিপক্স গুটিবসন্তের মতো ভাইরাসের একই পরিবারভুক্ত।

উত্তর আমেরিকায় যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস রাজ্যের স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষও একজন মাঙ্কিপক্সে আক্রান্ত হয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছে।

তিনি সম্প্রতি কানাডা ভ্রমণ করেছিলেন, যেখানে ভাইরাসটিতে সন্দেহভাজন আক্রান্ত ১৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে।

স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের ভাষ্য, ওই ব্যক্তিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি ‘ভাল’ আছেন এবং ‘জনসাধারণের জন্য কোনো ঝুঁকি নেই’।

সূত্র : বিবিসি

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া