adv
২২শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মির্জা ফখরুল বললেন – আ’লীগ সরকারে থাকলে বিএনপি নির্বাচনে যাবে না

নিজস্ব প্রতিবেদক : আওয়ামী লীগ সরকারে থাকলে বিএনপির নির্বাচনে যাওয়ার প্রশ্নই উঠতে পারে না বলে মন্তব্য করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেছেন, তারা (আওয়ামী লীগ) সুন্দর সুন্দর কথা বলে, দেখলে মনে হয়, এদের মতো ভালো মানুষ আর নেই। অথচ তারা ভেতরে-ভেতরে যা করার তা করে।

আজ রোববার দুপুরে রাজধানীর গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন।

গতকাল শনিবার কুমিল্লার তিতাসে দলের স্থায়ী কমিটির জ্যেষ্ঠ সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেনের ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে হামলার বিষয়ে অবহিত করতে এ সংবাদ সম্মেলন ডাকা হয়। আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতা-কর্মীরা এ হামলা করেছেন বলে অভিযোগ বিএনপির।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘আমি মনে করি, কোনো কথাই হবে না যতক্ষণ না আওয়ামী লীগ সরকার পদত্যাগ করে। পরবর্তী নির্বাচন সম্পর্কে আমাদের কথা পরিষ্কার, আওয়ামী লীগ সরকার পদত্যাগ না করলে, সম্পূর্ণ নিরপেক্ষ সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর না করলে, নির্বাচনের কোনো প্রশ্নই উঠতে পারে না।’

আগামী নির্বাচন ইভিএমে করার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য সম্পর্কে জানতে চাইলে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘ইভিএম তো পরে, ইলেকশনেই তো আমরা যাব না যদি শেখ হাসিনা সরকারে থাকেন।’

খন্দকার মোশাররফ হোসেনের ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে হামলার বিষয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, খন্দকার মোশাররফ হোসেন দাউদকান্দিতে ঈদে শুভেচ্ছা বিনিময় শেষে তিতাসে একটি নিমন্ত্রণ রক্ষার জন্য বের হয়েছিলেন। তখন অতর্কিতে আওয়ামী লীগের লোকজন তার ওপর আক্রমণ করেন।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘তার (খন্দকার মোশাররফ হোসেন) ওপর হামলাকে আমরা বিএনপির স্থায়ী কমিটির ওপর হামলা, আমাদের দলের ওপর হামলা মনে করি। আমরা এটাকে ছোট করে দেখতে পারি না। আওয়ামী লীগের এই হামলায় প্রমাণ হয়েছে, তাদের চরিত্রের এতটুকু পরিবর্তন হয়নি। বরং তারা নতুন উদ্যমে বিএনপি তথা বিরোধী দলকে নির্মূল করার, দমন করার জন্য চরম সন্ত্রাসের আশ্রয় নিয়েছে।’

খন্দকার মোশাররফ হোসেনের ওপরে হামলার নিন্দা জানিয়ে হামলাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবি জানান মির্জা ফখরুল।

সয়াবিন তেলের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির জন্য সরকারকে দায়ী করেন মির্জা ফখরুল। এ বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সয়াবিন তেলের এই মূল্য বৃদ্ধি অমানবিক। এর মূল কারণটি হচ্ছে এই সরকার দুর্নীতিবাজ। দুর্নীতিতে জড়িয়ে আছে তাদের লোকেরা। এ কারণে তারা এভাবে জনগণের ওপর ভয়াবহ একটা অত্যাচার-নির্যাতন শুরু করেছে।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, সয়াবিন তেলের দাম একলাফে সরকারিভাবে ৩৮ টাকা বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। তারপরও বাজারে ২২০ টাকায় তেল পাওয়া যাচ্ছে না। তেল নেই, উধাও হয়ে গেছে। এটাই হচ্ছে চোরাকারবারি, চোরাচালানের মূল বিষয়।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
May 2022
M T W T F S S
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031  


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া