adv
৯ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সাকিব যদি না খেলে, না খেলুক, আই ডোন্ট কেয়ার : সুজন

স্পাের্টস ডেস্ক : সাকিব আল হাসান বা কোনো ক্রিকেটার কোনো সংস্করণে খেলতে না চাইলে সমস্যার কিছু দেখছেন না জাতীয় দলের টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ। কারও জন্য বাংলাদেশের ক্রিকেট থমকে থাকবে না বলেও স্পষ্ট উচ্চারণ তার। পাশাপাশি এই বিসিবি পরিচালকের চাওয়া, বিভিন্ন সিরিজ বা সফরের আগে সাকিবের খেলা না খেলা নিয়ে ক্রমাগত টানাপোড়েন ও অনিশ্চয়তায় এবার যেন ‘ফুল স্টপ’ টানা হয়।

সাকিবকে নিয়ে সোমবার বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসানের ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়ার পর মঙ্গলবার খালেদ মাহমুদও বুঝিয়ে দিলেন, বিসিবি এবার শক্ত অবস্থান নিতে চলেছে।

মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে খালেদ মাহমুদ প্রশ্ন তুললেন সাকিবের বিরতি চাওয়ার সময়টা নিয়ে।

“একজন ক্রিকেটার ছুটি চাইতেই পারে। কিন্তু সাকিব সেটা আগে বললেই পারত। আগে একটা চিঠি দিয়েছিল (টেস্ট থেকে বিরতি চেয়ে)। পরে আবার পাপন ভাইয়ের সঙ্গে কথা বলে রাজি হয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকায় টেস্ট-ওয়ানডে সব খেলতে। তারপরও কেন এরকম বলল, এটা তো আমি বলতে পারব না। সাকিবের মনের কথা তো আমি বলতে পারব না।”

আমি মনে করি, মাঝেমধ্যে আমরা এটা টেনে লম্বা করি। সেটা না করে যা আসবে, তা মেনে নেওয়া উচিত। সাকিব ফেরার পর (দুবাই থেকে) কথা বলে যদি সফরে যায় তো ভালো, না গেলেও সমস্যা নেই। এটা বড় ব্যাপার নয়। কারও জন্য বাংলাদেশ ক্রিকেট বসে থাকবে, এটা ভাবা ভুল।

এই মাসেই বাংলাদেশের দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে সাকিবের টেস্ট খেলা নিয়ে অনিশ্চয়তা থাকলেও গত ২৮ ফেব্রুয়ারি বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান নিশ্চিত করেন, পুরো সফরেই পাওয়া যাবে এই অলরাউন্ডারকে। পরে তাকে রেখেই ঘোষণা করা হয় দুই সংস্করণের বাংলাদেশ দল। কিন্তু গত রোববার ব্যক্তিগত প্রয়োজনে দুবাই যাওয়ার আগে সাকিব বলেন, এই মুহূর্তে ক্রিকেট খেলার মতো শারীরিক ও মানসিক অবস্থায় তিনি নেই।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া