adv
৩০শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

আজ জাতিসংঘ দিবস

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : বিশ্বে শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে আজকের এইদিনে আনুষ্ঠানিকভাবে আত্মপ্রকাশ করে জাতিসংঘ। জাতিসংঘ দিবসের পাশাপাশি আজকের এই দিনটি বিশ্ব উন্নয়ন তথ্য দিবস হিসেবেও পালিত হয়। ১৯৪৫ সালের কার্যকর হওয়ার এই দিনটিকে জাতিসংঘ দিবস হিসেবে নির্ধারণ করা হয়।

১৯৪৭ সালের জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে ২৪ অক্টোবরকে জাতিসংঘ দিবস হিসেবে ঘোষণা দেয়া হয়। পৃথিবীর সব স্বাধীন ও সার্বভৌম রাষ্ট্রে যথাযোগ্য মর্যাদা ও নানা আয়োজনে দিবসটি পালিত হয়।

সাধারণত জাতিসংঘ দিবস উপলক্ষে নিউইয়র্ক সদর দপ্তরের জেনারেল অ্যাসেম্বলি হলে একটি কনসার্টের আয়োজন করা হয়। তবে করোনা মহামারির কারণে এবছরের কনসার্টটি আয়োজন করা হয়েছে কিছুটা ভিন্ন ধাচে। কনসার্টের কিছু অংশ সরাসরি ও পূর্বে ধারন করা কিছু অংশ দেখানো হয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার ‘শান্তি ও সমৃদ্ধির জন্য একসাথে কাজ করি’ এই প্রতিপাদ্যে জাতিসংঘ ও কোরিয়া মিশনের পৃষ্ঠপোষকতায় আয়োজন করা হয় কনসার্টটির।

বিশেষ এই দিনটি উদযাপনে নানা আয়োজন রেখেছে দুবাই এক্সপো। সংযুক্ত আরব আমিরাত ও আরব বিশ্বের শিল্পীদের অংশগ্রহণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে আজ, যেখানে উপস্থিত থাকবেন আরব আমিরাতের উর্ধ্বতন ব্যক্তিবর্গরাও। জাতিসংঘের ইউটিউব চ্যানেল ও ইউএন ওয়েব টিভির লাইভ স্ট্রিমিংয়ের মাধ্যমে গোটা বিশ্ব এ অনুষ্ঠানটি সরাসরি উপভোগ করতে পারবে।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের শেষে বিজয়ী মিত্রশক্তি পরবর্তীকালে যাতে যুদ্ধ ও সংঘাত প্রতিরোধ করা যায়— এই উদ্দেশ্যে জাতিসংঘ প্রতিষ্ঠা করতে উদ্যোগী হয়। তখনকার বিশ্ব রাজনীতির পরিস্থিতি জাতিসংঘের বা রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাংগঠনিক কাঠামোতে এখনও প্রতিফলিত হচ্ছে। জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের ৫টি স্থায়ী সদস্য (যাদের ভেটো প্রদানের ক্ষমতা আছে) মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স, যুক্তরাজ্য, রাশিয়া ও চীন।

জাতিসংঘের সদর দপ্তর যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক শহরে অবস্থিত। এটি ১৬ একর জমিতে ১৯৪৯হতে ১৯৫০ সালের মধ্যে নির্মাণ করা হয়। ভবনটি ইস্ট নদীর তীরে অবস্থিত। সদর দপ্তর স্থাপনের জমি কেনার জন্য জন ডি রকফেলার জুনিয়র ৮.৫ মিলিয়ন ডলার ব্যয় করেন। তিনি জাতিসংঘকে এই জমি দান করেন।

সদর দপ্তরের মূল ভবনটির নকশা প্রণয়ন করেন – লে করবুসিয়ে, অস্কার নিয়েমেয়ারসহ আরো অনেক খ্যাতনামা স্থপতি। নেলসন রকফেলারের উপদেষ্টা ওয়ালেস কে হ্যারিসন এই স্থপতি দলের নেতৃত্ব দেন। আনুষ্ঠানিকভাবে সদর দপ্তরের উদ্বোধন হয় ১৯৫১ সালের ৯ই জানুয়ারি তারিখে।

সদর দপ্তর নিউইয়র্কে হলেও জাতিসংঘের বেশ কিছু অঙ্গ সংগঠনের প্রধান কার্যালয় সুইজারল্যান্ডের জেনেভা, নেদারল্যান্ডের দ্য হেগ, অষ্ট্রিয়ার ভিয়েনা, কানাডার মন্ট্রিল, ডেনমার্কের কোপেনহাগেন, জার্মানীর বন ও অন্যত্র অবস্থিত।

জাতিসংঘের ছয়টি দাপ্তরিক ভাষা হলো আরবি, চীনা, ইংরেজি, ফরাসি, রুশ, এবং স্পেনীয় ভাষা। সচিবালয়ে যে দুটি ভাষা ব্যবহৃত হয় তা হলো ইংরেজি ও ফরাসি।

জাতিসংঘের দাপ্তরিক ভাষাগুলোর মধ্যে ইংরেজি ৫৪টি সদস্য দেশের সরকারি ভাষা। ফরাসি হলো ২৯টি দেশের, আরবি ২৪টি দেশের, স্পেনীয় ২১টি দেশের, রুশ ১০টি দেশের, এবং চীনা ভাষা ৪টি দেশের সরকারি ভাষা।

এছাড়াও জাতিসংঘে কিছু প্রস্তাবিত দাপ্তরিক ভাষা হলো বাংলা, হিন্দি, জার্মান, পর্তুগিজ, মালয়, তুর্কি, জাপানি, সোয়াহিলি ইত্যাদি।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া