adv
১২ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৯শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

যুক্তরাষ্ট্রের পর জার্মানিতেও সৌদি যুবরাজের বিরুদ্ধে মামলা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের পর এবার জার্মানিতেও সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যার ঘটনায় জার্মান আদালতে মামলাটি দায়ের করেছে রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডার্স (আরএসএফ)।

এবারের মামলায় খাশোগি হত্যাকাণ্ড ছাড়াও সৌদি আরবের কারাগারে বন্দি ৩৪ জন সাংবাদিককে নির্যাতনের অভিযোগও আনা হয়েছে যুবরাজ সালমানের বিরুদ্ধে।

সোমবার (১ মার্চ) জার্মানির কালসরুহের অন্যতম শীর্ষ কেন্দ্রীয় আদালতে মামলাটি করেছে আরএসএফ। খাশোগিকে গুপ্তহত্যা এবং অন্য সাংবাদিকদের গ্রেপ্তারের পেছনে তার ভূমিকা রয়েছে বলে মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়। বিশ্বব্যাপী এমবিএস নামে পরিচিত সৌদি যুবরাজের বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধেরও এবার অভিযোগ আনা হয়েছে।

খাশোগি হত্যার ঘটনায় এমবিএস ছাড়াও সৌদি আরবের আরও চারজন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা করেছে আরএসএফ। নৃশংস ওই হত্যাকাণ্ডের নির্দেশদাতা হিসেবে এমবিএস জড়িত ছিলেন বলে মার্কিন গোয়েন্দা প্রতিবেদন প্রকাশের চারদিন পরই এই মামলা হলো।

জার্মানিতে আরএসএফের পরিচালক ক্রিশ্চিয়ান মির বিবৃতির মাধ্যমে বলেছেন, এটাই হবে জার্মানিতে সৌদি আরবের কারও বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধ তদন্তের প্রথম ঘটনা। আমরা পাবলিক প্রসিকিউটর জেনারেলকে পরিস্থিতি বিশ্লেষণ, আগের সব তদন্তের নথিপত্র খতিয়ে দেখা এবং গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আহ্বান জানিয়েছি।

২০১৮ সালের ২ অক্টোবর ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে ডেকে নিয়ে টুকরো টুকরো করে হত্যা করা হয় সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে। যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ইন্টেলিজেন্সের পরিচালকের দফতরের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আমাদের কাছে প্রতীয়মান হয়েছে যে, খাশোগিকে হত্যা কিংবা আটক করতে তুরস্কের ইস্তাম্বুলে অভিযানের অনুমোদন দিয়েছিলেন সৌদি আরবের যুবরাজ মুহাম্মদ বিন সালমান।

উল্লেখ্য, নির্মম সেই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ২০২০ সালের অক্টোবরে যুক্তরাষ্ট্রের আদালতে একটি মামলা দায়ের করেছিলেন নিহতের বাগদত্তা হেতিস চেঙ্গিস।

সূত্র : ডিডব্লিউ

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া