adv
১২ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৯শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

করোনাভাইরাসের বছরও (২০২০) বাংলাদেশে এত কোটিপতি!

ডেস্ক রিপাের্ট : ২০২০ সাল করোনা ভাইরাসের বিষে নীলের বছর। ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে করোনা ভাইরাস চীনে শনাক্ত হয়ে মার্চ নাগাদ তা পুরো বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে। টানা কয়েকমাস আন্তর্জাতিক যোগাযোগ বন্ধ, লকডাউন, অর্থনৈতিক বিপর্যয় নিয়েই শেষ হয় মহামারির বছর।

ভ্যাকসিন আবিষ্কার আর প্রয়োগ শুরু হলেও করোনার প্রকোপও চলছে সমান তালে। উৎপত্তিস্থল চীন এ মহামারিতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকলেও সবশেষ ক্ষতি হয়েছে পশ্চিমা বিশ্বের। ইউরোপ, যুক্তরাষ্ট্র তো পুরোই বিপর্যস্ত। চীন কিন্তু ঠিকই ঘুরে দাঁড়িয়েছে। এরমধ্যেই চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছে কোটিপতির তালিকা প্রকাশ করা সংস্থা হুরুন গ্লোবাল রিচ লিস্ট।

সংস্থাটি জানায়, ২০২০ সালে দেশটিতে নতুন করে কোটিপতি হয়েছেন ১ হাজার ৫৪ জন। যেখানে একই সময়ে যুক্তরাষ্ট্রে কোটিপতি হয়েছেন ৬৯৬ জন। চলতি বছরের জানুয়ারি পর্যন্ত করা গবেষণায় দেখা গেছে, গেল বছর নতুন করে সারা বিশ্বে ৬১০ জন কোটিপতি হয়েছেন, এদের মধ্যে ৩১৮ জনই চীনের। বাকি ৯৫ জন যুক্তরাষ্ট্রের।

সংস্থাটির গবেষণা বলছে, গেল বছর যুক্তরাষ্ট্রের চেয়ে চীনে নতুন করে কোটিপতি হয়েছেন অনেকে।

বিশ্বের শীর্ষ দশটি শহরের মধ্যে ৬টি চীনে অবস্থিত, যেখানে কোটিপতির সংখ্যা বেশি। এরমধ্যে বেইজিংই টানা ৬ বছর ধরে শীর্ষ অবস্থান ধরে রেখেছে। বর্তমানে শহরটিতে বিলিওনিয়ার আছেন ১৪৫ জন। এখন পর্যন্ত বেইজিং বিশ্বের কোটিপতিদের শহর। নিউইয়র্ক শহর আছে তৃতীয় অবস্থানে।

এদিকে গেল বছর সাংহাইতে নতুন করে ৩০ জন কোটিপতি হয়েছেন। বর্তমানে সাংহাইয়ে কোটিপতির সংখ্যা ১১৩। এরপরের অবস্থানে আছে চীনের শেনঝেন, এ শহরে কোটিপতি আছেন ১০৫ জন। হংকংয়ের অবস্থান পঞ্চমে। এ শহরে কোটিপতি আছেন ৮২।

অর্থনীতিবিদরা বলছেন, এক বছরে সারা বিশ্বে এতো কোটিপতি কোনোসময় হতে দেখেননি তারা। তার ওপর আবার মহামারির মধ্যে কোটিপতির সংখ্যা এভাবে বেড়েছে। মহামারিতে সারা বিশ্ব অর্থনৈতিক সংকটে পড়লেও কোটিপতিরা আরও কোটিপতি হয়েছেন। মহামারির বছরে সারা বিশ্বে কোটিপতিদের অর্থ বেড়ে দাঁড়িয়েছে প্রায় ১৫ ট্রিলিয়ন ডলার। করোনার বছরে বিশ্বের ৬৮টি দেশের ২ হাজার ৪০২টি কোম্পানির ৩ হাজার ২২৮ জন কোটিপতির অর্থ সম্পদ বেড়েছে। স্বাস্থ্যসুরক্ষা আর খুচরা বিক্রিতে বাজিমাত করেছেন কোটিপতিরা। তালিকায় ছিল বৈদ্যুতিক গাড়ি আর ই-কমার্স খাত।

যুক্তরাষ্ট্রে মাত্র এক বছরে তিনজন কোটিপতি ৫ হাজার কোটি ডলারের মালিক হয়েছেন। এরমধ্যে এলন মাস্ক নিজেই ১৫ হাজার ১০০ কোটি ডলারের মালিক হয়েছেন। তার বৈদ্যুতিক গাড়ি টেসলার বিক্রি বেড়েছিল গেল বছর। একই সময় খুচরা বিক্রেতা প্রতিষ্ঠান অ্যামাজান প্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজস আয় করেছেন ৫ হাজার কোটি ডলার।

অর্থনীতিবিদরা বলছেন, এভাবে চলতে থাকলে আগামী ৫ বছরে এমন কোটিপতিও পাওয়া যাবে, যারা বছরে ১০ হাজার কোটি ডলারের অর্থ ও সম্পদ গড়ছেন। – সময়নিউজ

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া