চোখ উপড়ে ফেলা হবে, যুক্তরাষ্ট্রসহ ৫ দেশকে চীনের হুঁশিয়ারি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : চীনের নতুন আইনের প্রতিবাদে গত সপ্তাহে পদত্যাগ করেন হংকংয়ের নির্বাচিত গণতন্ত্রপন্থি ১৯ জন আইনপ্রণেতা। ছবি : রয়টার্স
হংকংয়ের গণতন্ত্রপন্থিদের ওপর চীনের দমনমূলক কর্মকাণ্ডকে নজরদারিতে রাখার জন্য পশ্চিমা পাঁচটি দেশের উদ্যোগে গঠিত জোটের প্রতি ব্যাপক চটেছে চীন।

হংকংয়ে নির্বাচিত আইনপ্রণেতাদের অযোগ্য ঘোষণা করে চীন যে নতুন আইন করেছে তার সমালোচনা করেছে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড ও কানাডা মিলে গঠন করা ‘ফাইভ আই জোট’।

এই জোটের উদ্দেশে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, ‘তাদের উচিত সতর্ক থাকা, নয়তো তাদেরই চোখ উপড়ে ফেলা হবে।’ চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ঝাও লিজিয়ান গতকাল বৃহস্পতিবার বেইজিংয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এমন হুঁশিয়ারি দেন। বিবিসির খবরে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ঝাও লিজিয়ান বলেন, ‘চীন কারো সমস্যা সৃষ্টি করে না, কাউকে পরোয়াও করে না। তাদের পাঁচ চোখ নাকি ১০ চোখ, তাতে যায় আসে না।’

গত সপ্তাহে জাতীয় নিরাপত্তার প্রতি হুমকি উল্লেখ করে চীন নতুন আইনের মাধ্যমে গণতন্ত্রপন্থি চারজন নির্বাচিত আইনপ্রণেতাকে অযোগ্য ঘোষণা করে। এর প্রতিবাদে গণতন্ত্রপন্থি ১৯ জন আইনপ্রণেতাই পদত্যাগ করেন। ১৯৯৭ সালে যুক্তরাজ্যের হাত থেকে চীনের আয়ত্তে আসা হংকংয়ে এমন ঘটনা এবারই প্রথম।

ফাইভ আই জোট চীনকে নতুন ওই আইন সংশোধনের আহ্বান জানিয়েছে।

জয় পরাজয় আরো খবর