adv
৮ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ভারতের মধ্যপ্রদেশেও বন্ধ হচ্ছে মাদ্রাসা!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতে আসামে সরকারি মাদ্রাসা গুলোকে বন্ধের নির্দেশ জারি করার পর এবার মধ্যপ্রদেশেও মাদ্রাসা নিয়ে রাজনীতি শুরু হয়েছে। মধ্যপ্রদেশ সরকারের ক্যাবিনেট মন্ত্রী ঊষা ঠাকুর মাদ্রাসাকে দেওয়া সরকারি অনুদান বন্ধ করার দাবি তুলেছেন।

তিনি বলেন, ‘মাদ্রাসা থেকে জঙ্গি তৈরি হয়, এজন্য এদের দেওয়া সমস্ত সরকারি সাহায্য বন্ধ করে দেওয়া উচিৎ।”

একটি প্রেস বার্তার সময় মধ্যপ্রদেশ সরকারের ক্যাবিনেট মন্ত্রী ঊষা ঠাকুর নিজের সরকারের কাছে রাজ্যে মাদ্রাসা গুলোতে সরকারের টাকা দেওয়া বন্ধ করার আবেদন করেন। উনি যুক্তি দিয়ে বলেন যে, মাদ্রাসায় কট্টরপন্থী আর সন্ত্রাসবাদী তৈরি হয়। এমনকি নিজের কথা প্রমাণ করার জন্য তিনি জম্মু কাশ্মীরে বেড়ে চলা সন্ত্রাসবাদের প্রসঙ্গ টেনে আনেন।

ঊষা আরও বলেন যে, ওয়াকফ বোর্ড নিজে থেকেই একটি বড় সংস্থা, এদের কাছে অনেক টাকা আছে এই কারণে মাদ্রাসায় সরকারি অনুদান দেওয়া বন্ধ করা হোক। উনি আরও বলেন, যদি কেউ ব্যক্তিগতভাবে সাহায্য করতে চায়, তাহলে আমাদের সংবিধান তাকে অনুমতি দেবে, কিন্তু আমাদের রক্ত জল করা পয়সা সেখানে ঢালতে দিতে পারি না। আমরা এই টাকার ব্যবহার উন্নয়নের কাজে করব।

সম্প্রতি আসাম সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে, রাজ্যের সমস্ত সরকারি মাদ্রাসা বন্ধ করে দেওয়া হবে। আসাম সরকারের শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন যে, সরকারি টাকায় ধার্মিক শিক্ষা দেওয়া যেতে পারেনা। সরকারের টাকা দিয়ে শুধু কোরআন কেন পড়ানো হবে? তিনি সরকারি মাদ্রাসা গুলোকে বন্ধ করে সেগুলোকে স্কুলে পরিণত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া