তুরস্কে ভয়াবহ বিমান দুর্ঘটনায় ৭ সেনার প্রাণহানি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : তুরস্কের পূর্বাঞ্চলে পাহাড়ে একটি নজরদারি বিমান বিধ্বস্ত হয়ে সাত সামরিক সদস্য নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই) দেশটির রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা আনাদোলু এজেন্সির খবরে এমন তথ্য জানা গেছে।

তুর্কি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সোলাইমান সোইলুর বরাতে গণমাধ্যমটি জানায়, আরটুস পাহাড়ে বিধ্বস্ত হয় বিমানটি। ভ্যান শহরের এই পাহাড়টি একটি ঘুমন্ত আগ্নেয়গিরি।

তিনি বলেন, বিমানটিতে দুই পাইলট ও পাঁচ প্রযুক্তি কর্মী ছিলেন। বুধবার (১৫ জুলাই) স্থানীয় সময় রাত ১০টা ৪৫ মিনিটে এটির সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়।

পর্বতের দুই হাজার ২০০ মিটার (৭২১৮ ফুট) উচ্চতায় বিধ্বস্ত হয়েছে বলে জানিয়েছেন সোলাইমান।

এর আগে একই দিন স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টা ৩৫ মিনিটে বান ফেরিত মেলান বিমানবন্দর থেকে বিমানটি উড্ডয়ন করেছিল।

তিনি বলেছেন, সোমবার (১৩ জুলাই) থেকে বান ও হাককারি প্রদেশে পর্যবেক্ষণ ও নজরদারি মিশনে ছিল ২০১৫ মডেলের বিমানটি।

তার মতে, রাত ১০টা ৩২ মিনিটে বাসকেলে জেলার আশপাশের আকাশে থাকায় সময় শেষবারের মতো কন্ট্রোল টাওয়ারের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন পাইলটরা। এরপর রাত প্রায় ১০টা ৪৫ মিনিটের দিকে বিমানটি রাডার থেকে হারিয়ে গিয়ে যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়।

উল্লেখ্য, বিমানটি বিধ্বস্ত হওয়ার পর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সোলাইমান সোইলু ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

জয় পরাজয় আরো খবর