ক্রিকেট খেলোয়াড়দের সতর্ক থাকার পরামর্শ দিলো বিসিবি

স্পোর্টস ডেস্ক : করোনাভাইরাসের প্রকোপের কারণে বাংলাদেশের সব ক্রিকেটার এখন ঘরে বন্দি। এমন অবস্থায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরব তারা। আন্তর্জাতিক অঙ্গনের ফিক্সাররা এটাকেই সুযোগ হিসেবে বেছে নিতে পারে। তাই দেশের ক্রিকেটারদের সতর্ক করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।
বিসিবির শৃঙ্খলা কমিটির চেয়ারম্যান শেখ সোহেল জানিয়েছেন, জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের এই সময় সতর্ক থাকা উচিত। এমন সময় ফিক্সারদের গতিবিধি বোঝা বেশ কঠিন বলে মনে করেন তিনি। তাই জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের বাড়তি সতর্কতার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।
সোহেল বলেন, ‘আমি মনে করি এই মুহূর্তে তাদের সতর্ক থাকাই ভালো, কারণ আপনি এই সময় কারো গতিবিধি বুঝতে পারবেন না। আমাদের জাতীয় দলের খেলোয়াড়দের সতর্ক থাকতে হবে কারণ তারা সামাজিক কাজে ব্যস্ত বাংলাদেশের চলমান সঙ্কটে।’
কদিন আগেই ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ (ডিপিএল) স্থগিত করে দিয়েছে বিসিবি। গত এক মাস ধরেই ক্রিকেটের বাইরে খেলোয়াড়রা। ক্রিকেটারদের এই অবসরে ফিক্সাররা সক্রিয় হয়ে উঠতে পারে বলে ধারণা আইসিসিরও। বিসিবির আগেই আইসিসির দুর্নীতি বিরোধী ইউনিটের প্রধান অ্যালেক্স মার্শাল ক্রিকেটারদের এই বিষয়ে সতর্ক করেছেন।
মার্শাল বলেছেন, কোভিড-১৯ হয়তো আন্তর্জাতিক ও ঘরোয়া ক্রিকেট ক্ষণিকের জন্য থামিয়ে দিয়েছে। তবে বাজিকরেরা কিন্তু বসে নেই। এ কারণে খেলোয়াড়, সদস্য, এজেন্ট, খেলোয়াড় সংস্থাদের সঙ্গে আমাদের কাজ চলবে। খেলোয়াড়েরা এখন আগের তুলনায় অনেক বেশি সময় দিচ্ছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।
মার্শাল আরো বলেন, তাদের কাছাকাছি পৌঁছানোর এটাই সুযোগ বাজিকরদের জন্য। এই সম্পর্ক পরে তারা কাজে লাগাবে। আমরা খেলোয়াড়, সদস্য, এজেন্টদের সঙ্গে এ নিয়ে কথা বলেছিল। বিষয়টির গুরুত্ব বুঝিয়ে বলা হয়েছে। খেলোয়াড়েরা যেন এ সময় অসতর্ক না থাকে।-ক্রিকফ্রেঞ্জি

যুক্তরাষ্ট্রে ক্ষুধার্তদের ভিড়

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। এ রকম অবস্থায় লকডাউন পরিস্থিতি আরও কঠিন করে তুলেছে গোটা যুক্তরাষ্ট্র। এখনো পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় মৃত্যু সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৩৯ হাজার ০১৫ জন। আক্রান্ত হয়েছে ৭ লাখ ৩৮ হাজার ৯২৩ জন। এ রকম এক অবস্থায় মানুষ খাবারের জন্য লাইন দিচ্ছেন ফুড ব্যাংকে।

এমন কতগুলো জায়গায় মানুষ বহুদূর থেকে গাড়ি চালিয়ে আসছেন ফুড ব্যাংকে। সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী পেনসিলভানিয়ার একটি ফুড ব্যাংকের সামনে ১০০০ গাড়ির লাইন পড়তে দেখা গিয়েছে। শহরে চলছে এ রকম আরও ৮টি ফুড ব্যাংক।

গ্রেটার পিটার্সবার্গ কমিউনিটি ফুড ব্যাংকের প্রধান ব্রায়ান গালিশ সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন, ২২৭ টন খাবার তাদের ব্যাংক থেকে দেওয়া হয়েছে। বহু মানুষ রয়েছেন যারা জীবনে প্রথমবার এ রকম ফুড ব্যাংকের লাইনে দাঁড়িয়েছেন। একসময় গৃহহীনদের জন্য এই খাবার দেওয়া হতো। এখন লকডাউনের সময়ে অনেকেই খাদ্যসামগ্রী কিনতে পারছেন না। তাদের জন্যই লাইন দীর্ঘ হয়েছে।

গোটা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নিউ অরলিয়েন্স থেকে ডেট্রেয়েট পর্যন্ত বহু মানুষ বেতন পাননি। তারা এখন ফুড ব্যাংকের লাইনে দাঁড়াচ্ছেন। ক্যালিফোর্নিয়াতেও একই অবস্থা। সান অ্যান্টনিও, টেক্সাসের মতো জায়গাতে কোনো কোনো ফুড ব্যাংকে ১০,০০০ গাড়ির লাইনও দেখা গিয়েছে। অনেকে পরিবারকে নিয়ে রাত থেকে এসে লাইনে দাঁড়াচ্ছেন।

বোস্টনে এক মহিলা সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, কাজ বন্ধ। কয়েক মাস পেরিয়ে গিয়েছে। গতকাল এক মহিলাকে দেখলাম ১৫ দিনের বাচ্চাকে নিয়ে এসেছেন। ওর স্বামীর কাজ নেই। বাড়িতে কোনো খাবার নেই।

ওহিও-র একটি ফুড ব্যাংক হল অ্যাকরন। সেই ব্যাংকের এক কর্মকর্তার দাবি, করোনার প্রকোপ ছড়ানোর পর ফুড ব্যাংকে খাবারের চাহিদা অন্তত ৩০ শতাংশ বেড়ে গিয়েছে।

লকডাউনের ফলে রেস্টুরেন্ট বন্ধ। মানুষ গ্রসারি থেকে খাবার মজুত করছেন। রেস্টুরেন্টে বেঁচে যাওয়া খাবার আগে গরিবদের দেওয়া হতো। এখন তাও বন্ধ।

জরিপ প্রত্যাখান করেছেন ট্রাম্প- বলছেন মৃতের সংখ্যায় শীর্ষে চীন, যুক্তরাষ্ট্র নয়

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থার পরিসংখ্যানে করোনা সংক্রমণে মৃতের সংখ্যায় যুক্তরাষ্ট্র শীর্ষে, এই তথ্য প্রত্যাখান করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বেজিংয়ের দেওয়া সরকারি তথ্যকে চ্যালেঞ্জ করে তিনি দাবি করেছেন, মৃতের সংখ্যায় চীনই একনম্বরে।

মার্কিন প্রেসিডেন্টের সরকারি বাসভবন হোয়াইট হাউসে শনিবার এক সংবাদ সম্মেলনে এই দাবি জানান ডোনাল্ড ট্রাম্প।

চীনের হুবেই প্রদেশের প্রশাসকদের মৃতের সংখ্যা সংশোধনের বিষয়টি উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা শীর্ষে নেই মোটেই। আপনারাও জানেন, চীনই এ ব্যাপারে এক নম্বরে। চীন যে আমাদের খুব ধারে কাছে আছে, তা-ও নয়। আমাদের চেয়ে রয়েছে অনেক এগিয়ে। এটা ওরা (চীন) জানে। আমরাও জানি। জানেন আপনারাও। কিন্তু সে কথা সংবাদ মাধ্যমে বলা হচ্ছে না।

এ সময় ট্রাম্প প্রশ্ন তোলে বলেন, ব্রিটেন, ফ্রান্স, বেলজিয়াম, ইটালি ও স্পেনের মতো দেশগুলোতে স্বাস্থ্য পরিষেবা সবচেয়ে উন্নত ও সর্বাধুনিক হওয়া সত্ত্বেও সেখানে এই সংক্রমণে যখন বহু মানুষের মৃত্যু হয়েছে ও হচ্ছে, তখন চীনে সেই হার কীভাবেই বা হতে পারে মাত্র ০.৩৩ শতাংশ?

মার্কিন প্রেসিডেন্টের অভিযোগ, করোনা সংক্রমণে বেইজিং সরকারিভাবে মৃতের সংখ্যা যা বলছে, আদতে তা অনেক বেশি। তাই এ ব্যাপারে চীনের সরকারি পরিসংখ্যানকে ‘বিশ্বাসযোগ্য’ বলে মনে করছেন না তিনি।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ৬ কর্মকর্তার শরীরে করোনা ভাইরাস

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ দিন দিন বেড়েই চলছে দেশজুড়ে। এরমধ্যে প্রশাসনের ছয় কর্মকর্তার শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

রোববার (১৯ এপ্রিল) বিকালে জনপ্রশাসন সচিব শেখ ইউসুফ হারুন বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, আক্রান্তদের মধ্যে মাঠ প্রশাসনে নায়ায়ণগঞ্জে তিনজন, গাজীপুর ও ভৈরবে একজন করে এবং জেদ্দাস্থ বাংলাদেশ মিশনের শ্রম কাউন্সেলর রয়েছেন।

সচিব বলেন, করোনায় আক্রান্ত কর্মকর্তাদের চিকিৎসা দিতে সর্বোচ্চ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। তাদের সংস্পর্শে যারা ছিলেন সব কর্মকর্তাদের হোম কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে।

নিজেদের হেফাজত করে সতর্ক থেকে কাজ করতে মাঠ প্রশাসনকে আগেই নির্দেশনা দিয়েছি বলেও জানান তিনি।

এরআগে প্রশাসন ক্যাডারের ২২তম ব্যাচের কর্মকর্তা ও দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পরিচালক জালাল সাইফুর রহমান করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৬ এপ্রিল মারা যান।

রোনালদো এখনো মেসি পর্যায়ের খেলোয়াড় নয়, বললেন ডেভিড বেকহ্যাম

স্পাের্টস ডেস্ক : ফুটবল বিশ্বে আর্জেন্টিানার লিওনেল মেসি নাকি পর্তুগালের ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো সেরা? এই বিতর্কে এবার যোগ দিলেন ইংল্যান্ডের সাবেক দলপতি ডেভিড বেকহ্যাম। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক এ মিডফিল্ডার এগিয়ে রাখছেন মেসিকে।

এক দশকের বেশি সময় ধরে বিশ্ব ফুটবলে আধিপত্য করছেন মেসি ও রোনালদো। এই সময়ে রেকর্ড ছয়টি ব্যালন ডি’অর জিতেছেন বার্সেলোনা অধিনায়ক মেসি, পর্তুগিজ তারকা রোনালদো জিতেছেন পাঁচবার। দুজনেই আছেন ক্যারিয়ারের শেষ পর্যায়ে। আর্জেন্টিনার নিউজ এজেন্সি তেলামকে বেকহ্যাম জানান, তার কাছে মেসিই সেরা। খেলোয়াড় হিসেবে মেসি তার পর্যায়ে একাই। তার মতো আরেক জন থাকা অসম্ভব। খেলোয়াড় হিসেবে আর কেউ তার মতো নয়। -বিডিনিউজ
রোনালদোর বিপক্ষে কখনও খেলেননি বেকহ্যাম। তবে ইংলিশ এই মিডফিল্ডার ২০১৩ পিএসজিতে খেলার সময় মেসির মুখোমুখি হয়েছিলেন। ওদের টেকনিক ও মেধা একই রকম হতে পারে। একই সময়ে তাদের খেলতে দেখা ফুটবলের জন্য অসাধারণ। তবে মেসিই বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়। মেসি অনন্য।- নিউজ এজেন্সি তেলাম

টেলি-কনফারেন্সে আইসিসির সভায় যোগ দেবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড

স্পোর্টস ডেস্ক : অন্যান্য খেলাধুলার মতো, করোনাভাইরাস মহামারীজনিত কারণে ক্রিকেটের সমস্ত অন-ফিল্ড ক্রিয়াকলাপ বিশ্বব্যাপী স্থগিত হয়ে গেছে। টেস্ট খেলুড়ে দেশগুলোর ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহীরা আগামী সপ্তাহে করোনা পরবর্তী ভবিষ্যৎ সূচি (এফটিপি) সম্পর্কে আলোচনা করতে একটি টেলি-সম্মেলনে যোগ দেবেন। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) এক কর্মকর্তা রোববার (১৯ এপ্রিল) বিষয়টি জানিয়েছেন।
দিন দুয়েক আগে টাইমস অফ ইন্ডিয়াতে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছিল যার শিরোনাম ছিল- কোভিড ইফেক্ট: আইসিসির সদস্য বোর্ডগুলোর দেউলিয়ার ‘মারাত্মক ঝুঁকি’। রিপোর্ট অনুসারে ভারত এবং ইংল্যান্ড ছাড়া ক্রিকেট বিশ্বের বাকি বোর্ডগুলোর অস্তিত্ব হুমকির মুখে পড়বে যদি চলতি অচলাবস্থা খুব দ্রুত না কাটে।
সেখানে আরও বলা হয়েছিল যে, করোনা পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড বর্তমান চুক্তি শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই কোনও ব্রডকাস্টার এবং স্পন্সরদের সাথে চুক্তি নবায়ন করতে পারছে না। ফলে বেশ বড় আর্থিক ক্ষতির সন্মুখীন হতে পারে বোর্ডটি।
প্রতিবেদনে এটাও বলা ছিলো করোনায় সৃষ্ট আর্থিক ক্ষতি পোষানোর একমাত্র উপায় হলো আইসিসির ইভেন্টগুলো। সেগুলো যথাযথভাবে হলে আর্থিক ক্ষতি অনেকটাই পুষিয়ে নিতে পারবে বোর্ডগুলো। এরই প্রেক্ষিতে আইসিসি তার সদস্য দেশগুলোর সঙ্গে করোনা পরবর্তী এফটিপি নিয়ে আলোচনা করতে যাচ্ছে।
রোববার বিসিবির এক কর্মকর্তা বলেছেন, আলোচনার মূল বিষয়বস্তু হবে আসন্ন ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের (ডব্লিউটিসি) উদ্বোধনীর ব্যাপারে, যার ফাইনাল আগামী বছরের জুনে নির্ধারিত রয়েছে। তবে চ্যাম্পিয়নশিপের ভাগ্য এখনও অনিশ্চিত।’
দুই বছরের চক্রটি ২০১২ ওয়ানডে বিশ্বকাপের পরে শুরু হয়েছিলো। নিয়মানুযায়ী প্রতিটি দল ছয়টি টেস্ট সিরিজ খেলতে নামবে – তিনটি ঘরের মাঠে এবং তিনটি অ্যাওয়ে ভেন্যুতে। স্থগিতাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ চক্রকে বিপর্যস্ত করে ফেলেছে।
প্রথম ওয়ানডে লিগটি মে মাসে শুরু হবে এবং ২০২৩ বিশ্বকাপের খেলার পথ হিসাবে কাজ করবে। কিন্তু সেটিও পিছিয়ে যাবে বলে মনে করা হচ্ছে। -ক্রিকফ্রেঞ্জি

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বললেন- জানাজায় লোক সমাগম ঠেকাতে প্রশাসন ব্যর্থ

নিজস্ব প্রতিবেদক : স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, লকডাউনের মধ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের নায়েবে আমিরের জানাজায় লোক সমাগম ঠেকাতে প্রশাসন ব্যর্থ হয়েছে। রবিবার দুপুরে মহাখালী থেকে নিয়মিত অনলাইন স্বাস্থ্য বুলেটিনে তিনি এ কথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, সাধারণ মানুষের ভোগান্তি যাতে না হয় সেজন্য সরকারের পক্ষ থেকে নেয়া হচ্ছে নানা পদক্ষেপ। দেশের বিভিন্নস্থানে ত্রাণ বিতরণ করে যাচ্ছে সরকার। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সকলকে চলাচলের আহ্বানও জানানো হচ্ছে সরকারের পক্ষ থেকে। তবে অনেক ক্ষেত্রেই সেই আহ্বান শুনছেন না সাধারণ মানুষ। এজন্য কিছুক্ষেত্রে কঠোরও হচ্ছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। তবে এরমধ্যেও গতকাল ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এক জানাজায় জড়ো হয় লাখো মানুষ। এই জানাজায় লোক সমাগম ঠেকাতে প্রশাসন ব্যর্থ হয়েছে।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার বিকাল পৌনে ৬টায় জেলা শহরের মারকাজ পাড়ায় নিজ বাসভবনে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন খেলাফত মজলিশের সিনিয়র নায়েবে আমীর মাওলানা জুবায়ের আহমদ আনসারি। শনিবার সকালে লকডাউন উপেক্ষা করে সরাইলের জামিয়া রহমানিয়া বেড়তলা মাদ্রাসা মাঠে তার জানাজায় অংশ নেন হাজারো মানুষ। এ ঘটনায় সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাহাদাত হোসেন টিটু ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার মাসুদ রানাকে প্রত্যাহার করা হয়।

নিত্যপণ্যের উৎপাদন ও সরবরাহ ঠিক রাখতে ব্যাংক সেবা দেওয়া নির্দেশনা

ডেস্ক রিপাের্ট : করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের সময়ে নিত্যপণ্যসহ দৈনন্দিন ব্যবহার্য সামগ্রীর উৎপাদন, পরিবহন ও সরবরাহ চেইন অব্যাহত রাখতে প্রয়োজনীয় ব্যাংকিং সহযোগিতা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এ জন্য সরাসরি আমদানিকারকের মাধ্যমে প্রাপ্ত ডকুমেন্টের বিপরীতে পণ্য ছাড় করার পাশাপাশি আমদানি দায় পরিশোধের বিলম্ব না করতে বলা হয়েছে।

আজ রবিবার বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রানীতি বিভাগ এ সংক্রান্ত এক নির্দেশনা দিয়েছে।

বৈদেশিক মুদ্রা লেনদেনে নিয়োজিত সব অনুমোদিত ডিলার ব্যাংকের প্রধান কার্যালয় ও প্রিন্সিপাল অফিসে পাঠানো নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ‘করোনা প্রাদুর্ভাবজনিত প্রেক্ষাপটে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যসহ অন্যান্য দৈনন্দিন ব্যবহার্য সামগ্রীর উৎপাদন, পরিবহন ও সরবরাহ চেইন অব্যাহত রাখতে সহযোগিতা করতে হবে।’

এজন্য সরাসরি আমদানিকারকের মাধ্যমে প্রাপ্ত ডকুমেন্টের বিপরীতে পণ্য ছাড়করণ ও আমদানি দায় পরিশোধের বিষয়ে গাইডলাইন্স ফর ফরেন এক্সচেঞ্জ ট্রনজেকশনস-২০১৮ এর ৭ম অধ্যায়ের ২৬ অনুচ্ছেদে বর্ণিত নির্দেশনা মোতাবেক ব্যবস্থাগ্রহণের জন্য ব্যাংকগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

একইসঙ্গে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনার আলোকে ব্যাংকিং সংক্রান্ত বিষয়ে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা করতে সংশ্লি পক্ষকে জানাতে বলেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

নিজের প্রিয় ব্যাট নিলামে তুলছেন মুশফিকুর রহিম

নিজস্ব প্রতিবেদক : করোনা ভাইরাসে বিপর্যস্ত পুরো বিশ্ব। বাংলাদেশেও প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের আক্রমণ দিন দিন খারাপের দিকে যাচ্ছে। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। এমন পরিস্থিতিতে লকডাউনে পুরো দেশ। তাই কাজ না থাকায় অসহায় হয়ে পড়ছেন খেটে খাওয়া মানুষগুলো। এমন দূর্যোগ মোকাবিলায় সরকারের পাশাপাশি ব্যক্তি উদ্যোগেও এগিয়ে আসছেন অনেকে।

করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় অসহায়দের পাশে দাঁড়িয়েছেন অনেকে। সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন সাকিব আল হাসান ফাউন্ডেশন এবং মাশরাফীর নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন। এবার এগিয়ে এসেছেন আরেক তারকা ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিমও। এর আগে জাতীয় দলের অন্য ক্রিকেটারদের সঙ্গে নিজের বেতনের অর্ধেকটা অনুদান তহবিলে জমা দিয়েছিলেন মুশফিক। এছাড়া বগুড়ায় স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য ২০০ পিপিই, ২০০ গ্লাভস ও ২০০ মাস্কও পাঠান তিনি।

এবার করোনা ভাইরাসের কারণে অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়িয়েছেন বাংলাদেশের উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। বাংলাদেশের টেস্ট ইতিহাসের সেরা ব্যাটসম্যান ধরা হয় মুশফিকুর রহিমকে। দেশের টেস্ট ক্রিকেটে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরিও এসেছিল তার ব্যাট থেকে। ২০১৩ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে গল টেস্টে তিনি লিখেছিলেন সেই ইতিহাস।

এরপর আরো দুটি ডাবল সেঞ্চুরি করেছেন মুশফিক। কিন্তু প্রথম দ্বিশতক হাকানো ব্যাটটি বরাবরই তাঁর প্রিয়। এবার নিজের প্রিয় ও ঐতিহাসিক সেই ব্যাটটি নিলামে তুলতে যাচ্ছেন মুশফিক। নিলাম থেকে পাওয়া অর্থ তিনি অসহায়-দুস্থদের সহায়তায় ব্যয় করবেন। ডাবল সেঞ্চুরির ব্যাটের নিলামে ভালো সাড়া পেলে, দুস্থদের সহায়তায় আরো কিছু স্মারক নিলামে তুলবেন মুশফিকুর রহিম।

লকডাউনে হলিউডে প্রিয়াঙ্কার নারিকেল ফাটানোর ভিডিও ভাইরাল

বিনোদন ডেস্ক : বিশ্বজুড়ে লকডাউনে মানুষ নানাভাবে তাদের সময় কাটাচ্ছেন। করোনাভাইরাস ঠেকাতে ভারতেও চলছে লকডাউন। এ সময়ে ঘরে বসে পুরনো ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করে অতীত রোমন্থন করলেন বলিউড থেকে হলিউড দাপিয়ে বেড়ানো অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। যা পোস্ট হতেই ভাইরাল।

ভিডিওতে দেখা গেছে, তিনি নারকেল ফাটাচ্ছেন হলিউড ছবির শুভ মহরতে। অতীত রোমন্থন করতে গিয়ে তিনি অনুরাগীদের উপহার দিয়েছেন তার যাপিত জীবনের টুকরো মুহূর্ত।

প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার এই পুরনো ভিডিওটি ভক্তরা খুব পছন্দ করেছেন। ভিডিওটি ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে চলচ্চিত্র সমালোচক ভাইরাল ভায়ানী পোস্ট করেছেন। এই ভিডিওতে প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে নারকেল ভেঙে সবার জল ছড়িয়ে দিতে দেখা গেছে। অভিনেত্রীর এই পুরানো ভিডিওটিতে ভক্তরা প্রচুর মন্তব্য করছেন এবং তাঁর ভারতীয় সংস্কৃতি ছেড়ে না দেওয়ার জন্য তার প্রশংসাও করছেন।

এছাড়াও, করোনা ভাইরাসের সঙ্গে লড়তে প্রধানমন্ত্রী কেয়ার ফান্ডে দান করেছেন দেশি গার্ল। লকডাউনে তিনি নিক জোনাসের সঙ্গে ঘরবন্দি লস অ্যাঞ্জেলসে। সেখানে থেকেই তিনি ত্রাণ পাঠিয়েছেন ভারতীয় অসহায় মহিলাদের জন্য। পড়াশোনার জন্য হেডফোন দিয়েছেন সেদেশের শিক্ষার্থীদের।

https://www.instagram.com/p/B_HTQsxntEJ/?utm_source=ig_embed&utm_campaign=embed_video_watch_again