কর্মীদের ল্যাপটপে জুম ব্যবহার নিষিদ্ধ করল গুগল

ডেস্ক রিপাের্ট : নিরাপত্তা শঙ্কায় কর্মীদের ল্যাপটপে ভিডিও কনফারেন্সিং সেবা জুম নিষিদ্ধ করেছে সার্চ ইঞ্জিন জায়ান্ট গুগল। খবর রয়টার্সের।

বুধবার গুগলের মুখপাত্র হোসে কাসতানেদা বলেন, ‘আমাদের নিরাপত্তা দল জানিয়েছে যে, কর্মীরা জুম ডেস্কটপ ক্লায়েন্ট ব্যবহার করছেন। এখন থেকে এটি আর অফিশিয়াল কম্পিউটারে চলবে না। কারণ এতে আমাদের কর্মীদের ব্যবহার করা অ্যাপগুলোর মতো নিরাপত্তা মান নেই।’

তবে ডেস্কটপ অ্যাপ নিষিদ্ধ করলেও মোবাইল অ্যাপ এবং ব্রাউজারে এখনও জুম ব্যবহার চালু রেখেছে গুগল।

এর আগে নিরাপত্তা শঙ্কায় অ্যাপটির ব্যবহার নিষিদ্ধ করেছে মহাকাশযান নির্মাতা মার্কিন প্রতিষ্ঠান স্পেসএক্সও।

এদিকে জুমের হাজার হাজার ভিডিও প্রকাশ্যে অনলাইনে চলে আসায় বিতর্কের মুখে পড়েছে জুম। এ ছাড়া ত্রুটির কারণে আমন্ত্রিত ছাড়াই অনেক গ্রাহকও ঢুকে পড়ছেন কনফারেন্সে।

এ ছাড়া গোপনে গ্রাহকদের তথ্য ফেসবুকের কাছে পাঠাচ্ছে অ্যাপটি, এমন অভিযোগও ওঠেছে। গোপনীয়তা এবং ত্রুটির কারণে ইতিমধ্যে মামলা হয়েছে জুমের বিরুদ্ধে।

করোনার ভয়ে রাজপ্রাসাদ ছাড়লেন সৌদি বাদশাহ-যুবরাজ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : করোনভাইরাসের আতঙ্কে রাজপ্রাসাদ ছেড়ে জিদ্দায় নতুন ভবনে চলে গেছেন সৌদি বাদশাহ সালমান। এ ছাড়া যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানও নিজ বাসভবন ছেড়ে চলে গেছেন দূরবর্তী এলাকায়।

নিউইয়র্ক টাইমস জানায়, সৌদি রাজপরিবারের অন্তত দেড়শ সদস্য নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। যাদের মধ্যে বেশ কয়েকজন সম্প্রতি ইউরোপ ভ্রমণ করেছিলেন। এ ছাড়া রাজপরিবারের আরও বেশ কয়েকজনের মধ্যে করোনা উপসর্গ দেখা দিয়েছে।

রাজপরিবারের ঘনিষ্ঠ সূত্রে মার্কিন সংবাদমাধ্যমটি জানায়, আক্রান্তদের মধ্যে রয়েছেন রাজপরিবারের শীর্ষ সদস্য রিয়াদের গভর্নর প্রিন্স ফয়সাল বিন বান্দর বিন আব্দুল আজিজ আল সৌদ।

তিনি এখন নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) আছেন। রাজপরিবারের ঘনিষ্ঠ দুজন সদস্য এই তথ্য জানিয়েছেন।

এদিকে ৮৪ বছর বয়সী বাদশাহ সালমান নিজের সুরক্ষায় রাজপরিবার ছেড়ে জেদ্দায় চলে গেছেন। লোহিত সাগর উপকূলীয় শহরটির কাছে একটি আইল্যান্ড প্যালেসে অবস্থান করছেন তিনি এখন।

৩৪ বছর বয়সী যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানও জেদ্দার এক প্রত্যন্ত এলাকায় চলে গিয়েছেন। যেখানে ইতিমধ্যে তিনি ‘নিওম’ নামে একটি ভবিষ্যত নগরী গড়ে তোলার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। সৌদি সরকারের মন্ত্রিসভার সদস্যরাও দূরবর্তী এলাকায় চলে গিয়েছেন বলে রাজপরিবার সূত্র জানায়।

ছয় সপ্তাহ আগে দেশটিতে প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগী ধরা পড়ে। ইরান থেকে বাহরাইন হয়ে আসা এক ব্যক্তির শরীরে প্রথম এই ভাইরাস শনাক্ত হয়। এখন সৌদি আরবে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৩ হাজার। এর মধ্যে মারা গেছেন ৪১।

এদিকে দেশজুড়ে ‘ভিআইপিদের’ জন্য প্রস্তুত থাকতে মঙ্গলবার রাতে শীর্ষ চিকিৎসকদের প্রতি একটি নির্দেশনা পাঠানো হয়। সেই নির্দেশনার এক কপি পেয়েছে নিউইয়র্ক টাইমস। রাজপরিবারের চিকিৎসার তদারকিতে থাকা কিং ফয়সাল হাসপাতাল এই সতর্কতা পাঠিয়েছে দেশটির শীর্ষ স্বাস্থ্য বিশেজ্ঞদের কাছে।

নির্দেশনায় বলা হয়, আমরা জানি না কত আক্রান্ত রোগী আমরা পাব, কিন্তু আমাদের ‘সর্বোচ্চ প্রস্তুত’ থাকতে হবে। এ ছাড়া রাজপরিবারের কোনো কর্মী অসুস্থ হলে তাকে অন্য হাসপাতালে সরিয়ে নিতে হবে, কিং ফয়সাল হাসপাতাল প্রস্তুত রাখতে হবে শুধু রাজপরিবারের সদস্যদের জন্য।

সূত্র জানায়, সন্দেহভাজন করোনায় আক্রান্ত রাজপরিবারের সদস্যদের চিকিৎসার জন্য নির্ধারিত অভিজাত হাসপাতালটিতে অতিরিক্ত ৫০০টি শয্যা প্রস্তুত করতে ব্যস্ততম সময় পার করছেন চিকিৎসকেরা।

এদিকে দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী তৌফিক আল রাবিয়াহ মঙ্গলবার সতর্ক করে বলেছেন, সৌদিতে করোনা মহামারির প্রভাব মাত্র শুরু হয়েছে। আগামী কয়েক সপ্তাহে কমপক্ষে ১০ হাজার থেকে দুই লাখ মানুষ এই ভাইরাসে আক্রান্ত হতে পারে।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে এর মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিয়েছে দেশটি। দেশজুড়ে সব মসজিদে নিয়মিত জামাত বন্ধ রয়েছে। মক্কায় কাবা শরিফে ওমরাহ ও মদিনায় মসজিদে নববীতে পরিদর্শন বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে আগেই।

ইতিমধ্যে মক্কা, মদিনা, রিয়াদ, জেদ্দা শহরে কারফিউ জারি করা হয়েছে। পরিস্থিতির শুরুতে একে একে সব ধরনের আন্তর্জাতিক বিমান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়।

করােনা ভাইরাসে নতুন আক্রান্তদের ৬২ জন ঢাকার, নারায়ণগঞ্জের ১৩

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঢাকায় আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। চব্বিশ ঘণ্টায় দেশে নতুন আক্রান্ত ১১২ জনের মধ্যে ৬২ জনই রাজধানীর বাসিন্দা।

আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের দেশের আরেক হটস্পট নারায়ণগঞ্জেও। ঢাকার পার্শ্ববর্তী জেলাটিতে নতুন আক্রান্তের সংখ্যা ১৩ জন। নতুন আক্রান্ত বাকি ৩৭ জন অন্যান্য জেলার।

চব্বিশ ঘণ্টায় করোনায় একজন মৃতও ঢাকার বাসিন্দা। তিনি ষাটোর্ধ্ব পুরুষ।

বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে বাসা থেকে যুক্ত হয়ে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

নতুন আক্রান্ত ১১২ জন নিয়ে দেশে মোট করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৩০ জন; এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে মোট ২১ জনের।

নতুন আক্রান্তদের বয়সের দিক তুলে ধরে আইইডিসিআরের পরিচালক মিরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা জানান, দশ বছরের নিচে আছে ৩ জন, ১১-২০ বছরের মধ্যে ৯ জন, ২১-৩০ এর মধ্যে ২৫ জন, ৩০-৪০ বছরের মধ্যে ২৪ জন, ৪০-৫০ এর মধ্যে ১৭ জন, ৫১-৬০ বছরের মধ্যে ২৩ এবং ষাটোর্ধ্ব ১১ জন।

করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা আরও বাড়ানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক অধ্যাপক সামিয়া তাহমিনা। ২৪ ঘণ্টায় মোট ১০৯৭ জনের নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। ঢাকায় ৬১৮টি; ঢাকার বাইরের সেন্টারগুলোতে নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৪৭৯টি। মোট নমুনা পরীক্ষা আগের দিনের তুলনায় ১০৯টি বেশি।

এফবিআই’র তদন্ত প্রতিবেদন,রাশিয়া ও কাতার ঘুষ দিয়ে বিশ্বকাপের আয়োজক হয়, অভিযোগ কাতারের অস্বীকার

স্পাের্টস ডেস্ক : গত বিশ্বকাপ (২০১৮) আয়োজন করেছিলো রাশিয়া। আগামী আসর (২০২২) গড়াবে কাতারে। ঘুষ দিয়ে বিশ্বকাপ আয়োজনের স্বত্ব পেয়েছে কাতার ও রাশিয়া। সোমবার ফুটবলে দুর্নীতি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে তদন্ত করা যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই নতুন করে তদন্ত করে এ প্রতিবেদন প্রকাশ করে। -নিউ ইয়র্ক টাইমস

তদন্তে বলা হয়, ফিফা নির্বাহী কমিটির কয়েকজন সাবেক সদস্য অর্থের বিনিময়ে ভোট দিয়েছে। ২০১৮ সালে সফলভাবে বিশ্বকাপ আয়োজন করা রাশিয়া ওই প্রতিবেদন নিয়ে মোটেও আগ্রহ দেখায়নি। তবে আগামী বিশ্বকাপ আয়োজন করবে বলে ওই প্রতিবেদনের অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে কাতার। – নিউজ ডে

এক বিবৃতিতে কাতার জানিয়েছে, বছরের পর বছর মিথ্যা দাবি তোলা হলেও কাতার অনৈতিকভাবে ২০২২ বিশ্বকাপের আয়োজনের স্বত্ব পেয়েছে বা ফিফার কঠোর বির্ডিংয়ের নিয়ম ভঙ্গ করেছে, এমন কোনো প্রমাণ কখনও পাওয়া যায়নি। এমনকি কোথাও নেই।

দেশের বিরুদ্ধে ঘুষের অভিযোগে মুখ খুলেছে কাতারের সুপ্রিম কমিটি ফর ডেলিভারি অ্যান্ড লেগাসি (এসসি)। তারা জানায়, এসব অভিযোগ ভিত্তিহীন এবং এসব কঠোরভাবে মোকাবেলা করা হবে। বিশ্বকাপের আয়োজক নির্ধারণে সকল নিয়ম কঠোরভাবে মানা হয়েছে। – ওয়াশিংটন পোষ্ট

চীনের উহান থেকে লকডাউন তুলে নিতেই বিয়ের হিড়িক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : টানা দুই মাস পর করোনাভাইরাসের উৎপত্তিস্থল চীনের উহান থেকে লকডাউন প্রত্যাহার করা হয়েছে। এর পরই শহরটিতে বিয়ের হিড়িক পড়েছে।

গত ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকেই কভিড-১৯ করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাওয়ায় জানুয়ারিতে শহরটি লকডাউন করা হয়।

৭৬ দিন লকডাউনের থাকার পর বুধবার তা তুলে নেওয়া হয়েছে। সে দিন বিয়ে করেছেন জু লিন নামের উহানের এক বাসিন্দা। রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যম গ্লোবাল টাইমসকে তিনি বলেন, আজকের দিনটি বিশেষ একটি দিন। আমার জন্য এবং উহান শহরের জন্য এক নতুন শুরু।

আলিপে নামের একটি টেক প্ল্যাটফর্ম ম্যারেজ অ্যাপ্লিকেশন সিস্টেম নিয়ে কাজ করে। একদিনেই তাদের ট্রাফিক বেড়েছে ৩০০ গুণ। এ কারণে সাইটটি লগজ্যামে পড়ে। এ খবরটি আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হয় চীনের মাইক্রোব্লগিং সাইট উইবোতে।

এ দিকে লকডাউন উঠে যাওয়ায় হাজার-হাজার মানুষ উহান থেকে বের হতে শুরু করেছেন। স্থানীয়রা তাদের এই নতুন শুরুকে ‘দ্বিতীয় জীবন’ বলছেন।

উহান প্রশাসনের পক্ষ থেকে বুধবার বলা হয়েছে, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ছাড়পত্র নিয়ে যে কেউ এখন অন্য শহরে যেতে পারবেন। তবে সঙ্গে শারীরিক সুস্থতার কাগজপত্র এবং একটি কিউআর কোড রাখতে হবে।

সাউথ চীনা মর্নিং পোস্ট জানিয়েছে, কয়েক দিন থেকে শহরটির বিভিন্ন রাস্তায় মানুষের চলাচল বেড়েছে। বেড়েছে গাড়ির সংখ্যাও।

গত ডিসেম্বরে এই শহরের একটি মাংসের বাজার থেকে নভেল করোনাভাইরাস মানুষের শরীরে সংক্রমিত হয়। সেখান থেকে ধীরে ধীরে গোটা বিশ্বে ছড়িয়েছে।

চীনে এখন পর্যন্ত ঠিক কত মানুষ মারা গেছে সেটি নিয়ে বিতর্ক আছে। দেশটির দাবি, বুধবার পর্যন্ত ৩ হাজার ৩৩৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে হুবেইতেই মারা গেছে ৩ হাজার ২১৩ জন।

দেশে করােনা ভাইরাসে নতুন আক্রান্ত ১১২, মৃত ১ ( মােট আক্রান্ত ৩৩০, মৃত ২১)

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশে লাফিয়ে বাড়ছে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। চব্বিশ ঘণ্টায় প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১১২ জন। আক্রান্তদের মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে আরও ১ জনের।

বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে বাসা থেকে যুক্ত হয়ে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

দেশে মোট করোনায়া আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৩০ জন; মৃত্যু হয়েছে ২১ জনের।

আইইডিসিআরের পরিচালক মিরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা জানান, নতুন আক্রান্ত ১১২ জনের প্রায় দুই-তৃতীয়াংশ পুরুষ- ৭০ জন; নারী ৪২ জন। নতুন আক্রান্তদের ৬২ জন ঢাকার। ১৩ জন নারায়ণগঞ্জের। বাকি ৩৭ জন অন্যান্য জেলার।

মৃত একজন ঢাকার বাসিন্দা, ষাটোর্ধ্ব পুরুষ।

নতুন আক্রান্তদের মধ্যে বয়সের দিক থেকে দশ বছরের নিচে ৩ জন, ১১-২০ বছরের মধ্যে ৯ জন, ২১-৩০ এর মধ্যে ২৫ জন, ৩০-৪০ বছরের মধ্যে ২৪ জন, ৪০-৫০ এর মধ্যে ১৭ জন, ৫১-৬০ বছরের মধ্যে ২৩ এবং ষাটোর্ধ্ব ১১ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক অধ্যাপক সামিয়া তাহমিনা জানান, ২৪ ঘণ্টায় মোট ১০৯৭ জনের নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। ঢাকায় ৬১৮টি; ঢাকার বাইরের সেন্টারগুলোতে নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৪৭৯টি। মোট নমুনা পরীক্ষা আগের দিনের তুলনায় ১০৯টি বেশি।

বিশ্ব অ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপ ২০২২ সালে

স্পোর্টস ডেস্ক : করোনার কারণে এক বছর পিছিয়ে যাওয়া টোকিও অলিম্পিকের সঙ্গে সংঘাত এড়াতে ১১ মাস পিছিয়ে দেওয়া হলো বিশ্ব অ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপের পরের আসর। ২০২২ সালে জুলাইয়ে এই আসর মাঠে গড়াবে বলে জানিয়েছে বিশ্ব অ্যাথলেটিক্সের গভর্নিং বডি।

সূচি অনুযায়ী বিশ্ব অ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপের পরের আসর ২০২১ সালের আগস্টে যুক্তরাষ্ট্রের ওরেগনের উইজিনে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু চলতি বছরের টোকিও অলিম্পিক ওই সময়ে নিয়ে যাওয়ায় পিছিয়ে নেওয়া হলো বিশ্ব অ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপ। নতুন সূচি অনুযায়ী আসরটি মাঠে গড়াবে ২০২২ সালে ১৫ জুলাই, শেষ হবে ২৪ জুলাই।

চ্যাম্পিয়নশিপের নয়া দিনক্ষণ ঘোষণার ক্ষেত্রে মাথায় রাখা হয়েছে ২০২২ কমনওয়েলথ গেমসের বিষয়টিও। যুক্তরাজ্যের বার্মিংহ্যাম শহরে ওই বছরের ২৭ জুলাই বসবে কমনওয়েলথ গেমসের আসর। এছাড়াও ওই বছরেই মিউনিখে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ইউরোপিয়ান অ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপ। অর্থাৎ, সমস্ত দিক মাথায় রেখেই নতুন দিন-তারিখ ঠিক করা হয়েছে বলে জানিয়েছে বিশ্ব অ্যাথলেটিক্সের গভর্নিং বডি। -ওয়ার্ল্ড অ্যাথলেটিক্স ওয়েবসাইট

করোনা নিয়ে রাজনীতি নয়, চাই ঐক্য: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : করোনাভাইরাস নিয়ে রাজনীতি বন্ধ করার আহ্বান জানিয়েছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) প্রধান তেদ্রোস আধানম গেব্রিয়াসুস। বুধবার জেনেভায় এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এমনটি বলেন।

আলজাজিরা জানায়, রাজনীতি না করে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সরকারগুলোকে এক হয়ে কাজ করার জন্য ডব্লিউএইচও’র পক্ষ থেকে আহ্বান জানান তেদ্রোস।

এর আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প হুমকি দেন যে, করোনা ইস্যুতে চীনের পক্ষ নেয়া বন্ধ না করলে ডব্লিউএইচও’কে অর্থায়ন বন্ধ করে দেবেন তিনি।

বুধবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট আবারও বলেন, ‘বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে সব চেয়ে বেশি অর্থ সাহায্য করে যুক্তরাষ্ট্র। কিন্তু তার প্রতিদান তারা দিতে পারেনি।’

ট্রাম্পের এমন বক্তব্য ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানান তেদ্রোস। তিনি বলেন, ‘ট্রাম্প এই পরিস্থিতিতে রাজনীতি বন্ধ করুন। নইলে আরও বেশি মৃতদেহ দেখতে হবে তাকে।’

তেদ্রোস বলেন, ‘যেহেতু চীনেই প্রথম করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ শুরু হয়েছিল, তাই ভাইরাসের উৎস খুঁজতে চীনে লাগাতার কাজ চালাচ্ছে তাদের সংস্থা। এটাই বৈজ্ঞানিক প্রক্রিয়া।’

জেনেভায় তিনি রাজনৈতিক নেতাদের উদ্দেশে বলেন, ‘সকল রাজনৈতিক দলের মনোযোগ হওয়া উচিত, তাদের দেশের লোকদের বাঁচানো। দয়া করে এই ভাইরাস নিয়ে রাজনীতি করবেন না। এটি জাতীয় পর্যায়ে আপনাদের মতপার্থক্যকে আরও বেশি সুবিধা করে দেবে।’

ডব্লিউএইচও প্রধান বলেন, ‘আপনি যদি এ নিয়ে রাজনীতি করতে চান, তাহলে মৃতদেহের জন্য আরও বেশি ব্যাগ প্রস্তুত রাখতে হবে আপনাকে।’

বিশ্বনেতাদের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘দয়া করে আপনারা জাতীয় পর্যায়ে ঐক্য গড়ে তুলুন। রাজনীতিতে কভিড-১৯-কে টেনে আনবেন না। এই মুহূর্তে বৈশ্বিকভাবে বিশ্বস্ত সংহতি গড়ে তুলতে হবে। যুক্তরাষ্ট্র এবং চীনের নেতৃত্বকে আন্তরিক হয়ে এগিয়ে আসতে হবে। যুক্তরাষ্ট্র এবং চীনের এক সঙ্গে এই ভয়াবহ শত্রুর বিরুদ্ধে লড়াই করা উচিত।’

এদিকে বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা সাড়ে ৮৮ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ১৫ লাখ মানুষ। সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটির ৪ লাখ ৩২ হাজার মানুষের দেহে ভাইরাসটি সংক্রমিত হয়েছে।

যুব বিশ্বকাপ জয়ী ক্রিকেটাররা অসহায়দের আর্থিক সহায়তা দিলেন

নিজস্ব প্রতিবেদক : এবার নিজ দেশের অসহায় মানুষদের পাশে দাড়ালেন অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী যুবা টাইগাররা। কারণ করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে দেশজুড়ে বন্ধ রয়েছে গণপরিবহন। এমনকি বন্ধ রয়েছ বিভিন্ন শপিং মল বা মার্কেট, অফিস। তার ওপর করোনার প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে এলাকায় এলাকায় জারি করা হচ্ছে লকডাউন। ফলে বর্তমানে তাদের রোজগারের পথ বন্ধ। এমন ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের সহায়তায় আড়াই লাখ টাকা প্রদান করলো টাইগার যুবারা।

এ ব্যাপারে গতকাল বুধবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ক্রিকেটার্স অ্যাসোসিয়েন অব বাংলাদেশ (কোয়াব) জানায়, করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য অনুর্ধ্ব-১৯ দলের ক্রিকেটাররা কোয়াবের তহবিলে আড়াই লাখ টাকা প্রদান করেছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আমরা সকলেই অবগত যে, দেশব্যাপী করোনা ভাইরাসে বিপর্যস্ত অসহায় মানুষের সহায়তায় ক্রিকেটার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (কোয়াব) বর্তমান ও সাবেক সকল ক্রিকেটার, সংগঠক ও শুভানুধ্যায়ীদের নিয়ে আর্থিক তহবিল গঠনের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। সেই প্রেক্ষাপটে দেশের চুক্তিবদ্ধ প্রথম শ্রেণীর সকল ক্রিকেটারদের পর বিশ্বকাপজয়ী বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট দলের সকল খেলোয়াড় ও কর্মকর্তাবৃন্দ ও সম্মিলিতভাবে আড়াই লাখ টাকা কোয়াবের সহায়তা তহবিলে প্রদানের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন।

এর আগে করোনা মোকাবিলায় আর্থিক সহায়তা করেছে জাতীয় দলের চুক্তিবদ্ধ ১৭ জন ক্রিকেটারসহ মোট ২৭ জন ক্রিকেটার। তারা মোট ৩১ লাখ টাকা অনুদান দিয়েছেন।

বঙ্গবন্ধুর খুনি আব্দুল মাজেদের প্রাণভিক্ষার আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি, ফাঁসিতে বাধা নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল জানালেন, বঙ্গবন্ধুর খুনি ক্যাপ্টেন (বরখাস্ত) আব্দুল মাজেদের ফাঁসিতে বাধা নেই।

আব্দুল মাজেদের প্রাণভিক্ষার আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। বৃহস্পতিবার সকালে ক্ষমা নাকচের চিঠি কারাগারে পৌঁছেছে।

সাজা কার্যকর বিষয়ে বৃহস্পতিবার সকালে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “ফাঁসিতে কোনো বাধা নেই। আমরা সে কোনো সময় কার্যকর করতে পারব।”

সময় নির্ধারণ নিয়ে জানান, কোনো সময় নির্ধারণ করা হয়নি। আমরা বসে নির্ধারণ করবো।

সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩টায় মিরপুর সাড়ে ১১ নম্বর থেকে মাজেদকে গ্রেপ্তার করে পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিট (সিটিটিসি)। সেখান থেকে কারাগারে পাঠানো হয় প্রায় ২৩ বছর ভারতে পালিয়ে থাকা এই খুনিকে।

মঙ্গলবার দুপুর সোয়া ১২ টার দিকে ফৌজদারি কার্যবিধি ৫৪ ধারায় তাকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে সিটিটিসি। এ সময় বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার না দেখানো পর্যন্ত তাকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করে কাউন্টার টেরোরিজম। আদালত শুনানি শেষে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেয়।

বুধবার বঙ্গবন্ধুর খুনি মাজেদের মৃত্যু পরোয়ানা জারি করে ঢাকার জেলা ও দায়রা জজ হেলাল চৌধুরী। সুপ্রিম কোর্টের অনুমতি নিয়ে ওই কোর্টের ছুটির আদেশ বাতিল করা হয়। এরপর বিচারক মাজেদের মৃত্যু পরোয়ানা জারি করেন। লাল কাপড়ে মোড়ানো এই মৃত্যু পরোয়ানা ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়।

বুধবার আদালত থেকে আসা মৃত্যু পরোয়ানা কারা কর্তৃপক্ষ মাজেদের কাছে দেয়। পরোয়ানা পড়ে শোনানোর পর রাতেই মানবিক বিবেচনায় রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা চান তিনি।

বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলায় আব্দুল মাজেদসহ ১২ আসামিকে ২০০৯ সালে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তিদের মধ্যে সৈয়দ ফারুক রহমান, সুলতান শাহরিয়ার রশীদ খান, বজলুল হুদা, এ কে এম মহিউদ্দিন আহমেদ ও মুহিউদ্দিন আহমেদের ফাঁসি ২০১০ সালের ২৭ জানুয়ারি কার্যকর হয়।

রায় কার্যকরের আগে ২০০২ সালে পলাতক অবস্থায় জিম্বাবুয়েতে মারা যান আসামি আজিজ পাশা।

এখনো বিদেশে পলাতক আছেন পাঁচজন। তারা হলেন- খন্দকার আবদুর রশীদ, শরিফুল হক ডালিম, এস এইচ এম বি নূর চৌধুরী, এ এম রাশেদ চৌধুরী ও মোসলেম উদ্দিন।