ক্রিকেটারদের জন্য ৬১ মিলিয়ন পাউন্ড প্রণোদনা ঘোষণা ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের

স্পোর্টস ডেস্ক : করোনা ভাইরাসে ইতোমধ্যে বিশ্বে ৪২ হাজার ১৩৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। আরো ভয়াবহ পরিস্থিতি অপেক্ষা করছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ।

এ অবস্থায় বন্ধ রয়েছে সবধরনের ক্রিকেট। একপ্রকার বন্দী অবস্থায় কাটছে ক্রিকেটারদের সময়। মাঠে খেলা না থাকায় আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে ক্রিকেট বোর্ডগুলো। ফলে ফুটবলের মতো ক্রিকেটেও খেলোয়াড়দের বেতন কাটা হবে- এমন গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল কয়েকদিন ধরেই।

কিন্তু এক্ষেত্রে ব্যতিক্রম ইংলিশ ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)। করোনার কারণে ক্রিকেটের যে ক্ষতি হবে, তা পুষিয়ে নিতে নিজেদের ফান্ড থেকে ৬১ মিলিয়ন পাউন্ড (বাংলাদেশি মুদ্রায় ৬৩৬ কোটি টাকার বেশি) ‘সাহায্য প্যাকেজ’ হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে ইংল্যান্ড ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থাটি।

এই বিশাল অঙ্কের প্যাকেজ ঘোষণা করে বর্তমান পরিস্থিতিকে নিজেদের ইতিহাসের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হিসেবে অভিহিত করেছেন বোর্ডের প্রধান নির্বাহী টম হ্যারিসন। একইসঙ্গে তিনি জানিয়েছেন এই ৬৪২ কোটি টাকা কোথায় কীভাবে খরচ হবে।

প্রাথমিকভাবে ৪০ মিলিয়ন পাউন্ড (প্রায় ৪১৭ কোটি টাকা) সাহায্য দেবে ইসিবি। যা দিয়ে দেখভাল করা হবে প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেট। এরপর বিনোদনমূলক ক্রিকেটের জন্য আরো ২১ মিলিয়ন পাউন্ডের (প্রায় ২১৯ কোটি টাকা) জোগান দেয়া হবে বোর্ডের পক্ষ থেকে।

টম হ্যারিসন শঙ্কা প্রকাশ করেছেন যে, করোনাভাইরাসের কারণে যদি ইংলিশ সামারের বড় একটা সময় নষ্ট হয়ে যায়, তাহলে সামনে আরো দুঃসময় অপেক্ষা করছে। তবে আপাতত বর্তমান পরিস্থিতি মাথায় রেখে কিছু নির্দেশনাও দিয়েছেন বোর্ডের প্রধান নির্বাহী। -ইসিবি ওয়েবসাইট

ঠাণ্ডা ও সর্দির ওষুধ অ্যাভিগান এবার করােনার বিরুদ্ধে লড়বে – জাপান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : অ্যাভিগান সাধারণত ঠান্ডা লাগা বা সর্দি সারাতে ওষুধ হিসেবে ব্যবহার করা হয়। কিন্তু এবার সেই অ্যাভিগান ওষুধ করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে জাপান।

চীনে করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসায় অ্যাভিগান ব্যবহার করে সাফল্য পেয়েছিলেন চিকিৎসকরা। যে সব আক্রান্তদের অ্যাভিগান দেওয়া হয়েছিল তারা অন্যদের থেকে দ্রুত সেরে উঠেছিলেন। করোনার বিরুদ্ধে অ্যাভিগান যার জেনেরিক নাম ফ্যাভিপিরাভির ব্যবহারের ট্রায়াল শুরু করলো এবার জাপানের সংস্থা ফুজি ফিল্ম।

জুন মাসের শেষের দিকে ১০০ জন আক্রান্তের উপর পরীক্ষামূলকভাবে অ্যাভিগান প্রয়োগ করা হবে বলে জানিয়েছেন সংস্থার কর্ণধার। ইতোমধ্যে এই ওষুধ প্রাণীদের উপর পরীক্ষামূলক প্রয়োগ করা হয়েছে। প্রাণীদের শরীরে পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছিল। ফলে অন্তঃসত্ত্বা নারীদের উপর এই ওষুধ ব্যবহার করা হবে না বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।
নিউমোনিয়ায় আক্রান্তদের সারিয়ে তুলতে অ্যাভিগান ম্যাজিকের মতো কাজ করেছে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।

গত সপ্তাহে জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে জানিয়েছিলেন, তার দেশ ভাইরাসের মোকাবেলায় অ্যাভিগানের অনুমোদন প্রক্রিয়া শুরু করবে। এরপরই এই ওষুধের ট্রায়াল শুরু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংস্থাটি।

একদল চিকিৎসক জানিয়েছেন, অ্যাভিগান প্রয়োগে অসুস্থ ব্যক্তিকে দ্রুত সারিয়ে তোলা যায়। জাপানের কাছে এই ওষুধ নিয়ে আগ্রহ প্রকাশ করেছে বেশ কিছু দেশ। করোনার টিকা আবিষ্কারে এখনও এক থেকে দেড় বছর সময় লাগতে পারে বলে জানিয়েছেন বহু দেশের গবেষকরা। ফলে এই সময়টাতে প্রচুর মানুষ মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ছেন। করোনার প্রকোপ থেকে কীভাবে বাঁচা যায় তার রাস্তা খুঁজতে দিন-রাত এক করে কাজ করছেন চিকিৎসকরা।

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস ইতোমধ্যে ২ শতাধিক দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে। বিশ্বব্যাপী প্রতিনিয়তই বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। এ পর্যন্ত বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৮,৭৪,৬৩৫ এবং মারা গেছে ৪৩,৪৩১ জন। এছাড়াও সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরে গেছেন ১,৮৪,৯৫২ জন। করোনা মোকাবেলায় বিশ্বজুড়ে চলছে লকডাউন।

আইইডিসিআর নয়, এখন থেকে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে ব্রিফিং করবে স্বাস্থ্য অধিদফতরের ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সেন্টার

নিজস্ব প্রতিবেদক : কভিড-১৯ করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে আর ব্রিফিং করবে না সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)। করোনাভাইরাস নিয়ে এখন থেকে ব্রিফিং করবে স্বাস্থ্য অধিদফতরের ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সেন্টার (এমআইএস)।

বুধবার দুপুরে আইইডিসিআরের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ডা. এ এস এম আলমগীর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, এখন থেকে আমরা আর ব্রিফিং করব না।

প্রসঙ্গত, দেশে এখন পর্যন্ত করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে ৫৪ জনের শরীরে। এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ছয়জন। করোনায় সংক্রমিত হওয়ার পর সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২৬ জন।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী বললেন – দুধ, ডিম, মাছ ও মাংসের সংকট মোকাবেলায় ব্যবস্থা নিয়েছে সরকার

নিজস্ব প্রতিবেদক : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবকালীন দুধ, ডিম, মাছ ও মাংস সংক্রান্ত সংকট মোকাবেলায় সরকার সব রকম ব্যবস্থা গ্রহণ করছে।

তিনি বলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শ মতে করোনা সংকটকালীন শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে পুষ্টিকর খাবার গ্রহণ করা প্রয়োজন। তাই প্রাণিজ পুষ্টির উৎস দুধ, ডিম, মাছ ও মাংসের সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে এ সংক্রান্ত সংকট মোকাবেলায় মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় সকল ব্যবস্থা গ্রহণ করছে।

আজ দুপুরে রাজধানীর বেইলী রোডের সরকারি বাসভবনে করোনার প্রাদুর্ভাবকালীন পোল্ট্রি ও দুগ্ধশিল্প এবং মৎস খাতের সংকট মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপ সম্পর্কে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।
প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী বলেন, ইতোমধ্যে মন্ত্রণালয় থেকে পোল্ট্রি, ডিম, একদিন বয়সী মুরগীর বাচ্চা, হাঁস, মুরগী ও গবাদিপশুর খাদ্য, দুগ্ধজাতপণ্য, অন্যান্য প্রাণি ও প্রাণিজাত পণ্য, মাছ, মাছের পোনা ও মৎস্য খাদ্য সরকারঘোষিত ছুটিকালীন নিরবচ্ছিন্ন উৎপাদন, পরিবহন ও বিপণন সচল রাখার ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সকল জেলা প্রশাসক, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে চিঠি দেয়া হয়েছে।

পোল্ট্রি ও মৎস্য খাদ্যের সরবরাহ নিশ্চিত করতে আমদানীকৃত কাঁচামালের পরীক্ষাগার দ্রুত চালু করার ব্যাপারেও যোগাযোগ করা হয়েছে। আশা করছি শিগগিরই চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড এনিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ের পিআরটিসি ল্যাব চালু হবে।

রেজাউল করিম বলেন, খামারে উৎপাদিত দুধ সংগ্রহ করে প্রক্রিয়াজাতকরণের মাধ্যমে সংরক্ষণের জন্য মিল্কভিটাকে মন্ত্রণালয় থেকে ইতোমধ্যে অনুরোধ জানানো হয়েছে। সংরক্ষণসহ ভোক্তার কাছে নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় দুধ পৌঁছে দেয়ার কাজে প্রাণ, আড়ং, আকিজসহ বেসরকারি কোম্পানিগুলোকে আমি সম্পৃক্ত হওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি। পাশাপাশি মিষ্টির দোকানসমূহ খোলা রাখার ব্যবস্থা গ্রহণে দোকান মালিক সমিতির উদ্যোগ কামনা করছি।

তিনি বলেন, করোনা সংকটে ক্ষতিগ্রস্ত প্রান্তিক খামারীদের জন্য মন্ত্রণালয়ের প্রাণিসম্পদ ও ডেইরি উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় বিশ্বব্যাংকের মাধ্যমে প্রণোদনা দেয়ার বিষয়টি সরকারের বিবেচনায় রয়েছে। তাছাড়া ক্ষতিগ্রস্ত খামারীদের ব্যাংক ঋণের সুদ মওকুফ ও কিস্তি স্থগিতকরণের বিষয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে ব্যাংকগুলোকে নির্দেশনা প্রদানের বিষয়টিও বিবেচনা করা হবে।

মন্ত্রী আরো বলেন, ইতোমধ্যে সকল বিভাগীয়, জেলা ও উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তাদের খামারীদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে। মোবাইলে এসএমএস পাঠিয়ে মাছ, মাংস ও ডিম খাওয়া ঝুঁকিমুক্ত ও নিরাপদ মর্মে ভোক্তা পর্যায়ে প্রচারণা চালোনোর বিষয়টিও চূড়ান্ত করা হয়েছে।

এ সময় মাছ ও মাংসের মাধ্যমে করোনা ছড়ানোর গুজবে বিভ্রান্ত না হয়ে করোনা মোকাবেলায় নিয়মিত দুধ, ডিম, মাছ ও মাংস খাওয়ার আহ্বানও জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী।

লা লিগা শুরু হতে পারে জুলাইয়ে, দাবি সম্প্রচার কর্তৃপক্ষের

স্পোর্টস ডেস্ক : করোনাভাইরাসের কারণে স্থগিত হয়ে থাকা স্পেনের শীর্ষ লিগ লা লিগা জুলাইয়ের দিকে ফের মাঠে গড়াতে পারে বলে আশাবাদ প্রকাশ করেছেন প্রতিযোগিতাটির সম্প্রচার সহযোগীর প্রধান।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে স্পেন অন্যতম। দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা এক লাখের কাছাকাছি, মৃতের সংখ্যা ৮ হাজার দুইশোর কাছাকাছি।

বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায় লা লিগার সম্প্রচার সহযোগীদের প্রধান নির্বাহী জুমে রুরেসের বিশ্বাস, জুলাই নাগাদ খেলা আবার শুরু করা যেতে পারে।

স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম কাদেনা কোপেকে মঙ্গলবার রুরেস বলেন, “আমি আশা করি, জুলাইয়ে ফুটবল মাঠে ফিরবে। আমি জুলাইয়ের কথা বলব। কেননা অন্যান্য বিষয়গুলোর মধ্যে প্রত্যেকের স্বাস্থ্যের ব্যাপারটা অবশ্যই নিশ্চিত করতে হবে। – কাদেনা কোপে

জুলাইয়ের দিকে শুরু হলেও ম্যাচগুলো দর্শকশূন্য মাঠে হবে বলে জানালেন রুরেস। নিশ্চিতভাবে দর্শকশূন্য হয়ে ফিরবে লিগ।
লা লিগা শেষ হতে এখনো বাকি ১১ রাউন্ডের খেলা। ২৭টি করে ম্যাচ শেষে ৫৮ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে আছে গত দুই আসরের চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনা। দুই পয়েন্ট কম নিয়ে দ্বিতীয়স্থানে আছে রিয়াল মাদ্রিদ।- মার্কা

করোনাভাইরাসে লকডাউনে থাকা নেপালে স্থানীয়দের সাথে চীনা নাগরিকদের সংঘর্ষ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : কােভিড-১৯ করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে নেপালে লকডাউন চলছে। এরমধ্যে মঙ্গলবার সকালে নেপালের গান্দাকি প্রদেশের লামজুং জেলায় দুটি ট্রাকে করে নির্মাণসামগ্রী নিয়ে আসায় ক্ষেপে যান স্থানীয়রা। নেপাল হাইড্রোপাওয়ার প্রজেক্টের কাজে ওই সব নির্মাণসামগ্রী নিয়ে আসা হয়েছিল।

পুলিশ দুই পক্ষের মধ্যে সমঝোতার পদক্ষেপ নিয়েছে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি দিলমায়া থাপা বলেন, নিয়াদি হাইড্রোপাওয়ার প্রজেক্টের জন্য দুই ট্রাকে করে নির্মাণসামগ্রী নিয়ে এলে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বেঁধে যায়।

নেপালের স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, করোনা প্রতিরোধে দেশে লকডাউন চলাকালে চীনা নাগরিকদের নিয়ে আসা হয়েছে এটা শুনে তারা বিস্মিত হয়েছেন।
প্রসঙ্গত, গত ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহর থেকেই করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে। সারা বিশ্বে করোনা ছড়ানোর জন্য অনেকে চীনকে দায়ী মনে করেন। এ অভিযোগে যুক্তরাষ্ট্রে চীনের বিরুদ্ধে মামলাও হয়েছে।

রাজধানীতে অসহায় মানুষের পাশে ছাত্রদল

নিজস্ব প্রতিবেদক : কর্মহীন এসব দিনমজুর ও অসহায় মানুষের পাশে নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী নিয়ে পাশে দাঁড়িয়েছে জাতীয়তাবাদী কেন্দ্রীয় সংসদ ছাত্রদল।

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নির্দেশে ছাত্রদল গরিব মানুষের মাঝে শতাধিক ব্যাগ খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করে। বিতরণ করা খাদ্য সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে চাল, ডাল, পেয়াজ, আলু ও ছোলা।

ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের উদ্যোগে সোমবার(৩০মার্চ)তেজগাঁও রেললাইন কলোনি এবং হাতিরপুল বাজার মোড়ে গরীব ও ছিন্নমূল মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন,সিনিয়র সহ-সভাপতি কাজী রওনকুল ইসলাম শ্রাবণ, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল,
সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক আমিনুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফ মাহমুদ জুয়েল, যুগ্ম সম্পাদক নিজাম উদ্দিন রিপন, যুগ্ম সম্পাদক মারুফ এলাহি রনী প্রমুখ। এরআগে গতকাল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে অর্ধশতাধিক গরিব মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করে ছাত্রদল।

বিএনপি নেতাদের ওবায়দুল কাদের – সংকটময় পরিস্থিতি নিয়ে খেলবেন না, রাজনৈতিক ফায়দা লোটার অপতৎপরতা বন্ধ করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশের এই সংকটময় পরিস্থিতিতে বিএনপি নেতাদের রাজনৈতিক ফায়দা লোটার অপতৎপরতা থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বুধবার (০১ এপ্রিল) সেতুমন্ত্রী তার সরকারি বাসভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ আহ্বান জানান।

এ সময় তিনি বলেন, করোনাভাইরাসের এই সংকটময় মুহূর্তে বিএনপি নেতৃবৃন্দ দেশবাসীর পাশে না দাঁড়িয়ে সরকারের সমালোচনা করে চলেছে। আমি তাদের দেশের এই দুঃসময়ে জনগনের পাশে থাকার আহ্বান জানায়।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদ্মাসেতুর সর্বশেষ অগ্রগতি নিয়েও কথা বলেন। তিনি জানান, পদ্মাসেতু প্রকল্পের সার্বিক অগ্রগতি ৭৮.৫০ শতাংশ।

এদিকে, সকালে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আওয়ামী লীগের ত্রান ও সমাজকল্যাণ উপকমিটি আয়োজিত বিভিন্ন হাসপাতালসহ সমাজিক সংগঠনের মাঝে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে উপকরণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

এ সময় আওয়ামী লীগের ত্রান ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডাক্তার রোকেয়া সুলতানা,উপদপ্তর সম্পাদক সায়েম খান উপস্থিত ছিলেন।

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় ইউএস ওপেনের কোর্টে হাসপাতাল

স্পোর্টস ডেস্ক : চীনের উহান থেকে উৎপত্তি করোনাভাইরাস ইতোমধ্যে ২ শতাধিক দেশ ও অঞ্চল গিলে ফেলেছে। ৮ লাখের বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছে এই ভাইরাসে। মৃত্যু হয়েছে সাড়ে ৪২ হাজারের বেশি মানুষের।

এদিকে, বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের বিপক্ষে লড়তে ইতিমধ্যে অনেক স্টেডিয়ামই হাসপাতাল বানানো কিংবা সরঞ্জামাদি রাখার জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হয়েছে। এবার যুক্তরাষ্ট্রের টেনিস অ্যাসোসিয়েশনও (ইউএসটিএ) হাঁটল সে পথেই। ইউএস ওপেনের ভেন্যু বিলি জিন কিং স্টেডিয়ামের একটি অংশকে ৩৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতাল বানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা। নিউ ইয়র্ক টাইমস

টেনিস সেন্টারটির মালিক ও ইউএসটিএর মুখপাত্র ক্রিস ওয়িডমেয়ার জানান, গতকাল মঙ্গলবার থেকে স্টেডিয়ামটির অভ্যন্তরীণ ক্রীড়ার অংশে হাসপাতাল বানানোর কাজ শুরু হয়েছে। তিনি বলেন, নিউ ইয়র্ক আমাদের ঘর। আমরা সবাই এখানে একত্রেই আছি। -আজকাল

করোনার মধ্যে বেলারুশকে খেলা বন্ধ রাখতে বললো ফিফপ্রো

স্পোর্টস ডেস্ক : প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের কারণে বন্ধ হয়ে গেছে বিশ্বের সব ধরনের খেলাধুলা। অথচ বিশ্বকে অবাক করে দিয়ে নিজেদের দেশের প্রিমিয়ার ফুটবল লিগ চালিয়ে যাচ্ছে বেলারুশ। এর মধ্য দিয়ে ইউরোপের একমাত্র দেশ হিসেবে ফুটবল লিগ চালু রাখে তারা।

মহামারীর মধ্যে ফুটবল চালিয়ে যাবার কারণও ভিন্ন ভঙ্গিতে ব্যাখা করেছেন বেলারুশের প্রেসিডেন্ট আলেক্সান্দার লুকাশেঙ্কো। কারণ করোনাভাইরাস নিয়ে মোটেও চিন্তিত নন তিনি। এমনকি নিজ দেশের জনগণকে করোনার বিরুদ্ধে লড়তে ভদকা পান করার পরামর্শ দিয়েছেন।

বেলারুশ ফুটবল ফেডারেশনের মুখপাত্র আলেক্সান্দর অ্যালেইনিক বলেন, করোনা প্রতিরোধে আমরা সকল সতর্কতা গ্রহণ করেছি এবং ফুটবল চলতে থাকবে। ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের দিক নির্দেশনায় সকল পদক্ষেপ আমরা গ্রহণ করেছি। ভক্তদের সবাইকে হ্যান্ড গ্লাভস সরবরাহ করা হয়েছে।
এতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে ফিফার অনুমোদিত সংগঠন বিশ্ব ফিফপ্রো। বেলারুশের ফুটবল চালিয়ে যাবার ব্যাপারটি বোধগম্য নয় ফিফপ্রোর। তাই দ্রুত ফুটবল বন্ধের আহ্বান জানিয়েছে ফিফপ্রো জেনারেল সেক্রেটারি জনাস বেয়ার-হফম্যান। তিনি বলেন, বিশ্বের বাকি জায়গায় ফুটবলের জন্য যে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে, এখানেও (বেলারুশ) একই ব্যবস্থা গ্রহণের আহ্বান জানাচ্ছি আমরা। কীভাবে এটা চলতে পারে তা একেবারেই বোধগম্য নয়। – ফিফপ্রো ওয়েবসাইট

ফিফপ্রোর সদস্যভূক্ত নয় বেলারুশ। তারপরও এ বিষয়ে বিশ্ব ফুটবল সংস্থা ফিফা ও ইউরোপিয়ান ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা উয়েফার কাছে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার আবেদন জানাবে ফিফপ্রো। জি নিউজ

এদিকে, অধিকাংশ দেশে খেলা বন্ধ থাকায় লিগ সম্প্রচার থেকে আর্থিক সুবিধাও নিচ্ছে বেলারুশ ফুটবল ফেডারেশন। রাশিয়া, ভারতসহ দশটি দেশে খেলা সম্প্রচারের জন্য নতুন চুক্তি করেছে তারা। – কলকাতা টোয়েন্টি ফোর