adv
৮ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৫শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বাংলা ছবির বলিউড রিমেক

বিনোদন ডেস্ক : ভারতের সবচেয়ে বড় চলচ্চিত্রশিল্প বলিউড থেকে বহু ছবি বাংলাতে নির্মিত হয়েছে। কিন্তু জনপ্রিয় কয়েকটি বাংলা ছবিও যে বলিউডে নির্মিত হয়েছে এ তথ্য অনেকেরই অজানা। ছবিগুলো এতটাই জনপ্রিয়তা পায় যে, বলিউডের বড়বড় পরিচালক ও প্রযোজকরা ছবিগুলো হিন্দিতে নির্মাণের পরিকল্পনা করেন এবং চড়ামুল্যে স্বত্ত্ব কিনে নেন।

ভূতের ভবিষ্যৎ

কলকাতার অত্যন্ত জনপ্রিয় ছবির একটি ‘ভূতের ভবিষ্যৎ’। ছবিতে অভিনয় করেন পরমব্রত চট্রোপাধ্যায়, স্বস্তিকা মুখার্জী ও সব্যসাচী চক্রবর্তীর মতো তারকারা। ২০১২ সালে মুক্তি পাওয়া এই ছবির ঈর্ষনীয় সাফল্য দেখে ছবিটি নির্মাণের আগ্রহ প্রকাশ করেন বলিউডের প্রযোজক রতন জৈন। রীতিমত সাত কোটি রুপিতে ছবির স্বত্ব কিনে নেন। এরপর ২০০৪ সালে বলিউডে ‘গ্যাং অব গোস্ট’ শিরোনামে ছবিটি নির্মাণ করেন পরিচালক সতীশ কৌশিক। জ্যাকি শ্রফ, মাহি গিল ও শারমান জোশির মতো অভিনেতারা থাকা সত্ত্বেও ছবিটি বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়ে।

রাজকাহিনী

২০১৫ সালে পরিচালক সৃজিত মুখার্জী নির্মাণ করেন ‘রাজকাহিনী’। জয়া আহসান, যিশু, আবীর ও ঋতুপর্ণা অভিনীত এই ছবিটি বলিউড পরিচালক মহেশ ভাটকে এতোটাই মুগ্ধ করে যে, তিনি ১০ কোটি রুপিতে ছবির স্বত্ব কিনে নেন। বাংলা ভাষার ‘রাজকাহিনী’ হিন্দিতে হয় ‘বেগম জান’। ২০১৭ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত এই ছবির কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেন বিদ্যা বালান। তবে ছবিটি প্রত্যাশিত সাফল্য অর্জন করতে পারেনি।

দ্বীপ জেলে যাই

অসিত সেনের পরিচালনায় ‘দ্বীপ জেলে যাই’ মুক্তি পায় ১৯৫৯ সালে। সে সময় ছবিটি বিশ্বের অনেক চলচ্চিত্র বোদ্ধাদের প্রশংসা কুড়াতে সক্ষম হয়। হাসপাতালে একজন নার্স ও রোগীর সম্পর্ক নিয়ে নির্মিত এই ছবির মূল চরিত্রে অভিনয় করেন সুচিত্রা সেন ও অনিল চ্যাটার্জি। পরবর্তীতে একই পরিচালক ১৯৭০ সালে ‘খামোশি’ শিরোনামে ছবিটি হিন্দি ভাষায় নির্মাণ করেন। দারুণ প্রশংসিত এই ছবিতে অভিনয় করেন রাজেশ খান্না ও ওয়াহিদা রহমান।

কাবুলিওয়ালা

বলিউডে রিমেক হওয়া প্রথম বাংলা ছবি ‘কাবুলিওয়ালা’। ছবির মূল চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন ছবি বিশ্বাস। তপন সিংয়ের পরিচালনায় ১৯৫৬ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত কাবুলিওয়ালার স্বত্ব নাকি সে সময় রেকর্ড দামে কিনে নেয় বলিউড। ১৯৬১ সালে একই নামে বলিউডে মুক্তি পায় ছবিটি। তখনকার সময়ে এটি প্রায় ৮০ লক্ষ রুপি ব্যবসা করে।

প্রাক্তন

‘প্রাক্তন’ ছবিতে দীর্ঘ ১৪ বছর পর জুটি গড়েছিলেন প্রসেনজিৎ চট্রোপাধ্যায় ও ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। ছবিটি দেখে ভীষণ মুগ্ধ হন প্রযোজক ও পরিচালক মহেশ ভাট। টুইটারে ছবির প্রশংসা করে লিখেছিলেন, ‘অসাধারণ ভালোবাসার ছবি প্রাক্তন।, যেখানে নারী ও পুরুষের সম্পর্কের আসল সত্যিটা লুকিয়ে আছে।’ সেই সঙ্গে বলিউডে ছবিটি নির্মাণের আগ্রহও প্রকাশ করেন তিনি। ১৮ কোটি রুপিতে নাকি ছবিটির স্বত্ব কিনে নিয়েছেন মহেশ ভাট। ‘জালেবি’ শিরোনামে ছবির নির্মাণ কাজও চলছে। কিছুদিন আগে প্রকাশিত ছবির একটি পোস্টার নিয়ে তুমুল বিতর্ক দেখা দেয়।

সুত্রঃ টাইমস অব ইন্ডিয়া

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
October 2018
M T W T F S S
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031  


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া