adv
৫ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২০শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বড় বড় দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে আগামী বছরে ব্যবস্থা : দুদক

DUDOKডেস্ক রিপাের্ট : আগামী বছর থেকে খাতওয়ারি বড় বড় দুর্নীতিবাজদের তালিকা করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এক্ষেত্রে কমিশন নিজস্ব গবেষণা ও গোয়েন্দা তথ্য সর্বাধিক গুরুত্ব দেবে বলে জানিয়েছেন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ।

৯ ডিসেম্বর শনিবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে দুর্নীতিবিরোধী মানববন্ধনে তিনি এ কথা বলেন। চেয়ারম্যান ও কমিশনারদের নেতৃত্বে মানববন্ধনে দুদকের সকল স্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারী, গার্ল গাইডস, বয়েজ স্কাউট, আনসার ও বিএনসিসির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য ‘আসুন, দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে একতাবদ্ধ হই’ এ প্রতিপাদ্যে আজ জাতিসংঘ ঘোষিত আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবস পালিত হচ্ছে। ‘আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবস-২০১৭’ উপলক্ষে শনিবার বর্ণাঢ্য কর্মসূচি গ্রহণ করেছে দুদক।

এদিন সকাল সোয়া ৯টায় কমিশনের চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ শান্তির প্রতীক পায়রা ও ফেস্টুন উড়িয়ে আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবসের উদ্বোধন ঘোষণা করেন। একই সঙ্গে তিনি কমিশনের মিডিয়া সেন্টারের রক্ষিত রেজিস্টারে স্বাক্ষরের মাধ্যমে দুর্নীতিবিরোধী গণস্বাক্ষর কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।

কেন্দ্রীয় কর্মসূচির সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে দেশের প্রতিটি মহানগর, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে মানববন্ধন, আলোচনা সভা, তথ্য চিত্র প্রদর্শন এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালিত হচ্ছে।

দুদক চেয়ারম্যান বেসিক ব্যাংকের ঋণ জালিয়াতির প্রসঙ্গে করা সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত এ বিষয়ে কিছু বলতে চাই না। তদন্ত পর্যায়ে যে অপরাধীর বিরুদ্ধে প্রমাণ পাওয়া যাবে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এক্ষেত্রে কোনো ছাড় দেওয়া হবে না।

জনগণের অর্থ লোপাটের দিন শেষ উল্লেখ করে তিনি বলেন, ব্যাংকের অবশ্যই আইন-বিধি অনুযায়ী ঋণ দিতে হবে। জনগণের অর্থ নিয়ে ছিনিমিনি করতে দেওয়া হবে না।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে দুদকের এ চেয়ারম্যান বলেন, দুর্নীতিবাজদের স্ত্রীর নামে সম্পদ রাখা একটা সামাজিক সমস্যায় পরিণত হয়েছে। এজন্য অনেক সময়ই দুর্নীতিবাজদের স্ত্রীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হয়।

তিনি বলেন, মনে হয় অধিকাংশ সরকারি কর্মকর্তাদের শ্বশুর বাড়ির লোকজন ধনী, তারা স্ত্রীদের নামে সম্পদ থাকার কথা বলে। এর বড় কারণ আমাদের দেশের মা-বোনরা সচেতন নয়। এজন্য মা-বোনদের সচেতন করার চেষ্টা করছি। এ বিষয়টি অধিক গুরুত্ব দিয়ে চিন্তা-ভাবনা করছি।

দুর্নীতি শুধু বাংলাদেশের একক কোনো সমস্যা নয় উল্লেখ করে ইকবাল মাহমুদ বলেন, এটি বৈশ্বিক সমস্যা। তাই জাতিসংঘ আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী কনভেনশন গ্রহণ করেছে। পাশাপাশি টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে দুর্নীতি অন্যতম চ্যালেঞ্জ।

তিনি জানান, এ বছর সরকারিভাবে ৯ ডিসেম্বর আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবস হিসেবে উদ্‌যাপিত হচ্ছে। আমরা মনে করি, দুর্নীতির বিরুদ্ধে সরকারের ইতিবাচক পদক্ষেপ বর্তমান প্রজন্ম ও ভবিষ্যত প্রজন্মকে দুর্নীতির রাহুগ্রাস থেকে রক্ষা করতে হবে। আমাদের সকল স্তরের নাগরিক ছাত্র, শিক্ষক, রাজনীতি, সুশীল সমাজসহ ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সবাইকে দুর্নীতির বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। তা না হলে দুর্নীতি নির্মূল করা যাবে না। শুধু দুদক, মিডিয়া কিংবা সরকার দুর্নীতি দূর করতে পারবে না।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
December 2017
M T W T F S S
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া