adv
২৬শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

জেরুজালেম নিয়ে আরব লিগের হুঁশিয়ারি

ARABআন্তর্জাতিক ডেস্ক : জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী ঘোষণা করলে তা সহিংসতাকে উসকে দেবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন আরব দেশগুলোর জোট আরব লিগের প্রধান আহমেদ আবুল গেইত। তিনি মনে করছেন, এতে করে ইসরায়েল-ফিলিস্তিনি শান্তিপ্রক্রিয়া ব্যাহত হবে।

জর্ডানও জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী ঘোষণার সিদ্ধান্ত থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে পিছু হটার আহ্বান জানিয়েছে। ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রকে নিবৃত্ত করতে তিনি শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত কূটনৈতিক তৎপরতা চালিয়ে যাবেন। তবে হামাস আবারও ‘ইন্তিফাদার’ হুমকি দিয়েছে।

এদিকে তেল আবিবে মার্কিন দূতাবাস জেরুজালেমে স্থানান্তর করা হবে কি না, তা নিয়ে গতকাল সোমবারই সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা ছিল ট্রাম্পের। ১৯৯৫ সাল থেকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রত্যেক প্রেসিডেন্টকে প্রতি ছয় মাস অন্তর এই সিদ্ধান্ত নিতে হচ্ছে।

ওয়াশিংটন ডিসিতে ব্রুকিংস ইনস্টিটিউটের সেন্টার ফর মিডল ইস্ট পলিসি আয়োজিত সাবান ফোরামে গত রোববার ট্রাম্পের জামাতা ও মধ্যপ্রাচ্যে শান্তিপ্রক্রিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের দূত জ্যারেড কুশনার বলেন, প্রেসিডেন্ট এখনো জেরুজালেম প্রশ্নে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে আসতে পারেননি। তবে আগামীকাল বুধবার ট্রাম্প এ ব্যাপারে ঘোষণা দিতে চলেছেন বলে যে খবর বেরিয়েছে, তা অগ্রাহ্য না করারও পরামর্শ দেন কুশনার।

তবে ট্রাম্পের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা এইচ আর ম্যাকমাস্টার রোববার ফক্স নিউজকে বলেন, জেরুজালেম ইস্যুতে প্রেসিডেন্টের উপদেষ্টারা বেশ কয়েকটি পরামর্শ দিয়েছেন। প্রেসিডেন্ট সেই পরামর্শগুলো বিবেচনা করছেন।

এই পরিস্থিতিতে মিসরের রাজধানী কায়রোয় রোববার সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় আরব লিগের প্রধান আহমেদ আবুল গেইত বলেন, কিছু মানুষ ঝুঁকির বিষয়টি বিবেচনা না করেই এই পদক্ষেপ নিতে উদ্বুদ্ধ করছে। এতে করে মধ্যপ্রাচ্যসহ পুরো বিশ্বের স্থিতিশীলতা বিনষ্ট হবে।

বিবিসি জানায়, জর্ডানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আয়মান সাফাদি সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র যদি জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী ঘোষণা করে, তাহলে তা পরিস্থিতিকে ‘বিপজ্জনক পরিণতির’ দিকে ঠেলে দেবে। এক টুইট বার্তায় তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসনের সঙ্গে এ ব্যাপারে তাঁর কথা হয়েছে।

গার্ডিয়ান জানায়, ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রকে নিবৃত্ত করতে তিনি শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত কূটনৈতিক তৎপরতা চালিয়ে যাবেন। তাঁর মুখপাত্র রোববার বলেন, বিশ্বনেতাদের সঙ্গে পর্যায়ক্রমে টেলিফোনে যোগাযোগ করছেন আব্বাস। মার্কিন দূতাবাস জেরুজালেমে স্থানান্তর বা জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী ঘোষণা করার ফলে কী বিপদ ঘনিয়ে আসতে পারে, তা বিশ্বনেতাদের বোঝানোর চেষ্টা করছেন তিনি।

হামাস হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছে, ওয়াশিংটন যদি একতরফাভাবে জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী ঘোষণা করে কিংবা দূতাবাস স্থানান্তর করে, তাহলে নতুন করে ‘ইন্তিফাদার’ সূচনা ঘটবে।

আরবি শব্দ ইন্তিফাদার অর্থ বিদ্রোহ। পশ্চিম তীর ও গাজায় ইসরায়েলি দখলদারত্বের বিরুদ্ধে ফিলিস্তিনে প্রথম ইন্তিফাদার সূচনা ঘটে ১৯৮৭ সালে। ১৯৯৩ সালে অসলো চুক্তির মাধ্যমে এর সমাপ্তি ঘটে।

গত শনিবার এক বিবৃতিতে হামাস বলে, ‘জেরুজালেম প্রশ্নে যদি অন্যায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, তাহলে ফিলিস্তিনি জনগণের প্রতি আমাদের আহ্বান থাকবে, ইন্তিফাদাকে পুনরুজ্জীবিত করুন।’

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
December 2017
M T W T F S S
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া