adv
৮ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মালয়েশিয়ায় পাচারকারীদের কবল থেকে ১৪ বাংলাদেশি উদ্ধার

14ডেস্ক রিপাের্ট : মালয়েশিয়ায় পাচারকারীদের কবল থেকে ১৪ বাংলাদেশি উদ্ধার করেছে পুলিশ। ২০ জুলাই বৃহস্পতিবার কুয়ালালামপুরের আমপাং এলাকার একটি বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে অভিবাসন বিভাগ তাদের উদ্ধার করে। দেশটির সংবাদ সংস্থা বার্নামা অনলাইনের খবরে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এদিকে  ১৬ বাংলাদেশিসহ ১১৩ অবৈধ অভিবাসকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

অভিবাসন বিভাগের মহাপরিচালক দাতুক সিরি মুস্তাফার আলি জানান, মানবপাচারকারী তিন বাংলাদেশি এজেন্ট কয়েকজনকে মালয়েশিয়ায় নিয়ে এসে একটি বাড়িতে আটকে রেখেছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই বাড়িতে অভিযান চালানো হয়।

বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় বিকাল ৫টায় স্পেশাল অপারেশন্স ইন্টিলিজেন্স বিভাগের একটি দল বাড়িটিতে অভিযান চালিয়ে ১৪জনকে উদ্ধার করে। ওই সময় পাচার চক্রের তিন দালালকে গ্রেফতার করা হয়।

তিনি আরও বলেন, অভিযানে ২০টি মোবাইল ফোন এবং পাচারকারীদের কাছ থেকে ২৮ হাজার পাঁচশ রিঙ্গিত পাওয়া গেছে। উদ্ধারকৃত ১৪ জনকে দু’টি কক্ষে গাদাগাদি করে রাখা হয়েছিল।

অভিযানের সময় ওই দু’টি ঘরের দরজা বন্ধ ছিল। উদ্ধারকারী দলের সদস্যরা তালা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করেন।  

অর্থ আদায়ের উদ্দেশ্যে পাচারকারীরা ওই ১৪ জনকে আটকে রাখা হয়েছিল।

দাতুক সিরি বলেন, আমাদের বিশ্বাস গত বছরের ডিসেম্বরে যে মানবপাচারকারী চক্রটিকে তারা আটক করেছিলেন সেই চক্রের সঙ্গে এদের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে।

এভাবে অভিযান চালিয়ে মানবপাচারকারী চক্রের সঙ্গে জড়িত আরো সদস্যদের আটক করা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

এদিকে একই দিনে ১৬ বাংলাদেশিসহ ১১৩ অবৈধ অভিবাসীকে গ্রেফতার করেছে মালয়েশিয়ান পুলিশ। এদের মধ্যে ১০ জনই শিশু। সিগামবুত দালামের বুকিত প্রিমা পেলাংগি এলাকায় অবৈধ অভিবাসীদের বিরুদ্ধে চালানো অভিযানে তাদের গ্রেফতার করা হয় বলে অভিবাসন বিভাগ সূত্রে জানা গেছে।

কুয়ালালামপুর ইমিগ্রেশন দফতর বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় মধ্যরাত তিনটায় প্রায় ১শটি বাড়িতে অতর্কিত অভিযান চালিয়ে অবৈধ অভিবাসীদের গ্রেফতার করে।
 
ইন্দোনেশিয়া এবং বাংলাদেশিসহ গ্রেফতার হওয়া ১১৩ অবৈধ অভিবাসীর মধ্যে ২৯ নারী এবং ১০ শিশু রয়েছে। গ্রেফতার হওয়া ৯৪ জন ইন্দোনেশিয়ার, ১৬ জন বাংলাদেশি এবং বাকিরা মিয়ানমার এবং শ্রীলঙ্কার।

কুয়ালালামপুর ইমিগ্রেশন ইন্টিলিজেন্স অ্যান্ড অপারেশন ইউনিটের প্রধান মোহাম্মদ শারুলনিজাম ইসমাইল এবং কুয়ালালামপুর ইমিগ্রেশন ডিপার্টমেন্ট ইনফোর্সমেন্টের প্রধান মোহাম্মেদ ইউসুফ খান মোহম্মদ হাসান ওই অভিযানের নেতৃত্ব দিয়েছেন।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া