adv
২৬শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মধুমিতা সিনেমা হলের মালিক চলচ্চিত্র কর্মীদের হাতে লাঞ্ছিত

CINEMAনিজস্ব প্রতিবেদক : সেন্সরবোর্ডের সামনে চলচ্চিত্রকর্মীদের হাতেই লাঞ্ছিত হলেন সিনেমা হল মালিক সমিতির সভাপতি ও মধুমিতা হলের মালিক ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ।

২১ জুন বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টা থেকেই যৌথ প্রযোজনার নিয়ম না মেনে নির্মিত ‘নবাব’ ও ‘বস টু’ ছবি দুটির মুক্তি ঠেকাতে আন্দোলনে নেমেছে চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট ১৬টি সংগঠন। তারা সেন্সর বোর্ড ঘেরাও করে রেখেছেন। সেখানেই এই ঘটনা ঘটে।

বেলা ১টার দিকে চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট ১৬টি সংগঠনের নেতা-কর্মীরা সেন্সর বোর্ডের সামনে অবস্থান নেন। সেখানে আগে থেকেই ছিলেন যৌথ প্রযোজনার ‘বস টু’ ও ‘নবাব’-এর পক্ষ নেওয়া নওশাদ।

এক পর্যায়ে চল‌চ্চিত্র রক্ষা আ‌ন্দোল‌নের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন নওশাদ। একপর্যায়ে ক‌য়েক কর্মী উত্তেজিত হয়ে তার উপর আক্রমণ ক‌রেন। ওই সময় নওশাদের পাঞ্জাবি ছিঁড়ে যায়। পরে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে সেন্সর বোর্ড অফিসে নিয়ে যান।

এই আক্রমণের পর তিনি এক গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমি ভাবতেও পারিনি কেউ আমার উপর হাত তুলতে পারে। আমরা তর্কাতর্কি করছিলাম। ওরা আমাকে দালাল বলে গালি  দিচ্ছিলো। আমি প্রতিবাদ করছিলাম। হঠাৎ করেই তারা আমাকে আক্রমণ করে বসে। আমি এ লাঞ্ছনার বিচার চাই।’

সেন্সরবোর্ডের সামনে অবস্থানকালে আন্দোলনকারীরা শ্লোগান দিতে থাকেন- ‘চলচ্চিত্রের দালালরা হুশিয়ার সাবধান’, ‘ঘেরাও ঘেরাও ঘেরাও হবে, সেন্সর বোর্ড ঘেরাও হবে’, ‘যৌথ প্রতারণা চলবে না’।

ঘেরাও কর্মসূচিতে আছেন মিশা সওদাগর, রিয়াজ, সাইমন, বদিউল আলম খোকন, তানিন, প্রযোজক সমিতির নেতা খোরশেদ আলম খসরুসহ আরো অনেকে।

আর চলমান যৌথ প্রযোজনা বিতর্কে জাজ মাল্টিমিডিয়ার সঙ্গে যুক্ত কলা-কুশলী, প্রদর্শক ও বুকিং এজেন্ট সমিতির মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট সংগঠনগুলো।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া