adv
২৪শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বৃষ্টি বাধায় বিলম্ব- বাংলাদেশের সামনে ৩১২ রানের চ্যালেঞ্জ

Sri Lankan cricketer Dinesh Chandimal (L) plays a shot as Bangladesh wicketkeeper Mushfiqur Rahim looks on during the second one day international (ODI) cricket match between Sri Lanka and Bangladesh at The Rangiri Dambulla International Cricket Stadium in Dambulla on March 28, 2017. / AFP PHOTO / Ishara S. KODIKARA        (Photo credit should read ISHARA S. KODIKARA/AFP/Getty Images) নিজস্ব প্রতিবেদক : বৃষ্টি বাধা, জয়ের জন্য ৩১২ রানের লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নামতে বিলম্ব। তবে কার্টল ওভারে দ্বিতীয় ইনিংসের খেলতে হতে পারে মাশরাফিদের। সিরিজের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ ৩২৪ রান করে ৯০ রানে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে জিতেছিল। ২৮ মার্চ মঙ্গলবার দ্বিতীয় ম্যাচে স্বাগতিকরা প্রথমে ব্যাটিংয়ে গিয়ে কুশাল মেন্ডিসের ১০২ আর উপল থারাঙ্গার ৬৫ রানে ভর করে বাংলাদেশের সামনে ৩১২ রানের চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্যমাত্রা ছুঁড়ে দেয়।  
ডাম্বুলায় টস জিতে ভুল করেননি লঙ্কান দলনেতা উপল থারাঙ্গা। আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন। শুরুতে অবশ্য নিশানা খুঁজে পাননি। ১৮ রানের মাথায় ওপেনার দানুশকা গুনাথিলাকাকে হারায় দলটি। প্রথম ওয়ানডের মতো গতকালও মাশরাফির হাত ধরে আসে প্রথম উইকেট। ১১ বলে ৯ রান করার পর উড়িয়ে মারতে গিয়ে মুশফিকের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান গুনাথিলাকা। এক উইকেট হারানোর পর মেন্ডিস-থারাঙ্গা মিলে ১১১ রানের দারুণ এক জুটি গড়ে শ্রীলঙ্কা। দলের স্কোর যখন ১২৯। তখনই দ্বিতীয় শিকারের দেখা পায় বাংলাদেশ। মাহমুদউল্লাহর করা থ্রো’তে রান আউটে কাটা পড়েন থারাঙ্গা। আউট হওয়ার আগে দলকে দিয়ে যান ৬৫ রানের ইনিংস। থারাঙ্গা চলে গেলেও থেমে থাকেনি শ্রীলঙ্কার রানের চাকা। চান্দিমালকে নিয়ে আবারও জুটি মেরামতের কাজ করে যান গল টেস্টের নায়ক মেন্ডিস। ৪১ রানের জুটি গড়ার পথে মেন্ডিস পূর্ণ করেন নিজের শতরান।
প্রথম ওয়ানডে ম্যাচে ৫৯ রান করা দিনেশ চান্দিমালকে খুব একটা বাড়তে দেননি মুস্তাফিজুর রহমান। ব্যক্তিগত ২৪ রানের মাথায় চান্দিমালকে এলবির ফাঁদে ফেলেন তিনি। মুস্তাফিজ উইকেট পাওয়ার পরের ওভারেই লঙ্কান শিবিরে চতুর্থ ছোবল বসান তাসকিন আহমেদ। নিজের বলে নিজেই ক্যাচ লুফে সেঞ্চুরিয়ান কুশাল মেন্ডিসকে বিদায় করেন এই টাইগার পেসার। আগের নয় ওভারে উইকেটের দেখা না পাওয়া মেহেদী হাসান মিরাজ ব্যক্তিগত দশম ওভারে দলের জন্য পঞ্চম সাফল্য এনে দেন। ৩০ রান করা মিলিন্দা সিরিবর্দনেকে সরাসরি বোল্ড করেন মিরাজ। প্রথম ওয়ানডেতে ৩৫ বলে ৫৫ করা থিসারা পেরেরা আজ ব্যাট হাতে সুবিধা করতে পারেননি। ৯ রান করেই মুশফিকুর রহিমের করা থ্রো’তে রান আউটের শিকার হন পেরেরা। সপ্তম উইকেটও আসে মুশফিকের ঝুলি থেকে। তাসকিনের দারুণ এক হ্যাটট্রিকে পুরো ম্যাচের নিভু নিভু ভাবটা শেষ দিকে জ্বলে উঠে। পরপর তিন বলে তিন ব্যাটসম্যানের বিদায় ঘণ্টা বাজান বাংলাদেশের ‘স্পিড স্টার’। অষ্টম উইকেটে গুনারাতেœ (৩৯), নবম উইকেটে লাকমাল (০) এবং দশম উইকেট হিসেবে নুয়ান প্রদিপকে খালি হাতে ফিরিয়ে পঞ্চম হ্যাটট্রিক উদযাপন করেন তাসকিন।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া