adv
২৪শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

জঙ্গি আস্তানা- চট্টগ্রামে আরও দুই বাড়ি ঘেরাও

1ডেস্ক রিপাের্ট : চট্টগ্রাম মহানগরীর আকবর শাহ থানার কর্নেলহাট এলাকায় দুটি বাড়ি ঘিরে রেখেছে পুলিশ। ওই দুটি বাড়ি জঙ্গি আস্তানা বলেই সন্দেহ করছে বাহিনীটি। সীতাকুণ্ডে সন্দেহভাজন দুটি জঙ্গি আস্তানায় অভিযানের রেশ কাটতে না কাটতেই এই অভিযানে নেমেছে তারা।

২০ মার্চ সোমবার দুপুরে এই অভিযান শুরু হয় বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের আকরব শাহ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আলমগীর। তিনি জানান, বাড়ি দুটির একটি আকবর শাহ সিডিএ আবাসিক এলাকার এক নম্বর সড়কে, অপরটি ইশান মহাজন সড়কে অবস্থিত।

এই পুলিশ কর্মকর্তা জানান, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে এই অভিযানে নেমেছেন তারা। অভিযানের জন্য বিশেষ বাহিনী সোয়াত, বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দলসহ পুলিশের দেড়শরও বেশি সদস্য ঘটনাস্থলে উপস্থিত আছেন।

নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (পশ্চিম) নাজমুল হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘আস্তানা দুটিতে অভিযানের প্রস্তুতি নিচ্ছে পুলিশ।’

সাম্প্রতিককালে জঙ্গিবিরোধী বেশ কয়েকটি অভিযান হয়েছে চট্টগ্রামে। একটি আস্তানায় আটক দুই সন্দেহভাজন জঙ্গি পুলিশকে জানিয়েছেন, চট্টগ্রাম এবং ঢাকায় একযোগে হামলার পরিকল্পনা ছিল তাদের। বিশেষ করে সীতাকুণ্ডে নিহত এবং ধরা পড়া দুই জনের বিদেশিদের ওপর হামলার পরিকল্পনা ছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ।

গত বুধ ও বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে দুটি বাড়িতে অভিযান চালায় পুলিশ। এর মধ্যে বুধবার সাধন কুঠির নামে ওই বাড়ি থেকে আটক হন স্বামী-স্ত্রী পরিচয়দানকারী দুই জন। আর পরদিন ছায়ানীড় ভবনে অভিযান চলাকালে আত্মঘাতী বিস্ফোরণ এবং পুলিশের গুলিতে নিহত হয় পাঁচ জন। পরে আস্তানাটি থেকে বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক এবং বোমা তৈরির কাঁচামাল উদ্ধার করে পুলিশ।

এর আগে ৭ মার্চ জেলার মিরসরাইয়ে সন্দেহভাজন আরও একটি জঙ্গি আস্তানায় অভিযান চালানো হয়। সেখান থেকেও উদ্ধার করা হয় বিপুল পরিমাণ বোমা, গ্রেনেড এবং বিস্ফোরক। এই আস্তানায় পাওয়া গ্রেনেডগুলোর সঙ্গে ২০১৬ সালের ৩০ জুলাই ঢাকার গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে হামলাকারীরা যেসব গ্রেনেড ব্যবহার করেছিল তার হুবহু মিল পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

 

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া