adv
২৪শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হলেন যারা

electionডেস্ক রিপাের্ট : দেশে প্রথমবারের মতো ৬১ জেলা পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় বুধবার সকাল ৯টায়। বাদ ছিল পার্বত্য তিন জেলা। ভোট চলে বিকেল ২টা পর্যন্ত। ৬১ জেলার মধ্যে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন ২১ চেয়ারম্যান। ২১ জেলায় চেয়ারম্যান বাদে অন্যান্য পদে ভোটগ্রহণ শুরু হয় যথানিয়মে। এ ছাড়া বগুড়ার চেয়ারম্যানসহ পদসহ তিনটি ওয়ার্ডের সাধারণ পদে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয় হাইকোর্টের নির্দেশে।

ভোট গণনা শেষে আসতে শুরু করেছে ফলাফল। জেনে নেওয়া যাক বিস্তারিত

মাগুরা : জেলায় নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী পঙ্কজ কুমার কুণ্ডু। ৯১ ভোটের ব্যবধানে তিনি নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী একই দলের প্রার্থী রানা আমির ওসমানকে পরাজিত করেছেন।

বিজয়ী প্রার্থী পঙ্কজ কুমার কুণ্ডু জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। তিনি পেয়েছেন ২৭০ ভোট। অন্যদিকে নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিদ্রোহী প্রার্থী রানা আমির ওসমান পেয়েছেন ১৭৯ ভোট। তিনি জেলা আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও পুনর্বাসন বিষয়ক সম্পাদক।

সাতক্ষীরা : জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক স্বতন্ত্র প্রার্থী নজরুল ইসলাম দলীয় প্রার্থী মুনসুর আহমেদকে পরাজিত করে চেয়ারম্যান পদে বিপুল ভোটে জয়লাভ করেছেন।

জেলার ১৫টি কেন্দ্রের মধ্যে ১২টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ করা হয়েছে। এর মধ্যে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও স্বতন্ত্র প্রার্থী নজরুল ইসলাম ৬৪৮ ভোট পেয়েছেন। তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী মুনসুর আহমেদ ১৭৮ ভোট পেয়েছেন। স্থগিতকৃত তিনটি কেন্দ্রে ভোটের সংখ্যা ২০৭। তাই স্থগিতকৃত ভোট কেন্দ্রের ভোট দ্বারা চেয়ারম্যান পদের ফলাফল পরিবর্তন হওয়া সম্ভব নয়।

বরগুনা : বরগুনা-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য মো. দেলোর হোসেন নির্বাচিত হয়েছেন। নির্বাচনে মোট ১৫ ভোট কেন্দ্র থেকে পাওয়া ফলাফলে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী দেলোয়ার হোসেন ঘোড়া প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৫৯৫ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি ও বরগুনার সোবেক এমপি ও সাবেক জেলা পরিষদ প্রশাষক মো. জাফরুল হাসান ফরহাদ আনারস প্রতীকে পেয়েছেন মাত্র ১৭ ভোট।

ঝিনাইদহ : ঝিনাইদহ জেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বাবু কনক কান্তি দাস বিজয়ী হয়েছেন। তিনি পেয়েছেন ৫৩৭ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী হারুন অর রশিদ পেয়েছেন ৩৯২ ভোট।

জেলা নিবার্চন অফিস সূত্রে জানা গেছে, এ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন, সংরক্ষিত নারী ১৮ এবং সাধারণ সদস্য পদে ৬১ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

মেহেরপুর : নির্বাচিত হলেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী গোলাম রসুল। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মিয়াজান আলী পেয়েছেন ৮৪ ভোট। এছাড়া অপর দুই চেয়ারম্যান প্রার্থী জিয়াউদ্দিন বিশ্বাস পেয়েছেন ৫৫ ভোট এবং সাহিদুজ্জামান খোকন পেয়েছেন ২১ ভোট। দুপুর তিনটায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলা রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক পরিমল সিংহ জেলা পরিষদ নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করেন।

সিলেট : সিলেট জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে জয় পেয়েছেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী অ্যাডভোকেট লুৎফুর রহমান। আনারস প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৭৯৬ ভোট। অন্যদিকে, লুৎফুর রহমানের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী এনামুল হক সরদার কাপ-পিরিচ প্রতীক নিয়ে ৫৫৩ ভোট পেয়েছেন।

১, ৩, ৮, ৯ ও ১৪ নং ওয়ার্ডের পুরুষ সদস্য পদে নির্বাচন স্থগিত করা হয়। এছাড়া সিলেট জেলা পরিষদ নির্বাচনে ২নং ওয়ার্ডে সমান ১৭ ভোট পেয়েছেন গোলাম কিবরিয়া হিরা মিয়া (টিউবওয়েল) ও মো. মতিউর রহমান (হাতি)। তাদের দুজনের সমানসংখ্যক ভোট পাওয়ায় ওই ওয়ার্ডের ফল ঘোষণা করা হয়নি।

জয় পরাজয় আরো খবর

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
December 2016
M T W T F S S
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031  


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া