adv
২৩শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ভুয়া সনদে ৩৩ বছর! ক্ষমতার অপব্যবহার করে অবৈধ সম্পদের মালিক

cirtifiডেস্ক রিপাের্ট : ভুয়া সনদে ৩৩ বছর ধরে চাকরিতে বহাল আছেন সরকারি আবাসন পরিদপ্তরের সহকারী পরিচালক লোকমান হোসেন। তিনি ১৯৮০ সালে প্রথম বঙ্গভবনের তথ্য বিভাগে এমএলএসএস পদে যোগদান করেন। এর পর ধাপে ধাপে জালিয়াতি ও তদবির করে তিনি এখন আবাসন পরিদপ্তরে চাকরি করছেন। ক্ষমতার অপব্যবহার ও প্রতারণা করে তিনি অবৈধ সম্পদের মালিকও হয়েছেন।

সূত্র জানায়, বঙ্গভবনে এমএলএসএস পদে চাকরি অবস্থায় ১৯৮৩ সালে তাকে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগে (ইআরডি) বদলি করা হয়। সেখানে তিনি বার্তাবাহক পদে কাজ শুরু করেন। ইআরডিতে থাকা অবস্থায় তিনি এইচএসসির ভুয়া সনদ দাখিল করে সাঁট মুদ্রাক্ষরিক পদে পদোন্নতির আবেদন করেন। পরে তাকে অস্থায়ী ভিত্তিতে ওই পদে পদোন্নতি দেওয়া হয়।

আবাসন পরিদপ্তরের পরিচালক এমদাদুল হক বলেন, পরিদপ্তরের তদন্তে লোকমানের এইচএসসি সনদ ভুয়া বলে প্রমাণিত হয়েছে। বিষয়টি সামনে আসার পর কর্তৃপক্ষ তার শাস্তিও নিশ্চিত করেছে। এ জন্য তার চাকরি করার ক্ষেত্রে আর কোনো বাধা নেই। 'শাস্তির পর কি তার জাল সনদ বৈধ হতে পারে'_ এমন প্রশ্নের জবাবে তার কোনো বক্তব্য নেই বলে জানান। 'জাল সনদে সহকারী পরিচালক পদে তিনি বহাল থাকতে পারেন কি-না'_ এ ব্যাপারেও তিনি কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

জানা যায়, ভুয়া সনদে চাকরিতে বহাল থাকা নিয়ে পরিদপ্তরের সাবেক অতিরিক্ত পরিচালক জালাল উদ্দিন আহম্মেদের তদন্তে লোকমানের এইচএসসি সনদটি জাল বলে প্রমাণিত হয়। ওই তদন্ত প্রতিবেদনের ভিত্তিতে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সাবেক সচিব ড. খোন্দকার শওকত হোসেন সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা অনুয়ায়ী লোকমানকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করেন। এর পর মন্ত্রণালয়ের সাবেক আরেক সচিব মো. গোলাম রব্বানী সাময়িক বরখাস্তের আদেশ প্রত্যাহার করে অসদাচরণের শাস্তি হিসেবে এক বছরের জন্য পদোন্নতি স্থগিত ও এক বছরের জন্য বেতন বৃদ্ধি স্থগিত করে আদেশ জারি করেন। 

এ আদেশে সাময়িক বরখাস্ত থাকা সময়কে কর্তব্যকালীন সময় হিসেবে উল্লেখ করা হয়। সাবেক ওই সচিবের এ সিদ্ধান্তে আবাসন পরিদপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে ক্ষোভ ও অসন্তোষের সৃষ্টি হয়। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পরিদপ্তরের এক কর্মকর্তা বলেন, জাল সনদে চাকরিতে বহাল থাকা ও পদোন্নতি পাওয়ার কোনো সুযোগ নেই। লোকমানকে চাকরিতে বহাল রেখে পদোন্নতি দিয়ে সরকারি কর্মচারী বিধিমালা লঙ্ঘন করা হয়েছে। একইসঙ্গে এ পরিদপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের হেয় করা হয়েছে।

সহকারী পরিচালক লোকমান হোসেন দাবি করেন, তার এইচএসসি সনদটি সঠিক। তদন্তে ভুয়া সনদের অভিযোগ মিথ্যা প্রমাণিত হয়েছে। তিনি প্রশ্ন তুলে ধরে বলেন, 'এতদিন ধরে কাজ করে আসছি কোনো সমস্যা হয়নি। আজ আবার কী সমস্যা হলো।' তার জন্মতারিখ নিয়েও চাকরির নথিতে ঘাপলা রয়েছে। প্রকৃত জন্মতারিখ জানতে চাইলে তিনি বলেন, 'আমার মনে নেই।'

জানা যায়, লোকমান একপর্যায়ে ইআরডিতে সাঁট মুদ্রাক্ষরিক পদে উদ্বৃত্ত হয়েছিলেন। পরে তাকে ন্যস্ত করা হয় জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে। এখান থেকে তাকে ১৯৮৫ সালে আবাসন পরিদপ্তরে সাঁট মুদ্রাক্ষরিক পদে পদায়ন করা হয়। আবাসন পরিদপ্তরের একটি সূত্র জানায়, লোকমান ১৯৭৯ সালে এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। 

এসএসসি সনদ অনুযায়ী তার জন্মতারিখ ১৯৬৪ সালের ১৫ অক্টোবর। সে অনুযায়ী বঙ্গভবনে চাকরি নেওয়ার সময় তার বয়স ছিল ১৫ বছর ৮ মাস ১৮ দিন। ১৮ বছরের নিচে সরকারি চাকরিতে যোগদানের সুযোগ নেই। এ কারণে তিনি জালিয়াতি করে জন্মতারিখ ১৯৬১ সালের ১৫ অক্টোবর উল্লেখ করে অষ্টম শ্রেণির সার্টিফিকেট সংগ্রহ করে ওই সময় চাকরি নেন। পরে তিনি কর্তৃপক্ষের নজর এড়িয়ে চাকরি-সংক্রান্ত নথিতে এসএসসি সনদ যুক্ত করেন। 

আবাসন পরিদপ্তরে তদবির, লবিং করে তিনি প্রধান সহকারী পদে পদোন্নতি পান ২০০১ সালে। পরে তিনি সহকারী পরিচালক পদে পদোন্নতি পান ২০১০ সালে। জালিয়াতি করে চাকরিতে যোগদান, ভুয়া সনদে পদোন্নতির তথ্য-প্রমাণ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের জানা থাকলেও আজ পর্যন্ত তার বিরুদ্ধে কোনো আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, আবাসন পরিদপ্তরের অবসরে যাওয়া উচ্চমান সহকারী আবু জাফর খন্দকার ভুয়া সনদে লোকমানের চাকরিতে বহাল থাকার অভিযোগটি আবাসন পরিদপ্তরের পরিচালক বরাবরে পেশ করেছিলেন। কর্তৃপক্ষের নির্দেশে অভিযোগটি তদন্ত করেন পরিদপ্তরের সাবেক অতিরিক্ত পরিচালক জালাল উদ্দিন আহম্মেদ। প্রতিবেদনে বলা হয়, লোকমানের এইচএসসি সনদটি জাল। ওই পদে নিয়োগের শিক্ষাগত যোগ্যতা না থাকায় সাঁট মুদ্রাক্ষরিক পদে নিয়োগটি অবৈধ ছিল। প্রতারণা-জালিয়াতি করে ভুয়া সনদে পদোন্নতি ও চাকরিতে বহাল থাকায় তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হয়। অবৈধ সম্পদের মালিক হওয়ায় বিষয়টিও প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়। সমকাল

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
September 2016
M T W T F S S
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
2627282930  


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া