adv
৮ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৩শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

র‌্যাবের ডিজি বললেন-ছাত্র জঙ্গি হলে দায়িত্ব বিশ্ববিদ্যালয়ের

banogir_126562নিজস্ব প্রতিবেদক : কোনো ছাত্র উগ্রবাদে জড়ালে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে তার দায়িত্ব নিতে হবে বলে সতর্ক করেছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনী র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ। তিনি বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো বড় ভাই শিক্ষার্থীদের কাছে বিভ্রান্ত মতবাদ প্রচারের খবর পাওয়া গেলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে খবর দিতে হবে।’

৩ সেপ্টেম্বর শনিবার বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটিতে নবীনবরণ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন র‌্যাব প্রধান।

সাম্প্রতিক জঙ্গি তৎপরতায় দেশের উচ্চবিত্ত শ্রেণির পছন্দ এই বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়টির বেশ কিছু ছাত্রের সম্পৃক্ততার তথ্য পেয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। গত ১ জুলাই গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে হামলাকারীদের একজন নিরবাস ইসলাম এবং ৭ জুলাই কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়ায় হামলাকারী আবির রহমান এই বিশ্ববিদ্যালয়টির ছাত্র ছিলেন।

গত ২৬ জুলাই রাজধানীর কল্যাণপুরে জঙ্গি আস্তানায় নিহত সন্দেহভাজন তিন জঙ্গিও নর্থ সাউথের শিক্ষার্থী ছিলেন। বিশ্ববিদ্যালয়টির আরও অন্তত ৪০ জন শিক্ষার্থীকে নিয়ে উদ্বিগ্ন আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এদের অন্তত দুই জন তাদের পরিবার নিয়ে উধাও হয়েছে। তারা বাংলাদেশ ছেড়ে একটি মুসলিম দেশে পাড়ি জমিয়েছেন বলে তথ্য পাওয়া গেছে।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তদন্তে দেখা গেছে, বেসরকারি এই বিশ্ববিদ্যালয়টিতে উগ্রবাদীরা গত কয়েক বছর ধরেই তৎপর। ছাত্রদের পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ের একাধিক শিক্ষকের বিরুদ্ধেও উগ্রপন্থায় জড়িত থাকার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আর্টিজান হামলায় সম্পৃক্ততার অভিযোগে গ্রেপ্তার হাসনাত আর করিম এই বিশ্ববিদ্যালয়টিরই শিক্ষক ছিলেন। চার বছর আগে জঙ্গি তৎপরতায় জড়িত থাকার অভিযোগে তাকে এবং চার শিক্ষককে চাকরিচ্যুত করা হয়।

তবে কেবল নর্থ সাউথ নয়, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ব্র্যাক, আল মানারাত ইউনিভার্সিটিরও একাধিক শিক্ষার্থীর জঙ্গি সম্পৃক্ততায় জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেছে। এসব বিশ্ববিদ্যালয়ের কেবল ছেলে শিক্ষার্থী নয়, একাধিক তরুণীও গ্রেপ্তার বা নিখোঁজ হয়েছেন।

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশাপাশি সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়েরও বেশ কিছু শিক্ষার্থীর জঙ্গি সম্পৃক্ততার প্রমাণ মিলেছে। গুলশানে হলি আর্টিজানে হামলায় মূল হোতা হিসেবে যাদেরকে শনাক্ত করা হয়েছে তাদের একজন মারজান ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবি বিভাগের শিক্ষার্থী। একই বিশ্ববিদ্যালয়ের আরও বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী নিখোঁজ আছেন। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়েরও একাধিক শিক্ষার্থীর জঙ্গি সম্পৃক্ততার তথ্য পেয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়েরও চার ছাত্রকে আটক করেছে পুলিশ।

র‌্যাব প্রধান বলেন, ‘আর্টিজান হামলা আমাদেরকে নাড়া দিয়েছে। এখান থেকে আমরা অনেক শিক্ষা পেয়েছিল। ছেলেমেয়েরা কোথায় কী করে, কাদের সঙ্গে মেশে, তাদের আচরণে কোনো পরিবর্তন হলো কি না, এসব বিষয়ে নজর রাখতে হবে।’

ইসলামী শাসন কায়েমের কথা বলে জঙ্গিরা কর্মী টানার চেষ্টা করছে। র‌্যাব ডিজি বলেন, ‘ইসলাম শান্তির ধর্ম। এখানে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের স্থান নেই। ইসলামের নামে যারা মানুষ হত্যা করছে তারা মুসলমানের শত্রু। এদের বিরুদ্ধে আমাদের প্রতিরোধ গড়ে তুলবে হবে। ইসলাম কখনো নিরীহ মানুষকে হত্যা করা সমর্থন করে না।’

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আতিকুল ইসলাম। এতে বক্তব্য দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের চেয়ারম্যান আজিমুদ্দিন আহমেদ। প্রধা্ন অতিথি হিসেবে উপস্থিত আছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
September 2016
M T W T F S S
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
2627282930  


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া