adv
২৪শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ট্রাম্পের সমাবেশ থেকে সরিয়ে দেওয়া হলো মুসলমান নারীকে

photo-1452316365_111694 আন্তর্জাতিক ডেস্ক :যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান পার্টির মনোনয়নপ্রত্যাশী ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাচনী সমাবেশ থেকে হিজাব পরা এক মুসলমান নারীকে সরিয়ে নিয়ে গেছে পুলিশ।
সিএনএনের খবরে বলা হয়, স্থানীয় সময় শুক্রবার ওই সমাবেশে ট্রাম্পের বক্তব্যের সময় নীরব প্রতিবাদ জানাচ্ছিলেন রোজা হামিদ (৫৬) নামের ওই নারী। একেবারে ট্রাম্পের মুখোমুখি চুপচাপ দাঁড়িয়ে থাকেন তিনি। এ সময় তাঁর পরনের শার্টে লেখা ছিল, ‘সালাম, আমি শান্তির বার্তা নিয়ে এসেছি।’এ ছাড়া মার্টি রোসেনব্লুথ নামে আরো এক ব্যক্তিও রোজা হামিদের সঙ্গে দাঁড়িয়ে তাঁর প্রতিবাদে অংশ নেন। তাঁরা দুজনেই চুপচাপ দাঁড়িয়ে থাকলেও তাঁদের আশপাশে থাকা ট্রাম্পের ভক্তরা জোরে জোরে ট্রাম্পের নামে স্লোগান দিতে থাকেন।  এ সময় পুলিশ এসে রোজ হামিদকে সরিয়ে নিয়ে যায়।
রক হিল পুলিশ ডিপার্টমেন্টের মেজর স্টিভেন থম্পসন জানান, রোজা ঝামেলা সৃষ্টি করছেন বলে সমাবেশ কর্তৃপক্ষ পুলিশের কাছে অভিযোগ করে। এ জন্য তাঁকে সেখান থেকে সরিয়ে নিয়ে যায় পুলিশ।রোজা হামিদের বরাত দিয়ে সিএনএন আরো জানায়, পুলিশ যখন তাঁদের সরিয়ে নিয়ে যাচ্ছিল তখন আশপাশ থেকে তাদের উদ্দেশে টিটকারিমূলক বাক্য ছুড়ে দেওয়া হচ্ছিল। এদের মধ্যে একজন চিৎকার করে বলতে থাকেন, ‘বেরিয়ে যাও, তোমার কাছে বোমা আছে।’টেলিফোনে সিএনএনকে রোজা হামিদ বলেন, ‘কদর্যতা খুব দ্রুত প্রকাশ পেতে শুরু করেছে এবং এটা সত্যিই খুব ভয়ের।’ তিনি জানান, সমাবেশে কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা করা বা চিৎকার করে কোনো প্রতিবাদ জানানোর পরিকল্পনা তাঁর ছিল না। মুসলমানরা কেমন সেটা ট্রাম্পের সমর্থকদের জানাতেই তিনি এভাবে শান্তভাবে দাঁড়িয়ে প্রতিবাদ করেন।রোজা হামিদ বলেন, ‘আমার কাছে মনে হলো, ট্রাম্পের বেশিরভাগ সমর্থকই কখনো কোনো মুসলমান ব্যক্তির সঙ্গে মেশেননি। সে জন্য ভাবলাম কোনো মুসলমানের সঙ্গে মেশার সুযোগ আমিই তাঁদের করে দেই। আমার সত্যিই কোনো কিছু বলার পরিকল্পনা ছিল না।’অবশ্য তাঁকে বের করে দেওয়ার আগে সমাবেশে অংশ নেওয়া বেশকিছু মানুষের সঙ্গে কথা বলার সুযোগ পান রোজা হামিদ। তাঁকে জোর করে সমাবেশস্থল থেকে বের করে দেওয়ায় তাদের অনেকেই দুঃখ প্রকাশ করেছেন। রোজা বলেন, ‘যারা আমার আশপাশে ছিল এবং যাদের সঙ্গে আমি কথা বলার সুযোগ পেয়েছি তাদের মধ্যে অনেকেই খুব ভালো ব্যবহার করেছে। তবে যারা ট্রাম্পের দ্বারা প্রভাবিত তারা সত্যিই খুব নোংরা।’
কিছু বন্ধু-পরিচিতদের নিয়ে একটি সংগঠনে যোগ দিয়েছেন রোজা হামিদ। যারা এভাবে বিভিন্ন স্থানে ট্রাম্পের ইসলামবিদ্বেষী বক্তব্যের নীরব প্রতিবাদ করবে। নিজেদের পরিল্পনার অংশ হিসেবে এরই মধ্যে এইকেন এবং সাউথ ক্যারোলিনায় ট্রাম্পের সমাবেশে দাঁড়িয়ে প্রতিবাদ জানানো হয়।নির্বাচনে জয়ী হলে যুক্তরাষ্ট্রে মুসলিমদের প্রবেশে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারি করবেন বলে কিছুদিন আগে জানিয়েছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। এর পরিপ্রেক্ষিতে বিশ্বজুড়ে আলোচনা ও সমালোচনার ঝড় ওঠে।

 

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া