adv
২৪শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘উন্নত দেশের একটি হবে বাংলাদেশ’

news_img (1)ডেস্ক রিপোর্ট : বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আতিউর রহমান বলেছেন, ২০৫০ সালে উন্নত দেশের একটি হবে বাংলাদেশ।

রবিবার বিকালে বাংলাদেশ ব্যাংকের জাহাঙ্গীর আলম কনফারেন্স হলে স্কিল ফর ইমপোলায়মেন্ট ইনভেস্টমেন্ট (এসইআইপি) প্রশিক্ষণ কার্যক্রম উদ্বোধন ও নটিফিকেশন অ্যাওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন।

গভর্নর বলেন, উদ্যোক্তা উন্নয়নের লক্ষে বাংলাদেশ ব্যাংক ১শ’ কোটি টাকা বরাদ্দ রেখেছে। চলতি অর্থবছর শেষে দেশের অর্থনীতির প্রবৃদ্ধি ৭ শতাংশের কাছাকাছি যাবে।


অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন এমএমই এন্ড স্পেশাল প্রোগ্রামস বিভাগের মহাব্যবস্থাপক স্বপন কুমার রায়।


বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক নির্মল চন্দ্র ভক্তের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর এস.কে সুর চৌধুরী, অ্যাসোসিয়েশন ব্যাংকার্স বাংলাদেশ (এবিবি) সভাপতি আনিস এ খান, নন-ব্যাংক ফাইন্যান্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মফিজ উদ্দিন সরকার, অর্থমন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এসইআইপি জাতীয় প্রকল্পের নির্বাহী পরিচালক আব্দুর রউফ তালুকদার, অর্থমন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ও প্রকল্প পরিচালক জালাল আহমেদ, প্রশিক্ষণে অংশ নেয়া ইউসেফ বাংলাদেশের জাকির হাসান, উদ্দীপনের প্রধান নির্বাহী এমরানুর হক চৌধুরী, গ্রাসরুটের মৌসুমী ইসলাম।

অনুষ্ঠানে ডেপুটি গভর্নর এস.কে সুর চৌধুরী বলেন, সকল ক্ষেত্রেই স্কিল ডেভেলপমেন্টের কোন বিকল্প নেই। গত ৩ বছরে এসএমই খাতে ১০ লক্ষ উদ্যোক্তা তৈরি হয়েছে। এসইআইপি প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত কর্মীদের ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সংযোগ করানোর আহবান জানান তিনি। 

এবিবি সভাপতি আনিস এ খান বলেন, আমরা সব সময় পাশে থাকবো। প্রশিক্ষণার্থীদের প্রশিক্ষণের জন্য প্রয়োজনে জায়গা দেবে এবিবি বললেন তিনি।

এসইআইপি প্রকল্পের আব্দুর রউফ তালুকদার বলেন, এ প্রকল্পে আগামি ৩ বছরের ১৫ লক্ষের প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। প্রশিক্ষণের ৭০ শতাংশ কর্মীদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হবে। এর মধ্যে ৩০ শতাংশ থাকবে নারী। 

অনুষ্ঠানে জানানো হয়েছে, এসএমই ও গ্রীণ ব্যাংকিং খাতে ৪ লক্ষ কোটি টাকা এ পর্যন্ত বিনিয়োগ হয়েছে। 

প্রশিক্ষণের জন্য ১২৮টি প্রতিষ্ঠানের থেকে বাছাই করে ৫১টির মধ্যে ১৯টি প্রতিষ্ঠানকে রেসপনসি হিসেবে চিহ্নিত করে এর মধ্য থেকে ৮টি প্রতিষ্ঠান চূড়ান্ত করা হয়। এ প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে প্রাথমিকভাবে ১হাজার ২শ’ জনকে প্রশিক্ষণ আওতাভুক্ত করা হয়।


নটিফিকেশন অ্যাওয়ার্ড পাওয়া ৮টি প্রতিষ্ঠানগুলো হচ্ছে-ইউসেফ বাংলাদেশ, এমএডব্লিউটিএস, টিএমএসএস, ক্রিয়েটিভ আইটি লি., উদ্দীপনের, বিআইআইটি, পিআরডিএস, এজিডব্লিউইবি।

জয় পরাজয় আরো খবর

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া