adv
২২শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সশস্ত্র বাহিনীর নতুন ভবন নির্মাণে জমি না দেওয়ার সিদ্ধান্ত

photo-1450724917_108964ডেস্ক রিপোর্ট : নতুন ভবন নয়, বর্তমানের ভবনগুলো আরো বেশি করে ব্যবহার করার জন্য সশস্ত্র বাহিনীকে সুপারিশ করেছে জাতীয় সংসদের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটি।

সোমবার দশম জাতীয় সংসদের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ১৫তম বৈঠকে সশস্ত্র বাহিনীর জন্য ভবন নির্মাণে জমি দাবি করা হয়েছিল।

তবে সংসদীয় কমিটি এ দাবি নাকচ করে দিয়েছে। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন কমিটির সভাপতি সুবিদ আলী ভূঁইয়া।

বৈঠক সূত্রে জানা যায়, সশস্ত্র বাহিনী থেকে বৈঠকে নতুন বিল্ডিং করার দাবি উঠেছিল। কিন্তু কমিটি তা নাকচ করে দিয়েছে।

এ বিষয়ে কমিটির সদস্য মুহাম্মদ ফারুক খান বলেন, ‘কিছু নতুন নতুন বিল্ডিংয়ের দাবি করেছিল। কমিটি বলেছে, বিল্ডিং করার প্রয়োজন নেই। যেগুলো আছে বা একই বিল্ডিংকে আরো বেশি করে ব্যবহার করা উচিত।’

এর আগে সশস্ত্র বাহিনীর ১৪তম বৈঠকেও ভবন নির্মাণে জমি দাবি করা হয়েছিল। ওই সময় কমিটি সশস্ত্র বাহিনীকে জমির স্বল্পতার দিকে লক্ষ রেখে ভূমির সর্বোত্তম ব্যবহার নিশ্চিত করার সুপারিশ করেছিল।

এর আগে গত ১৯ অক্টোবর কমিটির বৈঠকে দেশের বিভিন্ন সেনানিবাস এলাকার জমির সঠিক ব্যবহার নিশ্চিত করতে ঊর্ধ্বমুখি ভবন নির্মাণের সুপারিশ করে কমিটি।

ওই বৈঠক শেষে কমিটির সদস্য ফারুক খান সাংবাদিকদের জানান, ‘আমরা কমিটির পক্ষ থেকে বলেছি, জমি অধিগ্রহণের সময় যেন চিন্তা-ভাবনা করে নেয়া হয়। বহুতল ভবন নির্মাণ করলে জমির ব্যবহার বাড়ানো যায়।’

কমিটির ১৪তম বৈঠকে জানানো হয়, বর্তমানে প্রতিরক্ষা বিভাগের অধীনে ৪৬ হাজার ৪১৪ একর জমি আছে। এর মধ্যে সেনাবাহিনীর কাছে আছে ৩৫ হাজার ৮৫৮ একর জমি।

ওই বৈঠকে কমিটি জমির সর্বাত্মক ব্যবহারের সুপারিশ করে। এবার নতুন ভবনের দাবি উঠলে কমিটি পুরোনো ভবনগুলোকে আরো বেশি করে ব্যবহার করার সুপারিশ করেছে।

কমিটির ১৪তম বৈঠকে জানানো হয়, নৌবাহিনীর অধীনে এক হাজার ৩৮০ একর এবং বিমানবাহিনীর অধীনে পাঁচ হাজার ৫১৯ একর জমি আছে। ডিওএইচএস এলাকায় বসবাসকারীদের জমি বা ফ্ল্যাট হস্তান্তরে দ্রুত প্রাতিষ্ঠানিক উদ্যোগ গ্রহণের সুপারিশ করা হয় বলেও জানিয়েছেন ফারুক খান।

বৈঠকে জানানো হয়, বরিশালে ১০ একর জমিতে নির্মিত সেনাপল্লীর ১২০টি প্লট সেনাবাহিনীর সৈনিকদের মধ্যে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। ৯ দশমিক ৬৮ একর জমিতে নির্মিত পটুয়াখালী সেনাপল্লীতে ১১৮টি প্লটের মধ্যে ৫০টি সৈনিকদের মধ্যে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

বাকিগুলো বরাদ্দ দেয়া প্রক্রিয়াধীন। কুমিল্লায় ৪৪ দশমিক ৪১ একর জমিতে নির্মিত সেনাপল্লীতে প্লট বরাদ্দের কাজ এখনো শুরু  হয়নি।

বৈঠকে আরো জানানো হয়, রাজবাড়ী জেলায় তিন হাজার ৫৩৪ একর এবং বরিশাল ও পটুয়াখালীর মাঝামাঝি পায়রা নদীসংলগ্ন স্থানে এক হাজার ৫৭৬ একর জমিতে সেনানিবাস নির্মাণের জন্য জমি অধিগ্রহণের কাজ প্রক্রিয়াধীন আছে। এ ছাড়া কিশোরগঞ্জের মিঠামইন ও কক্সবাজারের রামুতে সেনানিবাস স্থাপনের কাজ এগিয়ে চলছে।

এ ছাড়া আজকের বৈঠকে সশস্ত্র বাহিনীর মেডিকেল ও শিক্ষা কোরে চাকরিরত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের চাকরির বয়সসীমা বৃদ্ধি করার সুপারিশ করেছে সংসদীয় কমিটি।

সংসদ সচিবালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বৈঠকে ১৪তম বৈঠকে গৃহীত সিদ্ধান্ত সমূহের বাস্তবায়ন অগ্রগতি প্রতিবেদন সভায় উপস্থাপন এবং বিস্তারিত আলোচনা হয়।

এ ছাড়া সামরিক বাহিনীর মেডিকেল কোর এবং শিক্ষা কোরে নিয়োজিত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের চাকরির বয়সসীমা নিয়ে আলোচনা হয় এবং বাস্তবতার আলোকে তাদের বয়স বৃদ্ধির সুপারিশ করা হয়।

বৈঠকে মেডিকেল কলেজে আন্ডার গ্রাজুয়েট কোর্সে ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা বৃদ্ধি ও পোস্ট-গ্রাজুয়েট কোর্স চালুর পাশাপাশি ইন্টার্নশিপ চালু করার সুপারিশ করা হয়।

বৈঠকে আর্মড ফোর্সেস মেডিকেল কলেজের (এএফএমসি) আধুনিকায়নের লক্ষ্যে গৃহীত পদক্ষেপের ওপর বিস্তারিত তথ্যসংবলিত একটি মাল্টিমিডিয়া উপস্থাপন করা হয়। এতে কমিটি আর্মড ফোর্সেস মেডিকেল কলেজের বাজেট বরাদ্দ বৃদ্ধি, জনবল সংকট নিরসনে প্রয়োজনীয় জনবল নিয়োগ প্রদান, রোগীদের রেকর্ড সংরক্ষণ এবং মেডিকেলে মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করতে অন্যান্য বেসরকারি মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের সঙ্গে মেডিকেল শিক্ষা বিনিময় করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করে।

কমিটির সদস্য মুহাম্মদ ফারুক খান, ডা. দীপু মনি, মো. ইলিয়াস উদ্দিন মোল্লাহ ও হোসনে আরা বেগম বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন।

এ ছাড়া প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব কাজী হাবিবুল আউয়াল, বিমানবাহিনীর প্রধান এয়ার মার্শাল আবু এসরার, লেফটেন্যান্ট জেনারেল মো. মইনুল ইসলাম, রিয়ার অ্যাডমিরাল আওরঙ্গজেব, তিন বাহিনী ও প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

জয় পরাজয় আরো খবর

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ
December 2015
M T W T F S S
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031  


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া