adv
২২শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশ

TESTস্পোর্টস ডেস্ক : ২০০০ সালে টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়ার পর এ পর্যন্ত ৯১টি টেস্ট খেলেছে বাংলাদেশ। সবচেয়ে বেশি টেস্ট খেলেছে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। ২০০১ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত লঙ্কানদের বিপক্ষে ১৬টি টেস্ট খেলেছে টাইগাররা। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৪টি জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে, ১২টি ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে, ১১টি নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে, ১০টি পাকিস্তানের বিপক্ষে। ৮টি করে টেস্ট খেলেছে ইংল্যান্ড ও ভারতের বিপক্ষে।
 
২০০২ সাল থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষেও বাংলাদেশ হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ের ভিত্তিতে ৪টি সিরিজে মোট ৮টি টেস্ট খেলেছে। তবে এই ৮টি টেস্টের একটিতেও জয় পায়নি লাল-সবুজের জার্সিধারীরা। ২০০২ থেকে ২০০৩ সাল পর্যন্ত হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ের ভিত্তিতে বাংলাদেশের বিপক্ষে ৪টি টেস্ট ম্যাচ খেলে প্রোটিয়ারা। এরপর ৫ বছর বাংলাদেশের বিপক্ষে আর কোনো টেস্ট ম্যাচ খেলেনি। ২০০৮ সালে আবার হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ের ভিত্তিতে আরো ৪টি টেস্ট ম্যাচ খেলে তারা। অধিকাংশ টেস্টেই বাংলাদেশ ফলোঅন করেছে। হেরেছে ইনিংস ব্যবধানে। এবার দেখে নেয়া যাক বাংলাদেশ ও দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যকার টেস্ট খতিয়ান।
২০০২ সাল : বাংলাদেশের দক্ষিণ আফ্রিকা সফর
প্রথম টেস্ট : ১৮-২২ অক্টোবর ২০০২ (চারদিনে শেষ)
দ.আফ্রিকা : 
প্রথম ইনিংস- ৫২৯/৪ ডিক্লে. (স্মিথ ২০০, গ্যারি ক্রিস্টেন ১৫০; তালহা জুবায়ের ২/১০৮)।

বাংলাদেশ : 
প্রথম ইনিংস- ১৭০/১০ (বাশার ৩৮ ও কাপালি ৩৫; এনটিনি ৫/১৯)।
দ্বিতীয় ইনিংস (ফলোঅন)- ২৫২/১০ (আল শাহরিয়ার ৭১ ও সানোয়ার ৪৯; টারব্রুগি ৫/৪৬)।
ফল : দ. আফ্রিকা ইনিংস ও ১০৭ রানে জয়ী।
ম্যাচসেরা : গ্রায়েম স্মিথ।

দ্বিতীয় টেস্ট : ২৫-২৯ অক্টোবর (তিনদিনে শেষ)
বাংলাদেশ :  প্রথম ইনিংস- ২১৫/১০ (হান্নান ৬৫ ও বাশার ৪০; ক্যালিস ২/২৬ ও শন পলক ২/৩৮)।
দ্বিতীয় ইনিংস- ১০৭/১০ (আল শাহরিয়ার ২৭ ও কাপালি ২৩; ক্যালিস ৫/২১ ও এনটিনি ৩/৩৭)।
দক্ষিণ আফ্রিকা :  প্রথম ইনিংস- ৪৮২/৫ ডিক্লে. (ক্রিস্টেন ১৬০, ক্যালিস ১৩৯* ও গিবস ১১৪; তালহা ২/১০৯)।
ফল : দ. আফ্রিকা ইনিংস ও ১৬০ রানে জয়ী।
ম্যাচ ও সিরিজ সেরা : জ্যাক ক্যালিস।

২০০৩ সাল : দক্ষিণ আফ্রিকার বাংলাদেশ সফর
প্রথম টেস্ট : ২৪-২৮ এপ্রিল ২০০৩ (চারদিনে শেষ)
বাংলাদেশ : প্রথম ইনিংস-১৭৩/১০ (বাশার ৬০ ও জাভেদ ওমর ২৮; পল অ্যাডামস ৫/৩৭)।
দ্বিতীয় ইনিংস- ২৩৭/১০ (বাশার ৭৫ ও ওমর ৭১; অ্যাডামস ৫/৬৯)।
দক্ষিণ আফ্রিকা: প্রথম ইনিংস- ৪৭০/২ ডিক্লে. (রুডলফ ২২২* ও ডিপেনার ১৭৭*; বৈষ্য ১/৭০)।
ফল : দ. আফ্রিকা ইনিংস ও ৬০ রানে জয়ী।
ম্যাচসেরা : রুডলফ।
দ্বিতীয় টেস্ট : ১-৫ মে ২০০৩ (চারদিনে শেষ)
দক্ষিণ আফ্রিকা : প্রথম ইনিংস- ৩৩০/১০ (রুডলফ ৭১ ও মার্ক বাউচার ৭১; রফিক ৬/৭৭ ও আশরাফুল ২/৪২)।
বাংলাদেশ : প্রথম ইনিংস- ১০২/১০ (খালেদ মাহমুদ ২০ ও আশরাফুল ১৫; এনটিনি ৩/৩২)।
দ্বিতীয় ইনিংস- ফলোঅন : ২১০/১০ (বাশার ৩৩ ও ওমর ২৭; পিটারসেন ৩/৪৬)।
ফল : দ. আফ্রিকা ইনিংস ও ১৮ রানে জয়ী
ম্যাচসেরা : মোহাম্মদ রফিক
সিরিজ সেরা : রুডলফ
২০০৮ : দক্ষিণ আফ্রিকার বাংলাদেশ সফর :
প্রথম টেস্ট : ২২-২৬ এপ্রিল ২০০৮ (চারদিনে শেষ)
বাংলাদেশ: প্রথম ইনিংস-১৯২/১০ (আফতাব ৪৪ ও আশরাফুল ৩৪; মর্নে মরকেল ৫/৫০, স্টেইন ৩/২৭)।
দ্বিতীয় ইনিংস- ১৮২/১০ (জুনায়েদ সিদ্দিকী ৭৪ ও আশরাফুল ২৪; ক্যালিস ৫/৩০ ও স্টেইন ৪/৪৮)।
দক্ষিণ আফ্রিকা: প্রথম ইনিংস-১৭০/১০ (ভিলিয়ার্স ৪৬ ও আমলা ২৫; শাহাদাত ৬/২৭ ও রফিক ২/৫৫)।
দ্বিতীয় ইনিংস : ২০৫/৫ (স্মিথ ৬২ ও আমলা ৪৬; শাহাদাত ৩/৭০ ও রফিক ২/৫৪)।
ফল : দ. আফ্রিকা ৫ উইকেটে জয়ী।
ম্যাচসেরা : জ্যাক ক্যালিস।

দ্বিতীয় টেস্ট : ২৯ ফেব্রুয়ারি থেকে ৪ মার্চ (চারদিনে শেষ)
দক্ষিণ আফ্রিকা: প্রথম ইনিংস- ৫৮৩/৭ ডিক্লে. (স্মিথ ২৩২ ও ম্যাকেঞ্জি ২২৬; শাহাদাত ৩/১০৭ ও রফিক ২/১৩২)।
বাংলাদেশ: প্রথম ইনিংস- ২৫৯/১০ (নাফীম ৬৯ ও সাকিব ৪০; এনটিনি ৪/৩৫ ও স্টেইন ৪/৬৬)।
দ্বিতীয় ইনিংস (ফলোঅন)- ১১৯/১০ (নাফীস ৩১ ও রাজ্জাক ৩২; পিটারসেন ৫/৩৩ ও স্টেইন ৩/৩৫)।
ফল : দ. আফ্রিকা ইনিংস ও ২০৫ রানে জয়ী।
ম্যাচ সেরা : গ্রায়েম স্মিথ
সিরিজ সেরা : ডেল স্টেইন

২০০৮ সাল : বাংলাদেশের দক্ষিণ আফ্রিকা সফর
প্রথম টেস্ট : ১৯ থেকে ২৩ নভেম্বর (চারদিনে শেষ)
দক্ষিণ আফ্রিকা : প্রথম ইনিংস- ৪৪১/১০ (স্মিথ ১৫৭ ও আমলা ১১২; সাকিব ৫/১৩০ ও মাহবুবুল ২/৬২)।

বাংলাদেশ : প্রথম ইনিংস- ১৫৩/১০ (মুশফিক ৪৮ ও শাহাদাত ২৩; এনটিনি ৩/২০ ও ক্যালিস ২/১০)।
দ্বিতীয় ইনিংস (ফলোঅন)- ১৫৯/১০ মেহরাব জুনিয়র ৪৩ ও জুনায়েদ ২৭; স্টেইন ৫/৬৩ ও ক্যালিস ২/১৭)।
ফল : দ. আফ্রিকা ইনিংস ও ১২৯ রানে জয়ী।
ম্যাচসেরা : গ্রায়েম স্মিথ

দ্বিতীয় টেস্ট : ২৬-৩০ নভেম্বর (তিনদিনে শেষ)-
বাংলাদেশ : প্রথম ইনিংস-২৫০/১০ (জুনায়েদ ৬৭ ও মুশফিক ৬৫; এনটিনি ৪/৩২ ও মর্নে মরকেল ৪/৭৩)।
দ্বিতীয় ইনিংস- ১৩১/১০ (রকিবুল ২৮ ও মাশরাফি ২৩; জনডেকি ২/১০ ও মরকেল ২/২১)।
দক্ষিণ আফ্রিকা: প্রথম ইনিংস- ৪২৯/১০ (প্রিন্স ১৬২ ও বাউচার ১১৭; সাকিব ৬/৯৯ ও শাহাদাত ২/৮৯)।
ফল : দ. আফ্রিকা ইনিংস ও ৪৮ রানে জয়ী।
ম্যাচসেরা : প্রিন্স (দ. আফ্রিকা)।
সিরিজ সেরা : প্রিন্স (দ. আফ্রিকা)।

জয় পরাজয় আরো খবর

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া