adv
১০ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৬শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

রাজধানীতে ডিম দিয়ে জুয়া খেলা

EGGডেস্ক রিপোর্ট : শিরোনাম পড়েই অবাক হয়ে যাচ্ছেন। ডিম জুয়া, এটা আবার কি জিনিস। কিন্তু প্রতিবেদন সংগ্রহ করতে যেয়ে রাজধানীর কলাবাগানের বশির উদ্দিন সড়কে অবস্থিত লাল ফকিরের মাজার সংলগ্ন মোড়ে এমন চিত্রেরই সম্মুখীন হতে হয়। 
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় ২ জন লোক ৩ কেইস ডিম একটি টুলের উপর নিয়ে বসে আছে আর তাদের সহকর্মীরা মানুষ জড়ো করার চেষ্টা করছে সেখানে। ঘটনা কি দেখার জন্য একটু এগোতেই দেখা গেল একজনের হাতে ২০টি ভিজিটিং কার্ড। প্রতিটি কার্ডের উল্টো দিকের সাদা অংশে নাম্বার দেয়া আছে। ওই লোকের হাতে ১ থেকে ২০ পর্যন্ত লেখা এমন ২০টি কার্ড আছে। তারা আশেপাশের লোকজনকে ওই কার্ড কেনার জন্য প্ররোচিত করছে।
কার্ডের মুল্য তেমন বেশী নয়, প্রতিটির মুল্য ২.৫০ পয়সা। আর কার্ড কিনতে হবে সর্বনিম্ন ২টি। এভাবে ২০টি কার্ড উপস্থিত জনতার কাছে বিক্রি করা হয়। যার মুল্য দাড়ায় ৫০ টাকা। আর ওই কার্ডের নাম্বারের সমপরিমান নাম্বার ছোট ছোট কাগজে লিখে একটি বয়ামের মধ্যে রাখা হয়। এরপর সবগুলো কার্ড বিক্রি হয়ে গেলে কেউ একজন বয়াম থেকে একটি কাগজ তুলে নেয়। তারপর সেই কাগজের নাম্বারের সাথে যার কার্ডের নাম্বার মিলে সে পায় ৪টি ডিম। এভাবেই চলতে থাকে একের পর এক যতক্ষন না ওই ৩ বা ৪ কেইস ডিম শেষ হয়। ওখানেই কথা হয় মাত্র ১২ বছর বয়সী একলাসের সাথে। সে ১০০ টাকার কার্ড কিনে মাত্র একবার জিতেছে। ১০০ টাকা খরচ করে ৩০ টাকা সমমুল্যের ৪টি ডিম পেয়েছে। কেন সে ওই খেলা খেলে জানতে চাইলে সে  বলে, ‘এইডা খেলতে খুব ভালা লাগে, আর টেহা ও তো বেশী লাগে না।’ তাই সে রোজই এই খেলা খেলে। প্রতিদিন মানুষের বাড়ির বাজার করে, ফুট ফরমায়েশ খেটে যে টাকা উপার্জন করে তার বেশীর ভাগ টাকাই দিন শেষে খরচ হয় এই খেলায়।
যারা এই খেলাটিতে অংশ নিচ্ছেন তারা বেশীর ভাগই নিম্ন আয়ের মানুষ। দিন শেষে বাড়তি বিনোদনের জন্য মুলত তারা এমন জুয়া খেলায় আসক্ত হচ্ছেন। আর এই সুযোগে স্বল্প আয়ের মানুষের ঘাম ঝরানো টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে কিছু অসত মানুষ।

 

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া