adv
২৯শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বড় দায়িত্ব পাচ্ছেন সৈয়দ আশরাফ

ASHRAFডেস্ক রিপোর্ট : স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় থেকে অব্যাহতি দেওয়ার পর সপ্তাহ না ঘুরতেই আবারও সকারের গুরুত্বপূর্ণ দপ্তরের দায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও দপ্তরবিহীন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলামকে। মঙ্গলবার রাতে গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৈয়দ আশরাফ দীর্ঘ সময় একান্ত বৈঠক করেছেন। সেখানে এমনটাই আলোচনা হয়েছে বলে একাধিক সূত্র দাবি করেছে।
মঙ্গলবারের বৈঠকের পরিপ্রেক্ষিতেই আজ বুধবার সৈয়দ আশরাফ তাঁর পূর্বনির্ধারিত লন্ডনযাত্রা বাতিল করেছেন। ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ ও গণভবন সূত্র এসব তথ্য জানিয়েছে।
তবে সৈয়দ আশরাফকে ঠিক কী দায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে সে বিষয়ে সূত্রগুলো দুই রকম তথ্য দিয়েছে। একাধিক সূত্র বলছে, সৈয়দ আশরাফকে ফের একটি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে। আরেকটি সূত্র বলছে, তাকে জাতীয় সংসদে সরকারি দলের গুরুত্বপূর্ণ কোনো দায়িত্ব দেওয়া হতে পারে।
গত বৃহস্পতিবার সৈয়দ আশরাফকে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিয়ে দপ্তরবিহীন মন্ত্রী করা হয়। এরপর আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা ও দলের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফের মধ্যে দূরত্ব তৈরি হয়েছে কি না, তা নিয়ে বিভিন্ন মহলে আলোচনা শুরু হয়। সৈয়দ আশরাফ রাজনীতিতে নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়তে পারেন বলেও দলের মধ্যে গুঞ্জন শুরু হয়।
মঙ্গলবার রাজধানীর অফিসার্স ক্লাবে আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির কো-চেয়ারম্যান এবং প্রচার উপকমিটির চেয়ারম্যান এইচ টি ইমাম আয়োজিত ইফতার মাহফিলে যোগ দেন সৈয়দ আশরাফ। সেখান থেকে বের হয়ে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে সরাসরি প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে যান তিনি। রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত সেখানেই ছিলেন। এর মধ্যে দেড় ঘণ্টার মতো তিনি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেন।
গণভবন থেকে বের হওয়ার পথে তার কর্মকর্তাদের সৈয়দ আশরাফ জানান, তিনি বুধবার (আজ) বিদেশে যাবেন না। মন্ত্রীর ব্যক্তিগত কর্মকর্তা সৈয়দ তোফাজ্জল ইসলাম জানান, স্যার বলেছেন, 'প্রটোকলকে জানিয়ে দেন, আমি কালকে যাচ্ছি না।' ছোট ভাইয়ের বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে এবং পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে ঈদ করতে সৈয়দ আশরাফের লন্ডন যাওয়ার কথা ছিল।
গতকালের বৈঠকের বিষয়ে সৈয়দ আশরাফের ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় এক নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে রাতে বলেন, 'গত এক সপ্তাহে দলের মধ্যে যে গুমট পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সৈয়দ আশরাফের বৈঠকের পর তা দূর হলো। সৈয়দ আশরাফকে ঘিরে গত কয়েক দিনের ঘটনা শেষ পর্যন্ত একটি ইতিবাচক পরিণতির দিতে মোড় নিয়েছে। তবে ঠিক কোন পয়েন্টে দুজন (প্রধানমন্ত্রী ও সৈয়দ আশরাফ) একমত হয়েছেন সে বিষয়টি আমি বলতে পারব না।'
আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির আরেক নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, 'আশরাফ ভাইকে সম্ভবত একটি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে। যত দূর শুনেছি তাঁকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেওয়া হতে পারে।'
দলীয় একাধিক সূত্র মতে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৈয়দ আশরাফের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক যে অটুট রয়েছে গতকালের বৈঠকের পর সে বিষয়ে আর কোনো সন্দেহের অবকাশ রইল না। রবিবার রাতেও সৈয়দ আশরাফ গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ কথা বলেছেন। সেখানে সৈয়দ আশরাফের কাছে প্রধানমন্ত্রী জানতে চান তিনি কোন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব নিতে চান। তবে সেদিন সৈয়দ আশরাফ এ বিষয়ে স্পষ্ট করে কিছু জানাননি। -কালেরকণ্ঠ

 

 

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া