adv
২৫শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সৌদি আরবে খালেদা-তারেকের সাক্ষাত হচ্ছে

TARAKডেস্ক রিপোর্ট : প্রতি বছরের মতো এবারও পবিত্র ওমরাহ পালনে সৌদি আরব যাচ্ছেন বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া। আগামী ৮ জুলাই ২০ রমজান সৌদির উদ্দেশে তার ঢাকা ছাড়ার কথা রয়েছে। একই দিনে লন্ডন থেকে খালেদা জিয়ার বড় ছেলে তারেক রহমানেরও সপরিবারে সৌদি আসার কথা রয়েছে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে সৌদি আরবে আড়াই বছর পর মা-ছেলের দেখা-সাক্ষাত হচ্ছে।

সৌদি বাদশার রাজকীয় অতিথি হিসেবে সেখানে অবস্থান করবেন জিয়া পরিবারের সদস্যরা। ২৭ রমজান বেগম জিয়া ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেবেন। সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইং কর্মকর্তা শামসুদ্দিন দিদার জানান, ২০ রমজানের মধ্যেই বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া পবিত্র ওমরা পালনের জন্য ঢাকা ছাড়বেন। তারিখ চূড়ান্ত না হলেও ৮ জুলাই সেখানে পৌঁছানোর সম্ভাবনা বেশি। সৌদি আরবে অবস্থানকালে তিনি ওমরাহ পালন এবং মদিনায় মহানবী (সা.) রওজা মোবারক জিয়ারত করবেন। ২৮ রমজান পর্যন্ত তার সেখানে অবস্থান করার কথা রয়েছে।

গুলশান কার্যালয় সূত্র জানায়, ঢাকা থেকে ৮ জুলাই খালেদা জিয়া সৌদি আরবের উদ্দেশে রওনা দেবেন। তার আটজন সঙ্গীর মধ্যে ছোট ভাই শামীম এস্কান্দার ও তার স্ত্রীসহ পরিবারের সদস্যরা রয়েছেন। এবার দলীয় কোনো নেতা থাকছেন না। তবে আরও তিনজনের জন্য ভিসা চাওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

এদিকে ৭ জুলাই লন্ডন থেকে সৌদির উদ্দেশে রওনা দেবেন তারেক রহমান। তার সঙ্গে থাকবেন স্ত্রী ডা. জোবায়দা রহমান ও একমাত্র কন্যা জাইমা রহমান। সৌদিতে খালেদা জিয়ার সঙ্গে একই প্যালেসে উঠবেন তারা। এর আগে দুই দফা লন্ডনে তারেক রহমানের সঙ্গে দেখা করেন খালেদা জিয়া।
সর্বশেষ দেখা হয় ২০১৪ সালের মার্চের মাঝামাঝিতে। জানা যায়, সৌদি আরবে ইবাদত বন্দেগির মাধ্যমে খালেদা জিয়া রমজানের দিনগুলো কাটাবেন। পবিত্র কাবা শরিফে ওমরা করার পাশাপাশি ইতেকাফ করবেন খালেদা জিয়া। এ ছাড়া পবিত্র মদিনায় মহানবী (সা.)-এর মাজার জিয়ারত করবেন। সৌদিতে অবস্থানকালে দেশটির সরকারের ঊধর্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে বেগম জিয়ার একাধিক বৈঠক হতে পারে বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া