adv
২৪শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বিএনপিকে রাজনীতির মূলধারায় নিয়ে আসার তাগিদ জাতিসংঘের

robertডেস্ক রিপোর্ট : বর্তমান শান্ত রাজনৈতিক পরিবেশের সুযোগ ব্যবহার করে দীর্ঘমেয়াদে সুস্থ রাজনীতি নিশ্চিত করতে সরকারের উচিত মূলধারার বাইরে থাকা বিএনপিকে সুযোগ করে দেয়া।
বাংলাদেশে জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচির (ইউএনডিপি) আবাসিক প্রতিনিধি রবার্ট ডি ওয়াটকিনস চ্যানেল আইয়ের সাথে বিশেষ এক সাক্ষাৎকারে সরকারকে এ আহ্বান জানিয়েছেন। তা না হলে আবারো রাজনীতিতে সংঘাত-সংঘর্ষ ফিরে আসতে পারে বলে তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন।
২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত ১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে-পরে টানা সংঘর্ষের রাজনীতির শিকার হয়েছে সাধারণ মানুষ। আগুন, পেট্রোল বোমায় সম্পদ ও জীবনহানি এতোটাই গ্রাস করেছিলো জনজীবন, অর্থনীতি অচল হওয়ার শঙ্কাও তৈরি হয় সে সময়।
যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্যসহ পাশ্চাত্যের দেশগুলোসহ জাতিসংঘের মহাসচিব বান কি মুনও সব দলের অংশগ্রহণে গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের মাধ্যমে সমস্যার রাজনৈতিক সমাধানের অনুরোধ জানিয়েছিলেন। জাতিসংঘের মহাসচিব বিশেষ দূতও পাঠিয়েছিলেন সমাধানের আশায়। শেষ পর্যন্ত নির্বাচন হয়েছে, বড় দল বিএনপি ছাড়াই।
৫ জানুয়ারির বিতর্কিত নির্বাচনের বর্ষপূর্তি উপলক্ষে এ বছরের জানুয়ারিতে শুরু হওয়া ৩ মাসের অবরোধ-হরতালে আগুন, পেট্রোল বোমায় ব্যাপক জীবন ও সম্পদহানি ঘটে। জনজীবন ও অর্থনীতি স্থবির হয়ে পড়ে।
এর মধ্যে ঢাকা ও চট্টগ্রামের ২৮ এপ্রিল ৩ সিটির নির্বাচন রাজনীতিতে কিছুটা সুবাতাস নিয়ে এসেছে ঠিকই। তবে একটা চাপা উদ্বেগ রয়েই গেছে। এ পরিস্থিতি থেকে উত্তরনের জন্যই বিএনপিকে রাজনীতির মূল ধারায় নিয়ে আসার তাগিদ দিয়েছে জাতিসংঘ।
জাতিসংঘ মনে করেন, রাজনীতিতে বিএনপির ভূমিকা রাখার সুযোগ বাংলাদেশের গণতন্ত্রকে শক্তিশালীই করবে।
তবে জাতিসংঘ যাই বলুক, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ সরকারের সিনিয়র মন্ত্রীরা বরাবরই বলে আসছেন, বর্তমান সংসদের মেয়াদ শেষ হবার আগে সংসদ নির্বাচনের কোনো সুযোগ নেই। বর্তমান সংবিধান অনুযায়ী ২০১৯ সালের ২৫ মাস আগে সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে হবে।

 

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া