adv
৯ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মমতাকে সরাসরি হত্যার হুমকি ফেসবুকে

1431982796আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ফেসবুকে 'সনাতনী পেজ সমগ্র' খুলে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে প্রাকাশ্যে খুনের হুমকি দিল হিন্দুত্ববাদীরা! ফেসবুক পেজে পরিচয় দিতে লেখা হয়েছে, 'আমি ক্ষত্রিয় নই, আমি বৈশ্য নই, আমি শূদ্র নই, আমি দলিত নই, আমি হরিজন নই, আমি সনাতন ধর্মালম্বী, সনাতনী বিশ্বাসী একজন হিন্দু।'

তা এই 'সনাতনে বিশ্বাসী হিন্দুরা' শুধু খুনের হুমকি নয়, এদের পোস্টকে Like করে কয়েক জন আবার ধর্ষণের ইচ্ছাও প্রকাশ করে। 'মমতা ব্যানার্জির বৈষম্যের চিত্র' তুলে ধরতে পেজের টাইমলাইনে একটি পোস্টও করা হয়েছে। সেখানে লেখা: 'মুসলিমদের ইমাম ভাতা দেয়া/ হিন্দু পুরোহিতদের দেয়া হয়নি/ মসজিদে মাইক দেয়া/ কোনো মন্দির সংস্কার করা হয়নি/ মুসলিম ছাত্রছাত্রীদের বিশেষ বৃত্তি দেয়া/ হিন্দু ছাত্রছাত্রীদের দেয়া হয়নি/ এই 'মমতাজ বেগম'কে শুধু 'তালাক' না তাকে 'হত্যা করে' হিন্দু সমাজকে 'বাঁচানো' উচিত। সেখানে সোনি শর্মা নামে একজন আবার মন্তব্য করছেন, 'হত্যা করতে হবে না, ২০১৬ তে আমরা সবাই এক হয়ে যদি বেগমকে তালাক দিই, তা হলে ও এমনিই টেনশনে মারা যাবে।' জয় সেন পালিত নামে আর একজেনর আক্ষেপ, মুখ্যমন্ত্রীকে খুন করতে আর দেরি কেন! তাঁকে সমর্থন করে খুনের পক্ষে সায় দিয়েছে পলাশ ব্যপারী। মিল্টন রায় নামে একজন লিখছেন, 'মমতা এখন বসে বসে আংগুল চুসো। আরে শালি'। সনাতনীদের এই পোস্টে অশ্রাব্য ভাষায় সম্বোধন করা হয়েছে মুখ্যমন্ত্রীকে। মিল্টন রায় নামে জনৈক একজন তো আবার মুখ্যমন্ত্রীকে ধর্ষণের ইচ্ছাও প্রকাশ করেছেন। ধর্ষণের আগে কি করবেন, অশ্লীল ছবি-সহ সে ব্যাখ্যাও দিয়েছেন। আচার্য সুভাষ বলে একজন তো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আবার 'হিন্দুদের খুনি' বলে উল্লেখ করে, তাঁকে মুসলিম আখ্যা দেন। দেশ-বিদেশের বহু হিন্দুত্ববাদী সংগঠন এই পেজটি আবার লাইক করেছে।

এই তথাকথিত 'হিন্দুত্ববাদী'রা কতটা 'সাহসী' তা বোঝা যায়, তাদের পেজে চোখ বোলালেই। সেখানে অ্যাডমিনের নাম-ঠিকানা নেই!

সূত্র : এই সময়

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া