adv
২৪শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশকে কিছুই জানায়নি ভারত – সীমান্তচুক্তির সংশোধনী আসছে

ShimantoChukti1430569385ডেস্ক রিপোর্ট : বাংলাদেশ-ভারত ঐতিহাসিক সীমান্তচুক্তি নবায়ন করতে আগামী সপ্তাহে পার্লামেন্টে একটি সংবিধান সংশোধনী বিল উপস্থাপন করতে যাচ্ছে ভারত। কিন্তু ঢাকাকে এ ব্যাপারে এখন পর্যন্ত কোনো কিছু জানায়নি ভারত। বিলটি নিয়ে ভারতের অবস্থানের বিষয়ে আনুষ্ঠানিক কোনো তথ্যও ঢাকার কাছে নেই বলে ভারতের সংবাদমাধ্যম দ্য হিন্দুকে জানিয়েছেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম। দ্য হিন্দু শনিবার এক প্রতিবেদনে এ কথা জানিয়েছে।
 
আসামের বিরোধিতার কারণে ওই রাজ্যকে বাদ দিয়ে সীমান্ত বিল পাস করতে চায় কেন্দ্রের ক্ষমতাসীন বিজেপি। সংসদে বিলটি পাস হলেও এটি আইনের পরিণত করতে দেশটির সংবিধান সংশোধন করতে হবে। এ জন্য দুই-তৃতীয়াংশ ভোট লাগবে।
 
দেশটির আগের সরকারের আমলে এ বিলটিতে পশ্চিমবঙ্গের মমতা বন্দোপ্যাধ্যায়ের রাজ্য সরকার বিরোধিতা করলেও এবার সমর্থন জানানোর ঘোষণা দিয়েছে। কিন্তু বিগত কংগ্রেস সরকার বিলটি পাসে উঠে পড়ে লাগলেও এখন তারা এ নিয়ে বিরোধিতা করছে। তাদের দাবি, আসামকে বাদ দিয়ে সীমান্ত চুক্তি করলে এ নিয়ে জটিলতা বরং কমবে না আরো বাড়বে। তবে পার্লামেন্টে ক্ষমতাসীন বিজেপির একক সংখ্যাগরিষ্ঠ থাকায় বিলটি পাসে কোনো সমস্যা হবে না।
 
এমতাবস্থায় ঢাকা এখনও বিলটি নিয়ে ‘অন্ধকারে’ রয়েছে। ঢাকার কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বিলটিতে আসামকে বাদ দিয়ে যে সংশোধনী আনা হয়েছে সে ব্যাপারে ভারত আমাদেরকে কিছু জানায়নি। ভারতের কেউ এ ব্যাপারে কোনো যোগাযোগও করেনি। যদিও মন্ত্রিপরিষদ বিলটি সংশোধনের অনুমোদন দেওয়ার পর ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রী সুষমা স্বরাজ জানিয়েছিলেন, তারা বিষয়টি বাংলাদেশকে স্পষ্ট করেছেন।
 
কিন্তু দ্য হিন্দুকে শাহরিয়ার আলম জানান, আমরা এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানি না। আমরা এটা সমন্ধে জানার পরই বিশ্লেষণ করে মতামত দেব।
 
এ চুক্তির অন্যতম আলোচক বাংলাদেশের প্রাক্তন হাইকমিশনার তারিক করিম জানান, আসামকে বাদ দিয়ে চুক্তি করলে এ নিয়ে আরো জটিলতা বাড়বে। তিনি বলেন, ‘চুক্তিতে সামগ্রিক বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এখন এখান থেকে কোনো অংশ বাদ দিলে তা জটিলতা সৃষ্টি করবে।’
 
নতুন এ চুক্তি অনুযায়ী মেঘালয়, ত্রিপুরা ও পশ্চিমবঙ্গে পরিত্যক্ত ও ছিটমহলের ১৯৯৯ একর জমি বাংলাদেশের কাছে হস্তান্তর করা হবে। তবে আসামের প্রায় ২৬৮ একর জমি এর অন্তর্ভূক্ত করা হবে না।
এর আগে ভারতের একজন জ্যোষ্ঠ মন্ত্রী জানিয়েছিলেন, সংশোধনী সীমান্তচুক্তি বিলটি পাসের ব্যাপারে তিনি বেশ আশাবাদী। বাংলাদেশও এটি মেনে নেবে। আর বিলটি পাস করার পরই বাংলাদেশ সফরে যাবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

 

জয় পরাজয় আরো খবর

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া