adv
১৭ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

হিলারি আসলেন কিনলেন কিন্তু চিনলো না কেউই!

news_img (1)আন্তর্জাতিক ডেস্ক : এ এক অবাক করা বিষয়। হিলারি রডহ্যাম ক্লিনটন, যিনি সাবেক ফাস্টলেডি, সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী আর ভাবী প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী। তিনি এতটাই প্রভাবশালী, এতটাই জনপ্রিয় যে, পুরো বিশ্বের সচেতন মানুষ মাত্রই চেনেন তাকে। 

কিন্তু তাকে চিনতে পারেন নি যুক্তরাষ্ট্রের এক রেস্তরাঁর কেউই। সম্প্রতি তিনি আইওয়া রাজ্যে যাওয়ার সময় একটি রেস্তরাঁয় দুপুরের খাবার খেতে ঢুঁ মারেন। কিন্তু ‘দ্য চিপোটলে’ নামের ওই সাধারণ রেস্তরাঁর কেউই তাকে চিনতে পারেননি! 

পরবর্তীতে নিউ ইয়র্ক টাইমসের একজন প্রতিবেদক রেস্তরাঁ কর্তৃপক্ষের কাছে এ বিষয়টি সম্পর্কে জানতে চান। প্রশ্ন শুনে হতভম্ব হয়ে পড়েন রেস্তরাঁর ম্যানেজার। সঙ্গে সঙ্গে তাদের মধ্যে এক রকম আহাজারি শুরু হয়ে যায়। যদি সত্যি হিলারি গিয়ে থাকেন তাদের রেস্তরাঁয় তাহলে তাকে প্রাণভরে আপ্যায়ন করতেন তারা। শুরু হয়ে যায় সিসিটিভির ফুটেজ যাচাই। দেখা যায়, আসলেই হিলারি গিয়েছিলেন তাদের রেস্তরাঁয় খাবার কিনতে। তবে তার বেশভুষা তেমন আহামরি ছিল না। রেস্তরাঁর মালিক তাকে সাধারণ একজন ক্রেতা মনে করেছিলেন। 

হিলারি ২০১৬ সালে অনুষ্ঠেয় প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেট দলের মনোনয়নপ্রার্থী। নিজের প্রথম নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করতে আইওয়া অঙ্গরাজ্যকেই বেছে নিয়েছেন তিনি। সেখানে যাওয়ার পথেই ওহিও’র একটি রেস্তরাঁয় দুপুরের খাবার কেনার জন্য থামে তার দলবল। এ সময় স্বয়ং হিলারিই নিজের খাবার কিনেছিলেন ওই ছোট্ট রেস্তরাঁ থেকে। এ খবর দিয়েছে নিউ ইয়র্ক টাইমস। খাবার কেনার সময় হিলারির চোখে গাঢ় রোদচশমা ছিল। হয়তো সে কারণেই বোঝা যায়নি তার উপস্থিতি। এ সময় তার পাশেই ছিলেন তার এক ঘনিষ্ঠ সহযোগী। বাইরে ছিলেন সিক্রেট সার্ভিসের এজেন্টরা। 

দ্য চিপোটলে রেস্তরাঁর ম্যানেজার চার্লস রাইটের সঙ্গে যখন সাংবাদিক যোগাযোগ করেন, তখন তিনি বলেছিলেন, এ রেস্তরাঁয় হিলারি আসার খবর অবশ্যই গুজব! তবে সাংবাদিকদের তার সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ দেখতে বারণ করেন নি তিনি। সেটি যাচাই করে দেখা যায় উজ্জ্বল গোলাপি রঙের পোশাকের হিলারিকে। রাইট বলেন, তার চোখে গাঢ় কালো রোদচশমা ছিল। তাই তাকে কেবলই একজন সাধারণ নারীর মতো লাগছিল। রেস্টুরেন্টে তখন অনেক খদ্দের খাবার খাচ্ছিলেন তাদের কয়েকজন জানালেন, ওই সময় হিলারি ক্লিনটন খাবার নেয়ার সময় এক ব্যক্তি ছবি তুলছিলেন। তবে এমনকি খদ্দেররাও কেউই বুঝতে পারেন নি, কেন ওই ব্যক্তি ছবি তুলছিল! ২৯ বছর বয়সী চার্লস রাইট একজন রিপাবলিকান সমর্থক। তিনি বলেন, হিলারিকে সমর্থন দেয়ার কথা তিনি ভাবছেন না। কিন্তু এতো কাছ থেকে তার সঙ্গে কথা বলার সুযোগ হারিয়ে ফেলাটা বেশ কষ্টদায়ক। এর আগে রবিবার হিলারি ক্লিনটন জানিয়েছিলেন, তার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রচারণা হবে সমপূর্ণই প্রতিদিনকার আমেরিকানদের নিয়ে। প্রচারণা শুরুর আগেই কথা ও কাজের প্রতিফলন ঘটালেন তিনি।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া