adv
২৫শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

‘পরিবেশ না পেলে নির্বাচন থেকে সরে আসতে পারে বিএনপি’

emajuddin_ahmed_59717_0নিজস্ব প্রতিবেদক : বিএনপিপন্থি পেশাজীবী সংগঠন শত নাগরিক কমিটির আহবায়ক ও ঢাবির সাবেক ভিসি অধ্যাপক এমাজউদ্দীন আহমদ বলেছেন, ঢাকা ও চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনে আসন্ন নির্বাচনে সুষ্ঠু পরিবেশ তৈরি হলেই নির্বাচনে অংশ নেবে বিএনপি। তবে সিটি নির্বাচনের ব্যাপারে বিএনপির মনোভাব ইতিবাচক।

আজ রাত সাড়ে নয়টার দিকে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে বৈঠক শেষে বের হওয়ার সময় অপেক্ষামান সাংবাদিকদের তিনি বলেন, নির্বাচনের ব্যাপারে বিএনপি চেয়ারপারসনের মনোভাব এখনো ইতিবাচক।তারা নির্বাচনে অংশ নিতে চায়। তবে তার আগে নির্বাচনে সুষ্ঠু পরিবেশ তৈরি করতে হবে সরকারকে। আর যদি সরকার নির্বাচনে সুষ্ঠু পরিবেশ তৈরি করতে ব্যর্থ হয় তাহলে নির্বাচনী ময়দান থেকে তারা সরে আসতে পারে।

এমাজউদ্দীন বলেন, গত বুধবার প্রধান নির্বাচন কমিশনারের (সিইসি) সাথে দেখা করে আমরা সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য লেভেল প্লেইং ফিল্ড তৈরিসহ বিভিন্ন বিষয়ে কথা বলেছি। বিএনপি চেয়ারপারসনের সাথে আজকে মূলত সে বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

তিনি বলেন, এখনও পর্যন্ত লেভেল প্লেইং ফিল্ড তৈরি হয়েছে বলে আমরা মনে করি না। আমরা আশা করি, সরকার ও ইসি লেভেল প্লেইং ফিল্ড তৈরি করবে। বিএনপিও সেই অপেক্ষায় আছে। খালেদা জিয়ার সাথে বৈঠকে বিএনপি নেতা সালাহ উদ্দিন আহমেদ নিখোঁজ হওয়া নিয়েও আলোচনা হয়েছে বলে জানান তিনি।

এমাজউদ্দীন বলেন, সালাহ উদ্দিনের নিখোঁজ নিয়ে আলোচনা হয়েছে। তার মতো ব্যক্তিকে খুঁজে না পাওয়া অমার্জনীয় ব্যর্থতা।
একই পদে বিএনপির একাধিক ব্যক্তির মনোনয়ন সংগ্রহ সম্পর্কে এক প্রশ্নের জবাবে খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, আমরা আশা করি, নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ ফিরে আসবে, বিএনপি অংশ নেবে। তখন প্রার্থী নিয়ে সমস্যা হবে না। বিএনপি বা ২০ দল যাকে সমর্থন দিবে সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে তার পক্ষে কাজ করবে। কারণ বিএনপি নির্বাচনমুখী দল।

সুষ্ঠ পরিবেশ তৈরি না হলে বিএনপি নির্বাচন থেকে সরে আসবে কিনা- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সুষ্ঠ পরিবেশ তৈরি না হলে, যদি হত্যা নির্যাতন হয় তাহলে নির্বাচনের অংশ নেয়ার প্রক্রিয়া শুরুর পরেও সিদ্ধান্ত নেয়া যাবে। তিন ঘণ্টাব্যাপী বৈঠক শেষে বিএনপিপন্থি পেশাজীবীরা রাত সাড়ে নয়টার দিকে বের হয়ে আসেন।
এর আগে আজ শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় প্রতিনিধি দলটি খালেদার কার্যালয়ে ঢোকেন এবং  বৈঠক শেষ হয় রাত সাড়ে নয় টার দিকে।আট সদস্যের এই প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সাবেক উপাচার্য এমাজউদ্দীন আহমদ।

প্রতিনিধি দলের অন্য সদস্যরা হলেন, সুপ্রীম কোর্ট বার এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি খন্দকার মাহবুব হোসেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ড. মাহবুব উল্লাহ, সিনিয়র সাংবাদিক মাহফুজ উল্লাহ, ঢাবির সাবেক প্রো-ভিসি আ ফ ম ইউসুফ হায়দার, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি একাংশের কবি আবদুল হাই শিকদার, ডক্টর এ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ড্যাব) সদস্য ডা. রফিকুল ইসলাম বাচ্চু, ব্যারিস্টার ফাহিমা নাসরীন।

জয় পরাজয় আরো খবর

Comments are closed.

adv
সর্বশেষ সংবাদ
সাক্ষাতকার
adv
সব জেলার খবর
মুক্তমত
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন দিন

adv

মিডিয়া